টেকনো নতুন মোবাইল: সেরা ১০টি টেকনো স্পার্ক মোবাইল মডেল – (২০২২)

সেরা ১০ টি নতুন টেকনো মোবাইলের মডেল এবং ফিচার(2022 New Tecno Smartphone Model and Features).

টেকনো নতুন মোবাইল
টেকনোর নতুন মোবাইল

এখন মার্কেটে অসংখ্য ছোট-বড় স্মার্টফোন নির্মাণকারী সংস্থা চলে এসেছে। 

মানুষে অতিরিক্ত চাহিদার ফলেই স্মার্টফোনের এতটা ছড়াছড়ি। 

তবে, আপনি যদি সস্তায় পুষ্টিকর স্মার্টফোন খুঁজছেন, তবে আপনার জন্যে সেরার সেরা অপসন হল টেকনো স্মার্টফোন। 

সাম্প্রতিককালে, ২০০৬ সালে শুরু হওয়া এই টেকনো কোম্পানির এখনকার স্মার্টফোনগুলো যথেষ্ট সাশ্রয়ী মূল্যের। 

এই হ্যান্ডসেটগুলো তার ক্রেতাদের খরচ করা টাকার যথাযথ মূল্য দিয়েছে বলেই, বর্তমানে এতটা জনপ্রিয়তা পেয়েছে। 

২০১৭ সাল থেকে টেকনোর তৈরী করা মোবাইলগুলোর কোয়ালিটি ও স্থায়িত্ব দেখে এর গ্রাহকেরা যথেষ্ট বিস্মিত। 

সাধারণ ব্যবহারের দিক থেকে এই কোম্পানির প্রতিটা মডেলই বাজেট-ফ্রেইন্ডলী, হালকা ও টেকসই।

তাই, আজকে আমাদের এই আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করবো,

“২০২২ সালের সেরা ১০ টি নতুন টেকনো মোবাইলের মডেল এবং ফিচার নিয়ে।”

এখান থেকে আপনারা একটা ক্লিয়ার ধারণা পাবেন, এই কোম্পানির কোন মডেলগুলো নিলে আপনার জন্যে সেরা হতে পারে।

২০২২ এর সেরা ১০টি নতুন টেকনো মোবাইল এর তালিকা

চলুন, তাহলে শুরু করা যাক, আমাদের নির্বাচন করা সেরা ১০ টিটেকনো নতুন মোবাইল মডেলের তালিকাটি –

১. Tecno Spark 8C – ( অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ২৪/০২/২০২২)

অন্যান্য স্মার্টফোনের সাথে তুলনা করলে দেখা যায় যে, Tecno Spark 8C – এর দাম অনুযায়ী এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর থাকাটা একটা অতিরিক্ত বোনাস পাওয়ার মতোই। 

এটি অনেকরকম স্টাইল, ডিসাইন ও রঙে উপলব্ধ। 

মোবাইলের সামনের পিছনে যথাক্রমে ৮ ও ১৩ MP ক্যামেরা রয়েছে। 

পিছনের ক্যামেরাতে দুটো এলইডি ফ্ল্যাশ লাইট সমেত ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা আছে, যা আপনাকে যেকোনো লাইটিং কন্ডিশনে ভালো-কোয়ালিটির ছবি তুলতে সাহায্য করবে। 

স্পেশ্যাল ফীচার:

১. মোবাইলের মসৃণ পারফরম্যান্সের জন্য সুপার ফাস্ট অক্টাকোর প্রসেসর রয়েছে।

২. ৯০ Hz ডিসপ্লে রিফ্রেশ রেট মোবাইল গেমিং ও হাই-কোয়ালিটি ভিডিও দেখার জন্যে যথেষ্ট।

৩. স্প্ল্যাশপ্রুফ, অর্থাৎ হালকা জল বা বৃষ্টির ফোঁটাতে ফোনের কোনো হবে না। 

৪. ডুয়াল সিম, ব্লুটুথ, মোবাইল হটস্পট, এনএফসি, ওয়াই-ফাই এবং ইউএসবি ওটিজি-এর সুবিধা আছে। 

৫. ৩ GB RAM, ৬৪ GB ইনবিল্ট মেমোরি রয়েছে যা 256 GB পর্যন্ত সম্প্রসারণযোগ্য। 

৬. স্লিপ-ফ্রী গ্রিপ আছে, অর্থাৎ ফোন আপনার হাত থেকে সহজে ফস্কে পড়ে যাবে না।

৭. 4G VoLTE নেটওয়ার্কের সুবিধা আছে।

কেন কিনবেন ?

