মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার ৮টি সাইট: অনলাইন ইনকাম

Last updated on November 16th, 2023 at 06:17 pm

যদি আপনার কাছে একটি স্মার্টফোন রয়েছে তাহলে ইন্টারনেটে থাকা নানান টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট গুলো ব্যবহার করে ভালো মানে ইনকাম করার সুযোগ ও সুবিধা পাবেন। আমি একথা এইজন্যেই বলছি কারণ এখনের সময়ে বিশ্বজুড়ে হাজার হাজার লোকেরা নানান মোবাইলে ইনকাম সাইট গুলো ব্যবহার করার মাধ্যমে ঘরে বসে অনলাইনে পার্ট-টাইম ইনকাম করার একটি দারুন ও লাভজনক উৎস তৈরি করতে সক্ষম হয়েছেন।

মোবাইলে ইনকাম সাইট
Best Websites To Earn Money Online From Smartphone.

এছাড়া, আমি আগেই আপনাদের ১৩+ অনলাইন পার্ট-টাইম জব গুলির বিষয়েও বলেছি যেগুলো করার মাধমেও অনলাইনে অতিরিক্ত ইনকামের সুযোগ পাবেন।

তবে আজকের আমাদের আর্টিকেলের মূল বিষয়টি হলো এমন কিছু সেরা সাইট গুলোর বিষয়ে আপনাদের জানানো যেগুলো মোবাইল দিয়ে ব্যবহার করা যাবে এবং যেগুলোর মাধ্যমে অনলাইনে পার্ট-টাইম ইনকামের সুযোগও থাকবে। তাহলে চলুন আর দেরি না করে মোবাইলে ইনকাম করার জন্য কি কি সেরা সাইট গুলো ব্যবহার করা যাবে, সেগুলির বিষয়ে জেনেনেই।

অবশই পড়ুন: লুডু গেম খেলে ইনকাম করার উপায় এবং অ্যাপস

টাকা আয়ের একটি অতিরিক্ত উৎস কেন প্রয়োজন?

আমরা বেশিরভাগ লোকেরাই একটি প্রাইভেট চাকরি করে থাকি এবং সীমিত আয়ের সাথে নিজের ঘর সংসার চালাতে হয়। এখন, যদি আপনার কাছে চাকরির বাইরেও আয়ের দ্বিতীয় একটি উৎস থেকে থাকে তাহলে সেই অতিরিক্ত আয়ের পরিমাণটি নিজের ভবিষ্যতের জন্য সেভ করতে পারবেন। চাইলে নিজের পছন্দের কোনো জিনিস কিনতে পারলেন বা কোনো শখ পূর্ণ করা যাবে।

এছাড়া মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করা অতিরিক্ত টাকা গুলো ব্যবহার করে ছুটির পরিকল্পনা করা, জিনিস কিনুন বা প্রিয়জনের জন্য উপহার ইত্যাদি কেনার মনো কাজ গুলিও করতে পারবেন। তাই, সোজা ভাবে বলতে গেলে, টাকা আয়ের একটি অতিরিক্ত উৎস অনেক বেশি প্রয়োজন যদি আপনি নিজের আর্থিক স্বাধীনতা অর্জনের বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন।

বর্তমান সময়ে অর্থ উপার্জনের একটি দ্বিতীয় উৎস থাকাটা অনেক জরুরি হয়ে পড়েছে। বেশিরভাগ লোকেরাই তাদের ফুল-টাইম চাকরির পাশাপাশি অনলাইন বা অফলাইন ব্যবসাতে পার্ট-টাইম হিসেবে অবশই যুক্ত থাকেন। আবার অনেকেই আছেন যাদের কাছে ব্যবসায় বিনিয়োগ করার মতো টাকা বা পুঁজি থাকেনা।

এক্ষেত্রে, টাকা ইনকাম করার এমন নানান অনলাইন উপায় গুলো অনেকেই ব্যবহার করছেন, যেগুলির দ্বারা কোনো ধরণের অর্থ বিনিয়োগ না করেই খুব বেশি না হলেও কিছুটা অতিরিক্ত ইনকাম করা যাবে। আর এমনই একটি ইনকামের উপায় হলো, মোবাইলে ইনকাম করার সাইট গুলো।

অনলাইন টাকা ইনকাম করার সেরা সাইট গুলো যদি সঠিক ভাবে ব্যবহার করা যায়, তাহলে অনলাইনে অতিরিক্ত ইনকামের সুযোগ অবশই থাকছে।

মোবাইল দিয়ে কিভাবে অনলাইনে আয় করবেন?

আমি ওপরে যা আগেই বললাম, পার্ট-টাইম হোক বা ফুল-টাইম টাকা ইনকামের ক্ষেত্রে ইন্টারনেট একটি অনেক লাভজনক ও দুর্দান্ত জায়গা। টাকা ইনকাম ছাড়াও বর্তমানে আমাদের জীবনে নানান সমস্যার সমাধান গুলিও এই ইন্টারনেটের মধ্যে রয়েছে। কোনো নতুন বিষয়ে জ্ঞান লাভ করা, একটি নতুন স্কিল শেখা, নিজেকে একটি নতুন বিষয়ে শিক্ষিত করুন, অনলাইনে পণ্য বিক্রি করা, পণ্যের মার্কেটিং করা, রিসার্চ করা ইত্যাদি নানান ধরণের কাজ গুলো ইন্টারনেটের মাধ্যমে করা হয়।

এখন যদি, মোবাইল দিয়ে অনলাইনে কিভাবে দ্রুত টাকা উপার্জন করবেন এটাই আপনার মূল উদ্দেশ্য হয়ে থাকে, তাহলে শুরুতে আপনাকে মোবাইল ইনকাম সাইট গুলো কিভাবে কাজ করে এই বিষয়ে বুঝতে হবে। মনে রাখবেন, ইন্টারনেটে এমন এমন সাইট গুলিও রয়েছে যেগুলোর থেকে অনলাইনে প্রতিদিন ১০০০ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করা যায়। তবে সেগুলোতে আপনি মোবাইল দিয়ে কাজ করলে চলবেনা।

যদি আপনার কাছে একটি ল্যাপটপ বা কম্পিউটার নেই এবং আপনি কেবল মাত্র নিজের মোবাইল দিয়ে কাজ করে অনলাইনে অর্থ উপার্জন করার কথা ভাবছেন, তাহলে অবশই আপনাকে অনলাইনে ইনকাম করার সেই সাইট গুলো ব্যবহার করতে হবে যেগুলোতে মোবাইল দিয়ে কাজ করা যাবে।

টাকা ইনকাম করার এই মোবাইল ওয়েবসাইট গুলোতে আপনারা ক্যাপচা সম্পূর্ণ করে, বন্ধুদের রেফার করে, ছোট ছোট টাস্ক গুলো সম্পূর্ণ করে, বিজ্ঞাপন দেখিয়ে ইত্যাদি নানান মাধ্যমে অনলাইন এক্সট্রা ইনকামের সুযোগ পেতে পারবেন।

রিলেটেড: স্পিন করে টাকা ইনকাম করার সেরা অ্যাপস

মোবাইলে ইনকাম করার সাইট গুলির তালিকা: সেরা ৮টি

মোবাইলে ইনকাম সাইট:ইনকামের সেরা উপায়:
১. MPLমোবাইলে গেম খেলে ইনকাম
২. YouTubeভিডিও বানিয়ে ইনকাম।
৩. Shutterstockঅনলাইন ছবি বিক্রি করে ইনকাম
৪. Swagbucks.comঅনলাইন পেইড সার্ভে করে টাকা আয়
৫. Meeshoপণ্য পুনঃবিক্রয়।
৬. ySenseরেফার করে, ক্যাপচা সম্পূর্ণ করা।
৭. Neobuxনানান পেইড অফার সম্পূর্ণ করে।
৮. Foap.comছবি এবং ভিডিও বিক্রি করে।

চলুন, নিচে প্রত্যেকটি সাইট এর বিষয়ে খানিকটা জেনেনেই।

১. MPL

MPL, বর্তমানের একটি অনেক জনপ্রিয় টাকা ইনকাম করার ওয়েবসাইট যেখানে মূলত গেম খেলে টাকা ইনকাম করার সুযোগ দেওয়া হয়। তাই, যদি আপনি নিজের স্মার্টফোনে একাধিক গেম গুলো খেলার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে চাইছেন, তাহলে এই MPL সাইটে গিয়ে দেখতে পারেন।

এই ওয়েবসাইট থেকে আপনারা তাদের Gamming app গুলো সম্পূর্ণ ফ্রীতে download করে নিতে পারবেন। এরপর মোবাইলে নানান গেম গুলো খেলার মাধ্যমে পুরস্কার জিতে নিতে পারবেন। মূলত নিজের নানান বন্ধুদের সাথে এবং র্যান্ডম অনলাইন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে গেম এবং টুর্নামেন্ট গুলো জেতার মাধ্যমে আপনি এখানে ইনকাম করতে পারবেন।

এছাড়া, অন্যান্য ইনকাম সাইট বা অ্যাপ গুলোর মতোই এখানেও একটি Refer & earn-এর অপসন আপনি পাবেন। এতে, অন্যান্য ব্যক্তিদের এই সাইটে রেফার করেও টাকা ইনকাম করা যাবে।

২. YouTube

YouTube-এর monetization option-টির বিষয়ে হয়তো আপনারা অবশই শুনেছেন। এর দ্বারা আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলে থাকা ভিডিও গুলিতে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে দারুণভাবে অনলাইনে রোজগার করতে পারবেন।

তবে, YouTube monetization-এর ক্ষেত্রে আপনার ইউটিউব চ্যানেলে কমপক্ষ্যেও ১০০০ subscribers এবং ৪০০০ ঘন্টার ওয়াচ আওয়ার্স থাকতে হবে। একটি উচ্চ চাহিদা থাকা বিষয় নিয়ে নিয়মিত ভিডিও আপলোড করলে ২-৩ মাসের মধ্যেই এই পরিমানের subscribers এবং watch time অর্জিত করা যাবে।

এছাড়া, ভিডিও তৈরি করা, ভিডিও আপলোড করা, এডিট করে সবটাই আপনারা নিজের মোবাইলের মাধ্যমেই করতে পারবেন। তাই, মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার সাইট গুলোর মধ্যে YouTube.com বর্তমানে সর্বাধিক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করার সঠিক নিয়ম গুলো অনুসরণ করে কাজ করতে পারলে এখানথেকে আনলিমিটেড ইনকাম সম্ভব।

৩. Shutterstock

Shutterstock হলো এমন একটি অনলাইন অর্থ উপার্জন করার সাইট যেটা মূলত photographers-দের ক্ষেত্রে অনেক কাজে আসবে। এই অনলাইন stock image এবং video ওয়েবসাইটে আপনি নিজের high-quality images, videos এবং illustrations গুলি আপলোড করতে পারবেন।

এবার প্রতিবার যখনি আপনার content গুলি কোনো ইউসার দ্বারা কেনা বা ডাউনলোড করা হবে আপনাকে রয়্যালটি উপার্জন করার সুযোগ দেওয়া হবে। তাই এখানে যতবেশি ছবি, ভিডিও ইত্যাদি কনটেন্ট গুলো আপলোড করবেন, ইনকামের সুযোগ ততটাই বাড়বে।

ছবি তোলা বা ভিডিও সেগুলিকে এডিট করে আপলোড করা, সবটাই আপনি নিজের মোবাইল দ্বারা করতে পারবেন। তাই আপনি নিজের মোবাইলে টাকা ইনকাম করার এই লাভজনক সাইটটি ব্যবহার করেও নিয়মিত ইনকামের সুযোগ পাচ্ছেন।

