ইন্টার্নশিপ কি – (Internship meaning in Bengali)

ইন্টার্নশিপ কি (what is internship in Bengali) ? আপনি Engineering, medical, journalism বা অন্যান্য যেকোনো স্ট্রিম এর ছাত্র হয়ে থাকেননা কেন, আপনি নিজের কলেজে পড়া সময়কালীন এই ইন্টার্নশিপ (Internship) শব্দটি অবশই শুনেছেন হয়তো। 

ইন্টার্নশিপ মানে কি ? এর সুবিধা ও লাভ

কলেজ বা নিজের ডিগ্রী সম্পূর্ণ করার পরেই বেশিরভাগ প্রার্থীরাই এই ইন্টার্নশিপ করার পথে এগিয়ে যান।

এরা বিশ্বাস করে থাকেন যে, Internship এর মাধ্যমে ভবিষ্যতে তারা নিজের ক্যারিয়ার তৈরি ক্ষেত্রে প্রচুর ভালো ভালো সুযোগ পেয়ে থাকবেন।

চলে গিয়েছে সেই আগের সময়, যখন একটি ভালো চাকরি পাওয়ার ক্ষেত্রে কেবল ভালো ডিগ্রির প্রয়োজন হতো।

এখনের সময়ে ভালো ভালো ডিগ্রী প্রায় প্রত্যেকের কাছেই রয়েছে, তবে কাজের অভিজ্ঞতা কজনের কাছে আছে ?

এখনের সময়ে চাকরি পেতে হলে ভালো ডিগ্রির সাথে সাথে আপনার ব্যক্তিত্ব (personality) আকর্ষণীয় হওয়া, দারুন যোগাযোগের দক্ষতা এবং কাজের অভিজ্ঞতা থাকা জরুরি।

এছাড়া, আপনি যেই লাইনে চাকরি করার কথা ভাবছেন সেই লাইনের সাথে জড়িত বিভিন্ন বিষয়ে আপনার জ্ঞান এবং দক্ষতা (skills) জানা থাকতে হবে।

একজন নতুন করে গ্রাজুয়েট হওয়া ছাত্র বা পড়াশোনা করতে থাকা অবস্থায় যেকোনো চাকরির সাথে জড়িত বিষয়গুলো কিভাবে জানতে পারবেন ?

এখেত্রেই চলে আসছে ইন্টার্নশীপ (internship) এর ভূমিকা।

ছাত্রদের জন্যে প্রাকটিক্যাল ভাবে কাজ করে কাজের অভিজ্ঞতা, দক্ষতা (skills) এবং নিজের যোগাযোগের দক্ষতা বৃদ্ধি করার উপায়ই হলো এই “ইন্টার্নশীপ”.

চিন্তা করবেননা, আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা, ইন্টার্নশিপ কি বা ইন্টার্নশিপ মানে কি (internship meaning in Bengali), ইন্টার্নশীপ এর প্রকার, ইন্টার্নশিপ এর বৈশিষ্ট্য এবং internship কিভাবে করবেন ? সবটা বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করতে চলেছি। 

ইন্টার্নশিপ কি – What Is Internship in Bengali ?

সোজা এবং সরল ভাবে ইন্টার্নশিপ এর মানে বুঝতে গেলে বলা যেতে পারে যে এটা হলো এক ধরণের প্রশিক্ষণ (training).

কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন করার উদ্দেশ্যে বা নিজের যোগ্যতা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে, একটি সংগঠন (organization) এর মধ্যে যখন কোনো ছাত্র একজন প্রশিক্ষণার্থী (trainee) হিসেবে কাজ করে থাকেন, তখন সেই কাজের সময়কালটিকেই ইন্টার্নশীপ বলে হলে হয়।

Internship এর ক্ষেত্রে অনেক সময় ছাত্রদের তাদের কাজের বিপরীতে কোনো ধরণের মাইনে (salary) দেওয়া হয়না।

আবার, অনেক সময়ে কাজের বদলে ছাত্রদের অনেক সামান্য পরিমানে অর্থ দেওয়া হয়ে থাকে।

Internship এমনিতে অনেক কম সময় নিয়ে সীমিত সময়ের জন্যে করা হয়ে থাকে।

যেমন, ১ মাস থেকে ৬ মাস বা ১ বছরের মধ্যে ইন্টারশিপ এর কাজের সময় সীমা থেকে থাকে।

ইন্টার্নশিপকে আমরা এক ধরণের প্রফেশনাল শিক্ষার অভিজ্ঞতা (professional learning experience) বলেও বলতে পারি যেখান থেকে বাছাই করা ক্যারিয়ার বা কাজের সাথে জড়িত ব্যবহারিক কাজের অভিজ্ঞতা (practical work related experience) গ্রহণ করা সম্ভব।

Internship এর মাধ্যমে একজন ছাত্র বা ট্রেইনী কর্ম জীবনের বিভিন্ন অভিজ্ঞতা গুলো অর্জন করে নতুন নতুন কৌশল গুলো শিখতে পারেন।

ইন্টার্নশিপ মানে কি – internship meaning in Bengali

ইন্টার্নশিপ মানে হলো, “short-term work experience”.

মানে, অনেক কম সময়ের জন্য বা সীমিত সময়ের জন্যে একটি সংগঠন, কোম্পানির বা ফার্ম এর জন্যে কাজ করে কাজের অভিজ্ঞতা অর্জন করার প্রক্রিয়া।

ছাত্ররা মূলত ইন্টার্নশিপ করার ক্ষেত্রে আগ্রহী থাকেন।

কারণ এর মাধ্যমে একটি বিশেষ career, industry বা field এর ক্ষেত্রে প্রাসঙ্গিক কাজের অনুভব, অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা উন্নত করা সম্ভব।

এমন অনেক কোর্স গুলো রয়েছে, যেগুলোর ক্ষেত্রে ইন্টার্নশিপ কিন্তু বাধ্যতামূলক হয়ে থাকে। যেমন, MBA, BBA , MBBS ইত্যাদির ক্ষেত্রে।

ইন্টার্নশিপ মূলত final year এর মধ্যে করতে বলা হয়।

Internship করার পর, আপনাকে সেটার একটি রিপোর্ট, মানে ফাইনাল ইন্টার্নশিপ রিপোর্ট বানিয়ে নিজের college বা university-তে জমা করতে হয়।

আপনার ইন্টার্নশিপ রিপোর্ট এর মধ্যে নিম্নলিখিত বিষয়গুলো থাকতে হয়,

  • আপনি কোন কোম্পানি বা সংগঠনের সাথে ইন্টার্নশিপ করেছেন।
  • সেই ইন্টার্নশিপ এর মধ্যে আপনাকে কি কি কাজ দেওয়া হয়েছিল।
  • আপনি সেখান থেকে কি কি শিখেছেন ?
  • কোম্পানি বা সংগঠনের দ্বারা দেওয়া সার্টিফিকেট দিতে হবে।

আপনার এই internship report এর ওপর ভিক্তি করে আপনাকে মার্কস (marks) দেওয়া হবে।

তাহলে এখন আপনারা হয়তো ভালো করে বুঝতেই পেরেছেন যে “internship কি“.

ইন্টার্নশিপ এর প্রকার – Types Of Internship

এখন নিচে আমরা ইন্টার্নশিপ এর বিভিন্ন প্রকার গুলোর বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে চলেছি।

Paid Internships

Paid internship গুলো মূলত private sector এবং large organization গুলোর মধ্যে থাকা দেখা যায় যাদের কাছে ছাত্রদেরকে কাজ শেখার বিপরীতে টাকা দেওয়ার মতো টাকা থেকে থাকে।

Internship করার বিপরীতে যেই টাকা আপনাকে দেওয়া হয় সেটাকে “stipend” বলে বলা হয়।

তবে মনে রাখবেন, ইন্টার্নশিপ এর বিপরীতে দেওয়া এই stipend amount কিন্তু এতটা বেশি থাকেনা।

তবে, এই টাকা দিয়ে আপনি আপনার সাধারণ হাত খরচ চালিয়ে নিতে পারবেন।

Unpaid Internship

এই ধরণের ইন্টার্নশিপ এর থেকে আপনি কাজের অভিজ্ঞতা এবং সার্টিফিকেট সবটাই পেয়ে যাবেন,

তবে, এই ইন্টার্নশিপ এর থেকে আপনি টাকা আয় করতে পারবেননা। মানে আপনাকে কোনো ধরণের stipend amount এখানে দেওয়া হবেনা।

যিহেতু এখানে টাকা দিতে হয়না, তাই ছাত্রদের দিয়ে কাজ করানোর ক্ষেত্রে এই ধরণের ইন্টার্নশিপ গুলো উপলব্ধ থাকেই।

Unpaid internship গুলো মূলত আপনি Non – Profit Organisation (NGO) গুলোতে পেয়ে যাবেন।

এছাড়া, বিভিন্ন ব্যাক্তিগত প্রতিষ্ঠান গুলোতেও এই ধরণের unpaid internship সহজে পাওয়া সম্ভব।

Summer Internships

এটা অনেক জনপ্রিয় একটি ইন্টার্নশিপ এর প্রকার, কারণ এই ধরণের internship গুলো গরমের বন্ধতে করা হয়ে থাকে।

এতে, ছাত্ররা পড়াশোনার কোনো ধরণের চিন্তা না করেই কাজের প্রাকটিক্যাল অভিজ্ঞতা নিতে পারেন।

এই ধরণের ইন্টার্নশীপ পার্ট-টাইম বা ফুল-টাইম দুইভাবেই করা সম্ভব যেটা মূলত ১ থেকে ৩ মাস পর্যন্ত চলতে পারে।

Work Research

এই ধরণের ইন্টার্নশীপ মূলত final year এর ছাত্ররা করে থাকেন।

এক্ষেত্রে, ইন্টার্ন (intern) এর একটাই মূল কাজ থেকে থাকে, তাকে সেই কোম্পানির ওপরে রিসার্চ (research) করতে হয় যেখানে সে internship করছেন।

রিসার্চ করার পর আপনাকে একটি রিপোর্ট তৈরি করতে হয় যাকে বলা হয়, “Research report”.

Virtual Internship

এই ধরণের ইন্টার্নশীপ আপনি ঘরে বসে বসে বা যেকোনো জায়গার থেকেই করতে পারবেন।

এই ধরনের ইন্টার্নশীপ গুলোকে “remote internship” বলেও বলা হয়।

এগুলো মূলত অনলাইনে ইন্টারনেটের মাধ্যমে করা হয়ে থাকে।

এক্ষেত্রে ফোন কল এবং ইন্টারনেটের মাধ্যমে কাজ গুলো সম্পন্ন করা হয়।

ইন্টার্নশীপ করলে কি কি লাভ হবে ?

Internship, আপনি যেই industry-তে বা job role নিয়ে কাজ করতে চাইছেন তার একটি দারুন পরিচয় হতে পারে।

কারণ, এর মাধ্যমে আপনি full-time job করার বা পাওয়ার আগেই নিজের পছন্দের কাজের বিষয়ে জেনেনিতে পারছেন।

আপনার পছন্দের কাজে কি কি বিষয়, দক্ষতা, কৌশল, কাজের ভূমিকা ইত্যাদি জড়িত রয়েছে, সবটাই আপনি জানতে পারছেন।

ইন্টার্নশীপ এর মাধ্যমে আপনি নিজেকে নিজের future job বা career এর জন্যে প্রশিক্ষণ (training) দিয়ে আগের থেকে তৈরি করতে পারবেন।

তাই, ইন্টার্নশিপ এর লাভ ও সুবিধা প্রচুর রয়েছে, যেগুলোর বিষয়ে আমরা নিচে আলোচনা করতে চলেছি।

১. কাজের অভিজ্ঞতা

ছাত্রদের জন্যে ইন্টার্নশীপ করার মূল উদ্দেশ্যটি হলো কাজের অভিজ্ঞতা (job experience) অর্জন করা।

যদি আপনি মাত্র নিজের কলেজে বা ডিগ্ৰী শেষ করেছেন এবং পড়াশোনার পর প্রথম বারের জন্যে প্রাকটিক্যাল ভাবে কাজ করতে চলেছেন,

তাহলে এখন পর্যন্ত আপনার কিন্তু কাজের কোনো রকম এক্সপেরিয়েন্স নেই বলাই যাবে।

আর তাই, ইন্টার্নশীপ এর মাধ্যমে আপনি নিজের মধ্যে থাকা এই সীমাবদ্ধতাটি পূর্ণ করতে পারছেন।

একটি ব্যবসা কিভাবে কাজ করে, ম্যানেজমেন্ট কিভাবে কাজ করে, মিটিং গুলোতে অংশ গ্রহণ হোর, আপনাকে দেওয়া কাজ গুলো সম্পূর্ণ করা,

সবটাই আপনাকে নিজের ফিল্ডে অধিক দক্ষ এবং অধিক অভিজ্ঞতা থাকা প্রার্থী হিসেবে তৈরি করতে সাহায্য করবে।

২. কাজ পেতে সুবিধা

মনে রাখবেন, যখন আপনি ইন্টার্নশীপ করছেন তখন আপনি একটি বিশেষ বা নির্দিষ্ট ফিল্ডে প্রাকটিক্যাল ভাবে কাজ করে অভিজ্ঞতা অর্জন করছেন।

এক্ষেত্রে, আপনার কাজের অভিজ্ঞতা অবশই সেই প্রার্থীর থেকে বেশি থাকছে যে কেবল ডিগ্রি বা গ্রাজুয়েশন বা নিজের ক্লেগ শেষ করে ইন্টারভিউ দিতে এসেছেন।

তাই, একজন ফ্রেশ প্রার্থীর তুলনায় যিহেতু আপনার কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে, তাই আপনাকেই সেই চাকরি দেওয়া হবে, এর সুযোগ প্রচুর অধিক থেকে যাচ্ছে।

৩. সুপারিশ

ইন্টার্নশীপ করার সময় আপনার সুপারভাইজার এবং পরামর্শদাতা দের সাথে যদি আপনি ভালো সমর্ক তৈরি করতে পারেন,

তাহলে সেই সম্পর্ক আপনাকে ভবিষ্যতে ভালো ভালো full-time job পেতে সাহায্য করতে পারে।

আপনি যত অধিক কঠোর পরিশ্রম করবেন এবং পসিটিভ থেকে কাজ করবেন, আপনার ততই ভালো ছবি তৈরি হবে।

এতে, আপনি যেই কোম্পানিতে internship করছেন সেই কোম্পানিতে বা অন্যান্য কোম্পানিতে থাকা বিভিন্ন open positions গুলোর জন্যে আপনার রেফারেন্স দেওয়া হয়ে থাকে।

তাই, ইন্টার্নশীপ এর মাধ্যমে একটি ভালো full-time job পাওয়াটা অনেক সহজ বিষয় হয়ে পরে।

৪. আত্মবিশ্বাস তৈরি হওয়া

আপনি নিজের পড়াশোনা শেষ করেই সাথে সাথে যদি একটি full-time job করতে চলেছেন,

তাহলে সেটা অনেকের কাছেই excitement, anxiety, hope এবং ambition ইত্যাদির কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই, কলেজের পরেই চাকরির ইন্টারভিউ দিতে গেলে আমাদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস এর প্রচুর অভাব দেখা যায়।

যিহেতু, প্রাকটিক্যাল কাজের বিষয়ে আমাদের কোনো জ্ঞান থাকেনা তাই,

ইন্টারভিউ দেওয়ার সময় ভয় লাগা এবং আত্মবিশ্বাস না থাকা, এগুলো অনেক সাধারণ ব্যাপার যার জন্যে আমরা চাকরি সময়ে পেতে পারিনা।

আর যখন আপনি কলেজ শেষ করেই শুরুতে কিছু মাসের জন্যে কোনো কোম্পানিতে ইন্টার্নশীপ করে থাকবেন,

তখন সেই ইন্টার্নশীপ করা সময়ে আপনি কাজ শিখবেন, বিভিন্ন নতুন নতুন কৌশল শিখবেন যেগুলো আপনার মধ্যে ধীরে ধীরে প্রচুর আত্মবিশ্বাস তৈরি করবে।

আর আত্মবিশ্বাস থাকলে, ভবিষ্যতে আপনি অনেক সহজেই ভালো ভালো কোম্পানিতে ইন্টারভিউ দিয়ে অধিক মাইনের সাথে চাকরি পেতে পারবেন।

৫. একটি শক্তিশালী রিজিউম

কাজের সঠিক অভিজ্ঞতা এবং জ্ঞান পাওয়ার পর আপনাকে নিজের একটি দারুন রিজিউম তৈরি করতে কোনো সমস্যা হবেনা।

সততা এবং নির্দিষ্টতার সাথে আপনি নিজের একটি আকর্ষণীয় রিজিউম তৈরি করতে পারবেন।

তাই অবশই, ইন্টার্নশীপ করার পর আপনি আপনার একটি শক্তিশালী রিজিউম তৈরি করার সুযোগ পেয়ে থাকেন।

Internship এর মধ্যে আপনি কি কি কাজ এবং প্রজেক্ট গুলো সম্পূর্ণ করেছেন, সেগুলোর উল্লেখ করুন।

আপনি কোন পসিশনে থেকে কাজ করেছেন এবং কি কি নতুন কৌশল গুলো শিখেছেন, সবটা নিজের রেজিউমে যোগ করুন।

এতে, একজন ফ্রেশ প্রার্থীর তুলনায় আপনার রিজিউম প্রচুর শক্তিশালী দেখাবে এবং আপনি প্রত্যেকের পছন্দের ব্যক্তি হয়ে দাঁড়াবেন।

৬. টাকা ইনকাম করার সুযোগ

যা আমরা ওপরে আলোচনা করলাম, পেইড ইন্টার্নশিপ এর মাধ্যমে আমরা কিছু পরিমান টাকা অবশই ইনকাম করার সুযোগ পেয়ে থাকি। অবশই সেটা অনেক কম হলেও, কাজ শিখতে শিখতে কিছুটা ইনকাম করাটাও অনেক।

 

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা জানলাম “ইন্টার্নশিপ কি (what is internship in Bengali)” এবং এর লাভ ও সুবিধা গুলো কি কি। 

বন্ধুরা, ইন্টার্নশীপ অবশই আপনাকে নিজের ক্যারিয়ার এবং পছন্দের ফিল্ডে একটি দারুন চাকরি পেতে সাহায্য করে থাকে। 

তাই, চেষ্টা করবেন যাতে নিজের ছাত্রজীবন শেষ করার পর বা ছাত্রজীবন এর সাথে সাথেই ইন্টার্নশীপ এর মাধ্যমে কাজের অভিজ্ঞতা গুলো ও নতুন নতুন কাজের কৌশল গুলো শিখতে। 

আশা করছি, internship meaning in Bengali নিয়ে লিখা আমাদের আজকের আর্টিকেল আপনাদের পছন্দ হয়েছে। 

ইন্টার্নশিপ এর বিষয়ে অন্যান্য প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে নিচে কমেন্ট করে অবশই জানাবেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top