LG কোন দেশের কোম্পানি, মালিক এবং সিইও কে ?

LG কোন দেশের কোম্পানি ? এই কোম্পানীর মালিক কে ? LG কোম্পানির CEO এর নাম কি ?

আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা এই প্রত্যেকটি বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে চলেছি।

LG কোন দেশের কোম্পানি, মালিক এবং সিইও কে ?

lg কোন দেশের কোম্পানি
LG কোম্পানির ইতিহাস, মালিক, দেশ এবং সিইও।

এলজি (LG) হলো  দক্ষিণ কোরিয়ার একটি ইলেকট্রনিক্স প্রস্তুতকারক কোম্পানি ।

এটি ১৯৫৮ সালে KOO IN-HWOI দ্বারা এই নামে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

কোরিয়ান যুদ্ধের পরে স্থানীয় বাজারের জন্য কনসিউমার ইলেকট্রনিক্স এবং হোম অ্যাপ্লায়েন্স তৈরির কথা মাথায় রেখে কোম্পানিটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

এর সদর দফতর দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলে অবস্থিত। 

এটি দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রথম রেডিও সরঞ্জাম, টেলিভিশন, রেফ্রিজারেটর, ওয়াশিং মেশিন এবং এয়ার কন্ডিশনার উত্পাদন করে।

কোম্পানীটি প্রাথমিকভাবে গোল্ডস্টার ব্র্যান্ডিং এর অধীনে কাজ করলেও, পরবর্তী কালে অর্থাৎ ১৯৯৫ সালে লাকি কেমিক্যাল এবং এল.এস ক্যাবল নামে অন্যান্য এলজি গ্রুপ কোম্পানিগুলির সাথে  মিলিত হয়ে কাজ করা শুরু করে।

বর্তমানে LG ইলেকট্রনিক্স হল একটি বিশ্বব্যাপী ব্র্যান্ড যেটি কনসিউমার ইলেকট্রনিক্স, মোবাইল যোগাযোগ এবং হোম অ্যাপ্লায়েন্স তৈরি এবং বিক্রি করে।

এছাড়াওবাণিজ্যিক ব্যবহারের জন্য এটি বিভিন্ন ডিভাইস এবং পণ্য তৈরি করে যা আজকের বাজারে খুবই জনপ্রিয়।

Owner / CEO

LG তার ইলেকট্রনিক্স ব্যবসায় নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য সি ই ও নিয়োগ করেছে WILLIAM CHO কে।

এই CEO ১৯৮৭ সাল থেকে LG ইলেক্ট্রনিক্স-এর সাথে রয়েছেন।

তার সাম্প্রতিকতম ভূমিকার আগে, তিনি LG কানাডার সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন এবং পরে LG অস্ট্রেলিয়া এবং LG ইউএসএ-তে একই পদে ছিলেন।

এ ছাড়াও SEONG JIN হলেন LG র হোম এপ্লায়েন্স বিভাগের সভাপতি এবং সি ই ও।

এলজি ইলেকট্রনিক্স কিম কি-ওয়ানকে ভারতে ম্যানেজিং ডিরেক্টর হিসেবে নিযুক্ত করেছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার LG ইলেক্ট্রনিক্স ১৯৯৭ সালে ভারতে প্রবেশ করে।

কোম্পানির গ্রেটার নয়ডায় একটি উত্পাদন ইউনিট রয়েছে এবং একটি দ্বিতীয় ইউনিট রয়েছে রঞ্জনগাঁও, পুনেতে, যেটি এলইডি টেলিভিশন সেট, এয়ার কন্ডিশনার, বাণিজ্যিক এয়ার কন্ডিশনার সিস্টেম, ওয়াশিং মেশিন, রেফ্রিজারেটর এবং মনিটর তৈরি করে।

Country

LG Electronics Inc. হলো South Korean multinational electronics company.

LG কোম্পানির প্রথম বিদেশী উত্পাদন ১৯৮২ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হয।

১৯৯৪ সালে গোল্ডস্টার আনুষ্ঠানিকভাবে এলজি ইলেকট্রনিক্সে পরিণত হয়।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে তার ব্যবসা প্রসারিত করতে, এলজি মার্কিন-ভিত্তিক টেলিভিশন নির্মাতা জেনিথকে অধিগ্রহণ করে এবং ১৯৯৫ সালে বিশ্বের প্রথম সি ডি এম এ ডিজিটাল মোবাইল ফোন চালু করে।

১৯৯৯ সালে, কোম্পানিটি ফিলিপসের সাথে একটি যৌথ উদ্যোগ করেছিল যা LG ডিসপ্লে নামে এখন পরিচিত।

এটি লিকুইড ক্রিস্টাল ডিসপ্লে (LCDs) ডিজাইন ও ডেভেলপ করার প্রথম ধাপ ।

LG-র ইন্ডিয়ার বাজারে রেফ্রিজারেটর সেগমেন্ট হল সবচেয়ে বড় ব্যবসা, যা মোট বিক্রির ৩৪%, তারপরে টিভি (২১%), ওয়াশিং মেশিন (২০%) এবং AC (১৬%)।

History

LG ইলেকট্রনিক্স-এর দুনিয়ায় কনসিউমার ইলেকট্রনিক্স এবং হোম অ্যাপ্লায়েন্স, এই দুই বিভাগে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে।

২০০৫ সালে, এটি কনজিউমার ইলেকট্রনিক্সের সবসেরা ১০০টি বিশ্বব্যাপী ব্র্যান্ডের মধ্যে একটি হয়ে ওঠে।

২০০৯ সালে এর ডিসপ্লে উত্পাদন ইউনিট, এলজি ডিসপ্লে, বিশ্বের বৃহত্তম এলসিডি প্যানেল প্রস্তুতকারক হিসেবে খ্যাতি অর্জন করে।

কোম্পানীটি ২০১০ সালে স্মার্টফোন তৈরি করা শুরু করে।

এটি বিশ্বের অরিজিনাল সরঞ্জাম (equipment) নির্মাতা কোম্পানিগুলির  মধ্যে একটি যে তার স্মার্টফোনের জন্য Google-এর অ্যান্ড্রয়েডকে ডিফল্ট অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে গ্রহণ করে।

২০১৪ সালে, Google-এর সাথে পার্টনারশিপে, কোম্পানিটি Android Wear এই বিভাগ ভিত্তিক, LG G Watch তৈরির কথা ঘোষণা করে।

পরের বছর, কোম্পানী LG ওয়াচ আরবেন লঞ্চ করে।

এটি হলো প্রথম LG ঘড়ি যাতে ওয়াইফাই এর মত স্মার্টওয়াচ ফিচারস রয়েছে।

LG কোম্পানি এখন টের্লিভিশন, মনিটর, ব্যক্তিগত কম্পিউটার, রেফ্রিজারেটর, অডিও, সৌন্দর্য (beauty) এবং ভিডিও ইকুইপমেন্টস, ওয়াশিং মেশিন, ডিশওয়াশার, এয়ার পিউরিফায়ার, ডিহিউমিডিফায়ার, বাসস্থানের জন্যে এবং বাণিজ্যিক স্থানের জন্যে এয়ার কন্ডিশনার এবং ভ্যাকুয়াম ক্লিনার উৎপাদন করে।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান LG ফোন তৈরি করছে প্রায় ২৫ বছর ধরে।

এক সময় LG-ই সর্বপ্রথম আলট্রা-ওয়াইড এঙ্গেল ক্যামেরাসহ বেশ কয়েকটি সেলফোন উদ্ভাবন করেছিল।

অ্যাপল ও স্যামসাংয়ের পর এলজিই উত্তর আমেরিকার তৃতীয় জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড।

Best products

২০২২ অর্থাৎ এই বছরে LG এনেছে নতুন স্টাইলিশ রেফ্রিজারেটর যার মধ্যে ইন্সটাভিউ ডোর-ইন-ডোর এবং ফ্রস্ট ফ্রি রেফ্রিজারেটর খুবই ভালো ও উচ্চ মানের।

এআই ডাইরেক্ট ড্রাইভ ওয়াশিং মেশিন, পিউরিকেয়ার wearable এয়ার পিউরিফায়ার, VIRAAT এয়ার কন্ডিশনার, UV+UF ওয়াটার পিউরিফায়ার এবং মাইক্রোওয়েভের একটি নতুন রেঞ্জও বাজারে LG র নতুন প্রোডাক্টগুলির মধ্যে অন্যতম।

২০২২ এর সেরা কিছু LG ফোনের নাম নীচে দেওয়া হল  :

  • LG V60 THINQ 5G : সেরা LG ফোন|
  • LG G7 THINQ : উন্নত মানের ও দামের ফোন| 
  • LG V40 THINQ : প্রিমিয়াম ফোন| 
  • LG VELVET : একটি reinvented look বা নতুন করে ডিজাইন করা লুক|
  • LG WING 5G : মাঝামাঝি দামে বেশ ভাল ফোন| 
  • LG G8 THINQ : LG’র স্মার্টফোন যাতে রয়েছে air gestures and Hand ID |
  • LG V50 THINQ 5G : LG-র প্রথম 5G ফোন| 
  • LG G8X THINQ : কম দামের মধ্যে ভাল ফোন| 

LG-কোম্পানি মানুষ, আন্তরিকতা এবং মৌলিক বিষয়ের ওপর বেশি জোর দেয়।

গ্রাহকদের চাহিদা বোঝা এবং অবিরাম উদ্ভাবনের মাধ্যমে সর্বোত্তম সমাধান,

নতুন নতুন অভিজ্ঞতার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া এসবের মাধ্যমে কোম্পানির গ্রাহকদের আরও ভাল জীবনযাপন করতে সাহায্য করা এগুলিই হলো LG র এগিয়ে চলার মূলমন্ত্র ।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top