ব্লগ থেকে টাকা আয় কিভাবে করবেন? ব্লগ লিখে আয় করার উপায়

বর্তমান সময়ে, ব্লগ লিখে আয় করার উপায় হলো ঘরে বসে অনলাইনে টাকা ইনকামের সব থেকে লাভজনক ও বিশ্বস্ত উপায় গুলির মধ্যে একটি। আমি নিজেই গত ৬-৭ বছর ধরে নিজের ব্লগ সাইট থেকে আয় করে চলেছি।

যদিওবা, একটি ব্লগ বানিয়ে সেখান থেকে টাকা আয় করার বিষয়টা তেমন একটি সোজা ব্যাপার না, তবে একটি ব্লগিং মানে কি, ব্লগ কিভাবে কাজ করে এবং কি কি মাধ্যমে ব্লগ থেকে আয় করা যেতে পারে, এই বিষয়গুলি ভালো করে জেনে রাখতে পারলে, আপনিও সহজেই শুরু করতে পারবেন নিজের ব্লগিং ক্যারিয়ার।

আজকের এই আর্টিকেলের মধ্যে আমরা আলোচনা করতে চলেছি, কিভাবে একটি ব্লগ সাইট থেকে টাকা আয় করা যায় এবং এক্ষেত্রে আপনাকে কোন জরুরি ধাপ গুলি অনুসরণ করতে হবে।

এমনিতে, যদি আপনিও ঘরে বসে অনলাইনে ব্লগিং করে প্রতি মাসে কমেও ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা পার্ট-টাইম ইনকাম করতে চাইছেন, তাহলে আমাদের আজকের এই গাইড সম্পূর্ণ পড়ুন। কিভাবে ব্লগিং থেকে আয় করা যায়, এই বিষয়ে সম্পূর্ণ জ্ঞান আপনি অবশই পাবেন।

একটি ব্লগ সাইট থেকে আয় করা কি সত্যি সম্ভব?

ব্লগ লিখে আয় করার উপায়
How to earn money doing blogging online?

Blogging, বর্তমান সময়ে এমন একটি business model হয়ে দাঁড়িয়েছে যার দ্বারা হাজার হাজার লোকেরা ঘরের এক কোনায় বসে অনলাইনে কাজ করে প্রতি মাসে হাজার হাজার ডলার ইনকাম করার সুযোগ পাচ্ছেন। তাই অবশই হ্যা, একটি ব্লগ থেকে টাকা আয় করাটা কিন্তু সত্যি সম্ভব।

এক্ষেত্রে ব্লগিং করে খালি টাকা ইনকাম করাটাই নয় তবে এখানে আনলিমিটেড টাকা ইনকামের সুযোগ পেতে পারবেন। বিজ্ঞাপন, এফিলিয়েট মার্কেটিং, পেইড প্রমোশন, এডসেন্স, গেস্ট পোস্ট ইত্যাদি নানান মাধ্যমে নিজের ব্লগ থেকে ইনকাম করা যায়।

তবে বেশিরভাগ ব্লগাররা Google AdSense-এর বিজ্ঞাপন দেখিয়ে নিজের ব্লগ থেকে ডলারে টাকা ইনকাম করার পথ বেছে নেন।

রিলেটেড: একটি ওয়েবসাইট বানাতে কত টাকা লাগে ?

আমি নিজের ব্লগ সাইট থেকে কত আয় করছি?

আমি গত ৬-৭ বছর ধরে ব্লগিং করছি এবং সত্যি বলতে শুরুতে আমি কোনো ধরণের ইনকাম করার সুযোগ পাইনি। প্রথম ১-২ বছর আমি কেবল কাজ শিখেছি এবং ব্লগিং এর সঠিক কৌশল, নিয়ম, SEO, ইত্যাদি বিষয় গুলি অধিক ভালো ভাবে জানার চেষ্টা করেছি।

ধরে ধীরে ৩নং বছর থেকে আমার বাংলা ব্লগে গুগল সার্চ থেকে প্রচুর ট্রাফিক আসতে শুরু হয় এবং আমিও সেখান থেকেই নিয়মিত ইনকাম করতে শুরু করি। সেটা অনেক সুন্দর এবং দারুন সময় ছিল, কেননা আমি অনলাইনে কাজ করে প্রতি মাসে ডলারে টাকা ইনকাম করার সুযোগ পাচ্ছিলাম।

শুরুতে প্রায় ১০০ থেকে ২০০ ডলার প্রতিমাসে ইনকাম শুরু হয়। এর পর অনেক তাড়াতাড়ি মাসে ৫০০ থেকে ৮০০ ডলার পর্যন্ত ইনকাম করার সুযোগ পাই। বর্তমান সময়ে বাংলা ব্লগ লিখে আমি প্রতি মাসে প্রায় ৫০০ থেকে ৮০০ ডলার পর্যন্ত ইনকাম করার সুযোগ পাচ্ছি।

তাই, আমি এটা অবশই বলবো যে ব্লগিং শিখে ও ব্লগিং এর দ্বারা আমরা একটি চাকরির তুলনায় তার থেকে অনেক বেশি পরিমানে টাকা রোজগারের সুযোগ পাই।

নিজের ব্লগ থেকে কত টাকা আয় করা যাবে?