৪. Swagbucks.com

আপনি যদি মোবাইলে ইনকাম করার এমন একটি সাইট খুঁজছেন যেখান থেকে অনেক সামান্য পরিমানের কাজ করেই কিছুনা ইনকাম সম্ভব, তাহলে Swagbucks ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করতে পারবেন। আপনাকে আগেই জানিয়ে রাখছি, এই সাইট থেকে আপনি সেই পরিমানের ইনকাম করতে পারবেননা।

তবে, অনলাইনে সার্ভে সম্পূর্ণ করা, গেম খেলা ইত্যাদির মতো নানান ছোট ছোট কাজ গুলো করার মাধ্যমে আপনি কিছু ডলার তো ইনকাম করেই নিবেন। হ্যা, এই সাইট আপনারা মোবাইল এবং পিসি সবখানেই ব্যবহার করতে পারবেন।

এছাড়া, এদের একটি mobile app-ও রয়েছে যেটি Google Play Store-থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

৫. Meesho

Meesho, মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার সাইট গুলোর মধ্যে আমার সব থেকে প্রিয় সাইট। কেননা এই সাইট এর মাধ্যমে আপনি একজন রিসেলার হিসেবে কাজ শুরু করতে পারবেন এবং কেবল নিজের মোবাইলটি ব্যবহার করে নিজের অনলাইন ব্যবসা শুরু করার সুযোগ পাবেন।

Meesho-তে আগের থেকে থাকা নানান product এর catalogues গুলো Facebook এবং WhatsApp-এর মতো social media platform গুলোতে আপনাকে শেয়ার করতে হবে। এবার যদি কোনো ব্যক্তি অআপনার ইউনিক রেফারেল লিংক ব্যবহার করে কোনো পণ্য অর্ডার করে কিনে থাকেন, তাহলে সেই বিক্রির জন্যে আপনিও লাভ/কমিশন ইনকাম করবেন।

এখানে, fashion, beauty, home decor ইত্যাদি নানান ক্যাটেগরিতে বিভিন্ন পণ্য গুলো রয়েছে।

৬. ySense

ySense আমি নিজেই ব্যবহার করেছি এবং এখান থেকে বেশি না তবে ১০ ডলারের মতো সামান্য ইনকাম করতে পেরেছি। এটাই একটি দারুন ওয়েবসাইট যেখান থেকে ছোট ছোট কাজ গুলো করার মাধ্যমে নিয়মিত ইনকাম করা যায়। যেমন ধরুন, paid survey সম্পূর্ণ করা, সাইট রেফার করা, ওয়েবসাইটে signup করা, ভিডিও দেখা, app download করা ইত্যাদি।

প্রত্যেকটি সার্ভে সম্পূর্ণ করার বিপরীতে প্রায় $0.20 থেকে $5 ইনকাম করার সম্ভাবনা থেকে থাকে। সার্ভে সম্পূর্ণ করতে কতটা সময় লাগবে এবং সার্ভে গুলোর ধরণ হিসেবে ইনকামের পরিমান কম বেশি হওয়াটা স্বাভাবিক।

এছাড়া, এখানে থাকা refer & earn program-এর দ্বারা আপনি আনলিমিটেড টাকা ইনকামের সুযোগ পাবেন। যদি কোনো ব্যক্তি আপনার রেফারেল লিংক/কোড ব্যবহার করে ySense-এ account signup করে থাকেন তাহলে প্রতিটি একটিভ signup-এর জন্যে আপনাকে $0.10 বা $0.30 signup commission দেওয়া হবে।

আপনি সম্পূর্ণ কাজ নিজের মোবাইল থেকে করতে পারবেন। এছাড়া চাইলে গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে ySense-এর android application-টি ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন।

৭. Neobux

বর্তমান সময়ে থাকা সেরা এবং জনপ্রিয় রিয়েল বিদেশী ইনকাম সাইট গুলোর মধ্যে এই Neobux সাইটটিতে আপনি নিজের মোবাইল দিয়েই কাজ করে অনলাইন ইনকাম করার সুযোগ পাবেন।

আপনি যদি বেশি ঝামেলা না করে অনলাইনে কিছু ছোটোখাটো কাজ গুলো করার মাধ্যমে সামান্য পার্ট-টাইম ইনকাম করার কথা ভাবছেন, তাহলে এই মোবাইল ইনকাম সাইটটি আপনি ব্যবহার করতে পারেন।

এখানেও একাধিক কাজ গুলো করার মাধ্যমে ইনকাম করা যেতে পারে। যেমন, survey সম্পূর্ণ করে, বিজ্ঞাপন দেখে, নানান গেম এবং কুইজ খেলে টাকা ইনকাম করার সুযোগ পাবেন।

৮. Foap.com

এটাও একটি অনেক জনপ্রিয় online stock image/video site যেখানে গিয়ে নানান কোম্পানিগুলি তাদের প্রয়োজন হিসেবে ছবি বা ভিডিও গুলি কিনে থাকেন।

এবার, আপনি যদি একজন ভালো ফটোগ্রাফার বা ছবি তোলার কৌশল গুলো আপনি জানেন, তাহলে নিজের মোবাইল দিয়েই high quality images গুলি তুলতে পারবেন এবং Foap-এর সাইটে সেগুলিকে আপলোড করতে পারবেন।

যখন কোনো brand, agency বা জেকেও আপনার online Foap portfolio-থেকে কোনো ছবি বা ভিডিও কিনবেন তখন সেই বিক্রির ৫০% আপনাকে দেওয়া হবে। iOS এবং Android, দুটো প্লাটফর্ম এর জন্যেই Foap-এর application উপলব্ধ রয়েছে।

তাই, যদি নিজের তোলা ছবি এবং ভিডিও গুলির দ্বারা অনলাইন থেকে এক্সট্রা টাকা উপার্জন করার কথা ভাবছেন, তাহলে Foap-এর সাইটে আজকেই ভিসিট করুন।

FAQ: মোবাইলের ইনকাম সাইট

প্রশ্ন: মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার সেরা সাইট কোনটি?

যদি আপনি অনলাইনে ইনকাম করার জন্য কেবল মোবাইলের ব্যবহার করতে চাইছেন, তাহলে এক্ষেত্রে ySense, Neobux, Swagbucks, YouTube ইত্যাদি এই ধরণের সাইট গুলো ব্যবহার করতে পারেন।

প্রশ্ন: আমি কিভাবে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারি?

এক্ষেত্রে, ইন্টারনেটে গিয়ে বিভিন্ন অর্থ উপার্জন করার ওয়েবসাইট এবং প্ল্যাটফর্ম গুলো ব্রাউস করে দেখতে পারেন যেগুলি আপনাকে আপনার করা ছোট-বড় কাজের বিপরীতে আপনাকে আর্থিক লাভ, পুরস্কার বা রিওয়ার্ড দিয়ে থাকে। তবে এমন সাইট গুলোর থেকে দূরত্ব বজায় রাখবেন যেগুলোতে কোনো কাজ না করেই টাকা বা রিওয়ার্ড অফার করার কথা বলা হয়।

প্রশ্ন: মোবাইলে ইনকাম করার সাইট গুলো কি বৈধ?

ঘরে বসে নিজের মোবাইল দিয়ে অনলাইনে টাকা ইনকাম করার প্রচুর ওয়েবসাইট আপনি পাবেন। আমাদের আজকের তালিকাতেও এই ধরণের নানান সাইট গুলো উল্লিখিত করা হয়েছে। তবে আপনাকে সব সময় সতর্কতার সাথে এই সাইট গুলো ব্যবহার করা দরকার। তাই সাইট গুলো ব্যবহার করার আগে আপনাকে খানিকটা রিসার্চ করে নানান ইউসার দ্বারা পাবলিশ করা বিভিন্ন অনলাইন রিভিউ গুলো আগেই পড়া উচিত।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top