Captcha এন্ট্রির কাজ করে সহজেই করুন ইনকাম – ($100 monthly)

ঘরে বসে নিজের খালি সময়ে কাজ করে মাসে প্রায় ৫০০ থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত অনলাইনে ইনকাম করার ক্ষেত্রে, ক্যাপচা পূরণ করে আয় করাটা একটি অনেক জনপ্রিয় উপায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া, ক্যাপচা লিখে আয় করার এই অনলাইন কাজ আমার এবং আপনার মতো সাধারণ লোকেরা নিজের মোবাইল বা ল্যাপটপের দ্বারা অনেক সহজেই করে নিতে পারি।

Captcha Typing jobs online

ক্যাপচা পূরণ করে অনলাইনে ইনকাম করার এই ধরণের মাধ্যম গুলোতে তেমন বেশি ইনকাম হবেনা যদিও এই অনলাইন ক্যাপচা এন্ট্রি জব গুলি অনেকটাই সোজা। এছাড়া, Captcha টাইপিং করে আয় করার এই কাজ গুলোতে আপনার তেমন কোনো qualification, knowledge বা skills এর প্রয়োজন হয়না।

তবে হে, এই মাধ্যমে অধিক বেশি পরিমানে ইনকাম করার জন্য, “কম্পিউটারে টাইপিং স্পিড দ্রুত” হওয়াটা খুব জরুরি। কেননা, যত তাড়াতাড়ি captcha typing করতে পারবেন, ততটাই বেশি ইনকামের সুযোগ থাকবে।

ক্যাপচা পূরণের কাজ করার ক্ষেত্রে, আপনার একটি computer, laptop বা smartphone এর প্রয়োজন হবে। হে, আপনি এই কাজ নিজের মোবাইল দিয়ে করেই অনলাইনে ইনকাম করতে পারবেন।

যদি আপনি প্রত্যেক দিন প্রায় ২ থেকে ৩ ঘন্টা কাজ করে থাকেন, তাহলে মাসে প্রায় ১০০০/- থেকে ৩,০০০/- মধ্যে টাকা আয় করতে পারবেন। অবশই, আপনার আয় করা টাকার পরিমান, আপনার টাইপিং স্পিড এবং টাইপিং সঠিকতার ওপর অনেকটা নির্ভর করবে।

এমনিতে, ঘরে বসে অনলাইনে কাজ করে কমেও প্রতিদিন ২০০ টাকা ইনকাম করার ক্ষেত্রে, “ক্যাপচা এন্ট্রির কাজ” সেরা মাধ্যম হিসেবে ধরা হয়। (Earn money online from captcha typing work).

ক্যাপচা কোড কি – (What is captcha code)

বেশিরভাগ সময়, আমরা যখন ইন্টারনেটে বিভিন্ন ওয়েবসাইট গুলোতে গিয়ে একটি একাউন্ট তৈরি করি, তখন কিছু সংখ্যা বা ছবি দেখে সেগুলো আবার একটি বক্সে টাইপ করার জন্য বলা হয়।

ক্যাপচা পূরণ করে ইনকাম
Earn money online with captcha entry sites.

ওপরে ছবিতে দেখে আপনারা ভালো করে বুঝতে পারবেন।

“Captcha” code হলো ছবিতে থাকা সেই অক্ষরমালা (alphabets) গুলো, যেগুলোকে অস্পষ্ট ভাবে প্রকাশ করা হয়েছে।

এবং, সেই অস্পষ্ট বর্ণমালা বা অক্ষরমালা গুলোকে যখন আমরা নিচে থাকা “captcha filling box” এ সঠিক ভাবে type করি, তখন সেই প্রক্রিয়াকেই বলা হয় “captcha typing“.

ইন্টারনেটে বিভিন্ন ক্ষেত্রে এই captcha words গুলো ব্যবহার করার একটাই কারণ রয়েছে। সেটা হলো, অপ্রয়োজনীয় automated robots দের অনলাইনে fake account / bulk account তৈরির থেকে বাধা দেওয়া।

কারণ, একটি automated robot ইন্টারনেটে fake account তৈরি করার ক্ষেত্রে, সব রকমের details নিজে নিজে ভরে নিতে পারবে। তবে, যখন captcha সম্পূর্ণ করার সময় আসবে, তখন সেটা automated robots রা সম্পূর্ণ করতে পারবেনা।

কারণ, captcha code গুলো কিছু সংখ্যা, শব্দ বা ছবির মিশ্রণ থাকে যেগুলো কেবল মানুষের ক্ষেত্রে বুঝা সম্ভব। কোনো robot বা machine সেগুলো বুঝতে পারবেনা।

ফলে, বিভিন্ন সংগঠন বা কোম্পানি গুলো fake account খুলতে পারেননা। আর এটাই হলো ক্যাপচা কোড এবং ক্যাপচা কোড এর কাজ।

তাই, সোজা ভাবে বললে captcha হলো online verification process, যেটা automated programs এবং robots গুলোকে fake account তৈরির ক্ষেত্রে বাধা দেয়। আশা করছি, “ক্যাপচা কি“, বিষয়টা বুঝতে পারছেন।

ক্যাপচা পূরণ করে আয় করার কাজ গুলো কি?