– চরম সাশ্রয়কারী স্মার্টফোন

– চওড়া ৬.৬ ইঞ্চি ডিসপ্লে বা স্ক্রিন 

– ব্যবহারকারীর ব্যবহারের সুবিধার জন্যে অ্যান্ড্রয়েড গো কাস্টম ইউআই রয়েছে। 

– সামনে ও পিছনে হাই-কোয়ালিটির ক্যামেরা উপলব্ধ।

– ডুয়াল এলইডি ফ্ল্যাশ

– ৫০০০ mAh-এর শক্তিশালী ও টেকসই ব্যাটারি 

– সম্প্রসারণযোগ্য অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ (এক্সপ্যান্ডেবল এক্সটার্নাল স্টোরেজ)

– ফোনের পিছনে DTS সাউন্ড রয়েছে ভালো অডিও কোয়ালিটির জন্যে।

– ফোনের পিছনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে। 

২. Tecno Pop 5 Pro- (অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ১৯/০১/২০২২)

এই সাশ্রয়ী স্মার্টফোনটির ব্যাটারি ব্যাকআপ খুবই ভালো। 

এটিতে একটি পরিপূর্ণ কোয়াডকোর প্রসেসর আছে। 

Tecno Pop 5 Pro মডেলটি স্প্ল্যাশপ্রুফ, ও IPX2 ওয়াটারপ্রুফ, যা অল্প জলে ভিজলে কোনো সমস্যা করে না। 

এই স্মার্টফোনটি কম বাজেটে এন্ড্রোইড v11 OS-এর সাথে আসে। 

আর, এটিও নানান রঙে উপলব্ধ আছে।

স্পেশ্যাল ফীচার:

১. ব্যাপকভাবে ওয়াটারপ্রুফ

২. কম দামে উন্নতমানের এন্ড্রোইড 

৩. শক্তিশালী ব্যাটারি 

৪. দ্রুততর কোয়াডকোর প্রসেসর 

৫. 4G VoLTE নেটওয়ার্ক  

কেন কিনবেন ?

– মাল্টিটাস্কিং-এর উপযুক্ত 

– অত্যন্ত ওয়াটারপ্রুফ 

– ৬০০০ mAh শক্তিশালী ব্যাটারি

– ৫ MP ভালো মানের ফ্রন্ট ক্যামেরা 

– এক্সপ্যান্ডেবল ইন্টারনাল স্টোরেজ 

– বেজেল-লেস বা সরু ফ্রেমের ডিসপ্লে 

৩. Tecno Pop 5 LTE – (অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ১৬/০২/২০২২)

আপনার বেসিক কাজকর্ম চালানোর জন্যে Tecno Pop 5 LTE হল একটি এন্ট্রি-লেভেল মডেল। 

প্রচন্ড হাই-পার্ফমিং ৫০০০ mAh ব্যাটারির সাথে, এই ফোনটিকে একবার ১০০% চার্জ দিলেই সারাদিন ব্যাপক পারফরমেন্স দিতে সক্ষম। 

এই মডেলটিতে ১৪ টি আঞ্চলিক ভাষায় কনফিগার করা সম্ভব। 

এখানে ভালো মানের ২টি রিয়ার ও ১টি ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। 

আপনি এটিতেও নানান ধরণের কালারের অপসন পেয়ে যাবেন।

স্পেশ্যাল ফীচার:

১. বড় ও আকর্ষণীয় ৬.৫২ ইঞ্চি HD+ ডিসপ্লে 

২. এন্ড্রোইড ১১ গো এডিশন ও টেকনোর নিজস্ব OS HiOS ৭.৬ রয়েছে ব্যবহারকারীর ব্যবহারের সুবিধার জন্যে

৩. পেরেন্টাল কন্ট্রোল বা অভিবাবক নিয়ন্ত্রণের সুবিধা আছে 

৪. সুপার-ফাস্ট মোবাইল চালানোর এক্সপেরিয়েন্সের জন্যে ২ GB RAM ও অক্টাকোর প্রসেসর 

৫. ৮ MP ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা ও ৫ MP ফ্রন্ট ক্যামেরা  

কেন কিনবেন ?

– মোবাইলটি ব্যবহার করা খুব সহজ 

– ওয়াটারপ্রুফ রেটিংয়ের সাথে আসে 

–  শক্তিশালী ব্যাটারির ব্যবস্থা রয়েছে 

– এক্সটার্নাল মেমরি কার্ড দিয়ে সহজেই ইন্টারনাল স্টোরেজ বাড়ানো যায় 

– কোম্পানির নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে 

৪. Tecno Pova 5G – (অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ১৩/০২/২০২২)

Tecno Pova 5G মডেলের ইনবিল্ট ডিসপ্লে কনফিগারেশন, ও স্মার্ট ক্যামেরা সেটআপ এটিকে অনন্য করে তুলেছে। 

আর, শক্তিশালী RAM এবং চিপসেটের কম্বিনেশন আপনাকে একদম স্মুথ মোবাইল ব্যবহারের এক্সপেরিয়েন্স দেবে। 

এই ফোন কোনো কারণেই গরম হবে না বা হ্যাং করবে না।  

দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি আর বিশাল স্টোরেজের জন্যে এই ফোনটি ব্যবহারকারীদের সামগ্রিক অপারেশনাল অভিজ্ঞতাকে আরও উন্নত করে তুলেছে।

স্পেশ্যাল ফীচার:

১. ৬.৯ ইঞ্চি HD বেজেল-লেস বড় স্ক্রি বা ডিসপ্লে 

২. 4G মোবাইল নেটওয়ার্কিং-এর সুবিধা, ডুয়াল সিম 

৩. উন্নতমানের ফ্রন্ট ও ব্যাক ক্যামেরা 

৪. ১২০Hz রিফ্রেশ রেট কোনোরকম ল্যাগ ছাড়াই স্মুথ গেমিং এক্সপেরিয়েন্স দেয়  

৫. অবশ্যই ওয়াটারপ্রুফ 

৬. মোবাইলের সাইড বা পাশে থাকা ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর 

কেন কিনবেন ?

– পিছনের ৫০ MP মেইন ক্যামেরা ও ২ MP ম্যাক্রো লেন্স 

– ১৬ MP সামনের ক্যামেরা 

– ব্যাপক শক্তিশালী ৬০০০ mAh ব্যাটারি 

– ১৮ W ফ্ল্যাশ চার্জিং দূরত্ব ব্যাটারি চার্জ করে দেয় 

– ১২৮ GB ইন্টারনাল স্টোরেজ ও হাই-পারফরমেন্স চিপসেট 

– ৮ GB RAM  

– সাইড-ওয়াইজ ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর 

৫. Tecno Pova Neo – (অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ২৩/০১/২০২২)

Tecno Pova Neo হল একটি কমপ্যাক্ট মডেল, যা সবরকম ব্যবহারকারীর চাহিদা সম্পূর্ণ করতে সফল। 

অর্থাৎ, গেমিং হোক, ফটোগ্রাফি হোক কিংবা সাধারণ মাল্টিটাস্কিং, এই স্মার্টফোনটি সমস্ত ব্যবহারকারীদেরকেই সেরা অপারেশনাল অভিজ্ঞতা প্রদান করে। 

স্পেশ্যাল ফীচার:

১. বিশাল বড় মেগা ডিসপ্লে 

২. ভার্চুয়ালভাবে ১১ GB অবধি RAM বাড়ানো সম্ভব 

৩. মাত্র ৩৫ মিনিটে ব্যাটারি চার্জ করা সম্ভব 

৪. ১৩ MP ব্যাক ক্যামেরা ও AI লেন্স 

৫. ১২৮ GB ইনবিল্ট স্টোরেজ স্পেস 

কেন কিনবেন ?

– ঝকঝকে ও ৬.৮ ইঞ্চি বড় IPS LCD স্ক্রিন 

– মোবাইলের পিছনে একক ক্যামেরা সেটআপ

– ৮ MP ফ্রন্ট ক্যামেরা

– স্মুথ মোবাইল ব্যবহারের জন্যে ৬ GB RAM ও হেলিও G25 চিপসেট

– ৬০০০ mAh ব্যাটারি ও ১৮ W ফ্ল্যাশ চার্জিং-এর ব্যবস্থা  

– ফোনের সাইডে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে 

– স্প্ল্যাশ-প্রুফ  

৬. Tecno Spark 8 –  (অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ০৪/০১/২০২২)

Tecno Spark 8 মডেলটি কম বাজেটে একনাগাড়ে ভালোই পারফরমেন্স দিয়ে থাকে। 

এই স্মার্টফোনটির পিছনের অংশে একটা সংগঠিত ও উন্নতমানের AI ডুয়াল ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে, যা দুর্দান্ত ছবি তুলতে পারে। 

আর, ৫০০০ mAh ব্যাটারির সাথে এটি ব্যাপক পাওয়ার ব্যাকাপ দিয়ে থাকে। 

যাতে, আপনি ঘন্টার পর ঘন্টা কথা বলতে পারেন, বিরামবিহীনভাবে ব্যবহার করতে পারেন, শুধুমাত্র সারাদিনে একবার মাত্র চার্জ দিয়ে। 

এই মডেলে আবার একটি রিয়ার ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও রয়েছে।

স্পেশ্যাল ফীচার:

১. ৬.৫২ ইঞ্চি বড় ডিসপ্লে 

২. উন্নতমানের অক্টাকোর প্রসেসর 

৩. ব্যাক ক্যামেরাতে নানান ধরণের AI ফাঙ্কশন রয়েছে

৪. ল্যাগ-ফ্রি পারফরম্যান্সের জন্যে রয়েছে হেলিও চিপসেট 

৫. ২৫৬ GB পর্যন্ত এক্সপ্যান্ডেবল মেমরি স্টোরেজ 

৬. A-GPS, ব্লুটুথ, USB Type-C, Wi-Fi ও মোবাইল হটস্পট

৭. 4G VoLTE নেটওয়ার্কের সুবিধা 

কেন কিনবেন ?

– আকর্ষণীয় IPS LCD ডিসপ্লে 

– ১৬ MP AI ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা 

– কোয়াড ফ্ল্যাশ  ৮ MP সেলফি ক্যামেরা 

– মিডিয়াটেক হেলিও P22 চিপসেট 

– দীর্ঘস্থায়ী ৫০০০ mAh ব্যাটারি 

– এক্সপান্ডেবল ইন্টারনাল স্টোরেজ 

– উচ্চমানের অ্যান্ড্রয়েড v11 রয়েছে  

– গান তৈরির জন্যে সোপ্লে মিউজিক মিক্সারসুপার অ্যাপ

– ফোনের পারফরমেন্স বাড়ানোর জন্যে বুস্ট সিস্টেম অপ্টিমাইজার

৭. Tecno Spark 8 pro- (অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ০৪/০১/২০২২)

এই মডেলটি কম বাজেটের মধ্যে নিরবিচ্ছিন্ন পারফরমেন্স দিতে পারে। 

এই মডেলে আপনি পেয়ে যেতে পারেন সুসজ্জিত ক্যামেরা সেটআপ। 

অতি দ্রুত প্রসেসর লেআউট এবং শক্তিশালী ব্যাটারির মাধ্যম এই ফোনকে যথেষ্ট টেকসই করে তুলেছে। 

এছাড়াও, এই মোবাইলটির সাইডে একটি ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর যুক্ত করা হয়েছে, যা আপনার ফোনকে সুরক্ষিত করে তোলে। 

স্পেশ্যাল ফীচার:

১. দ্রুত ব্যাটারি চার্জ করার ক্ষমতা রয়েছে।

২. ৭ GB পর্যন্ত RAM এক্সপানশন করা সম্ভব।

৩. ৬.৮ ইঞ্চি ফুল এইচডি+ ডট-ইন ডিসপ্লে

৪. দ্রুত ও ল্যাগমুক্ত মোবাইল গেমিং-এর জন্যে হেলিও প্রসেসর 

৫. ৪৮ MP উচ্চমানের AI ক্যামেরা 

কেন কিনবেন ?

– আকর্ষণীয় IPS LED স্ক্রিন 

– মোবাইলের পাশের অংশে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে।

– পিছনের দিকে ডুয়াল ক্যামেরা সিস্টেম

– ৪ GB RAM সহ হেলিও G85 চিপসেট

– ৮ MP ফ্রন্ট সেলফি ক্যামেরা 

– ৩৩ W সুপার-চার্জিংসহ টেকসই ৫০০০ mAh ব্যাটারি

– এক্সপ্যান্ডেবল স্টোরেজ স্পেস 

– অন্ধকারে পরিষ্কার ছবি তুলতে সক্ষম

– যথেষ্ট ওয়াটারপ্রুফ

৮. Tecno Spark Go 2022- (অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ২৯/১২/২০২১)

আপনার পরিবর্তনশীল চাহিদার সাথে তাল মিলিয়ে টেকনো তার Spark Go 2022 মডেলটি মার্কেটে নিয়ে এসেছে। 

এই অলরাউন্ডার স্মার্টফোনে আকর্ষণীয় IPS LED ডিসপ্লে রয়েছে। যা, আপনার ভিডিও দেখা ও গেম খেলার অভিজ্ঞতাকে আরও পারফেক্ট ও ঝকঝকে করে তুলতে সক্ষম। 

৫০০০ mAh ব্যাটারির ভরসা এই মোবাইলকে ব্যাপকভাবে দীর্ঘস্থায়ী করে তোলে। 

আর, এই মডেলেও পেয়ে যাবেন এক্সপ্যান্ডেবল ইন্টারনেট স্টোরেজের অপশন। 

এটি এন্ট্রি-লেভেল স্মার্টফোন হলেও, এটাতে আপনার সুরক্ষার জন্যে আপনি পেয়ে যাবেন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

স্পেশ্যাল ফীচার:

১. ৫০০০ mAh ব্যাটারির সাথে আলট্রা ব্যাটারি সেভার রয়েছে। 

২. অ্যান্টি-অয়েল ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর

৩. ওয়াটার-রেসিস্টেন্ট রেটিং 

৪. ১৩ MP ডুয়াল ব্যাক ক্যামেরা 

৫. জলের বিরুদ্ধে সুরক্ষার জন্য IPX2 ওয়াটার-রেসিস্টেন্ট রেটিং আছে।

৬. দ্রুত ল্যাগ-ফ্রি পারফরম্যান্সের জন্য অটোমেটিক সুপার বুস্ট ফীচার রয়েছে।

৭. ব্লুটুথ, USB, Wi-Fi-কানেক্শনের সুব্যবস্থা আছে। 

৮. 5G মোবাইল নেটওয়ার্কিং-এর সুবিধা 

কেন কিনবেন ?

– বেজেল-লেস IPS LED স্ক্রিন 

– AI-যুক্ত একক ব্যাক ক্যামেরা সেটআপ 

– ৮ MP সেলফি ক্যামেরা 

– ২ GB RAM ও অক্টাকোর প্রসেসর

– লং-লাস্টিং ৫০০০ mAh ব্যাটারি

– এক্সপান্ডেবল ইন্টারনাল স্টোরেজ

– হাই-কোয়ালিটি DTS সাউন্ড

– দেখতে বেশ আকর্ষণীয়

৯. Tecno Spark 8T – (অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ১৫/১২/২০২১)

স্বল্প বাজেটের মধ্যে ভালো স্মার্টফোন পেতে চাইলে Tecno Spark 8T হল আপনার জন্যে সেরা অপশন। 

ব্যবহারকারীরা এই মডেলের সংগঠিত ক্যামেরা সেটআপ, হাই-পারফরমেন্স প্রসেসর বিন্যাস ও ধারাবাহিক ব্যাটারির পারফরম্যান্সের জন্যে ফোনটিকে যথেষ্ট পছন্দ করেছেন।

স্পেশ্যাল ফীচার:

১.হেলিও G35 প্রসেসর ঝামেলাহীন অপারেশনাল অভিজ্ঞতার জন্যে

২. কাস্টম ইউসার ইন্টারফেস হল কোম্পানির নিজস্ব HiOS (অপারেটিং সিস্টেম)

৩. ৪ GB RAM 

৪. ৬.৬ ইঞ্চি IPS LED স্ক্রিন 

৫. ব্যাক ক্যামেরাতে অনেকগুলো উন্নতমানের ফীচার রয়েছে।

৬. ডুয়াল সিম, Wi-Fi, মোবাইল হটস্পট কানেকশন রয়েছে।

৭. 4G নেটওয়ার্কিং-এর সুবিধা 

কেন কিনবেন ?

– চোখ ধাঁধানো বেজেল-লেস স্ক্রিন 

– পিছনে ৫০ MP ক্যামেরা 

– ডুয়াল LED ফ্ল্যাশ সহ ৮ MP ফ্রন্ট ক্যামেরা

– ফাস্ট চার্জিং সহ হাই-ক্যাপাসিটি ব্যাটারি

– পিছনের দিকে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে

– হেলিও G35 চিপসেট ও ৪ GB RAM

১০. Tecno Camon 18 – (অফিসিয়াল লঞ্চ ডেট- ২৭/১২/২০২১)

Tecno Camon 18 মডেলটি তার বিভাগের সমস্ত স্মার্টফোনের তুলনায় কম বাজেটে অনেক বেশি ফীচার দেয়। 

এই স্মার্টফোনটিতে আপনি ৪ GB RAM, হেলিও G85 চিপসেট ও 128GB ইন্টারনাল স্টোরেজের অপশান পাবেন। 

এমনকি, এই সাশ্রয়ী মডেলটিতে AI-বেসড ফ্রন্ট ও ব্যাক ক্যামেরা রয়েছে, যা প্রয়োজনে নিজের মতো সেটআপ করে বেস্ট কোয়ালিটি ছবি তুলতে পারে। 

তাছাড়া, এটা বেশ অন্যরকম আকর্ষণীয় রঙেও পাওয়া যায়।

স্পেশ্যাল ফীচার:

১. স্পষ্ট ছবি তোলার জন্য রিয়ার ক্যামেরার সাথে AI লেন্স আছে।

২. ৬.৮ ইঞ্চি ফুল HD ও ডট-ইন ডিসপ্লে

৩. হেলিও G85 চিপসেট সহ অক্টাকোর প্রসেসর আছে মাল্টিটাস্কিং করার জন্যে। 

৪. ৩ মিটার পর্যন্ত ওয়াটার-রেসিস্টেন্ট ও ডাস্ট-রেসিস্টেন্ট 

কেন কিনবেন ?

–  ডট-ইন বেজেল-লেস স্ক্রিন 

– মোবাইলের পিছনে AI ডুয়াল ক্যামেরা রয়েছে

– ডুয়াল LED ফ্ল্যাশ সহ ৪৮ MP সেলফি ক্যামেরা 

– গেমিং-এর জন্যে হেলিও G85 চিপসেট ও ৪ GB RAM রয়েছে

– ১৮ W দ্রুত চার্জিং সিস্টেমযুক্ত ৫০০০ mAh ব্যাটারি

– সেরা ১২৮ GB ইন্টারনাল স্টোরেজ 

– অত্যন্ত বাজেট-ফ্রেন্ডলি 

– চিত্তাকর্ষক 3D লেন্টিকুলার টেক্সচার্ড ডিজাইন 

– মোবাইল গেমিংয়ের জন্যে সেরা মোবাইল

শেষ কথা:

আপনি নিজের বাজেট অনুযায়ী যেকোনো টেকনো স্মার্টফোনই বাছতে পারেন। 

এই কোম্পানীর প্রতিটি মডেলের প্রসেসর, ব্যাটারি ও চিপসেট বেশ ভরসাযোগ্য। 

তাই, এইসব কারণের জন্যেই এই ফোনগুলি কেনার যোগ্য; আসলে এই প্রতিটি মডেল আপনার কষ্টের অর্থের যোগ্য মূল্য প্রদান করতে যথেষ্ট প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। 

তাই, নিজের পছন্দমতো যেকোনো টেকনো মোবাইল আজই নিয়ে নিন!

টেকনো নতুন মোবাইল মডেল (Tecno new mobile phone) গুলো নিয়ে লিখা আমাদের আজকের আর্টিকেলটি এখানেই শেষ হল। লেখাটি পছন্দ হলে অবশ্যই তা কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap