অনলাইনে ডলার ইনকাম করার সেরা সাইট গুলোর নাম: ২০২৩

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা নিজের খালি সময়ে ঘরে বসে বিভিন্ন ডলার ইনকাম সাইট গুলো ব্যবহার করে অনলাইনে নিয়মিত ইনকাম করছেন। এমনিতে ইন্টারনেট থেকে অনলাইনে উপার্জন করার প্রচুর ওয়েবসাইট রয়েছে।

কিছু কিছু ওয়েবসাইটে ভালো করে কাজ করতে পারলে ভালো মানের টাকা নিয়মিত রোজগার করা সম্ভব। এবং, এমনও অনেক অনলাইন ইনকাম ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোর থেকে বেশি পরিমানের না হলেও কিছুটা হলেও ইনকাম সম্ভব।

আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমি আপনাদের, ইন্টারনেট থেকে ডলার ইনকাম করার কি কি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট গুলো রয়েছে সেগুলোর বিষয়ে বলবো।

কোন সাইট ব্যবহার করে ডলার ইনকাম করবেন ?

ডলার ইনকাম সাইট
Best websites to earn dollar online.

ইন্টারনেট থেকে ডলার উপার্জন করার যেই সাইট গুলোর বিষয়ে নিচে আমি বলতে চলেছি, সেগুলোতে আপনারা সম্পূর্ণ ফ্রীতে একটি একাউন্ট বানিয়ে নিতে পারবেন। এছাড়া, উপার্জনের ক্ষেত্রে কোন সাইটে কি কাজ করতে হবে সেই বিষয়ে নিচে আপনাদের বলে দিচ্ছি।

তবে, সরাসরি ওয়েবসাইট গুলোর নাম জানার আগে চলুন প্রথমে জেনেনেই কি কি ধরণের ওয়েবসাইট গুলো ব্যবহার করে ডলারে টাকা ইনকাম করা যাবে।

>> টাইপিং করে টাকা ইনকাম করার কৌশল গুলো কি ?

ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট

অনলাইনে টাকা উপার্জন করার সব থেকে বিশ্বস্ত ওয়েবসাইট গুলোর মধ্যে এই ফ্রিল্যান্সিং সাইট গুলো রয়েছে সবথেকে শীর্ষে।

Fiverr, Guru, Upwork ইত্যাদি এই সাইট গুলোতে গিয়ে নিজের একটি একাউন্ট তৈরি করে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ক্লায়েন্ট দের কাজ গুলো করার মাধ্যমে ডলারে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

আপনাদের মধ্যে যদি কোনো বিশেষ কাজের অভিজ্ঞতা এবং দক্ষতা রয়েছে, তাহলে ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট গুলোতে গিয়ে বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং কাজ গুলো করুন এবং নিয়মিত রোজগার করুন।

অবশই পড়ুন: ফ্রিল্যান্সিং কি এবং কিভাবে করবেন ?

এফিলিয়েট ওয়েবসাইট

ইন্টারনেটে এরকম অনেক এফিলিয়েট ওয়েবসাইট এবং প্রোগ্রাম গুলো রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে প্রচুর ইনকাম করা সম্ভব।

এই এফিলিয়েট প্রোগ্রাম বা সাইট গুলো তাদের পণ্য বা পরিষেবা গুলিকে অনলাইনে থাকা আপনার যেকোনো নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে প্রচার করে থাকে।

এক্ষেত্রে, YouTube channel, Blog, social media page ইত্যাদি যেকোনো ধরণের অনলাইন নেটওয়ার্ক আপনার থাকতে পারে। এখন, প্রচার করা পণ্য বা পরিষেবা গুলো যদি আপনার নেটওয়ার্ক এর মধ্যে থেকে শ্রোতারা কিনেন তাহলে সেই বিক্রির বিপরীতে আপনাকে কমিশন / টাকা দেওয়া হবে।

অবশই পড়ুন: এফিলিয়েট মার্কেটিং কি ?

সার্ভে এবং অন্যান্য কাজের সাইট

আপনি যদি ইন্টারনেটে কিছু সাধারণ ও সহজ কাজ গুলো করে ঝট পট কিছু ডলার ইনকাম করতে চাইছেন, তাহলেও চিন্তা নেই।

কারণ, এরকম প্রচুর পেইড সার্ভে ওয়েবসাইট এবং অন্যান্য সাইট গুলো রয়েছে যেখানে ছোট খাটো এবং সাধারণ কাজ গুলো করার জন্যে আপনাকে কিছু ডলার অবশই দেওয়া হবে।তবে, এই ধরণের সাইট গুলোর থেকে অধিক পরিমানে ইনকাম করতে হবে অনেক বেশি সময় দিতে হবে।

এছাড়া, দেখা গেছে যে এই সাইট গুলোর থেকে কেবল সামান্য ইনকাম সম্ভব। মানে, এই সার্ভে বা টাস্ক সাইট গুলোতে কাজ করে আপনি রাতারাতি একজন ধনী ব্যক্তি হয়ে যাবেননা।

অবশই পড়ুন: পিটিসি ওয়েবসাইট থেকে সহজে করুন ইনকাম 

অনলাইনে ডলার ইনকাম করার সাইট গুলো :

ওপরে আপনারা জানলেন যে কি কি ধরণের ওয়েবসাইট গুলো অনলাইনে রয়েছে যেগুলো ব্যবহার করে ডলার আয় করা যাবে। এখন নিচে আমরা সরাসরি প্রত্যেকটি ওয়েবসাইট গুলোর নাম এবং ইনকাম করার জন্যে সেখানে কি ধরণের কাজ গুলো করতে হবে সেটা জানবো।

১. Google AdSense

গুগল এডসেন্স এর দ্বারা আপনি চাইলে মাসে হাজার হাজার ডলার ইনকাম করতে পারবেন।

এছাড়া, অনেকেই আরামে প্রত্যেক দিন ৫০ থেকে ১০০ ডলার ইনকাম করে নিচ্ছেন। তবে, এর থেকে টাকা উপার্জন করার ক্ষেত্রে আপনার কাছে একটি Blog, Website বা YouTube channel থাকতে হবে যেখানে নিয়মিত প্রচুর ট্রাফিক / ভিউ থাকছে।

আপনার ওয়েবসাইটের কনটেন্ট এবং ট্রাফিক এর ওপরেই নির্ভর করছে আপনার ইনকাম।

এডসেন্স দ্বারা আপনার ওয়েবসাইটটিকে এপ্রুভ করা হলে তারপর আপনি গুগল এডসেন্স এর দ্বারা নিজের ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবেন। আর সেই বিজ্ঞাপন গুলো যখন আপনার ওয়েবসাইটের শ্রোতারা দেখবেন এবং ক্লিক করবেন, তখন আপনার ইনকাম হবে।

যদি বলা হয় প্রত্যেক ১০০০ এডভিউতে কত ডলার ইনকাম করা যাবে, তাহলে মোটামোটি  0.2$ – $3 ইনকাম করতে পারবেন। তবে, এর জন্যে আপনার blogging, SEO, কনটেন্ট রাইটিং এর মতো কৌশল গুলো শিখতে হবে।

২. YouTube.com

YouTube-এর Partners Program এর জন্যে এপ্লাই করার মাধ্যমে আপনি ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করার সুযোগ পাবেন।

ইউটিউব থেকে ইনকাম করার প্রচুর উপায় রয়েছে। যেমন, channel memberships, super chats, super stickers, YouTube Premium Revenue ইত্যাদি।

এছাড়া, YouTube Shorts Fund প্রোগ্রাম  এর দাঁড়াও ইউটিউব কিছু ডলারের ইনসেনটিভ নিয়মিত দিয়ে থাকে। তবে এখান থেকে ইনকাম করার জন্যে আপনাকে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে হবে।

এছাড়া, YouTube Partner Program-এর জন্যে এপ্লাই করার আগে  আপনার চ্যানেলে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার এবং ৪০০০ ঘন্টার পাবলিক ওয়াচ টাইম থাকতে হবে। ইউটিউবে প্রত্যেক ১০০০ এডভিউতে প্রায় 0.2$ – $3 ইনকাম করা যাবে।

৩. Shutterstock.com

Shutterstock হলো একটি গ্লোবাল মার্কেটপ্লেস যার দ্বারা আপনি অনলাইনে ছবি বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

যদি আপনি একজন ফটোগ্রাফার বা ছবি তুলতে পছন্দ করেন, তাহলে অনলাইনে জেনুইন ভাবে ডলার ইনকাম করার এটা একটি দারুন ওয়েবসাইট। Shutterstock, এখন পর্যন্ত ক্রিয়েটরদের প্রায় $1 বিলিয়ন কমিশন পেমেন্ট করেছেন।

ছবি ছাড়াও, illustrations, vectors, এবং videos এর মতো কনটেন্ট গুলোও এখানে বিক্রি করা যাবে।

৪. Upwork.com

যদি আপনি একটি বিশ্বস্ত ওয়েবসাইট খুঁজছেন যেখানে গিয়ে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ক্লায়েন্টদের থেকে বিভিন্ন কাজ পেতে পারবেন, তাহলে Upwork নামটি মনে রেখে ফেলুন। এটা মূলত একটি online freelancing marketplace যেখানে নিজের দক্ষতা অনুযায়ী বিভিন্ন কাজ আপনি পাবেন।

এখানে কাজ করার মাধ্যমে আপনি ঘন্টায় $20-$25 আরামে ইনকাম করতে পারবেন।

৫. Swagbucks.com

এই ওয়েবসাইটটি ২০১৬ সালে লঞ্চ করা হয়। অনলাইনে ইনকাম করার ওয়েবসাইট গুলোর মধ্যে swagbucks.com-এর জনপ্রিয়তা কম বলা যাবেনা। ঝটপট কিছু ডলার আয় করার জন্যে আপনি সরাসরি, কিছু ইউটিউব ভিডিও গুলো দেখতে পারেন।

এছাড়া, বিভিন্ন অনলাইন ই-কমার্স ওয়েবসাইট গুলো ব্যবহার করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এর বাইরেও, বিভিন্ন online surveys গুলোতে অংশগ্রহণ করে পুরস্কার এবং উপহার গুলো জিতে নিতে পারবেন।

৬. Fiverr.com

Fiverr হলো বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং সেবা গুলোর একটি অনলাইন মার্কেটপ্লেস।

এই প্লাটফর্ম ব্যবহার করে আপনি সারা বিশ্ব থেকে অনলাইনে কাজ পেতে পারবেন। এছাড়া, Fiverr থেকে টাকা ইনকাম করাটা অনেক সহজ একটি প্রক্রিয়া।

আপনাকে নিজের দক্ষতা অনুযায়ী কাজ খুঁজতে হয় এবং কাজ পাওয়ার জন্যে এপ্লাই করতে হয়। একবার কাজটি পেয়ে গেলে সেটাকে দিয়ে দেওয়া সময়সীমার মধ্যে ক্লায়েন্টকে জমা দিন এবং ডলারে ইনকাম করেনিন।

এখানে বিভিন্ন ধরণের কাজ গুলো করার মাধ্যমে রোজগার করা সম্ভব।

৭. ysense.com

এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইনে ছোটোখাটো কাজ গুলো করে ইনকাম করা যাবে।

এই ধরণের ওয়েবসাইট গুলোকে আবার GTP sites বা get-paid-to sites বলেও বলা হয়। শুরুতে এই ওয়েবসাইটটি “ClixSense” নামে পরিচিত ছিল যেটা সেই সময় একটি জনপ্রিয় PTC site (Paid-To-Click) হিসেবে কাজ করতো।

তবে, এখন এখানে কোনো ধরণের PTC পরিষেবা গুলো দেওয়া হচ্ছেনা।

Ysense থেকে ইনকাম করার জন্যে আপনারা বিভিন্ন online surveys গুলোকে সম্পূর্ণ করতে হবে।

এছাড়া, নিজের রেফারাল লিংক / কোড ব্যবহার করে অন্য ব্যক্তিদের এই সাইটে নিয়ে আসতে পারলেও কিছু ডলার রেফারেল ইনকাম হিসেবে পাবেন।

৮. Bananabucks.co

Bananabucks হলো এমন একটি অনলাইন প্লাটফর্ম যেখানে বিভিন্ন ধরণের ছোট ছোট কাজ গুলো করে ডলারে টাকা ইনকাম করার সুযোগ পাবেন।

বর্তমান সময়ে এই ওয়েবসাইটে আপনি আপনার প্রথম সার্ভে সম্পূর্ণ করেই সরাসরি  $1 ইনকাম করতে পারবেন।

এই ওয়েবসাইটটি মূলত একটি অনলাইন সার্ভে ওয়েবসাইট যেখানে সার্ভে গুলো সম্পূর্ণ করার পর আপনাকে টাকা দেওয়া হয়। বেশিরভাগ ছোট ছোট সার্ভে গুলো সম্পূর্ণ করে প্রায় $0.20-$0.50 ইনকাম করতে পারবেন।

 

শেষ কথা,

ওপরে বলা অনলাইন ডলার ইনকাম সাইট গুলো ব্যবহার করে অনেকেই বর্তমানে ইনকাম করছেন। আপনার হাতেও যদি অনেক খালি সময় রয়েছে, তাহলে ঘরে বেকার বসে না থেকে নিজের খালি সময়ে এই সাইট গুলোতে কাজ করে কিছুটা হলেও ইনকাম করে নিতে পারবেন।

NOTE: অনলাইনে ডলার ইনকাম করার জন্যে ওপরে বলা এই ওয়েবসাইট গুলো আমি নিজে ব্যবহার করে দেখিনি। ইন্টারনেট থেকে করা রিসার্চ এর মাধ্যমে এই সাইট গুলোর বিষয়ে জানা গেছে। আপনার অভিজ্ঞতা জানাতে হবে আপনি নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদের জানাতে পারেন।

অবশই পড়ুন:

 

About The Author

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top