গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট কি ? এর কাজ কি এবং সেটিং কিভাবে করবেন

Google assistant কি ? (what is Google assistant in Bangla), আজকের আর্টিকেলে আমরা এবিষয়ে জানবো।

গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট কি
Google assistant এর বিষয়ে।

আগেকার সময়ের ইংরেজি ছবি (movies) গুলোতে আমরা দেখতাম যে সেখানে বিভিন্ন robots বা electrical equipment ও device গুলোকে voice এর মাধ্যমে নির্দেশ দেওয়া যেতো।

তবে, এই প্রক্রিয়াকে বলা হতো “voice based artificial intelligence“.

কেবল শব্দের মাধ্যমে (voice) একটি electronic device কে নিয়ন্ত্রণ করা বা কাজ করানোটা, বাস্তব জীবনে কখনো সত্যি হতে পারে বলে আমরা ভাবতেও পারিনাই।

কিন্তু, প্রযুক্তির বিকাশ ও উন্নয়নের ফলে, আজ আমরা আমাদের ঘরে এবং দপ্তরে এই ধরণের Artificial intelligence প্রযুক্তির ব্যবহার করছি।

এবং এই Artificial Intelligence গুলোর মধ্যে কিছু হলো “Alexa“, “Siri” এবং “Google assistant“.

এখনের বর্তমান সময়ে আমরা AI এর মাধ্যমে,

গান শোনা, নিউজ শোনা, video play, weather এর বিষয়ে জানা, কোনো ব্যক্তিকে ফোন বা এস এম এস (SMS) করা ইত্যাদি এরকম বিভিন্ন ধরণের কাজ গুলো করে নিতে পারি নিজের হাত না লাগিয়ে কেবল voice command এর মাধ্যমে।

তবে, এই ধরণের AI এর লাভ আমরা সহজেই নিতে পারছি কেবল Google এর Google assistant ব্যবহার করে।

কেননা, গুগল এর ফলেই আজ প্রত্যেক Android mobile user এই আধুনিক প্রযুক্তির সুবিধা নিতে পারছেন।

যদি আপনার এন্ড্রয়েড মোবাইলে Google Assistant দেওয়া রয়েছে,

তাহলে আপনারা কেবল “voice command” এর মাধ্যমেই নিজের মোবাইল না ছুঁয়ে মোবাইল কে আদেশ দিতে পারবেন।

Google এর Artificial Intelligence (AI) বর্তমান সময়ে প্রচুর উন্নত হয়ে দাঁড়িয়েছে।

অনেক সহজেই Google এর AI আমাদের অন্যান্য device গুলোর সাথে integrate হয়ে যেতে পারে।

বর্তমানে গুগল এসিস্টেন্ট অনেকের দৈনন্দিন জীবনের একটি ভাগ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আর তাই আমি ভাবলাম, “গুগল এসিস্টেন্ট কি“, এবিষয়ে আপনাদের সম্পূর্ণ সহ বুঝিয়ে বলি।

তাছাড়া, আমরা এই আর্টিকেলে জানবো যে, গুগল এসিস্ট্যান্ট এর কাজ কি এবং এন্ড্রয়েড মোবাইলে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সেটিং কিভাবে করতে হয়।

গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট কি ? (What Is Google Assistant)

গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট হলো গুগলের নিজের Smart Voice Controlled Assistant যেটা মূলত Artificial Intelligence (AI) এর ওপর কাজ করে।

Google এর এই virtual assistant মূলত mobile এবং smart home devices গুলোর জন্য উপলব্ধ করা হয়েছে।

এমনিতে, গুগলের আগের একটি virtual assistant রয়েছে যেটাকে আমরা Google now এর নামে জানি।

এবং, বলা হয় যে Google Assistant হলো Google Now  এর একটি extension যেটাকে ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য তৈরি করা হয়েছিল।

এটা, Google এর আগের থেকে থাকা “Ok Google” voice control এর একটি উন্নত মডেল বা প্রযুক্তি।

এটাকে তৈরি করা হয়েছে, মোবাইল ফোন এবং স্মার্ট হোম ডিভাইস গুলোতে voice command এর সুবিধাজনক ব্যবহারের উদ্দেশ্যে।

Voice command ব্যবহার করে গুগল এসিস্টেন্ট এর সাথে আপনারা যেকোনো ধরণের কথা বলতে পারবেন।

যেকোনো ধরণের প্রশ্ন জিগেশ করার সাথে সাথেই আপনাকে উত্তর দিয়ে দেয় গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট।

Google assistant, “ভয়েস” এবং “টেক্সট” দুধরণেরি command সাপোর্ট করে।

তাহলে বুঝলেন তো, গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট কি ও কাকে বলে।

গুগল নাও (Google now) কি ?