অনলাইনে ক্যাপচা এন্ট্রির কাজ করে টাকা ইনকাম করার প্রক্রিয়া অনেক সোজা। ইন্টারনেটে ক্যাপচা লিখে আয় করার এরকম অনেক captcha typing websites গুলি রয়েছে, যেখানে আপনারা ক্যাপচা সলভিং কাজ করতে পাবেন।

ক্যাপচা পূরণ করে আয় করার এই ওয়েবসাইট গুলোতে গিয়ে আপনাকে দেওয়া captcha code গুলো দেখে টাইপ করতে হবে। হে, কেবল এটাই হলো কাজ। তবে প্রথমে, এই ক্যাপচা এন্ট্রির ওয়েবসাইট গুলোতে গিয়ে আপনার একটি একাউন্ট তৈরি করতে হবে।

create captcha solving account

ওপরে ছবিতে অবশই দেখতেই পারছেন, একাউন্ট তৈরির ক্ষেত্রে আপনি একটি registration form দেখতে পাবেন।

Registration form এ, কিছু সাধারণ তথ্য থাকবে যেমন,

  1. আপনার নাম
  2. ইমেইল আইডি
  3. নতুন পাসওয়ার্ড
  4. কিছু অন্যান্য সাধারণ প্রশ্ন

এভাবে নিজের তথ্য গুলো দিয়ে, একটি captcha solving website এ account তৈরি করতে পারবেন। এমনিতে প্রত্যেক ক্যাপচা সলভিং ওয়েবসাইট গুলোতে একাউন্ট তৈরির প্রক্রিয়া একি ধরণের।

একাউন্ট তৈরি করার পর আপনার কি করতে হবে?

  • প্রথমে আপনার কেবল একটি একাউন্ট রেজিস্টার করতে হবে।
  • একাউন্ট তৈরি করার পর captcha typing এর কাজ শুরু করতে পারবেন।
  • আপনাকে, কিছু বর্ণমালা, শব্দের মিশ্রণ বা সংখ্যার ছবি দেখানো হবে, সেগুলো ভালো করে দেখে “captcha box” এ টাইপ করতে হবে।
  • মনে রাখবেন, শব্দ, সংখ্যা বা অক্ষর গুলো ভালো করে দেখে সঠিক ভাবে বক্সে type করতে হবে।
  • এভাবে ১০০০ টি captcha image সঠিক ভাবে বাক্সতে type করার পর, আপনার একাউন্টে $1 থেকে $2 এর ভেতরে টাকা দেওয়া হবে।
  • আপনি আপনার আয় করা টাকা, paypal, webmoney বা account transfer এর মাধ্যমে তুলতে পারবেন।

তাহলে, ক্যাপচা এন্ট্রি জব গুলিতে প্রায় এই কয়টা বিষয় রয়েছে। এখন, ক্যাপচা পূরণ  করার মাধ্যমে অনলাইনে ইনকাম করার জন্য, আপনার প্রয়োজন হবে কিছু ভালো “ক্যাপচা এন্ট্রি ওয়েবসাইট গুলোর“।

এমনিতে, ইন্টারনেটে প্রচুর ক্যাপচা সলভিং ওয়েবসাইট রয়েছে। তবে তাদের মধ্যে অনেক কিন্তু fake website থাকতেই পারে এবং হতে পারে অনেক সাইট আপনাকে কাজ করিয়ে টাকা দিবেনা।

তাই, ক্যাপচা পূরণ করে টাকা আয় করার কিছু ভালো ওয়েবসাইট গুলোর বিষয়ে আমি নিচে বলবো, যেগুলি অনেকেই ব্যবহার করছেন এবং সাইট গুলির অনলাইন রিভিউ আমার হিসেবে ভালো।

ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করার ৭ টি সেরা ক্যাপচা সাইট:

আমি আগেই বলেছি এবং আবার বলবো, ক্যাপচা টাইপ করে অধিক টাকা আয় করার একটা বিশেষ কৌশল রয়েছে।

