ব্লগ মানে কি ? ব্লগ থেকে কিভাবে অনলাইন টাকা আয় করবেন ?

ব্লগ, এই শব্দ টি আপ্নে অনেকবার হয়তো অনেক জায়গায় শুনেছেন। এক্ষেত্রে,  ব্লগ কি ? এবং আসলে ব্লগের মানে কি? সেটা জেনে নেওয়াটা কিন্তু আপনার জন্য অনেক লাভজনক হতে পারে।

ব্লগ থেকে টাকা আয় করুন
ব্লগ মানে কি ? Blog theke taka kibhabe income korben

কারো জন্য ব্লগ এমন একটা টেকনোলজি যে আপনাকে অনলাইন অনেক আয় করে দিতে পারবে।

এবং, অনেকের জন্য ব্লগ হলো ইন্টারনেটে কিছু জানার বা শেখার মাদ্ধম। (What is a blog).

ব্লগ থেকে আয় করার কথা জানার আগে আপনার ব্লগের knowledge পুরো পুরি হতে হবে।

মানে, ব্লগ বলতে কি বোঝায়, ব্লগ কিভাবে বানাতে হয় আর ব্লগ থেকে অনলাইন ইনকাম কিভাবে করা যায়, এই জিনিস গুলির ওপরে আপনার পুরো জ্ঞান ও knowledge থাকতে হবে।

চিন্তা করবেননা, এই পোস্ট এ আমি আপনাদের “ব্লগ কি বা কাকে বলে” ও “ব্লগ থেকে কিভাবে অনলাইন আয় করা যাবে” এই বিষয়ে বলবো।

তাহলে চলুন আগে আমরা ব্লগ মানে কি তা জেনেনেই।

ব্লগ কি আর কিভাবে বানাবেন , আর blogging থেকে online income কিভাবে করবেন এর বিষয়ে বলার আগে আমি একটা কথা আপনাদের বলতে চাই।

আজ, India , US , China  আরো অনেক জায়গায় লোকেরা ব্লোগ্গিং কে নিজের career হিসেবে নিয়েছেন।

আর এইটা সত্তি যে, ব্লোগ্গিং দ্বারা তারা অনলাইন অনেক টাকা আর্নিং করছেন।

টাকা ইনকাম করার ওপরেও তারা নিজের ব্লোগ্গিং এর office ও চলাচ্ছেন।

যদি আমি আমার নিজের কথা বলি , আমি নিজেই আমার ব্লগ থেকে monthly ১০০ থেকে ২০০ ডলার পার্ট-টাইম আয় করি। আর আপ্নেও যদি ব্লগ লিখে পার্ট-টাইম বা ফুল-টাইম টাকা উপার্জন করতে চান, তাহলে আপনার দুটো জিনিসের ধ্যান রাখতে হবে.

  1. ব্লগ কি আর কিভাবে বানাবেন (A to Z Knowledge) , আর 
  2. নিজের ব্লগ কে business হিসেবে নিয়ে handwork করা। 

আমি, ব্লগ কিভাবে বানাতে হয়, কি কি জিনিসের আপনার প্রয়োজন হবে আর নিজের বানানো ব্লগ থেকে অনলাইন ইনকাম কেমনে করবেন, এ বেপারে নিচে detailed এ বলবো।

কিন্তু , তারপর আপ্নে আপনার বানানো ব্লগ কে সফল আর successful করার জন্য কেমন handwork করবেন সেটা আপনার ওপর।

Finally , যদি আপনি ভালোকরে নিজের ব্লগটি বানিয়ে পরিশ্রম (hard work) করেন, তাহলে আপনি ব্লগিং থেকে এতো অনলাইন ইনকাম করতে পারবেন যে আপনার অন্য কোনো job বা business করার প্রয়োজন হবেনা। এটাই আপনার একটা ফুল-টাইম business হয়ে উঠবে।

যেমন আমি করছি।

ব্লগ মানে কি বা ব্লগ কাকে বলে ?

সোজা আর সহজ ভাষাতে বললে, ব্লগ আপনার একটা ডায়েরির মতন।

এমন একটা ডায়েরি যেখানে আপ্নে আপনার মন মতো যা খুশি লিখতে পারবেন।

আপ্নে, stories , tutorials , sms, শায়েরি, কবিতা, পত্রিকা এবং আর্টিকেল বা যেকোনো জিনিসের বিষয়ে লিখতে পারবেন।

কেবল, এতটুকু খেয়াল রাখবেন যে আপ্নে যা লিখছেন সেটা যাতে সঠিক আর পুরো পরিষ্কার ভাবে লেখা হয়।

এর কারণ হলো, আপনার পার্সোনাল ডায়েরি কেউ না দেখতে পারে, কিন্তু ডায়েরির মতোই এই ব্লগ যেখানে আপ্নে অনেক কিছু লিখবেন সেটা অনেকেই আজ নাহয় কাল পড়বে।

আর, আপনার লিখা আর্টিকেল যদি কারো ভালোই না লাগে, তাহলে আপ্নে ব্লগিং এ কখনোই success হতে পারবেননা।

পার্সোনাল ডায়েরি মতো এই ব্লগ আপ্নে হাতে কলমে লিখতে পারবেননা।

ব্লগ লেখার জন্য আপনার কিছু জিনিসের প্রয়োজন  হবে।

এই, দরকারি জিনিস গুলো হলো – একটি computer বা laptop, internet connection, সাধারণ কম্পিউটার knowledge এবং আপ্নে যে বিষয়ে আর্টিকেল লিখবেন তার সঠিক জ্ঞান ও knowledge থাকা।

এগুলো যদি আপনার কাছে আছে তাহলে ইন্টারনেটে এমন কিছু প্লাটফর্মস বা ওয়েবসাইট আছে যারা আপনাকে একটি ফ্রি ব্লগ তৈরি করার সুবিধা দিবেন।

এখন, সবেরথেকে বোরো প্রশ্ন , আপনার বানানো ব্লগে মানুষ বা traffic বা visitors আসবে কোনখানথেকে ? আপ্নেও এটাই ভাবছেন তো ?

তো, এই প্রশ্ন তীর উত্তর হলো, গুগল সার্চ, ইয়াহু সার্চ, সোশ্যাল মিডিয়া এবং অন্য ব্লগ থেকে

আমি আপনাকে পরে এগুলোরর ওপরে আর্টিকেল লেখে ভালো করে বুঝাবো যে, Google search এবং social media থেকে নিজের ব্লগে হাজার হাজার ভিসিটর্স বা ট্রাফিক কিভাবে আনতে হয়।

এখন খালি এতটুকু জেনে রাখুন যে ব্লগ successful করার জন্য আর ব্লগ লিখে টাকা আয় করার জন্য আপনার ব্লগে প্রচুর traffic বা ভিসিটর্স এর প্রয়োজন হবে।

আর আপ্নে ব্লগে ফ্রি traffic আর ভিসিটর্স কেবল Google এবং yahoo সার্চ আর social media থেকেই পাবেন।

তো, আশা করি ব্লগ কি বা কাকে বলে এইটা আমি আপনাকে সহজ আর সঠিক ভাবে বুঝতে পারলাম। চলেন নিচে আমরা একটি ফ্রি ব্লগ কিভাবে বানানো যাবে এর বিষয়ে শিখে নেই।

একটি ফ্রি ব্লগ কিভাবে বানানো যাবে ?

দেখেন, ব্লগ বানানোর অনেক উপায় আছে। এই উপায় গুলির মধ্যে mainly দুটো উপায় বেশিকরে ব্যবহার করা হয়।

একটা হলো “Self hosted WordPress blog” আরেকটা হলো “Free blogger blog” .

সেল্ফ হোস্টেড ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগে, আপনার অল্প টাকা খরচা হবে আর তাই এই বিষয়ে আমি আপনাদের অন্য কোনো আর্টিকেলে বলবো।

এখন রইলো, ফ্রি ব্লগার ব্লগ যেখানে আপনার একটাকাও দেবার দরকার নেই। আপনি, পুরো ফ্রি তে নিজের একটা ব্লগ বানিয়ে নিতে পারবেন।

ব্লগার ফ্রি ব্লগ বানানোর জন্য আপনার প্রয়োজন হবে একটি গুগল বা জিমেইল একাউন্ট এর। কারণ, blogger.com যেখানে গিয়ে আপ্নে একটা ফ্রি ব্লগ বানাবেন সেটা Google এর একটি product বা service .

আর, তাই blogger.com এ ব্লগ বানানোর জন্য আপনার প্রথমে একটি গুগল ID এবং password এর প্রয়োজন হবে। আশা করি আপনার জিমেইল একাউন্ট আছেই, আর যদি নেই তাহলে আপ্নে Gmail.com এ গিয়ে নিজের গুগল একাউন্ট বানাতে পারবেন।

এখন, blogger.com ওয়েবসাইট টিতে যাওয়ার পর, আপ্নে প্রথম পেজেই একটি লিংক দেখবেন “Create A  Blog” বলে। ব্যাস, এরপর আপ্নে লিংক টাতে ক্লিক করুন আর তারপর নিজের জিমেইল একাউন্ট এর ID এবং password দিয়ে লগইন করুন।

লগইন করার পর আপ্নে ব্লগার setup page দেখতে পাবেন।

এখন আপ্নে setup page থেকে “Create Google plus account” এ ক্লিক করুন।

এরপর গুগল প্লাস একাউন্ট বানানোর পর “Continue to blogger” লিংক এ ক্লিক করুন।

এখন আপ্নে নিজের ব্লগার dashboard দেখবেন।

ব্লগার dashboard এ লগইন হওয়ার পর “Create a blog” লিংক দেখবেন যেখানে ক্লিক করে আপ্নে আপনার ব্লগ বানাতে পারবেন।

আশাকরি, ব্লগার ব্লগ কিভাবে বানানো যায় এর সাধারণ জ্ঞান তা আমি আপনাকে দিতে পারলাম। চলেন, এখন আমরা নিচে “ব্লগ থেকে আয় করার উপায় কি” সেটা জেনে নি।

কিভাবে ব্লগ থেকে টাকা আয় করা যায় ? (3 best ways)

দেখতে গেলে ব্লগ থেকে আয় করার কনেকে উপায় আছে। কিন্তু, সব উপায়ের মধ্যে সবেরথেকে ভালো এবং বেশি ইনকাম হওয়া উপায় হলো ৩ টি।

ব্লগ থেকে আর্নিং এর এই তিনটে উপায় হলো – Google Adsense, Affiliate marketing এবং product promotion.

আজ এই তিনটের মধ্যে যেকোনো একটি উপায়ের মাধ্যমে লোকেরা নিজের ব্লগ থেকে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করছেন।

চলেন, নিচে আমরা এই উপায় গুলির বিষয়ে detailed এ জেনেনেই।

১. গুগল এডসেন্স দ্বারা ব্লগ থেকে টাকা আয়

গুগল এডসেন্স, একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট থেকে অনলাইন ইনকাম করার সবেরথেকে সহজ এবং সবেরথেকে trusted উপায়।

এডসেন্স Google দ্বারা একটি এমন service বা program যে আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটে এডভারটিসিমেন্ট display করে আপনাকে টাকা কমানোর এক সুযোগ দেয়।

এডভার্টাইসমেন্ট (advertisement) গুলো অনেক রকমের হতেপারে। যেমন, Image ads, video ads এবং লিংক ads.

আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট এ Google adsense  দ্বারা display করা এই বিভিন্য বিজ্ঞাপন (ads) গুলি যখন কেউ ক্লিক করবেন তখন আপনার Adsense account এ কিছু টাকা ইনকাম হয়।

এই ছোট ছোট ads ক্লিক এবং টাকা এক সময় গিয়ে হাজার হাজার তাকাতে আপ্নে আপনা এডসেন্স একাউন্টে পেয়েযান।

আর, যখন আপ্নে ১০০ ডলার এডসেন্স একাউন্ট এ আয় করেফেলবেন তখন আপনার টাকা আপনার ব্যাঙ্ক একাউন্টে পাঠিয়ে দেবা হয়।

Google adsense থেকে প্রচুর টাকা আয় করার জন্য আপনার ব্লগে traffic বা visitors দেড় সংখ্যা ভালো হতে হবে।

কারণ, যখন ব্লগে ট্রাফিক বা ভিসিটর্স আসবে তখনতো Google adsense ads তারা দেখবে আর ক্লিক করবে। তাই, প্রথমে আপ্নে নিজের ব্লগে visitors দেড় সংখ্যা কিভাবে বাড়াবেন সেটা ভাবুন।

তারপর ভিসিটর্স আসারপর আপ্নে এডসেন্স একাউন্ট বাণীতে ব্লগে ads ডিসপ্লে করে অনলাইন  টাকা  আয় করতে পারবেন।

২. Affiliate মার্কেটিং দ্বারা ইনকাম

Google adsense এর পর “এফিলিয়েট মার্কেটিং” ব্লগ থেকে অনলাইন টাকা আয় করার সবছে ভালো উপায় আজ হয়ে চলেছে।

এফিলিয়াতে মার্কেটিং অনেক সোজা জিনিস।

এখানে, আপনার ইনকামটা commission হিসেবে দেয়া হয়।

চলুন, এফিলিয়াট  মার্কেটিং কি সেইটা আগে জেনে নেই।

এফিলিয়াট মার্কেটিং কি ? 

Affiliate marketing সোজাসোজি একটা commission ইনকাম করার মাধ্যম।

এখানে, আপ্নে যেকোনো জিনিস যেটা অনলাইন কিনা যাই নিজের ব্লগে promote করে ইনকাম করতে পারেন।

বিভিন্ন অনলাইন store যেমন, Amazon.in , Flipkart.com আরো অনেক যাদের products যেমন, টিভি, ল্যাপটপ, মোবাইল আদিৰ এডভারটিসিমেন্ট নিজের ব্লগে লাগানো হয়।

এই এডভারটিসিমেন্ট গুলি affiliate link এর দ্বারা ব্লগে লাগানো হয় যেটা আপনাকে online store গুলিতে affiliate account বানানোর পরে দেবা হবে।

এখন, আপনার লাগানো এফিলিয়েট লিংক বা এডভারটিসিমেন্ট থেকে যদি কেউ কিছু অনলাইন purchase করেন তাহলে আপনাকে commission দেবা হয়।

আর, এইভাবেই আপ্নে যেকোনো product এর affiliate link নিজের ব্লগে লাগিয়ে promote আর advertise করে unlimited commission ইনকাম পারবেন।

মনেরাখবেন, আপনার advertise করা product বা জিনিসটি কেও কিনলেহে আপ্নে তার কমিশন পাবেন।

৩. Local product promote করে টাকা আয় করুন

Google adsense এবং affiliate marketing এর পর, ব্লগ লিখে টাকা আয় করার আরেকটা সহজ উপায় আছে আর সেটা হলো “লোকাল প্রোডাক্ট প্রমোশন” হে এইটা সম্ভব।

যখন আপনার ব্লগে অনেক traffic ও ভিসিটর্স আসা শুরু হয়েযাবে, তখন আপ্নে নিজের লোকাল জায়গার যেকোনো জিনিসের বা দোকানের এডভারটিসিমেন্ট নিজের ব্লগ এ করতে পারবেন।

Advertisement বা product promotion এর জন্য আপ্নে আশেপাশে দোকান মালিক বা স্টোরের manager দের সাথে কথা বলে দেখতে পারেন।

আপনার ব্লগে করা দোকান বা প্রোডাক্ট এর এডভার্টাইসমেন্টের বিনিময়ে আপ্নে কিছু টাকা ফিস হিসাবে নিতে পারেন।

আপ্নে হয়তো জানেননা যে আজকাল লোকাল দোকান থেকে শুরু করে সবাই অনলাইন advertisement কে অনেকটাই লাভদায়ক বলে ভাবে।

আর তাই, আপনার ব্লগে যদি ট্রাফিক বা ভিসিটর্স অনেক আঁচে তাহলে আপ্নে এই সুযোগে নিজের ব্লগ থেকে প্রচুর টাকা কমিয়ে নিতে পারবেন।

 

Final Words On Topic,

আজ এই ব্লগ আর্টিকেলে আমি আপনাদের, ব্লগ মানে কি এবং কিভাবে একটি ফ্রি ব্লগ বানাতে পারবেন সেটা বল্লাম।

তার ওপরেও, নিজের ব্লগ থেকে অনলাইন টাকা কিভাবে আয় করবেন তার ৩ তে solution বললাম।

তাই, যদি আমার এই ব্লগ পোস্ট আপনার ভালোলেগেছে তাহলে নিজের friends এবং family members দেরসাথে এই পোস্ট তা অবশই শেয়ার করবেন।

আর, যদি আপ্নে সত্যি ব্লগথেকে অনলাইন ইনকাম করতে চান তাহলে, প্রথমে ব্লগে ভালো ভালো আর্টিকেল লিখুন আর ব্লগে ভিসিটর্স আনুন।

টাকা কমানোর কথা আগেই ভাবলে আপ্নে সহজে সাকসেস হতে পারবেননা।  ধন্যবাদ।

0 Shares

A Blogger & Author ! Rahul Das is recognized as a technology Blogger who founded "BanglaTech" & "SidhaJawab". He is passionate about blogging. ❤️

102 thoughts on “ব্লগ মানে কি ? ব্লগ থেকে কিভাবে অনলাইন টাকা আয় করবেন ?”

  1. এই পোষ্ট থেকে আমি অনেকটাই উপকার পেয়েছি, গুগল ব্লগারের সাহায্যে একটি ব্লগ খুলে সেখানে পোষ্ট করি এবং অ্যাডসেন্সের মাধ্যমে মোটামুটি ভালই আয় হচ্ছে, ধন্যবাদ বাংলা টেক

  2. স্যার আমি গুগলে অনলাইন ইনকাম জড়িত অনেক পোস্ট পরেছি কিন্তু কেউ এতো সুন্দর করে বুঝাতে পারেনি, আপনি যেভাবে অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে বুজিয়েছেন।
    আমার সমস্ত কনফিউশোন দুর হয়ে গেছে। আপনার সাইট ভিজিট করে আমি খুব উপকৃত হয়েছি।
    আমি আপনার ব্লগটি স্যাবস্কাইব করে রাখলাম এই রকম সুন্দর পোস্ট পাওয়ার জন্য। আশা করি আপনি আরও বৈধ উপায় নিয়ে আমাদের মাঝে হাজির হবেন। স্যার আপনাকে অনেক অনেক বেশি ধন্যবাদ।

  3. ধন্যবাদ ভাইয়া
    অনেক ভালো লিখেছেন। আপনার সম্পূর্ণ পোষ্টটি খুব মনোযোগ সহকারে পড়েছি। আপনার ব্লগে অনেক ভালোমানের কনটেন্ট রয়েছে। আশাকরি সামনের দিকে এগিয়ে যেতে কোন সমস্যা হবে না। 

  4. নাঈমা আক্তার

    ব্লগ সম্পর্কে সুন্দর এবং উপকারী একটি লেখা আমাদের উপহার দেয়ার জন্য আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। ভবিষ্যতে আপনার প্রচেষ্টা অব্যহত রাখবেন এটাই কামনা। আপনার ব্লগটি বেঁচে থাকুক হাজার বছর।

  5. AK Alamin Khan

    ভাই
    আমি ব্লগ তৈরি করে কিভাবে বা কিসের মাধ্যমে আমি টাকা হাতে পাব??

  6. ইন'আমুল হক

    ধন্যবাদ ভাই খুব সুন্দর আইডিয়া শেয়ার করার জন্য

  7. ধন্যবাদ ভাই,আপনার লেখাটা পড়ে খুব ভাল লাগল,ব্লগ একাউন্ট কি মোবাইল থেকে খোলা যাবেনা ভাই?

    1. আপনাকেও ধন্যবাদ ভাই। হে যাবে মোবাইল থেকে।

  8. আবুল কালাম

    ভালো লাগলো আপনার কথাগুলো,,, ধন্যবাদ আপনাকে।

  9. Shoumittro Kumar

    ব্লগিং শুরু করার জন্য কোন ডিভাইস ব্যবহার করা ঠিক হবে?ল্যাপটপ/ স্মার্টফোন!
    এবং প্রফেশন হিসেবে ফ্রি\কিছু খরচ করে ব্লগিং শুরু করতে সাজেস্ট করবেন?

    1. অবশই laptop বা computer PC লাগবে। মোবাইল দিয়ে সব কিছু সম্ভব না ভাই।
      খরচ বলে তেমন কিছু নেই।
      ডোমেইন কিনতে হবে যেটা প্রায় ৩০০ টাকার ভেতরে পেয়ে যাবেন।

  10. খুবই ভালো লাগলো, আপনার লেখা গুলো দারুন মজা লাগে। ধন্যবাদ আপনাকে।

  11. সাবরী

    আপনার কথাগুলো উপকারী। তবে বাংলা বানান ও বাক্য গঠনের বিষয়ে মনোযোগী হোন।

    1. যখন আপনার ব্লগে প্রায় ২০ থেকে ২৫ টি আর্টিকেল লেখা হয়ে যাবে।

    2. ধরুন ভাইয়া আমার ব্লোগে ২৫ এর উপরে পোস্ট করেছি তবেই আমি গুগল এডসেন্স এর জন্য এপলাই করতে পারবো। খুব কম লোক ভিজিট করছে আপাদাত তবে আমি কি এডসেস্ন পাবো।প্লিজ আপনার নাম্বার টি একটু দিবেন অথবা ইমেল।

      1. অবশই এপলাই করতে পারবেন। ট্রাফিক বা ভিসিটর নিয়ে কোনো কথা থাকছেনা।

      2. ব্লগে কীভাবে ভিজিটর আসতেছে কী আসতেছে সেটা কীভাবে বুজবো?

  12. জাহাঙ্গীর

    এডসেন্স কিভাবে সেট করতে হয় ভাই জানালে ভাল হত

    1. এডসেন্স সেট করার তেমন কোনো নিয়ম নেই। তবে, আর্টিকেলের মাধ্যমে বোঝানোর চেষ্টা করবো।

  13. md Abdur Rahim

    খুবই ভালো লাগলো আপনার লেখা। অনেক কিছুই শিখতে পারলাম। আরো কিছু শিখতে মন চাচ্ছে

    1. ব্লগিং এর সাথে জড়িত আরো অনেক আর্টিকেল লিখেছি। চাইলে পড়তে পারেন।

  14. sudarshan besra

    যদি বিজ্ঞাপনে ক্লিক না করে
    তাহলে ইনকাম হবে?
    যেমন আমি এড ব্লক করে ভিজিট করি ।

      1. ভাইয়া, আমি একজন ছোট গল্প লেখক। আমি আমার গল্পগুলো আমার ব্লগ পেজে লিখি। তারপর facebook এ লিংক দিয়ে দেই। সেখানে অনেকে আমার গল্প পড়ে। আমি কি এখান থেকে আয়ের কোন ব্যবস্তা করতে পারি?

        1. যদি আপনার ব্লগে এসে লোকেরা আপনার লেখা পড়ছেন তাহলে গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে আয় করা শুরু করুন। Adsene এর বিষয়টি ভালো করে জেনেনিন।

  15. ভাই অনেক ভালো লাগলো পড়ে আপনার গুছিয়ে লিখা কথা গুলি

    1. url ADDRESS চাচ্ছে। মানে, আপনার ব্লগের ওয়েবসাইটের নাম দিতে হবে।

  16. এই পোস্ট বাংলাদেশের অনেক নতুন ব্লগারকে অনুপানিত করবে। আমার একটি সমস্যা হচ্ছে যে, আমার একটি ব্লগ সাইট আছে বাট আমার সাইটে এখনো আরনিং কলিফাই লেখা আছে বয়স 2 মাস পোস্ট আছে 33 টি

    1. আপনি এই আর্টিকেল পড়ুন -https://banglatech.info/দ্রুত-এডসেন্-এপ্রুভাল/

  17. ভাই আপনার লেখার ধরুণটা খুব সুন্দর এবং সাবলম্বি পড়তে এবং বুঝতে সুবিধা হয়েছে । ধন্যবাদ গুছিয়ে লেখার জন্য ।

  18. Md Younus hossain

    কিন্তু ভাইয়া আপনি যে বললেন ভালো থিম ব্যবহার করতে। তাহলে এই ভালো থিম টা কথা থেকে আনবো???

  19. আপনার এটা পড়ে আমি একটা ব্লগ খুলেছি।কিন্তু কিছু বুঝতেছি না।দয়া করে একটু বুঝিয়ে দিলে ভালো হবে।

    1. আপনি কি বুঝছেননা ? বিষয় তা ভেঙে বলুন। আমার ইউটিউবের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন। ব্লগ তৈরি করার নিয়ম সেখানে আমি বলবো।

  20. ভাই নতুন ব্লগ খুলছি ।কিন্তু ভিজিটর কই পাবো ? আর ভাই গুলল এর সাথে আপনার ব্যাংক একাউন্ট কিভাবে যোগ করছে ।পড়ে দেখলাম ১০০ ডলার হলে ব্যংক এ টাকা দিয়ে দেয় গুগল ।কিভাবে এটা বুঝলাম না ।

    1. ভিসিটর্স একমাত্র গুগল সার্চ থেকেই পাবেন। তার জন্য ব্লগে seo র ব্যবহার ভালো করে করবেন। এবং, টাকা আয় করার জন্য গুগল এডসেন্স ব্যবহার করতে হবে। এবং, সেখানে নিজের ব্যাঙ্ক একাউন্টের ডিটেলস দিতে হবে।

  21. ভাই আপনার post দারুন হয়েছে ।অনেক অনেক Thanks. আরো লিখুন ।

    1. অবশই possible. ব্লগ ফ্রি হোক কি পেইড শেষে আপনার আর্টিকেলের কোয়ালিটি এবং কনটেন্ট এর ভূমিকা আসল। তাই, ফ্রি ব্লগ দিয়েও টাকা আয় করা সম্ভব।

  22. আপনি ব্লগ সর্ম্পকে কার্যকরী ধারনা দিলেন পড়ে ভাল লাগল ।

  23. Rajib Hossain

    খুব ভালো লিখেছে। আমি আপনার আর্টিকেল পরে একটি ব্লগ সাইট বানিয়েছি। কিন্তু এডসেন্স একাউন্ট করতে গেলে url দিলে ইনভেলিড লেখা আসে। আমার সাইটের url হলো hrajib0 dot blogspot dot com এটা কিভাবে বসাবো?

    1. এডসেন্স এ ব্লগের url অ্যাড করার জন্য, আপনার একটি premium domain যেমন com , .info, .in, .org এর প্রয়োজন হবে। ব্লগার এর ফ্রি ডোমেইন এডসেন্স একসেপ্ট করেননা।
      এখানে ডোমেইন এর ব্যাপারে জানুন – https://banglatech.info/ডোমেইন-নেম-domain-name-কি/

  24. ধন্যবাদ, তবে আপনার লেখাটা একটু দীর্ঘ হয়েছে

    1. আমার আর্টিকেল পড়ার জন্য ধন্যবাদ। তবে হে দীর্ঘ হয়েছে, কিন্তু আমি লেখার সময় যা জানি সবটাই লেখার চেষ্টা করি। পরেরবার অল্প কম শব্দে লেখার চেষ্টা অবশই করবো।

  25. এই কাজ টা কি মোবাইল বা টেব থেকে করা যাবে

    1. মোবাইল থেকে করা গেলেও মোবাইলে সব করাটা সম্ভব না। তবে হে, ট্যাব থেকে করতে পারবেন।

  26. Md Faisal kabir Riaz

    ভাই আপ্নার লিখা টা অনেক helpfull ছিল
    ভাই আপ্নের email বা যেকোনো contact নাম্বার দেন আমি আপ্নার সহজগীতা চাই

  27. md mejanur rahman Shuvo

    ভাই আমি নতুন কি করে কাজ করবো বুজতেছি না,,,,আমি অনেক অসহায় তাই নিজের পায়ে দাঁড়াতে চাই

    1. ভালো কোরে বুঝিয়ে বলুন। আমি আপনার সহায় করবো।

    1. আপনার যা লিখে ভালো লাগে, এবং জেবেপারে লোকেরা অনলাইন খোঁজ কোরে জানতে চান।

  28. শুধু মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার য়কোনো পথ আছে কি ভাইয়া। থাকলে একটু হ্যাল্প করবেন প্লি।

    1. ভাই, আমি আপনাকে কোনো APPS ব্যবহার করে টাকা আয় করার কথা বলবোনা। কারণ সেগুলি কেবল সময় নষ্ট করা হবে। আপনি একটি ব্লগ বানিয়ে অনলাইন টাকা আয় করতে পারবেন। হে তার জন্য একটি ল্যাপটপ বা কম্পিউটার থাকাটা জরুরি হলেও BLOGGER.COM ব্যবহার করে মোবাইলেই ব্লগ বানাতে পারবেন।

    1. আপনার ব্লগ বানানো হলে, আপনি গুগল এডসেন্স এর ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজের ব্লগটি রেজিস্টার করতে হবে। তারপর, এডসেন্স যদি আপনার ব্লগটি approve করে, তারপর আপনি টাকা আয় করতে পারবেন বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে। এই আর্টিকেলটি পড়ুন – https://banglatech.info/google-adsense-কি/

  29. অনেক ভাল লিখেছেন কিন্তু লেখার পর বানান গুলোর দিকে খেয়াল রাখবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap