পেপাল (PayPal) কি ? পেপাল একাউন্ট খোলার নিয়ম

পেপাল কি ? (what is paypal in Bangla): বর্তমান সময়ে আমরা বিভিন্ন ধরণের কাজ গুলো অনলাইনে ইন্টারনেটের মাধ্যমেই করে নিতে পারি।

PayPal কি ? পেপাল একাউন্ট খোলার নিয়ম
What is PayPal account ?

আর, যদি আপনি একজন ব্লগার (blogger) বা freelancer, তাহলে বিভিন্ন ধরণের online payment এবং client দের থেকে টাকা গ্রহণ করার উদ্দেশ্যে একটি “online payment system” এর ব্যবহার করতে হয়।

ধরুন আপনি একজন blogger এবং একজন ব্লগার হিসেবে আপনার বিভিন্ন ধরণের অনলাইন পেমেন্ট করতে লাগতেই পারে।

যেমন, hosting কেনা ও renew করা, domain কেনা ও renew করা, WordPress theme কেনার ক্ষেত্রে ইত্যাদি।

এখন, এই ধরণের digital services গুলোর জন্য, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আমাদের দেশের বাইরের কিছু company গুলোকে টাকা পেমেন্ট করতে হয়।

এবার, এই ধরণের আন্তর্জাতিক (international) পেমেন্ট গুলো সহজেই করার জন্য আমাদের প্রয়োজন হয় একটি “world wide online payment system” এর।

এবং, পেপাল (PayPal) হলো এরকম একটি international payment system, যেটাকে আন্তর্জাতিক ভাবে পেমেন্ট পাঠানো বা পেমেন্ট গ্রহণ করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।

প্রচুর ফ্রিল্যান্সাররা বাইরের দেশের clients দের জন্য বিভিন্ন কাজ করার বিপরীতে, এই পেপাল (PayPal) পেমেন্ট সিস্টেম এর মাধ্যমেই টাকা গ্রহণ করতে পারছেন।

এমনিতে, পেপাল এর মতোই আরো অনেক অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম রয়েছে।

তবে, আন্তর্জাতিক ভাবে টাকা পাঠানো বা টাকা গ্রহণ করার ক্ষেত্রে, পেপাল সব থেকে অধিক জনপ্রিয় ও সর্বাধিক পরিমানে ব্যবহার করা হয়।

PayPal এর মাধ্যমে টাকার লেন দেন করার জন্য, প্রথমেই আপনার একটি পেপাল একাউন্ট তৈরি করতে হবে।

জেকেও, নিজের একটি পেপাল একাউন্ট বানিয়ে নিতে পারবেন এবং অনলাইনে আন্তর্জাতিক ভাবে টাকার লেন দেন করতে পারবেন।

এমনিতে, একটি পেপাল একাউন্ট খোলার নিয়ম অনেক সোজা এবং সম্পূর্ণ ফ্রি।

তাহলে চলুন, “PayPal কি” (About PayPal in Bangla) এবং “paypal একাউন্ট খোলার নিয়ম” এর বিষয়ে নিচে বিস্তারিত ভাবে জেনেনেই।

পেপাল (PayPal) কি ?

পেপাল হলো এমন একটি অনলাইন ওয়েবসাইট, যেটার ব্যবহার করে আপনারা অনেক সহজেই পেমেন্ট গ্রহণ করতে পারেন বা পেমেন্ট পাঠাতে পারেন।

এবং সম্পুর্ন পেমেন্ট এর প্রক্রিয়াটি হবে অনলাইনে।

এই অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম ব্যবহার করে নিজের ব্যক্তিগত কাজের উদ্দেশ্যে বা নিজের ব্যবসার ক্ষেত্রে, আপনারা টাকার লেন দেন করতে পারবেন।

তাছাড়া, পেপাল এর ব্যবহার বিশেষ করে আন্তর্জাতিক ভাবে দেশের বাইরে টাকা পাঠানো বা দেশের বাইরের থেকে টাকা গ্রহণ করার উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হয়।

পেপাল এর মাধ্যমে টাকার লেন দেন করার জন্যে, আপনার bank account এবং bank debit card এর তথ্য দিতে হবে।

এর পর, আপনি আপনার bank account এর থেকে PayPal এর মাধ্যমে যেকোনো ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান বা কোম্পানির কাছে অনলাইনে টাকা পাঠাত পারবেন।

ঠিক সেভাবেই, যখন আপনার PayPal account এ কেও টাকা পাঠাবে, তখন আপনি সেই টাকা নিজের ব্যাঙ্ক একাউন্টে ট্রান্সফার করে নিতে পারবেন।

পেমেন্ট এড্রেস (payment address) হিসেবে এখানে ব্যক্তির email address ব্যবহার করা হয়।

মানে, যেভাবে একটি bank account খোলার পর আপনাকে একটি account number দেওয়া হয়, ঠিক সেভাবেই পেপাল একাউন্ট তৈরি করার সময়, আপনার নিজের একটি email address দিয়ে দিতে হয়।

এবং, পেপাল একাউন্ট তৈরি করার সময় দেওয়া আপনার email address টি আপনার PayPal account number হিসেবে কাজ করে।

তাহলে, পেপাল এর বিষয়ে এক কথায় বললে, “PayPal হলো টাকা পাঠানো ও গ্রহণ করার একটি অনলাইন সার্ভিস যেটা জেকেও ব্যবহার করতে পারেন”.

তাহলে আশা করছি, “পেপাল কি” বা “PayPal কাকে বলে“, বিষয়টি আপনারা বুঝতেই পেরেছেন।

পেপাল এর প্রতিষ্ঠাতা কে ?

PayPal হলো একটি আমেরিকান কোম্পানি যেটা ১৯৯৮ সালে প্রতিষ্ঠাপিত করা হয়েছিল।

পেপাল এর প্রতিষ্ঠাতা দের নাম হলে, Elon Musk, peter Thiel, Max Levchin, Ken Howery, Luke Nosek, Yu Pan.

কেন ব্যবহার করা হয় পেপাল (PayPal) ?

এমনিতে পেপাল এর ব্যবহার নিয়ে তেমন বলার কিছু নেই।

কারণ, আমি আগেই বলেছি যে পেপাল এর ব্যবহার আন্তর্জাতিক ভাবে টাকা গ্রহণ করা ও টাকা পাঠানোর ক্ষেত্রে করা হয়।

তবে, নিচে আমি এর কিছু অন্যান্য কারণ বলে দিচ্ছি, যার কারণে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পেপাল এর ব্যবহার হওয়া দেখা যায়।

  • কোনো ঝামেলা ছাড়া কেবল একটি email address এর মাধ্যমে টাকা পাঠানো সম্ভব।
  • টাকা গ্রহণ করার ক্ষেত্রে, কেবল নিজের পেপাল একাউন্ট এর সাথে জড়িত ইমেইল আইডি দিয়েই গ্রহণ করতে পারবেন।
  • এর মাধ্যমে, আন্তর্জাতিক ভাবে (internationally) অনেক সহজে টাকা পেমেন্ট করা হয়।
  • আন্তর্জাতিক ভাবে (internationally) কোনো সমস্যা ছাড়া, পেমেন্ট গ্রহণ করতে পারবেন।
  • পেপাল (PayPal), অনলাইনে টাকা লেন দেন করার অনেক সুরক্ষিত একটি মাধ্যম।
  • দেশের বাইরের বিভিন্ন অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট গুলোর থেকে পণ্য (product) কেনার বিপরীতে পেপাল এর মাধ্যমে পেমেন্ট করা অপসন থাকে।
  • পেপাল একাউন্টে আপনি একাধিক ব্যাঙ্ক একাউন্ট এবং ডেবিট কার্ড যোগ করতে পারবেন। তাই, টাকার ড লেন দেন করার ক্ষেত্রে, নিজের প্রয়োজন হিসেবে ব্যাঙ্ক এর বাছাই করতে পারবেন। এই সুবিধের জন্য, অনেকেই পেপাল ব্যবহার করেন।
  • অন্যান্য অনলাইন পেমেন্ট সার্ভিস গুলোতে আপনার টাকা দিতে হয়। তবে, পেপাল আমরা সম্পূর্ণ ফ্রীতেই ব্যবহার করতে পারি।
  • PayPal mobile app এর মাধ্যমে, নিজের মোবাইল থেকেই এর ব্যবহার করাটা সম্ভব।

তাহলে বন্ধুরা, পেপাল কেন ব্যবহার করা হয়, এই প্রশ্নের উত্তর আপনারা হয়তো অবশই পেয়ে গেছেন।

পেপাল (PayPal) একাউন্টের সুবিধা ও লাভ

ওপরে পেপাল এর কিছু ব্যবহার গুলো দেখেই হয়তো আপনারা বুঝে গেছেন যে পেপাল একাউন্ট এর সুবিধা গুলো কি কি।

  1. পেপাল একাউন্ট এর মাধ্যমে বিশ্বের যেকোনো জায়গায় টাকা পাঠাতে পারবেন এবং টাকা গ্রহণ করতে পারবেন।
  2. অন্যান্য অনলাইন পেমেন্ট সার্ভিস এর তুলনায় পেপাল প্রচুর সুরক্ষিত ও বিশ্বস্ত।
  3. এখানে আপনারা নিজের debit card ও credit card যোগ করে পেমেন্ট করতে পারবেন।
  4. একাধিক debit card, credit card এবং bank account যোগ করা সম্ভব।
  5. নিজের পেপাল (PayPal) একাউন্ট এ গ্রহণ করা টাকা, সোজা নিজের ব্যাঙ্ক একাউন্টে পাঠাতে পারবেন।
  6. Freelancer রা নিজের কাজ এর বিপরীতে, যেকোনো জায়গার থেকে পেপাল এর মাধ্যমে অনেক সহজে টাকা গ্রহণ করতে পারেন।
  7. ব্লগাররা, hosting এবং domain কেনার ক্ষেত্রে পেপাল এর ব্যবহার করে পেমেন্ট করতে পারেন।
  8. বাইরের দেশের online e-commerce website গুলোর থেকে products কেনার বিপরীতে, পেপাল এর মাধ্যমে সহজেই পেমেন্ট করা সম্ভব।
  9. পেপাল এর মাধ্যমে শপিং করার ক্ষেত্রে বিভিন্ন offer আমরা পেতে পারি।
  10. যেকোনো সার্ভিস এর ক্ষেত্রে পেপাল ব্যবহার করে পেমেন্ট করলে, আমাদের bank বা debit / credit card এর তথ্য না দিয়েই পেমেন্ট করা সম্ভব। এতে, আমাদের card বা bank সুরক্ষিত account থাকে।

PayPal account এর প্রকার গুলো কি কি ?

পেপাল একাউন্ট এর ৩ টি প্রকার রয়েছে।

মানে, একটি পেপাল একাউন্ট তৈরি করার জন্য আপনার কাছে ৩ রকমের একাউন্ট তৈরি করার অপসন থাকছে।

  1. Personal account
  2. Premier account
  3. Business account

Personal Account 

একটি personal PayPal account অনেক সাধারণ রকমের একাউন্ট যেটার ব্যবহার মূলত অনলাইনে কেনাকাটা করার উদ্দেশ্যে তৈরি করা হয়। 

এই Personal account টিকে Individual account বলেও বলা যেতে পারে।

এখানে, নিজের ব্যাঙ্ক একাউন্ট থেকে টাকা লোড করতে হয়।

এবং, লোড করা টাকা গুলো ব্যবহার করে অনলাইন শপিং করতে পারেন বা অন্যান্য পেপাল ইউসার দের টাকা পাঠাতে পারবেন।

এই ধরণের personal account এর মাধ্যমে, আপনারা অন্যান্য পেপাল ইউসার দের পেমেন্ট পাঠাতে পারবেন বা অন্যান্য ইউসার থেকে পেমেন্ট গ্রহণ করতে পারবেন।

তবে, এখানে সোজা debit card বা credit card এর মাধ্যমে payment গ্রহণ সম্ভব না।

কেবল, নিজের পেপাল একাউন্টে লোড করা টাকা ব্যবহার করেই টাকার পেমেন্ট বা লেন দেন সম্ভব।

একাধিক bank account বা debit ও credit card যোগ করে, সেগুলোর মাধ্যমে টাকা লোড করতে পারবেন এবং টাকা পেমেন্ট করতে পারবেন।

ব্যক্তিগত (personal) ভাবে সাধারণ ব্যবহার এর ক্ষেত্রে, এই একাউন্ট সেরা।

Business Account 

এই ধরণের একাউন্ট, অনলাইন ব্যবসায়ী দের ক্ষেত্রে সেরা।

একটি company বা organization যারা অনলাইন ব্যবসার সাথে সংযুক্ত, তারা এই ধরণের পেপাল একাউন্ট ব্যবহার করেন।

এখানে প্রত্যেক debit card ও credit card পেমেন্ট গ্রহণ করা হয়।

তাছাড়া, business payments এর সাথে জড়িত অন্যান্য কিছু সুবিধে এই একাউন্টে পাবেন।

মনে রাখবেন, ব্যক্তিগত ব্যবহারের ক্ষেত্রে এই একাউন্ট ব্যবহার করে লাভ হবেনা।

যদি আপনার একটি ব্যবসা রয়েছে, তাহলে এই একাউন্ট টাইপ এর লাভ আপনি অবশই পাবেন।

পেপাল (PayPal) একাউন্ট তৈরি করার জন্য কি কি লাগবে ?

একটি পেপাল একাউন্ট তৈরি করার ক্ষেত্রে, আপনার কিছু জরুরি বিষয়ে ধ্যান রাখতে হবে।

  1. আপনার একটি personal email address থাকতে হবে। (Email address এর মাধ্যমেই টাকা পাঠানো এবং গ্রহণ করা যাবে ).
  2. আপনি যদি ভারতের থেকে একাউন্ট তৈরি করছেন, তাহলে আপনার একটি PAN number থাকতে হবে। (PAN number ছাড়া গ্রহণ করা টাকা নিজের ব্যাঙ্ক একাউন্টে পাঠাতে পারবেননা)।
  3. আপনার একটি debit card বা credit card থাকতেই হবে, যদি আপনি পেপাল এর মাধ্যমে টাকা পাঠাতে চাচ্ছেন।
  4. নিজের পেপাল একাউন্টে গ্রহণ করা টাকা ব্যাঙ্ক একাউন্টে পাঠানোর জন্য, আপনার একটি ব্যাঙ্ক একাউন্ট থাকতে হবে।

তাহলে, এগুলোই ছিল কিছু সাধারণ প্রয়োজনীয়তা গুলো, যদি আপনি একটি পেপাল একাউন্ট তৈরি করার কথা ভাবছেন।

পেপাল (PayPal) একাউন্ট খোলার নিয়ম জেনেনিন

একটি ফ্রি পেপাল একাউন্ট কিভাবে খুলতে হয়, এই বিষয়ে জানার আগেই আমি বলে দিতে চাই যে, PayPal account বানানোর জন্য আপনারা এর android app এর ব্যবহার অবশই করতে পারবেন।

Google Play Store এ, আপনারা PayPal app অবশই পেয়ে যাবেন।

নিচে আমরা মোবাইলের মাধ্যমে পেপাল এর ওয়েবসাইট ব্যবহার করে একাউন্ট খোলার নিয়ম জেনেনিব।

Step. ১ : Go to PayPal website 

সবচে আগেই, আপনার যেতে হবে “PayPal official website” এ।

এবার ওয়েবসাইটে যাওয়ার পর, আপনারা “Sign up for free” লেখা দেখতে পাবেন।

সোজা সেই “sign up for free” লিংকে ক্লিক করুন।

Step. ২ : Select type of account  

Select PayPal account type

আমি ওপরে আগেই আপনাদের বলেছি যে, পেপাল এর মধ্যে আমরা দুই ধরণের একাউন্ট তৈরি করতে পারি।

  • Personal account
  • Business account

এখন যেহেতু, আমরা ব্যক্তিগত ব্যবহারের ক্ষেত্রে পেপাল ব্যবহার করবো, তাই আমরা “personal account” বেছে নিয়ে নিচে “Next” লিংকে ক্লিক করবো।

Step. ৩ : Enter email and password 

এবার করতে হবে অনেক জরুরি স্টেপ, যেটা হলো একটি “email address দেওয়া” এবং “password” তৈরি করা।

মনে রাখবেন, আপনি যেই ইমেইল আইডি দিবেন, সেটা ভবিষ্যতে পেপাল এর মাধ্যমে টাকা গ্রহণ করার জন্য কাজে আসবে।

আপনার PayPal account id হিসেবে ধরা হবে আপনার দেওয়া email address টি।

তাই,

  • Email address এর বাক্সে একটি email id দিয়ে দিন।
  • Password এর বাক্সে নতুন পাসওয়ার্ড দিয়ে দিন।
  • Confirm Your Password এর বাক্সে, পাসওয়ার্ডটি আবার লিখুন।
  • এবার, Next বাটনে ক্লিক করুন।

Step. ৪ : Enter personal details 

enter personal details

এবার, পরের পেজে আপনাদের কিছু personal details দিয়ে দিতে হবে।

যেমন,

  • Nationality : কোন দেশের বাসিন্দা সেটা দিয়ে দিতে হবে।
  • First name : আপনার প্রথম নাম।
  • Last name : আপনার উপাধি।
  • Address : আপনার ঠিকানা দিতে হবে।
  • Town / City : কোন শহরে বাশ করেন।
  • Country / state : কোন দেশ এবং রাজ্যতে বসবাস করছেন।
  • Pin code : বসবাস করা area র pin code দিতে হবে।
  • Mobile number : আপনার সঠিক মোবাইল নম্বর দিতে হবে।

ওপরে দেওয়া প্রশ্ন বা ডিটেল গুলো দিয়ে দেওয়ার পর, নিচে কিছু অপসন দেখতে পাবেন।

Agree and create PayPal account
Agree and create PayPal account

নিচে যেই ৩ টি অপসন দেখতে পাচ্ছেন, প্রত্যেকটিতেই ক্লিক করে accept করে নিতে হবে।

এবার নিচে থাকা “Agree and create account” এ ক্লিক করুন।

Step. ৫ : Add debit or credit card 

Add debit card or credit card
Add debit card or credit card

এবার, পেপাল একাউন্টে নিজের একটি debit card বা credit card এর তথ্য দিয়ে সেটাকে পেপাল এর সাথে লিংক করতে হবে।

এমনিতে, আপনার পেপাল একাউন্ট তৈরি হয়ে গেছে এবং এই credit/ debit card লিংক করার প্রক্রিয়া আপনি পরেও করতে পারবেন।

মনে রাখবেন, credit বা debit card লিংক না করলে আপনি আপনার পেপাল একাউন্ট থেকে পেমেন্ট করতে পারবেননা।

Final step to activate PayPal account 

পেপাল একাউন্ট খোলার নিয়ম

যদি আপনি ওপরের স্টেপ থেকেই একটি debit card / credit card যোগ করে নিয়েছেন, তাহলে মোবাইল নম্বর ভেরিফিকেশন এর পর আপনার পেপাল একাউন্ট সম্পূর্ণ ভাবে এক্টিভেট হয়ে যাবে।

তবে, যদি আপনি ওপরের স্টেপে card link করেননি, তাহলে নিজের PayPal একাউন্টে লগইন করার পর আপনাকে দুটো স্টেপ সম্পূর্ণ করার জন্য বলা হবে।

  • Link your debit or credit card
  • Confirm your mobile phone

একে একে এই দুটি স্টেপ সম্পূর্ণ করার পর, আপনি আপনার পেপাল একাউন্ট এর মাধ্যমে টাকা গ্রহণ ও পেমেন্ট করতে পারবেন।

মনে রাখবেন, আপনি আপনার পেপাল একাউন্টে একাধিক bank account, credit card এবং debit card যোগ (link) করতে পারবেন।

তাহলে বুঝলেন তো, কিভাবে পেপাল একাউন্ট তৈরি করতে হয় ?

আমার হিসেবে, PayPal একাউন্ট খোলার নিয়ম অনেক সোজা এবং মোবাইল থেকে একাউন্ট খোলার ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা আপনার হবেনা।

পেপাল নিয়ে কিছু সাধারণ প্রশ্ন

পেপাল একাউন্ট বানিয়ে নেওয়ার পর, প্রথম অবস্থায় পেপাল নিয়ে কিছু প্রশ্ন আমাদের মনে অবশই থাকে।

 ১. আমি পেপাল একাউন্ট বানিয়ে নিয়েছি, এখন পেমেন্ট গ্রহণ কিভাবে করবো ?

আপনার একাউন্ট তৈরি হয়ে যাওয়ার পর, টাকা গ্রহণ করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে হবে নিজের PayPal email id র।

মানে, একাউন্ট তৈরি করার সময় যেই ইমেইল এড্রেস (email address) আপনি দিয়েছিলেন, সেটা আপনার “PayPal account id” হিসেবে কাজ করবে।

এবং, যেই ব্যক্তি আপনাকে পেপাল এর মাধ্যমে থাকা পাঠাতে চাইবেন তাকে আপনি আপনার পেপাল ইমেইল এডড্রেসটি দিয়ে দিতে হবে।

আপনার ইমেইল এড্রেস এর মাধ্যমে ব্যক্তি নিজের পেপাল একাউন্ট থেকে আপনাকে টাকা পাঠিয়ে দিতে পারবেন।

২. একাউন্ট তৈরি হয়ে গেছে, এখন পেমেন্ট কিভাবে পাঠাবো ?

নিজের পেপাল একাউন্ট থেকে টাকা পাঠানোর জন্য পেপাল একাউন্ট থেকে “Send” অপশনে ক্লিক করতে হবে।

এবার send অপশনে ক্লিক করার পর, যেই ব্যক্তির পেপাল একাউন্টে টাকা পাঠাতে চাচ্ছেন, তার PayPal email address দিয়ে টাকা পাঠিয়ে দিতে পারবেন।

মনে রাখবেন, পেপাল এর মাধ্যমে পেমেন্ট পাঠানোর জন্য প্রথমেই নিজের একাউন্টে একটি bank account, debit card বা credit card লিংক করতেই হবে।

 

আমাদের শেষ কথা

তাহলে বন্ধুরা, আশা করছি যে “পেপাল (PayPal) কি (What Is PayPal in Bangla)” এবং “পেপাল একাউন্ট খোলার নিয়মটি আপনারা সহজেই বুঝতে পেরেছেন।

পেপাল এর সাথে জড়িত কোনো অন্যান্য প্রশ্ন বা সমস্যা থাকলে আমাকে নিচে কমেন্টের মাধ্যমে জানিয়ে দিবেন।

আমি সব সময় এটাই চেষ্টা করি যাতে আমার লেখা আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাদের কিছু হলেও উপকার হয়।

তাই, যদি আর্টিকেলটি আপনার ভালো লেগে থাকে, তাহলে শেয়ার অবশই করবেন।

এতে, এই আর্টিকেলের মাধ্যমে অন্যরাও কিছু নতুন শিখতে পারবেন।

Also read :

Related Contents:

BanglaTech
0 Shares

4 thoughts on “পেপাল (PayPal) কি ? পেপাল একাউন্ট খোলার নিয়ম”

  1. Md. Saiful Islam

    পেপাল এ অ্যাকাউন্ড খুলতে গেলে মোবাইল নম্বর চাচ্ছে । যেখানে +১ দিয়ে শুরু। মোবাইল নম্বর দিয়েও কোন কাজ করতে পারছিনা। মোবাইল নম্বরে কোন কোড আসতেছেনা। কী করতে পারি? একটু সাহায্য করবেন, প্লিজ !

    1. আমার মনে হচ্ছে, আপনি country option টিতে কোনো অন্য দেশ সিলেক্ট করে রেখেছেন।

  2. ষষ্ঠী কুমার দাস

    খুব ভালো অভিজ্ঞতা হলো, আমি আরো জানতে চাই, আপনার সাহায্য ও সহযোগিতা চাই।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
Copy link