সেটা হলো, আপনার captcha typing speed, তাই যতটা ভালো আপনার টাইপিং স্পিড হবে, ততটাই বেশি আপনি ইনকাম করতে পারবেন। আপনার টাইপিং স্পিড “30+ words per minute” হলে, আপনি অন্যদের থেকে অধিক আয় করতে পারবেন।

ক্যাপচা এন্ট্রি জব: Best captcha typing work websites

নিচে দেওয়া ওয়েবসাইট গুলোর মধ্যে প্রত্যেকেরই ১০০০ ক্যাপচা পূরণ করার রেট আলাদা আলাদা। তাই, একাউন্ট রেজিস্টার করার আগেই জেনেনিন যে, ১০০০ ক্যাপচা পূরণ করার পর আপনাকে কত টাকা দেওয়া হবে।

ওপরে দেওয়া captcha typing website গুলো বর্তমানে সব থেকে অধিক টাকা আমাদের দেয়। চলুন নিচে বিস্তারিত ভাবে প্রতিটি ক্যাপচা সাইটের বিষয়ে জানুন এবং আজ থেকেই ঘরে বসে ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করুন।

১. Kolotibablo – ক্যাপচা এন্ট্রির কাজ  

Kolotibablo.com, হলো বিশ্বের সেরা ক্যাপচা এন্ট্রির কাজ দেওয়া ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইট কাজ করে আপনারা, “$0.35 থেকে $1” র ভেতরে প্রত্যেক সঠিক ১০০০ ক্যাপচা পূরণ করার ফলে আয় করতে পারবেন।

এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইনে আয় করা সেরা ১০০ জনের ইনকামের বেপারে ইন্টারনেটে সার্চ করলে, আপনারা পাবেন তারা “$100 থেকে $200” এর ভেতরে আয় করছেন.

তবে, এই ক্যাপচা ওয়েবসাইটের একটি কঠোর নিয়ম রয়েছে।

ক্যাপচা টাইপিং এর ক্ষেত্রে অধিক বেশি ভুল করলে আপনার account suspend হয়ে যাওয়ার ভয় থাকবে। এখানে আয় করা টাকা আপনারা সুতি মাধ্যমে গ্রহণ করতে পারবেন।

  1. Payza
  2. WebMoney 

যদি এই দুটি web wallet আপনার নেই, তাহলে সহজে একটি তৈরি করে নিতে পারবেন। একটি account register করে login করার পর, সাথে সাথে কাজ শুরু করতে পারবেন।

২. MegaTypers – Online Captcha Entry Work 

ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করুন

MegaTypers, হলো প্রত্যেক captcha typing job websites গুলোর মধ্যে সব থেকে জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইট বর্তমান সময়ে অনেকেই ব্যবহার করে ঘরে বসেই অনলাইন ইনকাম করছেন।

এখানে আপনারা ফ্রীতেই একটি একাউন্ট তৈরি করে কাজ আরম্ভ করতে পারবেন।

অনেক অভিজ্ঞতা থাকা এবং সেরা টাইপার রা, প্রত্যেক মাসে $100 থেকে $250 ভেতরে এখান থেকে আয় করছেন। অভিজ্ঞতা না থাকা নতুনরা এই ওয়েবসাইট থেকে $0.45 প্রত্যেক ১০০০ captcha image solve করার বিপরীতে আয় করতে পারবেন।

তবে, experience থাকা লোকেরা $1.5 অব্দি টাকা প্রত্যেক ১০০০ টি ক্যাপচা সল্ভ করার বিপরীতে আয় করতে পারবেন। আয় করা টাকা আপনারা বিভিন্ন মাধ্যমে তুলতে পারবেন।

যেমন,

  • Debit Cards,
  • Bank Checks,
  • PayPal,
  • WebMoney,
  • Perfect Money,
  • Payza,
  • Western Union.

আপনি যদি প্রথম বারের জন্য এই কাজ শুরু করছেন, তাহলে megatypers থেকেই আরম্ভ করতে পারেন।

৩. 2Captcha – ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করুন

ক্যাপচা এন্ট্রি করে আয় করুন

2captcha.com, আপনি সহজেই প্রায় $1 আয় করে নিতে পারবেন প্রত্যেক ১০০০ ক্যাপচা পূরণ করার জন্য। তাছাড়া, কিছু complicated captcha solve করার জন্য আপনি আলাদা করে bonus income ও পেয়ে যেতে পারবেন।

এমনিতে এই ক্যাপচা টাইপিং ওয়েবসাইটে, আপনারা অন্যান্য লোকেদের রেফার (refer) করে কিছু এক্সট্রা ইনকাম করে নিতে পারবেন। Account register করার সাথে সাথে কোনো ঝামেলা ছাড়াই, টাইপিং এর কাজ শুরু করতে পারবেন।

আয় করা টাকা তুলার জন্য,

  • PayPal,
  • Payza,
  • WebMoney.

এই তিনটি মাধ্যম ব্যবহার করতে পারবেন।

PayPal এর ক্ষেত্রে minimum payout $5 এবং webmoney র ক্ষেত্রে $0.5 আর Payza র ক্ষেত্রে minimum payout $1.

4. Captcha2Cash – ওয়েবসাইট বন্ধ হয়েছে 

Captcha2cash, এমনিতে অনেক সংখ্যক লোকেরা রয়েছেন যারা এই ওয়েবসাইটে কাজ করে পার্ট টাইম অনলাইনে আয় করছেন। এই ক্ষেত্রে, ক্যাপচা পূরণ করে আয় করার জন্য আপনার একটি software download করতে হবে।

Software টি computer বা laptop এ ডাউনলোড করার পর, সেই সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনি ক্যাপচা পূরণের কাজ করতে পারবেন। তবে, আয় করা টাকা তোলার জন্য বিশেষ কোনো সুবিধে দেওয়া হয়নি যদিও “Payza” এবং “Perfect Money” র option আপনার কাছে থাকবে।

Captcha2Cash থেকে আপনারা প্রায় $1 অব্দি প্রত্যেক ১০০০ ক্যাপচা ইমেজ সল্ভ করার বিপরীতে আয় করতে পারবেন।

৫. ProTypers – সেরা ক্যাপচা এন্ট্রি জব

Protypers captcha entry job website

ProTypers, ওয়েবসাইটটি প্রায় megatypers ওয়েবসাইটের মতোই সাধারণ।

এখানেও আপনারা, প্রত্যেক ১০০০ ক্যাপচা ইমেজ পূরণ করার বিনিময়ে $0.45 থেকে $1.5 টাকা আয় করে নিতে পারবেন।

আপনি নিজের আয় করা টাকা বিভিন্ন মাধ্যম যেমন,

  • PayPal,
  • Payza,
  • Western Union.

এগুলো ব্যবহার করে তুলে নিতে পারবেন।

৬. Virtual Bee – সাইট বন্ধ হয়েছে 

virtualbee.com, ২০০১ সালের থেকে এই কোম্পানি ইন্টারনেটে সক্রিয় রয়েছে এবং ক্যাপচা টাইপিং এর কাজে এই ওয়েবসাইট অনেক পুরোনো।

এখানে, কেবল captcha টাইপিং এর কাজ ছাড়াও, অনেক ধরণের ছোট ছোট কাজ করে অনলাইনে আয় করতে পারবেন।

একবার একাউন্ট রেজিস্টার করা পর, আপনাকে এক ধরণের পরীক্ষা (evaluation test) দিতে হবে, যেখানে ০ থেকে ১০০ ভেতরে আপনাদের নম্বর দেওয়া হবে।

আপনার পরীক্ষাতে পাওয়া ফলাফল ও নম্বর এর অনুযায়ী আপনাকে কাজ দেওয়া হবে।

৭. Fast Typers

FastTypers.org, এর মাধ্যমে ক্যাপচা পূরণের কাজ করে আপনারা প্রায় $1.5 প্রত্যেক ১০০০ captcha image পূরণ করার বিনিময়ে পাবেন।

এই ওয়েবসাইটে আপনারা রাত ১২ টা থেকে ভোর ৫ টার মধ্যে কাজ করলে, ক্যাপচা পূরণের বিনিময়ে অধিক আয় করতে পারবেন।

৮. QlinkGroup

এখানেও আপনার প্রথমে নিজের computer বা laptop এ qlink group এর software download করতে হবে। তারপর, software এর মাধ্যমেই আপনারা কাজ করতে পারবেন। এমনিতে এটা সম্পূর্ণ ফ্রি এবং কোনো টাকা না দিয়েই আপনারা কাজ করতে পারবেন।

আপনারা, download the qlink group software লিংক থেকে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে, তারপর সেখানে থাকা তথ্যের হিসেবে কাজ করতে পারবেন।

৯. CaptchaTypers – ক্যাপচা লিখে আয় করুন 

ক্যাপচা এন্ট্রি জব

CaptchaTypers, ওয়েবসাইটে পুরো বিশ্বের থেকে অনেক লোকেরা কাজ করছেন এবং প্রায় $200 থেকেও অধিক ক্যাপচা এন্ট্রি করে প্রত্যেক মাসে আয় করছেন।

এমনিতে, তাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনারা একটি ফ্রি একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন। এর পর আপনাকে, আপনার login details ইমেইল এর মাধ্যমে ফ্রীতেই দিয়ে দেওয়া হবে।

এখানেও software এর মাধ্যমে কাজ হয় যেটা আপনি ডাউনলোড করতে পারবেন।

প্রত্যেকটি ক্যাপচা পূরণ করার জন্য আপনাকে একটি সীমিত সময় ধরে দেওয়া হবে। আপনাকে সেই সময়ের ভেতরেই captcha type করে জমা দিতে হবে। নাহলে, আপনার একাউন্ট ৩০ মিনিটের জন্যে ব্যান্ড (band) করা হবে।

তাহলে, ওপরে বলা ক্যাপচা এন্ট্রি করে টাকা আয় করার ওয়েবসাইট গুলো ব্যবহার করে আপনারা অনলাইনে পার্ট টাইম কাজ করে আয় করতে পারবেন।

FAQ: ক্যাপচা লিখে আয় করুন:

১. কিভাবে ক্যাপচা এন্টি করে ইনকাম করা যাবে?

এক্ষেত্রে, আপনাকে একটি ভালো ও বিশ্বস্ত ক্যাপচা সাইটে গিয়ে একটি একাউন্ট তৈরি করতে হবে এবং সেখানে আপনাকে ক্যাপচা পূরণ করার নানান কাজ গুলি দেওয়া হবে।

২. অনলাইনে ইনকাম করার সেরা ক্যাপচা সাইট কোনটি?

ঘরে বসে ক্যাপচা পূরণ করে অনলাইনে টাকা আয় করার এমনিতে প্রচুর সাইট রয়েছে। এই ধরণের কিছু সাইট গুলির নাম নিচে বলে দেওয়া হলো – 2Captcha, Kolotibablo, Captcha2Cash, CaptchaTypers, BestTypers এবং আরো আছে।

৩. ক্যাপচা এন্ট্রি করে কত টাকা আয় করা যায়?

এমনিতে, যদি আপনার ইংরেজি টাইপিং স্পিড অনেক ভালো এবং কোনো ভুল ছাড়া কোড গুলি দেখে তাড়াতাড়ি টাইপ করতে পারেন, সেক্ষেত্রে মাসে ৫০ থেকে ২০০ ডলার ইনকাম করা যেতে পারে।

৪. Captcha পূরণের কাজ করে টাকা কিভাবে তুলবেন?

Captcha পূরণের কাজ করার বেশিরভাগ ওয়েবসাইট গুলি বিদেশী। তাই, এই বেশিরভাগ বিদেশি ইনকাম সাইট গুলির থেকে টাকা তুলার জন্য আপনাকে PayPal ব্যবহার করতে হবে।

আমাদের শেষ কথা,

বন্ধুরা, যদি আপনাদের কাছে কিছু খালি সময় (extra time) রয়েছে, তাহলে অবশই, ওপরে দেওয়া ওয়েবসাইট গুলো ব্যবহার করে, অনলাইনে ক্যাপচা এন্ট্রির কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন।

হে, এই মাধ্যমে আপনারা তেমন বেশি আয় করতে পারবেননা। তবে, কিছু পরিমানের extra income অবশই হবে।

ওপরে দেওয়া প্রত্যেকটি ওয়েবসাইট আমি ইন্টারনেটে থাকা বিভিন্ন review এবং popularity র ওপরে দেখে আপনাদের বলেছি। তাই, ওয়েবসাইট গুলি আপনাদের টাকা দিবে সেটার নিশ্চয়তা (Assurance) আমি দিতে পারছিনা।

তবে, ব্যবহার করে দেখুন এবং মিছে আমাদের জানিয়ে দিন। এমনিতে, এই ওয়েবসাইট গুলি ব্যবহার করে অনেকেই কিন্তু “online extra income” করার বিষয়টি অনেক ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে।

5 thoughts on “Captcha এন্ট্রির কাজ করে সহজেই করুন ইনকাম – ($100 monthly)”

  1. Avatar

    আপনার কথা গুলো খুবই ভাল লাগলো। আপনার কথাগুলো শুনে অনেকে বেকার না থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবে। ধন্যবাদ আপনাকে।।।

  2. Avatar

    এত গভেষনা করে উপস্থাপনা করার জন্য ধন্যবাদ.

  3. Avatar

    লেখাটি খুবই পারিশ্রমিক। লেখাটি পড়ে খুবই ভালো লাগলো।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top