Google now হলো গুগলের দ্বারা তৈরি voice-activated personal assistant যেটাকে গুগল এসিস্ট্যান্ট এর পুরোনো ভার্সন (version) বলেও বলা হয়।

Google now সম্পূর্ণটা প্রায় Apple এর Siri এবং Microsoft এর Cortana’র মতোই।

এটা আসলে Android এবং iOS device গুলোতে থাকা Google search app এর একটি feature ছিল।

এর মাধ্যমে আমরা natural-sounding voice command ব্যবহার করে বিভিন্ন কাজ করিয়ে নিতে পারতাম।

যেমন, ভয়েস কমান্ড এর মাধ্যমে ইন্টারনেট সার্চ, alarms দেওয়া, volume adjust করা, social media posting ইত্যাদি।

Google now এর ব্যবহার তখন প্রচুর সুবিধাজনক ছিল, যখন আপনারা নিজের device / mobile টিকে হাত না লাগিয়েই ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারতেন।

Ok Google” voice command এর ব্যবহার করে, screen lock থাকা অবস্থাতেও hands-free accessibility এর সুবিধা ছিল।

তবে, বর্তমানে Google দ্বারা Google Now এর সুবিধা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু, গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট এর সেবা এখনো বন্ধ করা হয়নি তবে একে আরো উন্নত করে দেওয়া হয়েছে।

Google assistant কে আমরা Google Now এর আধুনিক version হিসেবে বলতে পারি।

কারণ, গুগল এর এই আধুনিক অ্যাসিস্ট্যান্ট গুগল নাও এর মতো একি সব কাজ গুলো করে এবং সাথে আরো নতুন নতুন কাজ গুলো করতে পারে।

তাছাড়া, গুগল এসিস্ট্যান্ট এর interface প্রচুর friendlier এবং conversational.

মোবাইলে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সেটিং কিভাবে করবেন ?

নিজের মোবাইল ফোনে (smartphone) গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট ব্যবহার করার জন্য, প্রথমে আপনাকে এই সুবিধাটি activate করতে হবে।

তবে চিন্তা করবেননা, গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সেটিং অনেক তাড়াতাড়ি করে নিতে পারবেন।

How to enable assistant in Android mobile – 

  • সবচে আগে নিজের এন্ড্রয়েড মোবাইলে Google app ওপেন করুন।
  • নিচে হাতের ডান দিকে থাকা “more” অপশনে ট্যাপ করুন।
  • এবার চলে আসুন settings >> Google assistant অপশনে।
  • এখন assistant ট্যাব এর মধ্যে চলে আসুন।
  • এবার assistant devices এর নিচে থাকা phone অপশনে ট্যাপ করুন।
  • সব থেকে ওপরে আপনারা “Google assistant” এর option দেখতে পাবেন। এখন সোজা enable করে দিন।
  • শেষে, voice match এর নিচে থাকা “Hey Google” অপশনে ট্যাপ করে enable করে নিন।

এবার আপনার মোবাইলে অ্যাসিস্ট্যান্ট চালু হয়ে গেছে।

তবে সঠিক ভাবে আপনার মোবাইলে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সেটিং হয়েছে কি না সেটা একবার দেখে নিন।

এর জন্য, আপনারা মোবিলের সামনে “Hey Google” বা “Ok Google” বলে, কিছু voice command দিয়ে দিন।

যেমন, “Hey Google, open funny videos on YouTube”.

মনে রাখবেন, কিছু কিছু মোবাইলে screen lock থাকা অবস্থায় assistant কাজ করবেনা।

এক্ষেত্রে, আপনাকে মোবাইল আনলক করেই গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট এর ব্যবহার করতে হবে।

Google assistant এর কাজ কি ?

গুগল এসিস্ট্যান্ট আপনার mobile device এর সাথে জড়িত প্রায় প্রত্যেকটি কাজ কেবল voice command এর মাধ্যমে করে নিতে পারে।

তাই বলতে গেলে, এই অ্যাসিস্ট্যান্ট বিভিন্ন ধরণের কাজ করতে পারে।

যেমন,

  • Music control করা। 
  • Internet search এর মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করা। 
  • টাইপ না করেই messages পাঠানো।
  • যেকোনো app open করা।
  • Alarm ও timer set করা যাবে।
  • Weather এর বিষয়ে জানতে পারবেন।
  • hands-free assistant এর মাধ্যমে phone call করতে পারবেন। 
  • মোবাইলের notification গুলো আপনার জন্য পড়তে পারে। 

গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট Android operating system এর একটি feature যেটা আমাদেরকে mobile না ধরেই মোবাইলের সাথে জড়িত প্রায় প্রত্যেকটি কাজ করতে সাহায্য করে।

আপনি আপনার অ্যাসিস্ট্যান্ট কে যেকোনো ধরণের প্রশ্ন জিগেশ করতে পারবেন।

এবং, Google assistant জিগেশ করা প্রশ্নের সঠিক উত্তর আপনাকে দিয়ে থাকে।

গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট এর ইতিহাস

Google assistant এর ইতিহাস বলতে তেমন কিছুই নেই।

তবে, এর সাথে জড়িত সব থেকে পুরোনো ভাগ বা ভার্সন ছিল “Google voice search“.

Voice search সব থেকে প্রথমে Android smartphones এবং Desktop PC র Chrome এর জন্য ২০১১ সালে নিয়ে আসা হয়েছিল।

তবে, সেই সময় Google এর voice search function তেমন advanced ছিলোনা যতটা আজ আছে।

এমনিতে, voice এর মাধ্যমে দেওয়া আদেশ হিসেবে google search করাটা ছিল voice search এর কাজ, যেটা সে ভালো করেই করতো।

Google voice search এর পর এর একটু আধুনিক ও উন্নত ভার্সন আসলো যেটাকে আমরা Google Now হিসেবে জানি।

এটা, voice command এর মাধ্যমে Google search করা ছাড়াও আরো অনেক কাজ করতে পারতো।

Google now কে ২০১২ সালে release করা হয়েছিল।

এর পর, Google now এর আরো একটি উন্নত ও আধুনিক version release করা হলো ২০১৬ সালে, যেটাকে আমরা Google assistant বলে জানি।

বর্তমানে কোন device গুলোতে Google assistant রয়েছে ?

এমনিতে Google pixel smartphone এর জন্য সব থেকে প্রথমে Google assistant ব্যবহার বা লঞ্চ (launch) করা হয়েছিল।

তার পর Google home এর জন্য এর ব্যবহার চালু করা হলো।

এর পরে ধীরে ধীরে প্রায় প্রত্যেক modern Android device গুলোতেও এর সুবিধা দিয়ে দেওয়া হলো।

বর্তমান সময়ে আধুনিক এন্ড্রয়েড টিভি (Android TV) গুলোতেও গুগল এসিস্ট্যান্ট এর সুবিধা দিয়ে দেওয়া হয়।

Google Home Devices

Google home হলো একটি Chromecast-enabled smart speaker যেটাকে গুগল দ্বারা তৈরি করা হয়েছে।

এই device টি ব্যবহার করে গুগলের voice assistant যার ব্যবহার করে আমরা voice command এর মাধ্যমে বিভিন্ন কাজ গুলো করিয়ে নিতে পারি।

যেমন, messages broadcast, গল্প শোনা, গান শোনা, প্রশ্ন জিগেশ করা, নতুন ভাষা শেখা ইত্যাদি।

এই ডিভাইস artificial intelligence technology র ব্যবহার করে এবং আমাদের প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সাথে সাথে আমাদের কিছু আদেশ পালন করে।

Android wear

Google এর Android wear OS হলো Android operating system এর একটি version যেটাকে বিশেষ করে smart watch গুলোর জন্য তৈরি করা হয়েছে।

Wear OS এর 2.0 update এর পর এখন smart watch গুলোতেও Google assistant এর feature যোগ করা হয়েছে।

তাই, এখন প্রায় প্রত্যেক Android wears গুলোতে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট ব্যবহার করা যাবে।

Android TV

বর্তমান সময়ের প্রায় প্রত্যেক Android smart TV গুলোতেই Google assistant এর সুবিধা রয়েছে।

Smartphones & tablets

Assistant এর service প্রায় প্রত্যেক নতুন smartphones এবং tablets গুলোতে রয়েছে।

এমনিতে কিছু পুরোনো android mobile গুলোতেও অ্যাসিস্ট্যান্ট এর সেবা ব্যবহার করা সম্ভব।

তবে, পুরোনো মোবাইল গুলোতে কমেও Android 5.0 থাকতেই হবে।

Smart speaker

একটি smart home এর setup করার জন্য সব থেকে প্রথমেই একটি smart speaker বা smart display এর প্রয়োজন।

একটি smart speaker আপনার হিসেবে গান চালাতে পারে এবং আপনার প্রত্যেক প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দিতে পারে।

তাছাড়া, আপনার ঘরে থাকা অন্যান্য smart device গুলোর সাথেই সংযুক্ত হয়ে সেগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।

আর এই smart speaker গুলোতেও Google assistant এর feature রয়েছে।

Google smart display

অনেক Google smart display গুলোতে বর্তমানে অ্যাসিস্ট্যান্ট এর সুবিধা দেওয়া হয়েছে। কিছু জনপ্রিয় company গুলো যেমন, Lenovo এবং JBL দ্বারা এর ব্যবহার শুরু হয়ে গেছে।

Cars

গুগলের দ্বারা বলা হয়েছে যে এখন Google assistant বিভিন্ন cars গুলোর জন্য উপলব্ধ করা হবে। Car গুলোতে এর উপলব্ধ করা হবে android auto infotainment system এর মাধ্যমে।

আপনার মোবাইলে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট আছে ?

আপনার মোবাইলে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট এর সুবিধা আছে কি নেই সেটা জানাটা অনেক সহজ।

এর জন্য আপনি, নিজের মোবাইলের home button টিকে জোরে press করে রাখুন।

যদি আপনার মোবাইলে অ্যাসিস্ট্যান্ট এর সুবিধা রয়েছে, তাহলে আপনারা “Select your assistant language” এর পেজ দেখতে পাবেন।

নিজের পছন্দের ভাষা select করার পর আপনারা Google assistant screen এবং অন্যান্য settings দেখতে পাবেন।

যদি আপনার mobile ফোনে home button press করার পর assistant screen আসছেনা, তাহলে ভাববেন আপনার মোবাইলে Google assistant এর সুবিধা নেই।

আপনার মোবাইলে অ্যাসিস্ট্যান্ট এর সুবিধা থাকার জন্য কিছু প্রয়োজনীয়তাও রয়েছে।

যেমন,

  • মোবাইলে Android 5.2 বা তার থেকে বেশি android version থাকতে হবে।
  • 1.5 GB বা তার থেকে অধিক RAM থাকতে হবে।
  • মোবাইলে Google play services থাকতে হবে।
  • মোবাইলের screen resolution কমেও 720p থাকতে হবে।

এখন হয়তো আপনারা বুঝে গেছেন যে, আপনার মোবাইলে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সাপোর্ট করবে কি করবেনা।

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, আশা করছি গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট কি, সেটিং কিভাবে এবং এর সাথে জড়িত সম্পূর্ণ তথ্য আপনারা পেয়ে গেছেন।

আমার সব সময় এটাই চেষ্টা থেকেছে যাতে আমি আপনাদের সম্পূর্ণ কাজের এবং সঠিক তথ্য দিয়ে দিতে পারি।

তাই, “about google assistant in Bengali” নিয়ে লিখা আজকের আর্টিকেল যদি আপনাদের ভালো লেগেছে,

তাহলে আর্টিকেলটি শেয়ার অবশই করবেন।

তাছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে, নিচে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন।

0 Shares

A Blogger & Author ! Rahul Das is recognized as a technology Blogger who founded "BanglaTech" & "SidhaJawab". He is passionate about blogging. ❤️

1 thought on “গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট কি ? এর কাজ কি এবং সেটিং কিভাবে করবেন”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap