ফ্রীতে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার নিয়ম এবং প্রক্রিয়া

মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার নিয়ম কি ? মোবাইলে ওয়েবসাইট খোলার নিয়ম, মোবাইল দিয়ে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো ? যদি আপনারা এই প্রশ্ন গুলোর উত্তর খুঁজছেন, তাহলে আমাদের আজকের আর্টিকেলটি কেবল আপনার জন্য। 

মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি
ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো ?

কেননা, কম্পিউটার বা ল্যাপটপ ছাড়া নিজের মোবাইল মোবাইল দিয়ে ফ্রীতে যেকোনো ধরণের ওয়েবসাইট বানানোর নিয়ম আমি আপনাদের আজকে বলতে চলেছি। 

যদি আপনি নিজের একটি ওয়েবসাইট বানাতে চাইছেন, কিন্তু আপনার কাছে ল্যাপটপ বা কম্পিউটার নেই, তাহলে আর্টিকেলটি আপনার প্রচুর কাজে আসবে। 

একটি ওয়েবসাইটের মধ্যে নিজের জ্ঞান শেয়ার করা বা নিজের ব্যবসার জন্য আজ প্রত্যেকেই একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান। 

এছাড়া অনেকেই নিজের বন্ধুদের দেখানোর জন্য বা নিজেকে জনপ্রিয় ও বিখ্যাত করার জন্য একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে চান। 

সে কারণ যাই হোক না কেন, যদি আপনার একটি ওয়েবসাইট বানানোর ইচ্ছে আছে তাহলে আজকের আর্টিকেলটি অনুসরণ করে ফ্রীতে নিজের মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট খোলার নিয়ম জেনেনিতে পারবেন। 

এমনিতে, কিভাবে একটি ফ্রি ব্লগার ব্লগ তৈরি করব এবং ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার সেরা প্লাটফর্ম গুলোর বিষয়ে আমি আগেই আপনাদের বলেছি। 

তবে, অনেক সহজেই মোবাইল এর মাধ্যমে যে আপনি একটি ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন সেই বিষয়ে আগে কিন্তু বলা হয়নি।

তাই, চলুন নিচে আমরা সেই নিয়ম এবং প্রক্রিয়া গুলো জেনেনেই যেগুলোকে অনুসরণ করে আমরা একটি ওয়েবসাইট কিভাবে বানাবো সেটা জেনেনেই। 

মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার নিয়ম

এমনিতে আজ থেকে কিছু বছর আগে যদি আপনি মোবাইলে ওয়েবসাইট খোলার নিয়ম এর বিষয়ে জিগেশ করতেন,

তাহলে এর একটাই উত্তর পেতেন যে, মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট বানানো সম্ভব না।

কিন্তু আজ আমরা প্রত্যেকেই স্মার্টফোন ব্যবহার করছি এবং একটি স্মার্টফোন হলো কম্পিউটারের মতোই একটি অনেক শক্তিশালী ডিভাইস।

আমরা একটি কম্পিউটারের মাধ্যমে যেই কাজ গুলো করে থাকি সেই কাজগুলো আমরা আজ একটি স্মার্টফোন এর মাধ্যমে করতে পারি।

তাহলে চলুন বেশি সময় নষ্ট না করে আমরা মোবাইলের মাধ্যমে ফ্রীতে ওয়েবসাইট বানানোর প্রক্রিয়া এবং নিয়ম গুলো জেনেনেই।

তবে সব থেকে আগে আপনার জেনে রাখতে হবে যে ওয়েবসাইটটি বানানোর জন্য আপনার কি কি জিনিসের প্রয়োজন হবে।

মোবাইলের দ্বারা ওয়েবসাইট বানানোর জন্য কি কি লাগবে ?

মোবাইল দিয়ে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট বানাতে কিসের প্রয়োজন হবে সেটা নিয়ে আমরা প্রথমে আলোচনা করে নিবো।

১. একটি স্মার্টফোন – যদি মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট বানানোর কথা বলা হচ্ছে, তাহলে অবশই আমাদের সব থেকে প্রথমেই একটি স্মার্টফোন এর প্রয়োজন হবে।

২. ইন্টারনেট – দ্বিতীয় সব থেকে জরুরি জিনিসটি হলো ইন্টারনেট ডাটা। একটি ওয়েবসাইট বানানোর জন্য আপনার মোবাইলে ইন্টারনেট সেবা সংযুক্ত থাকতে হবে। ফাস্ট ইন্টারনেট কানেকশন থাকলে অনেক তাড়াতাড়ি এবং আরামে ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন।

৩. Google account – ওয়েবসাইট বানানোর যেই platform আমরা ব্যবহার করবো সেটা হলো Google এর blogger.com. আর blogger ব্যবহার করে ওয়েবসাইট বানানোর জন্য আপনার একটি গুগল বা জিমেইল একাউন্ট থাকতেই হবে।

এবার, যদি ওপরে বলা প্রত্যেকটি জিনিস আপনার কাছে রয়েছে তাহলে নিচে দেওয়া স্টেপ গুলো অনুসরণ করে আপনি ফ্রীতে নিজের অনলাইন ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন।

Mobile দিয়ে free website কিভাবে বানাব ?

আমি আগেই বলেছি যে, ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য আমরা blogger.com ব্যবহার করবো।

Blogger হলো সম্পূর্ণ free একটি website builder platform যেটা সম্পূর্ণ free এবং এর মাধ্যমে যেকোনো ধরণের blog বা website বানানো সম্ভব।

আপনারা বিভিন্ন ধরণের ব্লগার থিম গুলো ব্যবহার করে business website থেকে শুরু করে professional blogs তৈরি করতে পারবেন।

ওয়েবসাইটের সাথে আমাদের subdomain যোগ করার সুবিধা দিয়ে দেওয়া হয় যার ফলে শুরুতে একটি ডোমেইন নাম না কিনেই website live করা যাবে।

এছাড়া, Blogger.com হলো Google এর একটি সেবা আর তাই এর ওপরে সম্পূর্ণ বিশ্বাস করা যাবে।

চলুন এবার আমরা জেনেনেই মোবাইল দিয়ে ব্লগার এর মাধ্যমে কিভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা যাবে।

মোবাইলে Blogger দ্বারা website তৈরির নিয়ম

নিচে প্রত্যেকটি স্টেপ গুলো ভালো করে অনুসরণ করে আপনারা নিজের ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারবেন।

স্টেপ ১. 

সবচেয়ে আগে আপনাকে নিজের মোবাইলের ওয়েব ব্রাউজার খুলে blogger.com ওয়েবসাইটে যেতে হবে।

go to blogger website

ওয়েবসাইটে ভিজিট করার পরে আপনারা নিচে “create your blog” নামের একটি বাটন দেখতে পাবেন।

আপনাকে সরাসরি সেই বাটনের মধ্যে click করতে হবে।

স্টেপ ২.

এবার আপনাদের রিডাইরেক্ট করা হবে গুগলের sign page এর মধ্যে যেখানে আপনাকে নিজের Gmail ID এবং password দিয়ে লগইন করতে হবে।

login with google account

আপনি আপনার মোবাইলে আগের থেকে রেজিস্টার থাকা গুগল একাউন্ট আপনি ব্যবহার করতে পারবেন আর নাহলে use another account এর মধ্যে click করে অন্য Gmail account ব্যবহার করতে পারবেন।

স্টেপ ৩.

এবার সঠিক ভাবে নিজের জিমেইল একাউন্ট দিয়ে লগইন করার পর, আপনাদের সর্ব প্রথমে নিজের ব্লগ সাইট এর জন্য একটি title দিয়ে দিতে হবে।

add blog title

টাইটেল আপনি যেকোনো একটি দিলেই হলো, তবে এমন টাইটেল দিবেন যেটা পড়ে আপনার ওয়েবসাইটের বিষয়ে ভিসিটর্সরা কিছুটা বুঝতে পারবেন।

Title দিয়ে দেওয়ার পর নিচে থাকা Next বাটনে click করুন।

স্টেপ ৪. 

এবার সব থেকে জরুরি জিনিসটি আপনার করতে হবে।

আপনাকে একটি subdomain যোগ করতে বলা হবে যেটার মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটটি অনলাইনে খুঁজে পাওয়া যাবে।

choose url for blog site

এবার আপনি একটি URL address দিয়ে দিন যেটার মাধ্যমে আপনার website ভবিষ্যতে access করা যাবে।

আপনি যেকোনো URL দিতে পারবেন, তবে ওয়েবসাইটের বিষয়ের সাথে জড়িত URL রাখলে ভালো।

শেষে, নিচে থাকা NEXT লিংকে click করুন।

স্টেপ ৫.

এবার শেষে আপনাকে একটি display name যোগ করতে হবে।

Display name টি আপনার ওয়েবসাইটের visitors বা readers দের দেখানো হবে।

blog display name

আপনি display name এর ক্ষেত্রে নিজের নাম বা নিজের ওয়েবসাইটের নাম যেকোনো একটি দিলেই হবে।

শেষে, নিচে থাকা FINISH এর link এর মধ্যে click করে দিন।

স্টেপ ৬.

এখন, আপনার ব্লগ সাইট সফলতাপূর্বক তৈরি হয়ে গেছে এবং আপনাকে আপনার blogger website dashboard দেখিয়ে দেওয়া হবে।

আপনি নিজের ওয়েবসাইটের জন্য যেই URL address set করেছিলেন, সেটাতে গিয়ে নিজের ওয়েবসাইট টি দেখে নিতে পারবেন।

তবে, শুরুতে আপনার ওয়েবসাইটে কোনো ধরণের কনটেন্ট থাকবেনা, তাই আপনি ওয়েবসাইটে ভিজিট করলেও কিছুই দেখতে পারবেননা।

তাই, সবচে প্রথমেই dashboard এর ওপরে বাম দিকে থাকা “New Post” এর link এর মধ্যে click করুন।

Add new post or content

এতে, আপনার মোবাইলে একটি পোস্ট এডিটর পেজ খুলে যাবে যেখানে আপনি নিজের কনটেন্ট বা আর্টিকেল গুলো লিখতে পারবেন।

Write article with mobile

আপনি নিজের আর্টিকেলের title যোগ করে নিচে সম্পূর্ণ আর্টিকেল লিখতে পারবেন।

এবং সেটাও সম্পূর্ণ ভাবে নিজের মোবাইলের মাধ্যমে।

নিজের আর্টিকেলের মধ্যে image, links ইত্যাদি সবটাই যোগ করতে পারবেন।

নিজের ওয়েবসাইটে নতুন আর্টিকেল লিখার পরে আপনি সেটাকে publish করে দিন।

স্টেপ ৭.

ওয়েবসাইটে আর্টিকেল লিখে পাবলিশ করার পরে বা এডিট করার পরে আপনি চাইলে নিজের ওয়েবসাইটটি সরাসরি দেখে নিতে পারবেন।

View website

এর জন্য, blogger dashboard এর বাম দিকে একেবারে নিচের দিকে থাকা “View Blog” এর লিংকে click করুন।

এছাড়া, আপনি চাইলে নিজের blog site এর URL address এর মাধমেও নিজের ওয়েবসাইটে ভিসিট করতে পারবেন।

Your new website is ready

এমনিতে, যদি আপনি মোবাইল দিয়ে ব্লগ তৈরি করার উপায় খুঁজছেন, তাহলে blogger এর মাধ্যমে free এবং সেরা ব্লগ সাইট তৈরি করতে পারবেন।

এর জন্য ওপরে বলা প্রত্যেকটি সেট ভালো করে অনুসরণ করতে হবে।

এছাড়া, আপনারা যদি business website, company website বা portfolio website বানাতে চাইছেন, তাহলেও এই সম্পূর্ণ স্টেপ গুলো ফলো করে আপনাকে প্রথমে একটি basic website বানিয়ে নিতে হবে।

এবং, শেষে কিছু professional blogger theme গুলো upload করে business বা company ওয়েবসাইট ডিজাইন করে নিতে পারবেন।

 

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে আশা করছি, একটি মোবাইল দিয়ে কিভাবে ওয়েবসাইট বানাতে হয় (how to create a website with mobile) সেই বিষয়ে আপনারা সম্পূর্ণ ভালো করেই বুঝতে পেরেছেন।

ওপরে বলা স্টেপ গুলো অনুসরণ করে যেকোনো ধরণের ওয়েবসাইট সম্পূর্ণ ফ্রীতে বানিয়ে নিতে পারবেন।

বর্তমান সময়ে mobile device গুলো প্রচুর শক্তিশালী হয়ে গেছে।

তাই, কম্পিউটারের মতোই আমরা মোবাইল এর মাধমেও প্রচুর ভালো ভালো ওয়েবসাইট গুলো বানিয়ে নিতে পারি।

আমাদের আর্টিকেলটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে আর্টিকেলটি শেয়ার অবশই করবেন।

এছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে নিচে কমেন্ট করে অবশই জানিয়ে দিবেন।

 

2 thoughts on “ফ্রীতে মোবাইল দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার নিয়ম এবং প্রক্রিয়া”

  1. ভাই আমি আপনার একজন নিয়মিত পাঠক। আমি জানি না আপনাকে এটা বলা ঠিক হবে কিনা। তবে সত্যি বলতে কি আপনার সাইটের লুক টা বড্ড বেমানান। সময় অনুপযোগী হয়ে গিয়েছে। আমার মনে আছে ২০১৪/১৫ দিকে ওয়েবসাইট গুলোর এমন লুক হত।
    আশা করি, আপনি কিছু মনে নিবেন না। এবং সম্ভব হলে আমাদের ব্লগের লুক টা পরিবর্তন করুণ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap