কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলব ? ( একাউন্ট তৈরি নিয়ম )

গুগল এডসেন্স একাউন্ট তৈরি কিভাবে করবেন, আজকে আমরা এই বিষয়ে জানবো।

গুগল এডসেন্স একাউন্ট তৈরি
How to create adsense account in Bengali

একজন ব্লগার হিসেবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট তৈরি করাটা আমাদের প্রথম গুরুত্বপূর্ণ উদেশ্য, যদি আমরা আমাদের ব্লগ থেকে টাকা আয় করার কথা ভাবছি তাহলে।

তবে, যদি আপনারা ব্লগ বা ওয়েবসাইটে ভালো পরিমানে traffic / visitors চলে আসছে,

তাহলে অবশই আপনি একটি Google AdSense account তৈরি করতে পারবেন।

তবে, একাউন্ট তৈরি করা মানে যে এডসেন্স থেকে সাথে সাথে টাকা ইনকাম করতে পারবেন, সেটা কিন্তু হবেনা।

এডসেন্স একাউন্ট খোলার নিয়ম সহজ হলেও, “website approval” পাওয়াটা কিন্তু সহজ কাজ না।

গুগল এডসেন্স পলিসি ও নিয়ম কানুন গুলো মেনে যদি আপনি প্রত্যেকটি কাজ করেছেন,

তাহলে অবশই, অনেক তাড়াতাড়ি website approval পেয়ে যাবেন এবং তারপর নিজের ওয়েবসাইটে এডসেন্স বিজ্ঞাপন লাগিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আজ প্রত্যেক ব্লগাররা এডসেন্স এর মাধ্যমেই টাকা ইনকাম করতে চাচ্ছেন।

কারণ, Google AdSense এর মাধ্যমে অনেক ভালো পরিমানের ইনকাম (CPC, Clicks) বিজ্ঞাপনের মধ্যে আমরা করে থাকি।

এবং, আমরা প্রত্যেকেই জানি যে অনেক কম সার্চ ইঞ্জিন ট্রাফিক থাকতেই Google Adsense এর দ্বারা অধিক ইনকাম সম্ভব।

তাহলে চলুন, নিচে আমরা সরাসরি জেনেনেই গুগল এডসেন্স এর একাউন্ট কিভাবে খুলতে হয়।

গুগল এডসেন্স এর একাউন্ট তৈরি করার জন্য কিসের প্রয়োজন ?

দেখুন, এডসেন্সের একাউন্ট নিয়ে যেটা সব থেকে জরুরি বিষয় থাকছে সেটা হলো,

“আপনাকে AdSense এর প্রত্যেকটি নিয়ম মেনে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে”।

কারণ, যদি আপনি AdSense এর নিয়ম কানুন (rules) গুলো না মেনেই account তৈরি করছেন,

তাহলে, approval পাওয়াটা অনেক কষ্টের বিষয় হয়ে দাঁড়াতে পারে।

তাছাড়া, একবার approval পেলেও ভবিষ্যতে account disable / suspend হওয়ার সুযোগ থেকে যাবে।

মনে রাখেন, আপনি কেবল একটি মাত্র AdSense account বানাতে পারবেন।

কারণ, Google কেবল একটি AdSense account বানানোর অনুমতি দিয়ে থাকে।

গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলতে আপনাকে মূলত ৪ টি জিনিসের প্রয়োজন হবে

  • Gmail ID – একটি গুগল আইডি যেটা দিয়ে এডসেন্স একাউন্ট বানানো যাবে।
  • Mobile Number – একটি কন্টাক্ট নম্বর দিতে হবে যেটাকে ভেরিফাই করা হবে।
  • Valid address proof – আপনার পেমেন্ট এড্রেস প্রুফ যেখানে verification pin চিঠি পাঠানো হবে।
  • Blog / Website / YouTube channel – এখানে এডসেন্সের দ্বারা বিজ্ঞাপন দেখানো হবে।

যদি আপনার কাছে ওপরে বলা জিনিস গুলো রয়েছে, তাহলে অবশই একটি AdSense account তৈরি করতে পারবেন।

তবে, এডসেন্স একাউন্ট খোলার নিয়ম জানার আগেই আপনার জেনেনিতে হবে, “AdSense এর জন্যে apply কখন করতে হয়“.

AdSense এর জন্যে কখন apply করতে হয় ?

একটি ব্লগ বানিয়েই সেটাকে design করে সেখানে কিছু আর্টিকেল পাবলিশ করার পর থেকেই কিছু না দেখেই আমরা এডসেন্স একাউন্ট এর জন্য এপ্লাই করতে শুরু করি।

আর এটাই কারণ যার ফলে আমরা আমাদের এডসেন্স একাউন্ট তৈরি তো করে নেই, তবে blog / website গুলো approve হয়না।

তাই, আমি আমার ৬ বছরের ব্লগিং এর অভিজ্ঞতার থেকে আপনাদের বলছি যে,

Google AdSense এর জন্যে apply করার আগে নিচে দেওয়া বিষয় গুলো অবশই দেখবেন

  1. আপনার blog এর মধ্যে কমেও ২৫ থেকে ৩০ টি আর্টিকেল থাকতে হবে।
  2. যদি ব্লগে একাধিক ক্যাটেগরি রয়েছে, তাহলে প্রত্যেক ক্যাটাগরিতে কমেও ৫ টি করে আর্টিকেল যাতে থাকে।
  3. এমনিতে বলা হয় যে AdSense account এর জন্য apply করার ক্ষেত্রে ওয়েবসাইটে traffic কত রয়েছে সেটা দেখা হয়না। তবে, আমি বলবো যখন আপনার ব্লগে প্রত্যেক দিন কমেও ২০০ থেকে ৩০০ সার্চ ইঞ্জিন ট্রাফিক আসতে শুরু হবে, কেবল তার পর একাউন্ট তৈরি করুন।
  4. আপনার ব্লগে প্রত্যেকটি গুরুত্বপূর্ণ pages যেমন “About us”, “Contact us”, “Privacy policy” থাকতেই হবে।
  5. এডসেন্স এর প্রোগ্রাম নীতি গুলোর বিষয়ে জানুন এবং সেগুলোর লঙ্ঘন যাতে না হয়।

এই বিষয় গুলো ফলো করতে পারলে আপনারা দ্রুত গুগল এডসেন্স এপ্রুভাল পাবেন

গুগল এডসেন্স এর একাউন্ট কিভাবে খুলতে হয় ? (How To Apply)

নিচে আমি একাউন্ট তৈরি করার নিয়ম সরাসরি ভাবে বলে দিচ্ছি।

তবে মনে রাখবেন, একাউন্ট তৈরি করার সময় কোনো ধরণের ভুল তথ্য দিবেননা।

নিজের নাম, ঠিকানা, মোবাইল নম্বর ইত্যাদি সবটাই ভালো করে যোগ করবেন।

কারণ ভবিষ্যতে সবটাই verify করা হবে।

সম্পূর্ণ ভাবে AdSense এর account বানানোর ৩ টি মূল ভাগ রয়েছে – 

  • Sign up for AdSense 
  • Add AdSense ad code to your blog 
  • Wait for account review process 

প্রত্যেক ভাগ গুলোর বিষয়ে নিচে বুঝতেই পারবেন।

১. Sign up for AdSense account 

সবচে আগেই আমাদের যেতে হবে AdSense.com এর ওয়েবসাইটে যেখান থেকে আমরা “Sign Up Now” নামের option দেখতে পাবো।

স্টেপ ১. Go to sign up page

সোজা sign up link এর মধ্যে ক্লিক করতে হবে।

বা, প্রথমেই চলে যান – Signup page for AdSense.

এবার আপনারা একটি পেজ দেখতে পাবেন, যেখানে একটি ফর্ম (form) থাকবে যেটাকে ফিলাপ করতে হবে।

নতুন এডসেন্স একাউন্ট

এবার, ওপরে ছবিতে অবশই আপনারা দেখতে পারছেন যে ফর্মের মধ্যে আপনাদের কি কি প্রশ্ন করা হবে।

  • Your website – আপনি যেই ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন দেখিয়ে ইনকাম করতে চাইছেন সেই website / blog এর domain name দিয়ে দিন।
  • Your email address – এবার আপনার একটি gmail id দিয়ে দিতে হবে যেটা দিয়ে একাউন্ট তৈরি করতে চাইছেন।
  • Get helpful AdSense info at the email address – কেবল “Yes” সিলেক্ট করলেই হবে।

এখন, নিচে থাকা “Save And Continue” বাটনে ক্লিক করুন।

স্টেপ ২. Select your country

এবার পরের পেজে আপনারা আরো একটি ফর্ম দেখবেন যেখানে আপনাকে আপনার দেশ (country) বেঁচে নিতে হবে।

  • তাই, select your country or territory যেখানে লিখা রয়েছে তার নিচের থেকে নিজের country টিকে select করে রাখুন।
  • এবার, তার নিচেই আপনারা accept terms and conditions এর page / option দেখতে পাবেন।
  • Please review and accept our terms and conditions এর নিচে, এডসেন্সের কিছু শর্তাবলী এবং নিয়মের বিষয়ে লিখা থাকবে।
  • আপনাকে সোজা “Yes, I have read and accept the agreement” এর মধ্যে সিলেক্ট করতে হবে।
  • এখন সোজা “Create account” এর লিংকে ক্লিক করুন।

এগুলো করার পর আপনার নতুন এডসেন্স একাউন্ট বানানোর প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়ে যাবে।

তবে মনে রাখবেন, এডসেন্স একাউন্ট বানানোর সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া এখনো কিন্তু শেষ হয়নি।

স্টেপ ৩. Add payment address & phone

এবার যখন আপনি নিজের তৈরি করা নতুন AdSense account dashboard এর মধ্যে visit করবেন,

তখন আপনারা “Get started” এর একটি link / option দেখতে পাবেন যেখানে click করতে হবে।

এর পর, আপনাকে প্রথমেই একটি payment profile তৈরি করার কথা বলা হবে।

create adsense payment profile
Create AdSense payment profile

ওপরে ছবিতে অবশই দেখতে পারছেন যে, আপনাদের কি কি তথ্য গুলো দিয়ে একটি পেমেন্ট প্রোফাইল তৈরি করতে হবে।

  • Account type – এখানে আপনি “Individual” সিলেক্ট করতে হবে।
  • Name and address – এবার name এর জায়গায় নিজের নাম দিয়ে দিন এবং তারপর address এর বক্সে নিজের ঠিকানা লিখে দিতে হবে। City, postal code, State সবটাই সঠিক ভাবে দিতে হবে।
  • Phone number – নিজের contact number এখানে দিতে হবে।
  • Submit – এবার সোজা submit এর বাটনে ক্লিক করে দিতে হবে।

Submit লিংকে ক্লিক করার পর, পরের পেজে আপনাদের ভেরিফাই করতে হবে নিজের মোবাইল নম্বর।

Verify mobile number in adsense
Verify mobile number in adsense

Phone number এর বক্সে নিজের মোবাইল নম্বর দিয়ে দিতে হবে এবং নিচে “text message (SMS)” সিলেক্ট করে “Get Verification Code” এর মধ্যে ক্লিক করুন।

এবার, আপনার মোবাইল এর মধ্যে Google এর তরফ থেকে একটি verification code চলে আসবে।

পরের পেজে আপনারা “Enter verification code” এর বক্সে সেই code দিতে নিচে থাকা “Submit” এর লিংকে ক্লিক করতে হবে।

স্টেপ ৪. Blog / website review process

নিজের mobile number verify করার সাথে সাথে আপনি পরের পেজে একটি আলাদা রকমের জিনিস দেখতে পাবেন।

আপনাকে ছোট্ট একটি HTML code দিয়ে দেওয়া হবে যেটাকে কপি করে নিজের ওয়েবসাইটের <Head> সেকশন এর মধ্যে পেস্ট করতে হবে।

Connect your site to AdSense লেখার নিচে আপনারা সেই HTML code দেখতে পারবেন।

Verify website with AdSense

Your AdSense code, লেখার নিচে দেখুন কিছু HTML code দেওয়া রয়েছে।

সেই সম্পূর্ণ code copy করুন এবং নিজের blog site এর <head> </head> ট্যাগ এর মধ্যে পেস্ট করতে হবে।

যদি আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করছেন, তাহলে অবশই একটি ভালো প্লাগিন যেমন “Insert header and footer” ব্যবহার করে এই কাজ করতে পারবেন।

এখন, ওয়েবসাইটের মধ্যে code টিকে পেস্ট করার পর, নিচে থাকা “I’ve pasted the code into my site” বক্সে সিলেক্ট করুন।

শেষে, নিচে থাকা “Done” বাটনে ক্লিক করুন।

AdSense এর মধ্যে blog / website submit করার পর কি করবেন ?

এখন আপনি, সফলতাপূর্বক নিজের জন্য একটি নতুন এডসেন্স একাউন্ট বানিয়ে নিয়েছেন এবং নিজের website / blog টিকেও verify করার জন্যে অনুরোধ করেছেন।

AdSense review process started
AdSense review process started

এবার আপনি আপনার তরফ থেকে সবটা করে দিয়েছেন, এবং এখন আপনার আর কিছু করতে হবেনা।

বলে দেওয়া হিসেবে, আপনার জমা দেওয়া website / blog টিকে Google AdSense এর team ভালো করে দেখবে ও যাচাই করবে।

এই প্রক্রিয়াটিকে বলা হয় review করা।

যদি তাদের হিসেবে, আপনার ব্লগের কনটেন্ট কোয়ালিটি ভালো থাকে এবং আপনার ওয়েবসাইটের দ্বারা এডসেন্সের নিয়ম কানুন গুলো মানা হয়েছে,

তাহলে অবশই ২ দিনের মধ্যে আপনার website / blog টিকে approve করে দেওয়া হবে।

এর পর, আপনি সাধারণ AdSense ad codes নিজের ব্লগে পেস্ট করে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন।

মনে রাখবেন, আপনার website টি approve হবে কি হবেনা দুটো বিষয়েই আপনাকে email এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

Fast Google AdSense approval tips in Bengali

নিচে দেওয়া বিষয় গুলোর ওপরে নজর দিলে আপনার website / blog টিকে কোনো ঝামেলা ছাড়াই approve করে দেওয়া হবে।

  • আপনার ওয়েবসাইটে যাতে bot traffic না থাকে।
  • ওয়েবসাইটে কোনো ধরণের paid traffic থাকতে পারবেননা।
  • Google search থেকে যাতে আপনার ওয়েবসাইটে কমেও ৩০০-৪০০ ইউনিক ভিসিটর্স প্রত্যেক দিন আসছে, সেটা জরুরি।
  • অন্য ওয়েবসাইট বা ব্লগ থেকে কনটেন্ট চুরি বা কপি করে নিজের ব্লগে ব্যবহার যাতে না করেন।
  • আপনার ব্লগে কমেও ২০-৩০ আর্টিকেল পাবলিশ করা থাকতে হবে।
  • আপনার ব্লগে থাকা আর্টিকেল গুলো যাতে detailed এবং quality article থাকে।
  • কোনো ধরণের illegal কনটেন্ট যাতে আপনার ওয়েবসাইটে না থাকে সেটার নজর অবশই রাখবেন।

এছাড়াও, Google Adsense Policy এবং rules আরো অনেক রয়েছে যেগুলোকে আপনার ওয়েবসাইটের মানতেই হবে।

এডসেন্স থেকে আমরা প্রচুর টাকা অবশই ইনকাম করার সুযোগ পেয়ে থাকি,

তবে, Google AdSense এর নিয়ম কানুন গুলো সাংঘাতিক কড়া।

 

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, “কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলব (how to create Google AdSense account)”, এই বিষয়ে সম্পূর্ণ তথ্য আমি আপনাদের দিলাম।

এমনিতে, এই প্রক্রিয়া অনেক সোজা এবং আর্টিকেলটি পড়ার পর সহজেই জেকেও একাউন্ট বানিয়ে নিতে পারবেন।

যদি আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লেগেছে, তাহলে আর্টিকেলটি অবশই শেয়ার করবেন।

তাছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরনের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে,

নিচে কমেন্ট অবশই করবেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap