গেম খেলার জন্য কোন মোবাইল ভালো ? (৯ টি বেস্ট গেমিং ফোন)

গেম খেলার জন্য কোন মোবাইল ভালো ? (best gaming mobile phones ), এই প্রশ্ন আমাদের মনে অবশই একবার হলেও আসে, যদি আমরা মোবাইল গেমিং করতে ভালো পেয়ে থাকি।

আর তাই, আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের বলবো, এন্ড্রয়েড এর সেরা গেমিং ফোন গুলো কোনগুলো।

নিচে যেগুলো বেস্ট গেমিং ফোন (best gaming phones) গুলোর কথা আমি বলবো,

সেগুলো একটি সাধারণ স্মার্টফোন (smartphone) হিসেবে এবং একটি গেমিং কনসোল (gaming console) হিসেবে আপনাকে high-quality experience অবশই দিয়ে থাকবে।

এই মোবাইল গুলোকে প্রত্যেক ক্ষেত্রেই বিশেষ ধ্যান দিয়ে তৈরি করা হয়েছে।

যেমন, RAM, Processor, battery এবং display ইত্যাদি, যাতে গেমিং এর ক্ষেত্রে আপনি সম্পূর্ণ সন্তুষ্ট হয়ে মজা নিতে পারেন।

মূলত, নিচে দেওয়া এই গেমিং মোবাইল ফোন গুলো আপনাদের একটি সেরা গেমিং এক্সপেরিয়েন্স (gaming experience) অবশই দিবে।

তাছাড়া, যদি আপনারা কম দামে ভালো গেমিং মোবাইল ফোন খুঁজছেন,

তাহলে আমি আগেই বলে দেয়, যখন কথা আসছে একটি “বেস্ট গেমিং ফোন” এর,

তখন আমরা দান নিয়ে সীমিত থাকতে পারবোনা।

Gaming performance এর ওপরে নজর দিয়ে তৈরি করা একটি android gaming smartphone এর দাম অবশই কম তো হবেনা।

তাহলে চলুন, গেম খেলার জন্য কোন মোবাইল ভালো হবে সেটা আমরা নিচে জেনেনেই।

মোবাইলে গেম খেলার জন্য বেস্ট গেমিং ফোন কোনগুলো ?

গেম খেলার জন্য কোন মোবাইল ভালো
Top gaming mobiles

যখন কথা আসছে, best android gaming smartphones গুলোর,

তখন এক্ষেত্রে, মোবাইলের মধ্যে আমাদের কিছু বিশেষ hardware configuaration গুলোর ওপরে নজর দিতে হবে।

কারণ, smooth এবং high graphics gaming performance এর জন্যে মোবাইলের hardware গুলো আধুনিক এবং উন্নত মানের থাকতে হবে।

আর, মোবাইলের মধ্যে ভালো, উন্নত এবং শক্তিশালী হার্ডওয়্যার থাকা মানেই, সেই মোবাইলের দাম বেশি হওয়া।

তাই, একটি ভালো গেমিং মোবাইলের ক্ষেত্রে আপনার বাজেট (budget) কম হলে চলবেনা।

আর যারা যারা প্রশ্ন করেন যে,

  • Free fire খেলার জন্য কোন মোবাইল ভালো ?
  • PubG খেলার জন্য কোন মোবাইল ভালো ?

তারাও, এই বিষয়টা ভালো করে জেনে ও বুঝে রাখুন যে সীমিত budget এর মধ্যে থেকে, ভালো গেমিং ফোন পাওয়া যাবেনা।

গেম খেলার জন্য কোন এন্ড্রয়েড মোবাইল গুলো ভালো ?

চলুন, এখন আমরা আমাদের android gaming smartphones গুলোর তালিকা নিচে দেখেনেই।

শেষে আরেকটা কথা বলবো,

মোবাইল গুলোর দাম কিন্তু আলাদা আলাদা দেশে আলাদা আলাদা।

তাই, আপনার দেশে নিচে দেওয়া মোবাইল গুলোর দাম কত, সেটা আপনাকেই দেখতে হবে।

আমি কেবল, নিচে প্রত্যেকটি সেরা গেমিং মোবাইল গুলোর নাম এবং সেগুলোর বিষয়ে কিছুটা বলে দিবো।

১. Asus ROG Phone 3 

Asus rog phone 3 gaming smartphone
Asus rog phone 3 smartphone

যদি আপনি সত্যি নিজের মোবাইল গেমিং নিতে সিরিয়াস (serious) এবং আপনি কোনো সাধারণ গেমিং বা highest frame rates, HD graphics এবং long battery র নিচে কিছু ভাবতেই রাজি না,

তাহলে আপনার জন্য সব থেকে সেরা গেমিং ফোন হবে Asus এর rog phone 3 স্মার্টফোন।

6.6-inch 144Hz AMOLED display এর সাথে আপনি পাচ্ছেন সব থেকে অধিক refresh rate যেটা অন্য মোবাইলে পাওয়াটা খুব একটা সম্ভব না।

মোবাইল টিতে আপনি পাবেন 144Hz এর refresh rate যার ফলে একটি অধিক clear এবং smooth gaming experience অবশই পাবেন।

তাছাড়া, মোবাইলে পাচ্ছেন Octa Core, 3.1 GHz, Snapdragon 865 Plus CPU যেটাকে মোবাইলের গেমিং এর ক্ষেত্রে সেরা প্রসেসর হিসেবে ধরা হয়।

এখানে, High-end gaming এর উদ্দেশ্যে দেওয়া হয়েছে “Adreno 650 GPU“.

কেবল গেমিং না তবে, এই শক্তিশালী প্রসেসর আপনার মোবাইলে multitasking করার ক্ষেত্রেও দারুন experience দিয়ে থাকবে।

১২GB এবং ১৬GB RAM এর দুটি ভেরিয়েন্ট রয়েছে Asus ROG Phone 3 মডেলের।

তাই, রাম অধিক থাকার ফলে দুর্দান্ত গেমিং করতে পারাটা স্পষ্ট ভাবেই বোঝা যাচ্ছে।

এগুলো ছাড়াও, 16.74 cm (6.59 inch) Full HD+ Display থাকার ফলে আপনি অনেক ভালো HD গেমিং এক্সপেরিয়েন্স নিতে পারবেন।

64MP + 13MP + 5MP রেয়ার ক্যামেরা এবং 24MP ফ্রন্ট ক্যামেরা মোবাইলটিতে রয়েছে।

ব্যাটারী ব্যাকআপ এর কথা বললে সেটাও অনেক ভালো, কারণ এখানে আপনারা পাবেন 6000 mAh Lithium Polymer Battery.

মোবাইলটি হলো একটি 5G phone যেটা 4G, 3G, 2G network connectivity support করে।

মূলত, asus rog phone 3 হলো একটি pure gaming smartphone.

২. POCO X3 

POCO X3 smartphone
POCO X3 gaming mobile

যদি আপনি মূলত গেম খেলার জন্য মোবাইল কেনার কথা ভাবছেন, তাহলে POCO X3 হলো কম দামে ভালো একটি গেমিং মোবাইল।

Glass front (Gorilla Glass 5), plastic frame, plastic back এর সাথে এই মোবাইলটি দেখতে যতটা সুন্দর ততটাই ভালো এর performance.

সে গেমিং এর ক্ষেত্রে হোক বা মাল্টিটাস্কিং এর ক্ষেত্রে প্রত্যেক ক্ষেত্রেই পোকো এক্স ২ সেরা।

6.67 inches সাইজের এই মোবাইলের 1080 x 2400 pixels, IPS LCD, 120Hz display থাকছে যেটা আপনাকে clear HD gaming view দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

আপনার মোবাইলের ডিসপ্লেটি কিন্তু Corning Gorilla Glass 5 এর সাথে অনেক strong থাকছে এবং সহজে ভাংবেনা।

  • OS এর কথা বললে এখানে থাকছে Android 10, MIUI 12.
  • Qualcomm SM7150-AC Snapdragon chipset.
  • GPU থাকছে Adreno 618 যেটা অনেক smooth gaming experience আপনাকে দিবে।
  • CPU থাকছে Octa-core CPU.
  • 64GB/6GB RAM, 128GB/6GB RAM, 128GB/8GB RAM এর তিনটি আলাদা আলাদা variant আপনারা পাবেন।
  • Battery পাচ্ছেন Li-Po 6000 mAh, non-removable এবং Fast charging এর সাথে।

তাই, hardware এবং software প্রত্যেক ক্ষেত্রেই এই মোবাইল কিন্তু একটি gaming beast যেটার অন্যান্য গেমিং মোবাইল গুলোর থেকে তুলনামূলক ভাবে কম।

6000 mAh battery থাকার ফলে আপনি অনেক বেশি সময় পর্যন্ত গেমিং করতে পারবেন।

তবে চার্জ কমে গেলেও fast charging এর মাধ্যমে কেবল কিছু মিনিটের মধ্যেই দ্রুত ভাবে আবার মোবাইল চার্জ করে নিতে পারবেন।

স্পষ্ট এবং HD গেমিং এর মজা তখন পাবেন যখন মোবাইলের স্ক্রিন সাইজ অনেক বড় থাকবে।

এবং, এই মোবাইলে আপনারা সেটা অবশই পাচ্ছেন।

৩. Samsung Galaxy S20+

samsung galaxy s20+ রিভিউ
Samsung galaxy s20+ review in Bangla

বন্ধুরা, এই Samsung Galaxy S20+ একটি budget phone কখনোই না।

তবে গেমিং এর ক্ষেত্রে এই মোবাইল এর জবাব নেই।

দেখতে যতটা সুন্দর এবং আকর্ষণীয় স্যামসাং এর এই মোবাইল, performance এর ক্ষেত্রেও এই মোবাইল দারুন।

Glass front (Gorilla Glass 6) এবং glass back (Gorilla Glass 6) এর সাথে মোবাইলটি সম্পূর্ণ glass finish এর মধ্যে আপনি পাবেন।

Display নিয়ে কথা বললে এখানে থাকছে Dynamic AMOLED 2X, 120Hz, HDR10+ যেটার সাইজ 6.7 inches.

তাই, mobile gaming এর ক্ষেত্রে সেরা screen size অবশই বলা যেতে পারে।

  • OS থাকছে Android 10, One UI 2.5.
  • Exynos 990 (7 nm+) – Global chipset
  • CPU থাকছে Octa-core primary 2.73 GHz clock speed এর সাথে।
  • Quad HD+ resolution type এর সাথে।
  • Mali-G77 MP11 – Globa (integrated high-end graphics card).

মোবাইল টিতে পাচ্ছেন 128GB internal storage এবং 8GB RAM.

তাই, মোবাইলে থাকা GPU, processor এবং RAM সবটাই কিন্তু গেমিং এর ক্ষেত্রে জবরদস্ত।

সাথে, Mali-G77 MP11 হলো একটি high-end graphics card যেটা HD gaming এর ক্ষেত্রে অনেক ভালো।

৪. One plus 8 pro 

One plus 8 pro mobile review in bengali
One plus 8 pro mobile review in bengali

গেমিং মোবাইল এর কথা যখন আসছে তখন one plus 8 pro মোবাইলের কথা না বললে কিভাবে হতে পারে।

One plus এর মোবাইল গুলোকে budget mobile phones এর লিস্টে কখনোই রাখা হয়না।

এগুলো অবশই premium smartphones এর cattegory তে ধরা হয়।

যত বড় মোবাইলের স্ক্রিন সাইজ ততটাই গেমিং এর মজা বেশি, আর তাই এখানে দেওয়া হয়েছে 6.78 inches (Fluid AMOLED, 1B colors, 120Hz, HDR10+) এর large screen.

Screen resolution থাকছে 1440 x 3168 pixels এর।

এখানেও Glass front (Gorilla Glass 5) এবং glass back (Gorilla Glass 5) এর finishing দেওয়া হয়েছে।

Operating system এর কথা বললে এখানে Android 10 থাকবে যেটা ভবিষ্যতে Android 11 এ আপগ্রেড করতে পারবেন।

কেন one plus 8 pro একটি সেরা গেমিং ফোন ?

  • (6.78-inch) 120Hz fluid display এবং 3168 x 1440 pixels resolution এর সাথে।
  • 8GB RAM | 128GB internal memory যেটা মোবাইল এর performance সাংঘাতিক ভালো করে।
  • Dual-standby (5G+5G) এর মাধ্যমে 5G internet এর মজা নিয়ে অনলাইন গেমিং করুন।
  • 2.86GHz clock speed এর সাথে পাচ্ছেন Qualcomm Snapdragon 865, Kryo 585 CPU octa core processor.
  • Adreno 650 graphics GPU যেটা আপনার gaming experience টিকে দারুন ভালো রাখবে।
  • 4510mAH lithium-ion long lasting battery.
  • 48MP rear camera এবং 16MP front camera এখানে পাচ্ছেন।

৫. Xiaomi MI 10 

MI 10 mobile review
MI 10 mobile review

একটি দামি মোবাইল হলেও গেমিং করার জন্য সেরা মোবাইল এটাকে অবশই বলা যেতে পারে।

এই মোবাইলে, 180Hz sampling rate দেওয়া হয়েছে অধিক ভালো sensitivity র জন্যে।

তাছাড়া, 1120nits এর Peak brightness এখানে থাকছে।

16.94cm (6.67) 3D Curved E3 AMOLED Display দেওয়া হয়েছে যার ফলে screen টি অনেক বড় এবং আকর্ষণীয় দেখায়।

Mi 10 হলো 5G enabled smartphone যেখানে 5G নেটওয়ার্ক এর মজা আপনি নিতে পারবেন।

এমনিতে এই মোবাইলের মূল আকর্ষণ হলো 108MP quad rear camera.

তবে, যিহেতু আমরা গেমিং মোবাইল এর ক্ষেত্রে এই মোবাইলের কথা বলছি,

তাই, ক্যামেরার বিষয়টি বেশি highlight করাটা ঠিক হবেনা।

কেন, Mi 10 একটি বেস্ট গেমিং মোবাইল ?

  • 16.94 centimeters (6.67-inch) FHD+ AMOLED capacitive বড় ডিসপ্লে।
  • 2340 x 1080 pixels screen resolution
  • 3D Curved glass যেটা মোবাইলের আকর্ষণ অধিক বাড়িয়ে তোলে।
  • Android v10 operating system দেওয়া হয়েছে।
  • 2.84GHz Qualcomm Snapdragon 865 এবং 7nm octa core processor.
  • 4780mAH lithium-polymer battery এবং 30W wired fast charger.
  • 8GB RAM | 128GB internal memory / 8GB RAM | 256GB internal memory এর সাথে।
  • 90Hz Refresh Rate
  • Adreno 650 GPU
  • Audio এর ক্ষেত্রে stereo speakers আপনারা পাবেন।

৬. Realme X 50 pro

realme-x50-pro mobile

Qualcomm Snapdragon 865 এবং 6.44-inch screen size এর সাথে realme X 50 pro মোবাইল টিতে gaming করে অনেক মজা পাবেন।

Android 10 operating system এর সাথে এখানে থাকছে 5G network connectivity এবং 8GB RAM.

এমনিতে এই মোবাইলের দুটো আলাদা আলাদা variant মার্কেটে চলে এসেছে যেগুলো হলো “256 GB / 12 GB RAM” এবং “128 GB / 8 GB RAM”.

অবশই যেই মোবাইল এতটা ভালো RAM এবং internal storage থাকবে, সেই মোবাইলের performance নিয়ে কোনো চিন্তা নেই।

এগুলো ছাড়া, গেমিং এর ক্ষেত্রে মোবাইলটিতে কিছু বিশেষ hardware অবশই রয়েছে।

  • 7nm octa-core, Qualcomm Snapdragon 865 Processor, clock speeds of up to 2.84 GHz
  • 1080 x 2400 Pixels display resolution
  • Full HD+ Super AMOLED 6.44 inch display
  • Adreno 650 GPU
  • Primary Clock Speed 2.8 GHz
  • Primary Camera 64MP + 12MP + 8MP + 2MP
  • 32MP + 8MP Dual Front Camera
  • OS = realme UI Based on Android 10

৭. Vivo Y51 

vivo-y51-smartphone

Vivo Y51 হলো ভিভোর তরফ থেকে launch হওয়া নতুন স্মার্টফোন যেটা অবশই একটি premium android device.

মোবাইল টিতে থাকছে 6.58-inch touchscreen display এবং 1080×2048 pixels resolution.

5,000mAh এর battery থাকার ফলে আপনি প্রায় অনেক সময় গেমিং করতে পারবেন এই ফোনে।

গেমিং এবং মাল্টি-টাস্কিং করতে যাতে সামান্য অসুবিধেও না হয়, তাই এই মোবাইলে থাকছে octa-core Qualcomm Snapdragon 665 processor.

RAM এর কথা বললে এই মোবাইলে পাবেন 8GB of RAM.

Vivo Y51 এর operating system এর কথা বললে, এখানে থাকছে Funtouch OS 11 যেটা Android 11 এর সাথে তৈরি।

128GB inbuilt storage এর ফলে আপনি অনেক games, images বা videos নিজের মোবাইলে রাখতে পারবেন।

Smooth Gaming এর জন্য এই মোবাইলে দেওয়া হয়েছে Adreno 306 GPU.

Vivo Y51 smartphone কে best gaming mobile phones under 20 thousand বলা যেতেই পারে।

৮. Asus Rog Phone 2 

আসুস গেমিং মোবাইল
আসুস গেমিং মোবাইল

যখন কেবল gaming এবং performance এর ওপরে কোনো মোবাইলের কথা বলা হয়,

তখন আমি সবচে আগে “Asus Rog Phone 2” মোবাইলের কথা বলবো।

মোবাইলটি বর্তমানে launch হওয়া Asus Rog Phone 3 আসার আগেই বাজারে এসেছিলো।

6000mAh battery থাকার ফলে, মোবাইলটিতে আপনি অনেক বেশি সময় গেমিং করতে পারবেন।

তাছাড়া, 6.59-inch 1080×2340 resolution এর screen size আপনার gaming experience দারুন করে দিবে।

মোবাইল টিতে পাচ্ছেন, 2.96 GHz octa-core Qualcomm Snapdragon 855 Plus Processor যেটা heavy gaming আরামে সামলে নিতে পারে।

RAM এবং internal storage এর কথা বললে এখানে থাকছে 8 GB RAM | 128 GB ROM.

Asus roge phone 2 অবশই একটি AMOLED Full HD+ display এবং resolution এর সাথে চলে আসে।

যিহেতু আমরা সেরা গেমিং মোবাইল ফোন এর কথা বলছি তাই, এই মোবাইলে থাকছে Adreno 640 (675 MHz) GPU.

OS এর কথা বললে এখানে থাকছে Android 9 Pie.

আসুস এর সেরা গেমিং মোবাইল হিসেবে এই ফোন টিকে ধরা হয়।

৯. Realme Narzo 20 

কম দামে ভালো গেমিং মোবাইল
Realme গেমিং মোবাইল

যখন কথা আসছে বাজেট এর মধ্যে থেকে কম দামে ভালো গেমিং মোবাইল কেনার, তখন আমার পছন্দ “Realme Narzo 20“.

Realme Narzo 20 দেখতে যতটা সুন্দর ও আকর্ষণীয় একর কার্যক্ষমতা এবং performance তেমনি ভালো।

বাজেট এর মধ্যে গেমিং ফোন কিনতে চাইলে, আপনারা এই মোবাইল কিনে নিতে পারেন।

প্রায় ১৫ হাজারের মধ্যে এই গেমিং মোবাইল ফোনটি আপনারা কিনতে পারবেন।

মোবাইলে আপনারা পাচ্ছেন 4 GB RAM | 128 GB ROM.

তাছাড়া, 6000 mAh Lithium-ion Battery থাকার ফলে সহজে মোবাইলের ব্যাটারী শেষ হওয়ার সুযোগ থাকছেনা।

Processor এর কথা বললে এই মোবাইলে থাকছে MediaTek Helio G85 Processor.

Processor এর Primary Clock Speed হলো 2 GHz.

অবশই, smooth এবং HD gaming এর জন্য মোবাইল টিতে দেওয়া হয়েছে Arm Mali G52 MC2 GPU.

তবে, এটা হলো একটি mid-range graphics card যেটা ভালোই perform করে থাকে।

16.56 cm (6.52 inch) এর display size এর সাথে 1600 x 720 Pixels এর screen resolution পাচ্ছেন।

মোবাইল টির resolution type হলো HD+.

শেষে, Operating System এর কথা বললে এখানে থাকছে Android 10 OS.

যদিও আমরা গেমিং এর সাথে জড়িত বিষয় গুলো নিয়ে কথা বলছি, তাও জেনে রাখুন,

Primary Camera থাকছে 48MP + 8MP + 2MP এবং 8MP Front Camera.

 

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা আশা করছি আমাদের আজকের আর্টিকেল best android gaming mobile phones এর list আপনাদের ভালো লেগেছে।

এমনিতে, আমি নিজের পছন্দ হিসেবেই মোবাইল গুলোর বিষয়ে বললাম।

আর যিহেতু মূলত High end gaming এর ওপরে নজর দিয়ে মোবাইল গুলোর কথা বলা হয়েছে,

তাই প্রত্যেকটি মোবাইলের দাম কিন্তু অনেক বেশি।

এমনিতে, সাধারণ গেমিং এর জন্য আপনারা 4GB RAM / 64GB ROM থাকা মোবাইল দিয়েও কাজ চালিয়ে দিতে পারবেন।

তবে, সেই High end HD gaming এর মজা অবশই পাবেননা।

এমনিতে, আপনার হিসেবে যদি কোনো ভালো এন্ড্রয়েড গেমিং ফোন রয়েছে,

তাহলে নিচে কমেন্ট করে অবশই জানিয়ে দিবেন।

 

8 thoughts on “গেম খেলার জন্য কোন মোবাইল ভালো ? (৯ টি বেস্ট গেমিং ফোন)”

  1. মোহাম্মদ ইমন

    আমার মতে ভালো গেমিং ফোন হচ্ছে সিম্ফনি জেড১২ (symphony Z12)। ফোনটি কমদামে সেরা একটি গেমিং ফোন (বাংলাদেশে)।

    1. ধন্যবাদ আর্টিকেল পড়ার জন্যে। তবে, এতো কম দামে একটি গেমিং ফোন এর খোঁজ পাওয়াটা আমার হিসেবে সহজ কাজ না।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap