টেলিগ্রাম থেকে ইনকাম কিভাবে করবেন? How To Earn Money From Telegram App

বন্ধুরা, আপনারা কি জানেন, আপনি চাইলে আপনার টেলিগ্রাম একাউন্ট থেকেও টাকা ইনকাম করা যেতে পারে? তবে যদি আপনি এই বিষয়ে কিছুই জানেননা, তাহলেও চিন্তা করতে হবেনা।

কেননা, আজকের এই আর্টিকেলের মধ্যে আমি আপনাদের, টেলিগ্রাম থেকে কিভাবে আয় করা যায় (How To Earn Money From Telegram App), বিষয়টা ভালো করে বুঝিয়ে বলবো।

এমনিতে, বর্তমান সময়ে নানান সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম যেমন, Facebook, YouTube, Instagram এবং টিকটক থেকেও টাকা ইনকাম করা যেতে পারে। এমনিতে এগুলির বিষয়ে হয়তো আপনি আগের থেকেই জানেন।

কিন্তু টেলিগ্রাম থেকে ইনকাম করার বিষয়টা কিন্তু অনেকেরই জন্য একটি নতুন ব্যাপার এবং এই Messaging App-টি ব্যবহার করে জেকেও টাকা আয় করতে পারবেন।

টেলিগ্রাম থেকে আয় করার উপায় গুলি জানার আগে আপনাকে Telegram-এর বিষয়ে খানিকটা জেনেনিতে হবে। Telegram App, এমনিতে বর্তমা সময়ের একটি অনেক জনপ্রিয় Social Media App যেটা সম্পূর্ণভাবে WhatsApp-এর মতোই।

এই Messaging App-এর মধ্যে আপনারা নানান আলাদা আলাদা features গুলি পাবেন। যেমন, Groups, Channels, Bots, Stickers, ইত্যাদি।

আপনি এখন হয়তো ভাবছেন যে, Telegram তো একটি messaging app যার মাধ্যমে online chatting ইত্যাদি করা হয়, তাহলে, এর মাধ্যমে ইনকাম কিভাবে সম্ভব ?

আসলে, একটি Telegram Channels-কে monetize করার একাধিক উপায় গুলি রয়েছে। আর এই আর্টিকেলের মধ্যে আমি আপনাদেরকে কেবল সেই উপায় গুলির বিষয়ে বলবো যেগুলি অনেক সোজা এবং সহজেই করা যাবে।

বলে দেওয়া উপায় গুলি ব্যবহার করে জেকেও অনেক সহজেই নিজের Telegram থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন সেটাও শুধুমাত্র নিজের মোবাইলটি ব্যবহার করে।

তাহলে চলুন, আর বেশি সময় নষ্ট না করে নিচে আমরা সরাসরি সেই প্রত্যেক সোজা উপায় গুলির বিষয়ে একে একে জেনেনেই যেগুলিকে কাজে লাগিয়ে হাজার হাজার লোকেরা নিজের টেলিগ্রাম একাউন্ট থেকে সহজেই ইনকাম করতে পারছেন।

আপনাকে কি টেলিগ্রাম থেকে টাকা পাঠানো হবে?

না, টেলিগ্রাম আপনাকে সরাসরি টাকা দিবেনা।

Telegram Channel থেকে হওয়া আপনার ইনকাম এবং টেলিগ্রাম কোম্পানির মধ্যে কোনো ধরণের সম্পর্ক নেই। যদিও আপনি নিজের টেলিগ্রাম একাউন্টটি ব্যবহার করছেন, তবে এক্ষেত্রে টাকা আয় করার জন্য আপনাকে কিছু external method ব্যবহার করতে হয়।

আসলে, আপনার telegram channel এর মধ্যে থাকা members দের দ্বারা আপনি টাকা আয় করতে পারবেন। এবং এক্ষেত্রে, কিছু external process বা method এর ব্যবহার করাটা জরুরি।

তবে, টেলিগ্রাম থেকে ইনকাম করার জন্য জরুরি এই external process গুলোর বিষয়ে আমরা নিচে অবশই আলোচনা করেছি।

বাস্তবে কি টেলিগ্রাম থেকে আয় করাটা সম্ভব?

টেলিগ্রাম থেকে ইনকাম
How to earn money from telegram account ?

হে, বর্তমান সময়ে হাজার হাজার লোকেরা তাদের telegram channel / group এর মাধ্যমে অবশই নিয়মিত টাকা ইনকাম করছেন।

এখানে ইনকামের উপায় গুলি ভালো করে বুঝে মন দিয়ে কাজ করলে, telegram কিন্তু অনলাইন ইনকাম এর একটি profitable এবং genuine মাধ্যম হিসেবে প্রমাণিত হতে পারে।

১. টেলিগ্রাম থেকে কত টাকা ইনকাম করা যাবে?প্রতিমাসে কমেও ৫,০০০ থেকে ২৫,০০০ টাকা।
২. কত টাকা বিনিয়োগ করতে হবে?সাধারণত আপনাকে কোনো টাকা বিনিয়োগ করতে হয়না।
৩. ইনকামের কতগুলি উপায় আছে?৭-১০-টি উপায়ে ইনকাম করা যায়।
৪. প্রতিদিন কতটা সময় কাজ করতে হবে?২ থেকে ৩ ঘন্টা সময় দিয়ে কাজ করলেই যথেষ্ট।
৫. করা এই কাজ করতে পারবেন?Students থেকে housewife, প্রত্যেকেই করতে পারবেন।
৬. ইনকাম করতে কতটা সময় লাগবে?আপনি কতটা সময় দিয়ে কাজ করছেন, সেটার উপর।

তবে, এক্ষেত্রে আপনার কিছু বিশেষ বিষয়ভালো ভালো করে বুঝে নিতে হবে।

যেমন,

  • Income করার জন্য আপনার একটি telegram channel থাকা জরুরি।
  • আপনার channel / group এর মধ্যে কমেও ৫০০০ member / followers থাকতে হবে।
  • যত বেশি channel members থাকবে, ততটাই বেশি ইনকাম এর সুযোগ থাকবে।

Telegram channel এর মধ্যে affiliate marketing, reselling ইত্যাদি প্রক্রিয়া গুলো ব্যবহার করে টাকা আয় করার ক্ষেত্রে অধিক followers দের প্রয়োজন।

তাই, সবচে আগে আপনার ভাবতে হবে যে, “কিভাবে নিজের টেলিগ্রাম চ্যানেলে অধিক member / followers নিয়ে আসা যাবে”।

একবার আপনার চ্যানেলে ভালো পরিমানের followers হয়ে গেলে, তখন আপনি টাকা আয় করার কথা ভাবতে পারবেন।

টেলিগ্রাম থেকে ইনকাম কিভাবে করবেন – How To Earn Money From Telegram App:

টেলিগ্রাম থেকে আয় করার জন্য আপনার শুরু থেকে সবটা সঠিক ভাবে প্ল্যানিং করে করতে হবে। Telegram এর মাধ্যমে online income শুরু করার জন্য আপনার প্রথমেই করতে হবে,

  • Create a telegram account,
  • Select a profitable channel topic, 
  • Create telegram channel, 
  • Publish content regularly, 
  • Get minimum 5000 members.

এখন উপরে দিয়ে দেওয়া points গুলো দেখে আপনারা হয়তো বুঝেই গেছেন যে, প্রথমে আপনাদের কি করতে হবে। টাকা আয় করার কথা আপনাকে প্রথমেই ভাবতে হবেনা।

Telegram App থেকে টাকা আপনি কেবল তখন আয় করতে পারবেন যখন আপনার টেলিগ্রাম চ্যানেলে প্রচুর ফলোয়ার্স থাকবে। তাই, একটি telegram channel তৈরি করে সেখানে অধিক followers কিভাবে নিয়ে আসতে পারবেন, সেই বিষয়ে আগে ভাবুন।

Step 1: Setup your telegram channel

  • সবচে আগে নিজের মোবাইল থেকে Telegram messenger app ডাউনলোড করুন।
  • এবার, app টিকে ওপেন করুন এবং নিজের মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে একটি telegram account তৈরি করুন।
  • একাউন্ট তৈরি করার পর, এবার আপনি একটি channel বা group তৈরি করতে পারবেন।
  • Channel বানানোর আগেই ভেবে নিতে হবে যে কোন বিষয়ে চ্যানেল তৈরি করবেন। তাড়াতাড়ি followers পাওয়ার জন্য একটি আকর্ষণীয় channel topic সিলেক্ট করুন।
  • Channel topic ভেবে নেওয়ার পর, telegram app এর option icon এর মধ্যে ক্লিক করুন। এবার আপনারা “new channel” নামের একটি অপসন দেখতে পাবেন। সোজা সেখানে ক্লিক করে নিজের একটি channel তৈরি করে নিন।
  • এবার channel এর বিষয়ের  জড়িত content প্রত্যেকদিন পাবলিশ করুন। রেগুলার কনটেন্ট পাবলিশ করলে, আপনার টেলিগ্রাম চ্যানেলে তাড়াতাড়ি মেম্বার (member) বাড়বে।
  • শেষে, নিজের চ্যানেলে কমেও ৩ থেকে ৫ হাজার মেম্বার নিয়ে আসার চেষ্টা করুন। এক্ষেত্রে, আপনি আপনার telegram channel এর marketing অন্যান্য social media page, blog, YouTube channel ইত্যাদি গুলোতে করতে পারবেন।

তাহলে বন্ধুরা, ওপরে points গুলো দেখে বুঝতেই পেরেছেন যে সব থেকে আগে আপনার কি কি করতে হবে।

একবার আপনার চ্যানেলে ৩ হাজার থেকে ৫ হাজারের মধ্যে মেম্বার হয়ে গেলে, নিচে দেওয়া প্রক্রিয়া গুলো ব্যবহার করে টেলিগ্রাম চ্যানেল থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

টেলিগ্রাম থেকে কিভাবে আয় করা যায়? দারুন ৭টি উপায়

যখন আপনার টেলিগ্রাম চ্যানেলে ভালো পরিমানে মেম্বার জমা হয়ে যাবে, তারপর, নিচে দিয়ে দেওয়া এই প্রক্রিয়া গুলো ব্যবহার করে, টেলিগ্রাম থেকে পার্ট-টাইম বা ফুল-টাইম হিসেবে ইনকাম করতে পারবেন।

  • Affiliate marketing 
  • URL shortener websites 
  • Product reselling
  • Paid promotion
  • Referral income
  • Paid subscription
  • Donation

চলুন বিষয় গুলোকে বিস্তারিত ভাবে জেনেনেই।

১. Affiliate marketing 

Telegram এর মাধ্যমে টাকা আয় করার সব থেকে লাভজনক উপায় হলো এফিলিয়েট মার্কেটিং। এমনিতে আমি আপনাদের আগেই বলেছি যে, এফিলিয়েট মার্কেটিং কি

ইন্টারনেটে বিভিন্ন রকমের product বিক্রি করা হাজার হাজার e-commerce website রয়েছে।

এই e-commerce website গুলোর বেশিরভাগ “become an affiliate” এর একটি অপসন রয়েছে যার মাধ্যমে আপনি একটি affiliate account তৈরি করতে পারবেন।

যদি আপনি e-commerce ওয়েবসাইট গুলোতে একজন affiliate হিসেবে register করে থাকেন, তাহলে আপনাকে e-commerce ওয়েবসাইট টির প্রত্যেকটি প্রোডাক্ট এর একটি আলাদা affiliate link দেওয়া হবে।

এবার যদি আপনি product এর affiliate link গুলো নিজের telegram চ্যানেলে শেয়ার করেন, তাহলে, আপনার চ্যানেলের মেম্বাররা সেই এফিলিয়েট লিংক এর মাধ্যমে প্রোডাক্ট গুলো কিনে নেওয়ার সুযোগ থাকবে।

আর যদি আপনার affiliate link এর মাধ্যমে কেও যেকোনো product কিনে থাকেন, তাহলে আপনাকে সেই e-commerce company র তরফ থেকে product টিকে বিক্রি করানোর জন্য কিছু টাকা commission হিসেবে দেওয়া হয়।

এভাবে, অন্যান্য অনলাইন ই-কমার্স ওয়েবসাইট গুলোর প্রোডাক্ট বিক্রি করিয়ে commission income করার প্রক্রিয়াটিকে বলা হয় affiliate marketing।

অনেকেই এই এফিলিয়েট মার্কেটিং এর ব্যবহার করে টেলিগ্রাম থেকে প্রচুর লাভ করে নিচ্ছেন।

আপনি নিচে দেওয়া এই ই-কমার্স ওয়েবসাইট গুলো ব্যবহার করতে পারেন,

এমনিতে আরো অনেক ধরণের affiliate network ইন্টারনেটে রয়েছে, যেগুলো আপনারা ব্যবহার করতে পারেন।

২. URL shortener websites

ইন্টারনেটে এমন অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোতে গিয়ে আপনারা যেকোনো URL address ছোট করে নিতে পারবেন। যেমন, YouTube video URL, image URL বা blog article URL ইত্যাদি যেকোনো ধরণের URL।

তবে, যখন এই website গুলোর মাধ্যমে URL link গুলোকে ছোট (short) করা হয়, তখন সেই URL link গুলোর মধ্যে কিছু বিজ্ঞাপন (ads) লাগিয়ে দেওয়া হয়।

এবার, ছোট হয়ে যাওয়া কনটেন্ট এর URL link address টিতে যখন ক্লিক করা হয়, তখন original content দেখানোর আগেই user কে কিছু বিজ্ঞাপন দেখানো হয়।

এবং, দেখিয়ে দেওয়া এই বিজ্ঞাপনের জন্য URL Shortener Site থেকে আপনি টাকা পেয়ে যান।

এভাবে, URL shortener ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে বিভিন্ন ধরণের মাজেদার videos, images বা article গুলোর URL address গুলোকে ছোট করে নিজের telegram channel শেয়ার করুন।

যখনি আপনার channel এর member রা সেই link গুলো ওপেন করবেন, তখন অরিজিনাল কনটেন্ট দেখানোর আগেই প্রথমেই তাদেরকে কিছু বিজ্ঞাপন দেখানো হবে। ফলে, আপনি টাকা পাবেন।

নিচে দেওয়া এই URL shortener website গুলোকে join করে বিভিন্ন links গুলোকে short করে নিজের চ্যানেলে শেয়ার করে ইনকাম করতে পারবেন।

  • AdPayLink.com
  • Adf.ly
  • ShrinkMe.io
  • Shorte.st
  • Linkvertise
  • Shorte.st
  • Cpm.link

৩. Reselling products

Internet এর মধ্যে এমন অনেক product reselling apps এবং website রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে প্রচুর টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

Product reselling website বা apps গুলোতে একটি account তৈরি করে, আপনি সেই website বা apps গুলোর মধ্যে থাকা products গুলোকে নিজের হিসেবে বিক্রি করতে পারবেন এবং ভালো লাভ আয় করতে পারবেন।

তাই এরকম একটি reselling app বা website এর সাথে সংযুক্ত হয়ে products গুলো নিজের telegram channel এর মধ্যে প্রচার করতে পারবেন।

যদি আপনার চ্যানেলের মেম্বার রা কোনো product কিনে থাকে তাহলে অবশই আপনার লাভ হবে।

৪. Paid Promotion  

যদি আপনার telegram channel এর মধ্যে হাজার হাজার followers বা members রয়েছে, তাহলে paid promotion আপনার ইনকাম এর একটি মাধ্যম হয়ে দাঁড়াতে পারে।

কেননা, আজকের যেকোনো business, product, service, video বা blog প্রত্যেকেই নিজের নিজের মার্কেটিং ইন্টারনেটে করতে চান।

আর, যদি আপনার telegram channel এ হাজার হাজার member রয়েছে, তাহলে অনেকেই আপনাকে টাকা দিয়ে তাদের product বা business এর promotion আপনার চ্যানেলে করতে চাইবেন।

তবে paid promotion এর জন্য আপনার খুঁজতে হবে clients। এক্ষেত্রে, আপনি বিভিন্ন Facebook page গুলোতে গিয়ে clients খুঁজতে পারবেন।

৫. Referral income 

এরকম অনেক apps রয়েছে যেগুলো refer করার জন্য আমাদের টাকা দিয়ে থাকে।

তাই, যিহেতু আপনার telegram channel এর মধ্যে প্রচুর member রয়েছে, আপনি এরকম refer করার বদলে টাকা দেওয়া apps গুলোতে register করে নিজের referral link নিজের চ্যানেলে শেয়ার করতে পারেন।

যখন আপনার referral link ব্যবহার করে user রা সেই app install করবেন বা কিছু নির্ধারিত কাজ গুলো করবেন, তখন আপনি সেই app এর account এর মধ্যে নিজের referral income পেয়ে যাবেন।

বিভিন্ন android apps রয়েছে যেগুলো কেবল একটি referral install এর বিপরীতে প্রায় ১০ থেকে ২৫ টাকা পর্যন্ত দিয়ে দেয়।

৬. Paid subscription 

যদি আপনি আপনার telegram চ্যানেলে premium content বা downloads share করছেন, তাহলে আপনি আপনার channel টিকে private হিসেবে রেখে subscription charge নিতে পারবেন।

মানে, যদি কেও আপনার telegram channel join করতে চান, তাহলে আপনাকে নির্ধারিত কিছু টাকা subscription pack হিসেবে দিয়ে আপনার চ্যানেলের মেম্বার হতে পারবেন।

৭. Donation 

যদি আপনার telegram channel এর মধ্যে হাজার হাজার members রয়েছে, তাহলে অবশই আপনি তাদের donation এর জন্য বলতে পারেন।

অনেক ছোট পরিমানে donation দেওয়ার কথা বললে আপনার channel members রা অবশই দিবেন। এবং, ছোট ছোট পরিমানের donation যখন অনেকেই দিবেন তখন সেটা অনেক বড় সংখ্যা হয়ে দাঁড়াবে।

৮. চ্যানেলে Ads বিক্রি করুন:

Telegram App থেকে টাকা আয় করার এটা কিন্তু একটি অনেক জনপ্রিয় ও কার্যকর উপায় গুলির মধ্যে আরেকটি। এমন প্রচুর দেশ রয়েছে যেখানে নানান ধরণের Ads (বিজ্ঞাপন) গুলিকে Telegram Channel দ্বারা sell (বিক্রি) করা হয়।

৯. Paid Promotion করে ইনকাম:

এটাও কিছুটা ads বিক্রি করার মতোই, তবে এক্ষেত্রে আপনার দ্বারা করা বেশিরভাগ পোস্ট গুলি টাকা নিয়ে করা হয়ে থাকে। মানে, পেইড পোস্ট বলেই বলা যেতে পারে।

যদি আপনার telegram channel-এর মধ্যে প্রচুর followers/members আছে, সেক্ষেত্রে আপনি চাইলে নানান company, brand, blog বা products গুলির প্রচার নিজের চ্যানেলের দ্বারা করতে পারবেন।

এমন অনেক সংগঠন, কোম্পানি বা ব্র্যান্ড থাকে যারা এমন জনপ্রিয় ও বিখ্যাত টেলিগ্রাম চ্যানেল গুলি খুজেঁ থাকেন যেগুলির দ্বারা তারা নিজের পণ্য এবং পরিষেবা গুলির প্রচার করতে পারে।

আর এই কাজের জন্য একজন Telegram Channel-এর মালিক হিসেবে আপনি ভালো টাকা রোজগার করতে পারবেন।

FAQ:

১. টেলিগ্রাম থেকে কত টাকা পাওয়া যায়?

যা আমি আগেই বলেছি, টেলিগ্রাম থেকে কোনো টাকা পাওয়া যায়না। কিন্তু, উপরে বলে দেওয়া উপায় গুলির সাথে ভালো ভাবে কাজ করতে পারলে মাসে ৫,০০০ থেকে ১০,০০০ টাকা ইনকাম করার সুযোগ অবশই থাকছে। এটা, আপনার ক্রিয়েটিভিটি এবং পরিশ্রমের উপরে নির্ভর করে থাকে।

২. Telegram App কি ফ্রীতে ব্যবহার করা যাবে?

অবশই, টেলিগ্রাম অ্যাপ আপনি সম্পূর্ণ ফ্রীতে ডাউনলোড করে নিজের মোবাইলে ব্যবহার করতে পারবেন।

৩. টেলিগ্রাম থেকে আয় করা সত্যি সম্ভব?

হ্যা, একটি টেলিগ্রাম চ্যানেল বা গ্রুপ থেকে টাকা ইনকাম করাটা সত্যি সম্ভব। তবে, আপনি কত টাকা ইনকাম করতে পারবেন, সেটা বিশেষভাবে নির্ভর করবে আপনার telegram channel/group-এর দর্শকসংখ্যার উপর। যদি অধিক followers/members ততটাই অধিক ইনকামের সুযোগ।

আজকে আমরা কি শিখলাম,,

আজকে আমরা জানলাম যে, কিভাবে টেলিগ্রাম চ্যানেল থেকে টাকা ইনকাম করা যাবে তার কিছু কার্যকর উপায়। যদি আজকের এই আর্টিকেল “How To Earn Money From Telegram” ভালো লেগে থাকে, তাহলে আর্টিকেল টি শেয়ার অবশই করবেন।

কিভাবে টেলিগ্রাম থেকে ইনকাম করব? বিষয়টি নিয়ে লিখা আমাদের আজকের আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকে, তাহলে নিচে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন।

মনে রাখবেন, বর্তমান সময়ে ইন্টারনেট থেকে ইনকাম করার উপায় প্রচুর রয়েছে। এবং সত্যি বলতে এই উপায় গুলিকে কাজে লাগিয়ে অনেকেই নিয়মিত ইনকাম করতে পারছেন।

তাই, যদি সঠিক উপায়, নিয়ম এবং প্রক্রিয়া গুলি অনুসরণ করে নিয়মিত মন দিয়ে কাজ করে থাকেন, সেক্ষেত্রে আপনিও অবশই ইন্টারনেট থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

2 thoughts on “টেলিগ্রাম থেকে ইনকাম কিভাবে করবেন? How To Earn Money From Telegram App”

  1. Avatar

    erokom website er design banglate ekta blog e dekhaci.. eta kivabe korte hoy amak plz ektu bolben.. sidebar ta kivabe design korechen plz bolben

    1. Avatar

      ভাই এটা custom css ব্যবহার করে করা হয়েছে। বলে দেখানো যাবেনা।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top