এমনিতে ব্লগ লিখে আয় করার উপায় বলতে সে অনেক রয়েছে। এক্ষেত্রে আপনি যেই উপায় গুলি ব্যবহার করে নিজের ব্লগ থেকে আয় করার কথা ভাবছেন, আপনার ইনকামের পরিমান সেই উপায় গুলির উপরেই বিশেষ ভাবে নির্ভির করবে।

এছাড়া, নিজের ব্লগ থেকে আপনি কত টাকা ইনকাম করবেন সেটা অন্যান্য নানান বিষয় গুলির উপরেও নির্ভর করবে। যেমন ধরুন, আপনার ব্লগে কি পরিমানে ট্রাফিক/ইউসার আসছেন, কোন দেশ থেকে ট্রাফিক আসছে, ব্লগে কি ধরণের বিজ্ঞাপন দেখানো হচ্ছে, CPC রেট কি পাচ্ছেন ইত্যাদি।

তবে মনে রাখা দরকার যে, একটি অ্যাভারেজ ব্লগ থেকে প্রতি মাসে ২০০ থেকে ৫০০ ডলার আরামে ইনকাম করা যেতেই পারে।

এছাড়া, আপনার ব্লগ থেকে আপনি এর থেকেও অধিক টাকা ইনকামের সুযোগ পেতে পারেন। মনে রাখবেন, এমন হাজার হাজার ব্লগ সাইট রয়েছে যেগুলির থেকে তাদের মালিকেরা মাসে হাজার হাজার ডলার পর্যন্ত ইনকাম করছেন।

তাই, একটি ব্লগ থেকে আপনি অবশই আনলিমিটেড টাকা ইনকামের সুযোগ পাবেন যেটা একটি সাধারণ চাকরি করে কখনোই পাওয়া যাবেনা। তবে এক্ষেত্রে ব্লগিং সম্পর্কে ভালো জ্ঞান, অভিজ্ঞতা ও কৌশল থাকা জরুরি।

কিভাবে করবেন একটি ব্লগ থেকে আয়? ব্লগ লিখে আয় করার উপায়

ব্লগ থেকে যে সত্যি টাকা আয় করা যায় সেই বিষয়ে অবশই বুঝলেন, তবে কিভাবে?

এখন হয়তো আপনারা ব্লগ থেকে আয় করার উপায় সম্বন্ধে ভালো করে জেনেনিতে চাইছেন, তাই তো। চলুন, নিচে সম্পূর্ণ পরিষ্কার ভাবে জেনেনেই, কিভাবে এবং কোন কোন ধাপ গুলি অনুসরণ করে একটি ব্লগ থেকে টাকা ইনকাম করা যাবে।

১. ব্লগ সাইট তৈরি করুন:

একটি ব্লগ সাইট থেকে আয় করার জন্য সবচে আগে আপনার কাছে একটি ব্লগ সাইট থাকতে হবে। এক্ষেত্রে আপনাকে নিজেই তৈরি করতে হবে একটি ব্লগ ওয়েবসাইট। তবে চিন্তা করতে হবেনা, অনেক সামান্য পরিমানে টাকা খরচ করে আপনি নিজেই তৈরি করে নিতে পারবেন একটি WordPress ব্লগ।

এক্ষেত্রে আপনাকে একটি ডোমেইন এবং ওয়েব হোস্টিং কিনে নিতে হবে যার জন্যে প্রায় ৫০০ থেকে হাজার টাকা খরচ হতে পারে। তবে আপনি যদি সম্পূর্ণ ফ্রীতে একটি ব্লগ সাইট তৈরি করতে চান, তাহলে ব্লগার দিয়ে ফ্রি ব্লগ সাইট তৈরি করে নিতে পারবেন।

Blogger-এ একটি ফ্রি ব্লগ সাইট তৈরি করার প্রক্রিয়া অনেক সোজা। আপনি YouTube ভিডিও দেখে সম্পূর্ণ স্টেপ গুলি জেনেনিতে পারবেন।

অবশই পড়ুন: ব্লগিং কিভাবে শুরু করবেন?

২. আর্টিকেল লিখে পাবলিশ করা:

একবার যখন আপনার ব্লগ সাইট তৈরি করে যাবে, তখন আপনাকে নিজের ব্লগে নিয়মিত আর্টিকেল লিখে পাবলিশ করতে হবে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, ব্লগে কি ধরণের আর্টিকেল পাবলিশ করবেন? আপনি নিজের ব্লগে যেকোনো ধরণের কনটেন্ট লিখে পাবলিশ করতে পারবেন।

প্রযুক্তি, পড়াশোনা, কবিতা, টিউটোরিয়াল, ইত্যাদি সেই যেকোনো বিষয়ে লিখতে পারেন যেই বিষয়ে আপনার অধিক জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা রয়েছে।

উদাহরণ স্বরূপ, আমরা আমাদের ব্লগ সাইটে মূলত, ইন্টারনেট রিলেটেড টিপস এবং টিউটোরিয়াল গুলি পাবলিশ করে থাকি। কেননা, আমরা এই বিষয়ে লিখতে পছন্দ করি এবং ইন্টারনেট রিলেটেড বিষয়ে যথেষ্ট জ্ঞান ও রুচি আমাদের রয়েছে।

তাই, নিজের পছন্দের একটি বিষয় খুজুন এবং সেই বিষয়টি নিয়ে নিয়মিত নতুন নতুন আর্টিকেল লিখে নিজের ব্লগ সাইটে পাবলিশ করুন।

অবশই পড়ুন: নিজের ব্লগে কেমন আর্টিকেল লিখতে হয়? 

৩. ব্লগে ট্রাফিক আসছে কি?

ব্লগ থেকে টাকা আয় করার জন্য আপনার ব্লগে ট্রাফিক বা ভিসিটর্স অবশই আসতে হবে। মনে রাখবেন, ব্লগে যত অধিক পরিমানে ট্রাফিক বা ইউসার থাকবে ততটাই অধিক ইনকামের সুযোগ আপনার সামনে হয়ে দাঁড়াবে।

ব্লগে সম্পূর্ণ ফ্রীতে ট্রাফিক পাওয়ার ক্ষেত্রে আপনাকে দুটো বিশেষ কাজ করতে হবে।

প্রথমত, আপনাকে নিজের ব্লগ সাইটটি Google Search Console-এর মধ্যে জমা করতে হবে। এতে আপনার ব্লগ সাইটটি গুগলের সার্চ রেসাল্টে দেখানো হবে এবং সেখান থেকেই নিয়মিত অর্গানিক ট্রাফিক পেতে পারবেন।

দ্বিতীয়ত, আপনি নিজের ব্লগের আর্টিকেল গুলিকে Facebook, Quora, LinkedIn, ইত্যাদির মতো নানান সোশ্যাল মিডিয়া গুলিতে শেয়ার করে সেখান থেকেও সোশ্যাল ট্রাফিক পেতে পারবেন।

আপনি Google Analytics-এর মতো traffic analytics tools গুলি ব্যবহার করে নিজের ব্লগে প্রবেশ করা traffic/user-এর বিষয়ে অধিক জেনেনিতে পারবেন।

আপনার ব্লগ সাইটে নিয়মিত বা প্রতিদিন কমেও ৫০০-১০০০ ভিসিটর আসতে শুরু হলে এবার আপনি নিজের ব্লগ সাইটে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে কিছুটা ইনকাম অবশই শুরু করতে পারবেন।

অবশই পড়ুন: কন্টেন্ট রাইটিং কি ? সেরা কিছু কন্টেন্ট রাইটিং টিপস

৪. ব্লগে বিজ্ঞাপন যুক্ত করুন:

শেষে, একবার আপনার ব্লগে কিছুটা traffic/user আসতে শুরু হলে, এখন আপনাকে Google AdSense Account তৈরি করতে হবে। এমনিতে, Google AdSense কি এবং আমরা কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলব, এই বিষয়ে আমি আগেই আপনাদের বলেছি।

Google AdSense-এর দ্বারা আমরা আমাদের ব্লগ সাইটে text, display এবং video বিজ্ঞাপন গুলি ডিসপ্লে করতে পারি। যখনই কোনো ভিসিটর বা ইউসার আপনার ব্লগে দেখানো সেই বিজ্ঞাপন গুলিতে ক্লিক করবেন, আপনি কিছু ডলার টাকা সেই ক্লিকের বিপরীতে পেয়ে যাবেন।

বেশিরভাগ ব্লগাররা এই মাধ্যমে নিজের ব্লগ সাইট থেকে আনলিমিটেড টাকা সেটাও ডলারে ইনকাম করার সুযোগ পাচ্ছেন। এমনিতে আপনিও পারবেন একটি ব্লগ সাইট বানিয়ে টাকা আয় করতে। তবে, এর জন্যে উপরে বলে দেওয়া এই ধাপ গুলি আপনাকে অনুসরণ করতে হবে।

এই আর্টিকেল গুলি পড়ুন:

 

About The Author

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top