মোবাইলের গ্যালারি লক সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন – (Free Apps)

Last updated on May 5th, 2024 at 08:21 pm

গ্যালারি লক সফটওয়্যার ডাউনলোড: আমাদের প্রত্যেকের এন্ড্রয়েড মোবাইলের মধ্যে প্রচুর প্রাইভেট ডাটা, ভিডিও, ফটো বা অন্যান্য মিডিয়া ফাইল ইত্যাদি থাকতেই পারে।

আর অনেক সময়, যখন অন্যরা আপনার মোবাইল ব্যবহার করে থাকে তখন আপনার ব্যক্তিগত ফাইল (personal files) গুলো দেখে নেওয়ার ভয় অবশই থেকে যায়।

এক্ষেত্রে এই সমস্যার থেকে বাঁচতে আপনার হাতে শুধুমাত্র একটাই উপায় থেকে থাকে, আর সেটা হলো, মোবাইলের গ্যালারিটিকে পাসওয়ার্ড দিয়ে লক করার।

তবে এখন প্রশ্ন হচ্ছে, মোবাইলের গ্যালারি লক করার নিয়ম কি? কিভাবে লক করতে হয়?

আপনারা এই প্রশ্নের সোজা উত্তর হলো, একটি গ্যালারি লক সফটওয়্যার (Gallery Locker Android App), যেটা সম্পূর্ণ ফ্রীতে ব্যবহার করা যাবে।

এই ধরণের মোবাইলের গ্যালারি লক অ্যাপস গুলো ব্যবহার করলে, আপনার অনুমতি ছাড়া কোনো অন্য ব্যক্তিরা আপনার মোবাইলের গ্যালারি কোনোভাবেই খুলতে পারবেননা।

ফলে, আপনার মোবাইলে থাকা apps, videos, photo বা অন্যান্য media গুলো সুরক্ষিত থাকবে এবং কেও দেখতে পারবেননা।

তাহলে চলুন, নিচে আমরা best gallery locker apps for your Android smartphone এর বিষয়ে জেনেনেই যেগুলো গুগল প্লে স্টোর থেকে ফ্রীতেই ডাউনলোড করতে পারবেন।

এন্ড্রয়েড মোবাইলের সেরা গ্যালারি লক সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন:

গ্যালারি লক সফটওয়্যার
Best folder locker apps for android

নিচে দেওয়া প্রত্যেকটি Gallery Lock Apps আপনারা Google Play Store থেকে ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন।

গ্যালারি লক অ্যাপস:টোটাল ডাউনলোড/রেটিং:
১. Gallery Lock (Hide pictures)10,000,000+ / 4.1
২. Safe Gallery (Gallery Lock)10,000,000+ / 4.3
৩. Secure Gallery10,000,000+ / 4.3
৪. Folder Lock10,000,000+ / 4.1
৫. Lock my Folder – Folder hider500,000+ / 4.2
৬. Sgallery app1,000,000+ / 4.8
৭. FolderVault app 100,000+ / 4.4

এছাড়া, গ্যালারি লক সফটওয়্যার গুলোর প্রায় প্রত্যেকটির একটি pro version-ও রয়েছে।

আপনারা চাইলে সামান্য কিছু টাকা দিয়ে pro features এর সুবিধা নিতে পারবেন।

তবে, আপনি চাইলে কেবল free version-এর সাথে apps গুলি ব্যবহার করতে পারেন।

১. Gallery Lock (Hide pictures)

Gallary lock hide pictures app

টোটাল ডাউনলোড: 10,000,000+

রেটিং: 4.1

Gallery lock একটি দারুন সফটওয়্যার যেটাকে আপনারা ফ্রীতে ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন।

এটা হলো Gallery Lock Pro Android app এর free version টি। আপনার মোবাইলের গ্যালারি লক করে সুরক্ষা দেওয়ার জন্য ফ্রি ভার্শনটি যথেষ্ট ভালো কাজ দিবে।

এই app ব্যবহার করে আপনারা নিজের এন্ড্রোয়েড মোবাইলে গ্যালারিতে থাকা পিকচার এবং ভিডিও গুলো হাইড (hide) করতে পারবেন।

লক অ্যাপ এর বৈশিষ্ট:

  • মোবাইলের Photos এবং Videos গুলি লুকোনো যায়,
  • App-এর লঞ্চ আইকন হাইড করে রাখা যাবে,
  • ৩ বার ভুল পাসওয়ার্ড টাইপ করলে ছবি তুলে রাখা হয়।

২. Safe Gallery (Media Lock)

Safe gallary gallary lock android app

টোটাল ডাউনলোড: 10,000,000+

রেটিং: 4.3

এটাও একটি দারুন Free gallery locker Android app যেটা সম্পূর্ণ ভাবে ফ্রি।

Safe Gallery app এর মাধ্যমে আপনারা গ্যালারি তে থাকা প্রত্যেকটি মিডিয়া ফাইল গুলোতে পাসওয়ার্ড দিয়ে লক করে রাখতে পারবেন।

PINs, Password, Pattern, Fingerprint এই বিভিন্ন মাধ্যম গুলোর ব্যবহার করে screen lock করা যাবে।

Audio, video, photo ইত্যাদি সবটাই আপনারা লক করে রাখতে পারবেন এই লকার এপস এর মাধ্যমে।

লক অ্যাপ এর বৈশিষ্ট:

  • মোবাইলে থাকা প্রত্যেকটি মিডিয়া ফাইল পাসওয়ার্ড দ্বারা লক করা যায়,
  • PIN, Password, Pattern, Fingerprint, সহ লক করা যায়,
  • অ্যালবাম এবং গ্যালারি ম্যানেজ করার সুবিধা আছে।

৩. Secure Gallery

Secure gallary best app to lock and hide mobile gallary

টোটাল ডাউনলোড: 10,000,000+

রেটিং: 4.3

এই app এর মাধমেও আপনারা নিজের মোবাইলে থাকা video এবং pictures গুলোকে password বা pattern এর মাধ্যমে lock করে রাখতে পারবেন।

যদি আপনার মূল উদ্দেশ্য মোবাইলের গ্যালারিতে থাকা images এবং videos গুলো যাতে কেও দেখতে না পারে,

তাহলে অবশই এই simple lock app আপনার অনেক কাজে আসবে। Secure gallery app সম্পূর্ণ ফ্রি এবং ফ্রীতে ডাউনলোড এবং ইনস্টল করতে পারবেন।

লক অ্যাপ এর বৈশিষ্ট:

  • পিকচার এবং ভিডিও গুলিকে হাইড বা লক করা যায়,
  • একটি অনেক নিরাপদ ব্যক্তিগত গ্যালারি অ্যাপ,
  • মোবাইলে থাকা মিডিয়া ফাইল গুলি ম্যানেজ ও করা যায়,
  • প্রত্যেকটি ফীচার ফ্রীতে ব্যবহার করতে পারবেন।

৪. Folder Lock

Best free android mobile folder lock app

টোটাল ডাউনলোড: 10,000,000+

রেটিং: 4.1

এই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে files, photos, videos, documents, contacts, wallet cards, notes, audio recordings ইত্যাদি অনেক রকমের files গুলোকে password এর সাহায্যে lock করে রাখতে পারবেন।

যদি আপনি নিজের মোবাইলের data এবং files গুলোর security এবং privacy নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন, তাহলে এই একটি app আপনার সব দিক দিয়ে আপনার সাহায্য করতে পারবে।

Folder lock app-এর বৈশিষ্ট:

  • Photo locker ফীচার এর মাধ্যমে photos গুলোকে লক করে হাইড করুন,
  • Video locker feature এর মাধ্যমে videos গুলোকে লক করে রাখতে পারবেন,
  • Gallery lock vault এর মাধ্যমে প্রত্যেক gallery albums গুলো lock করা যাবে,
  • Lock apps feature এর মাধ্যমে নিজের private apps গুলোকে লক রাখতে পারবেন,
  • App Lock ফীচার এর মাধ্যমে জরুরি system apps যেমন gallery, messages, contacts, Gmail, play store ইত্যাদি লক করতে পারবেন,
  • Sensitive Documents এবং Notes গুলিকেও লক করা যায়।

৫. Lock My Folder

Lock my folder app

টোটাল ডাউনলোড: 500,000+

রেটিং: 4.2

যদি আপনি নিজের মোবাইলের files এবং folder গুলোকে লক করে সেগুলোকে সুরক্ষিত করে রাখতে চাইছেন তাহলে এই app আপনার জন্য অনেক কাজের প্রমাণিত।

আপনার লক করে রাখা files বা folder গুলোকে কেও দেখতে পারবেননা।

আপনি unlimited folder গুলোকে lock করতে পারবেন যেগুলোর ভেতরে folders, photos, videos, audio বা অন্যান্য files গুলো থাকছে।

Lock my Folder app-এর বৈশিষ্ট:

  • Device’s memory / SD card এর মধ্যে unlimited folder lock করুন।
  • PIN এর মাধ্যমে password protected apps access করতে পারবেন।
  • Finger Print এর মাধমেও folder lock করতে পারবেন।
  • ভুল password দিয়ে folder খুলতে চেষ্টা করা ব্যক্তির ছবি তোলা হবে ফ্রন্ট ক্যামেরা দিয়ে।

৬. Sgallery – hide photos & video

sgallary hide photo apps to lock files on android

টোটাল ডাউনলোড: 1,000,000+

রেটিং: 4.8

Sgallery app-টি হলো একটি সেরা privacy protection app যেটিকে কাজে লাগিয়ে আপনি আপনার মোবাইল ফোনের মধ্যে থাকা video, image বা যেকোনো ধরণের ফাইল গুলিকে লুকিয়ে বা লক করে রাখতে পারবেন।

Sgallery app-টিতে আপনারা app icon-টিও হাইড করে রাখতে পারবেন। এতে, আপনি ছাড়া অন্য কোনো ব্যক্তি হাইড করা ফাইল গুলিকে খুঁজেই পাবেনা।

App icon-টিকে হাইড করার ক্ষেত্রে calculator app-এর পেছনে app-টিকে লুকিয়ে রাখা হয়। তবে এক্ষেত্রে, সঠিক লক কোড ব্যবহার করে গ্যালারিতে প্রবেশ করা যায়।

Sgallery app-এর বৈশিষ্ট:

  • ছবি, ভিডিও, বা যেকোনো ফাইল লুকিয়ে বা লক করে রাখা যায়,
  • ক্যালকুলেটর এর পেছনে গ্যালারি বা ফাইল হাইড করে রাখা হয়।

৭. FolderVault

Foldervault folder, file, photo, image locker

টোটাল ডাউনলোড: 100,000+

রেটিং: 4.4

FolderVault app টিকে আপনারা Gallery Locker app নামেও বলতে পারবেন।

যেকোনো android মোবাইলের জন্য এটি একটি দারুন file hide expert যেটার মাধ্যমে আপনারা নিজের মোবাইলের প্রাইভেসী রক্ষা করতে পারবেন।

এর মাধ্যমে নিজের personal pictures গুলোকে লক করে রাখার সাথে সাথে জরুরি বা প্রাইভেট ভিডিও গুলোকেও হাইড করে রাখতে পারবেন।

FolderVault-এর ফীচার:

  • Photo Locker: ব্যক্তিগত ছবি গুলিকে হাইড ও লক করা যায়,
  • ব্যক্তিগত ভিডিও গুলিকে হাইড করা যায়,
  • App icon চেঞ্জ করার সুবিধা রয়েছে,
  •  Fake Gallery ডিসপ্লে করানোর সুবিধা পাবেন।

৮. কিছু অন্যান্য এপস গুলো:

গুগল প্লে স্টোরের মধ্যে ফাইল, গ্যালারি বা ফোল্ডার লক ও হাইড করার প্রচুর ফ্রি এপস আপনারা পেয়ে যাবেন।

তাই, সেই এপস গুলোর মধ্যে মোবাইলের সেরা লকার সফটওয়্যার গুলোর বিষয়ে আপনি আপনাদের বললাম।

চলুন নিচে কিছু অন্যান্য এপস গুলোর বিষয়েও আমরা জেনেনেই।

  1. Secret Hider Pro – Hide Pictures
  2. Photo Lock App
  3. Photo Lock

FAQ:

১. মোবাইলে গ্যালারি লক করার নিয়ম কি?

যদি আপনি একটি স্মার্টফোন ব্যবহার করছেন, তাহলে অনেক সহজেই একটি ভালো Gallery Lock App-এর ব্যবহার করার মাধ্যমে নিজের মোবাইলের গ্যালারি লক বা হাইড করে রাখতে পারবেন।

২. একটি মোবাইল গ্যালারি লক অ্যাপ কি ধরণের অ্যাপ?

এগুলি মূলত এমন কিছু বিশেষ মোবাইল এপ্লিকেশন যেগুলির দ্বারা নিজের মোবাইলে থাকা, ভিডিও, ফাইল, ইমেজ, ডকুমেন্ট ইত্যাদিকে নিরাপদ রাখা যায়। এক্ষেত্রে এই অ্যাপ গুলি আপনার মোবাইলের মিডিয়া ফাইল গুলিকে হাইড বা লক করে রাখে।

৩. Android মোবাইলের সেরা গ্যালারি লক সফটওয়্যার কোনটি?

Google Play Store-এর মধ্যে গেলেই আপনারা প্রচুর ফ্রি গ্যালারি হাইড সফটওয়্যার গুলি পেয়ে যাবেন। তবে এদের মধ্যে কিছু সেরা সফটওয়্যার হলো, Private Zone, LockMyPix Photo Vault, FolderVault, Calculator Vault – Gallery Lock, Gallery Vault, এবং আরো আছে।

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, যেকোনো এন্ড্রয়েড মোবাইলের files, photo, video বা সম্পূর্ণ গ্যালারি লক করার জন্য আপনারা ওপরে দেওয়া এপস বা সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করতে পারবেন।

তাই, আমাদের আজকের আর্টিকেল যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে অবশই আর্টিকেলটি শেয়ার করবেন।

এছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে নিচে কমেন্ট করে জানিয়ে দিতে পারবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top