Meme মানে কি ? meme meaning in Bengali

Meme meaning in Bengali: বন্ধুরা আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা meme মানে কি (What is meme in Bengali) নিয়ে আলোচনা করবো।

meme মানে কি
Meme কাকে বলে ?

বন্ধুরা, যদি আপনারা ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকেন বা আপনার একটি সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্ট আছে, তাহলে অবশই মেমে (meme) আপনি অবশই অনেক বার দেখেছেন।

একটি ছবির মধ্যে টেক্সট লিখে বিভিন্ন ধরণের ভাব প্রকাশ করার চেষ্টা করা হয় এই মিম (meme) গুলোর মাধ্যমে।

Facebook, Instagram, WhatsApp বা যেকোনো অন্য social media sites বা application গুলোতে বিভিন্ন ধরণের Memes আমরা দেখে থাকি।

অনেক ধরণের meme গুলো তৈরি করা হয় এবং শেয়ার করা হয় যেমন, Funny memes, sad memes, inspirational memes, পড়াশোনা নিয়ে, রাজনীতি নিয়ে ইত্যাদি।

সোশ্যাল মিডিয়া পেজ গুলোতে like, share, followers এবং audience engagement বাড়ানোর জন্যে Memes গুলোকে প্রচুর share করা হয়।

আপনি যেকোনো ব্যক্তি, জায়গা বা জিনিসের ওপরে মেমে তৈরি করতে পারবেন।

তবে আপনি কি কোনো দিন ভেবে দেখেছেন এই meme আসলে কি ? বা মেমে (meme) কাকে বলে ?

চিন্তা করবেননা, আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা meme কি এবং মেমে কত প্রকারের সেই বিষয়ে জানবো।

এর সাথেই, অনলাইনে মেমে কিভাবে বানাব সেই বিষয়েও আমরা জানবো।

তাহলে চলুন সবচেয়ে আগেই আমরা জেনেনেই মেমে বলতে কি বুঝায়।

Meme মানে কি ? Meme meaning in Bengali

Internet এর ব্যবহার বিগত কিছু বছরের মধ্যেই সাংঘাতিক বৃদ্ধি পেয়েছে এবং আজ ঘরে ঘরে বাচ্চা থেকে বয়স্ক লোকেরা ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন।

এমনিতে, বিভিন্ন অন্যান্য internet terms গুলোর মতোই “Meme” শব্দটিও একটি নতুন শব্দ বলে ভাবার ভুল করবেননা।

কারণ, Meme র সবচে প্রথম ব্যবহার 1976 সালেই হয়ে গেছিলো আর তাই এটা একটি অনেক পুরোনো শব্দ।

Richard Dawkins এর বই The Selfish Gene সন 1976 এ প্রকাশিত হয়ে থাকে এবং সেখান থেকেই “Meme” শব্দের জন্ম হয়ে থাকে কারণ সেই বয়েই প্রথম বারের জন্যে মেমে ব্যবহার করা হয়।

Meme শব্দের মানে অনেক সাধারণ ভাবে বলা হয়েছে,

ধারণা এবং সাংস্কৃতিক ঘটনা প্রসারণ ব্যাখ্যা বিবর্তনীয় নীতি (evolutionary principles in explaining the spread of ideas and cultural phenomena).

Meme মানে হলো, একটি বিচার বা ব্যবহার যেটা সংস্কৃতিতে একজন থেকে আরেকজনের মধ্যে ছড়িয়ে পরে।

এটা আসল মিমের (meme) মানে যেটা Richard দ্বারা বলা হয়েছিল।

তবে, এখনের এই Internet Memes গুলোর মানে কিছুটা অন্য ভাবে বলা যেতে পারে।

Internet meme মানে হলো এমন কিছু idea, behavior, media activity বা style যেগুলোকে হাস্যকর, মিমিক্রি বা ধামালীর উদ্দেশ্যের সাথে ইন্টারনেট এর মাধ্যমে বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম গুলোর সাহায্যে ছড়ানো হয়।

একজন ব্যক্তির দ্বারা অন্য কোনো ব্যক্তি, স্থান, বস্তু ইত্যাদির ওপরে মেমে গুলো ব্যবহার বা তৈরি করা হয়।

Image, video, GIF যেকোনো media হিসেবে বা text হিসেবে meme গুলোকে তৈরি করা যেতে পারে।

Meme র মাধ্যমে সাধারণ লোকেদের মনোরঞ্জন হয়ে থাকে যার জন্যে মেমে গুলো লোকেদের প্রচুর পছন্দ হয়ে থাকে।

তাহলে আশা করছি মেমে (meme) কি (What is Meme in Bangla), বিষয়টা বুঝতেই পেরেছেন।

মেমে কত প্রকারের – (types of meme)

এমনিতে meme কিন্তু বিভিন্ন আলাদা আলাদা ব্যক্তি, বিষয়, বস্তু, জায়গা ইত্যাদির ওপরে বানানো যেতেই পারে।

তাই, মেমের প্রকার বললে সে অনেক ধরণের হতে পারে।

তবে, বর্তমান সময়ে এমন কিছু বিশেষ topics রয়েছে যেগুলোর ওপরে প্রচুর মেমে তৈরি করা হয় এবং সেগুলো লোকেরা অনেক পছন্দ করে থাকেন।

তাই, নিচে আমি এমন কয়েকটি types of Memes বলে দিচ্ছি যেগুলো বর্তমান সময়ে অনেক জনপ্রিয়।

Classics 

এই ধরণের মেমে গুলো দেখতে অনেক সাধারণ এবং সেগুলোতে একটি image থাকবে যেখানে একজন ব্যক্তি, জায়গা ইত্যাদির ছবি দেওয়া থাকবে।

ছবির ওপরে এবং নিচে Impact font এর সাহায্যে কিছু text লিখা থাকে।

এই সাধারণ ধরণের meme গুলোকে classic category তেই ধরা হয়।

Dank Memes 

এই ধরণের মেমে গুলোকে একটি বিশেষ ধারণার (idea) সাথে তৈরি করা হয়।

এই মেমে গুলো লোকেরা অনেক পছন্দ করে থাকেন এবং social media গুলোতে chatting করার ক্ষেত্রে এগুলোর প্রচুর ব্যবহার হয়ে থাকে।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এই ধরণের meme গুলো popular television shows, movies এবং games এর ওপরে তৈরি করা হয়।

Education 

এই ধরণের meme গুলো অনেক কাজের এবং লাভজনক প্রমাণিত হয়ে থাকে।

কারণ, এক্ষেতের education এর সাথে জড়িত বিভিন্ন ধরণের সমস্যার সমাধান গুলো meme হিসেবে অনেক মজা এবং হাস্যকর হিসেবে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়।

তাই, এই ধরণের মেমে গুলোর মাধ্যমে পড়াশোনার বিষয় গুলো সহজে মনে রাখা যেতে পারে।

The Trenders 

এই ধরণের Memes গুলো কেবল কিছু সময়ের জন্য অনেক জনপ্রিয়তা লাভ করে থাকে যদিও কিছু সময় পর এদের ব্যবহার করা হয়না বা লোকেরা এই মেমে গুলো পছন্দ করেননা।

কারণ, এই ধরণের মেমে গুলোকে কোনো একটি trending topic এর ওপরে বানানো হয় যেই topic নিয়ে কিছু সময়ের জন্য ইন্টারনেটে সাংঘাতিক বেশি পরিমানে সার্চ হচ্ছে।

তাই, যখন trending topic পুরোনো হয়ে যায় তখন topic এর সাথে জড়িত meme গুলোর ওপরেও লোকেদের রুচি থাকেনা।

The Series 

এমন অনেক মেমে রয়েছে যেগুলোকে সিরিজ হিসেবে তৈরি করা হয়।

মানে, একি বিষয়ের বা ধরণের একাধিক মেমে তৈরি করে শেয়ার করা।

আপনারা Instagram এর মধ্যে হয়তো অবশই দেখেছেন যে অনেকেই memes এর একটি সম্পূর্ণ collection শেয়ার করে থাকে যেগুলোর মূল বিষয় একি।

তাহলে বন্ধুরা, আশা করছি মেমে গুলোর প্রকার আপনারা ভালো করে বুঝতেই পেরেছেন।

Meme কিভাবে বানাবো ? (How to create Meme)

ফ্রীতে মেমে তৈরি করাটা অনেক সহজ একটি বেপার।

আপনারা বিভিন্ন অনলাইন টুল গুলো ব্যবহার করে যেকোনো ধরণের মেমে তৈরি করতে পারবেন।

যেমন, Canva হলো একটি অনেক শক্তিশালী এবং ফ্রি টুল যেটার মাধ্যমে সহজেই মেমে বানাতে পারবেন।

এছাড়া, image clip meme generator ব্যবহার করে সরাসরি meme বানিয়ে নিতে পারবেন।

যদি আপনি একটি android mobile ব্যবহার করছেন, তাহলে Meme generator free বা Memes Maker & Generator ব্যবহার করে যেকোনো সময় নিজের মোবাইল থেকে মেমে তৈরি করতে পারবেন।

এমনিতে, মেমে বানাতে আপনার একটি ছবি (photo) এবং ছবিতে text লেখার দরকার পরে থাকে।

তাই, Memes বানানোর জন্য আপনি যেকোনো একটি image editor tool বা app ব্যবহার করতে পারবেন।

Google play store এর মধ্যে প্রচুর ছবি এডিট করার এপস রয়েছে।

মেমে বানিয়ে ফলোয়ার্স বৃদ্ধি করুন

যদি আপনার একটি social media page বা group রয়েছে তাহলে মেমে বানিয়ে সেগুলোকে সেখানে শেয়ার করলে আপনার প্রচুর লাভ হতে পারে।

কারণ, social media page গুলোতে followers বাড়ানোর এবং ভিসিটর্স দের ধরে রাখার জন্যে মেমে অনেক কাজে আসে।

Facebook, Instagram, Twitter ইত্যাদিতে নিয়মিত মজার meme শেয়ার করলে লোকেরা আপনার page অনেক পছন্দ করবেন।

যার ফলে, ধীরে ধীরে followers দের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।

তবে এর জন্যে আপনাকে নিয়মিত funny, trending topic meme এবং unique meme বানিয়ে শেয়ার করতে হবে।

এই প্রক্রিয়া ব্যবহার করে অনেক কম সময়ের মধ্যে অনেক লোকেরা তাদের সোশ্যাল মিডিয়া পেজে ফলোয়ার্স বৃদ্ধি করতে পেরেছেন।

Meme বানিয়ে টাকা আয় কিভাবে করবেন ?

মেমে বানিয়ে টাকা আয় করার প্রক্রিয়া অনেক সহজ এবং সোজা।

তবে, আপনাকে নিয়মিত এবং সঠিক ভাবে কাজ করতে হবে।

সরচেয়ে প্রথমে আপনাকে একটি social media page (Facebook, Instagram etc.) বানাতে হবে।

এবার, নিজের পেজে নিয়মিত আকর্ষণীয় মেমে বানিয়ে শেয়ার করতে থাকুন।

যদি আপনার Meme গুলো অনেক মজার হয়ে থাকে তাহলে ধীরে ধীরে আপনার social media page এর মধ্যে followers বাড়তে থাকবে।

যখন, আপনার বানানো সোশ্যাল মিডিয়া পেজে ভালো পরিমানে followers হয়ে আসবে, তখন বিভিন্ন company বা brand গুলো paid promotion এর জন্য আপনাকে যোগাযোগ করবেন।

এছাড়া, আপনারা affiliate marketing করে নিজের পেজ থেকে প্রচুর ইনকাম করতে পারবেন।

যদি আপনার সোশ্যাল মিডিয়া পেজে প্রচুর ফলোয়ার্স হয়ে থাকে তাহলে আরো অনেক মাধ্যমেই ইনকাম করা যাবে।

 

আমাদের শেষ কথা,

তাহলে বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা জানলাম, Meme মানে কি ? (meme meaning in Bengali) এবং এর বিভিন্ন প্রকার গুলো। যদি আপনারা নিজের মোবাইল থেকে মেমে বানাতে চাইছেন তাহলে সেই বিষয়েও আমি ওপরে আপনাদের বলেছি।

বর্তমান সময়ে, Meme গুলোর জনপ্রিয়তা অনেক বেশি কারণ মেমে আমাদের প্রচুর মনোরঞ্জন দিয়ে থাকে।

তাই, মেমে বলতে কি বুঝায় বিষয়টি নিয়ে লিখা আজকের আর্টিকেল যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে আর্টিকেলটি অবশই শেয়ার করবেন।

এছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap