ভালো মানুষ চেনার উপায় গুলো কি কি ? ভালো মানুষের গুন

আপনিও কি ভালো মানুষ চেনার উপায়, ভালো মানুষের গুন এবং ভালো এবং খারাপ মানুষের মধ্যে থাকা পার্থক্য গুলো জানতে চাইছে ? যদি হে, তাহলে আমাদের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে সবটা স্পষ্ট করে বুঝতে পারবেন। 

ভালো মানুষ চেনার উপায়

এই জগতে আমরা দুই ধরণের ব্যক্তি পেয়ে থাকি একজন আমাদের ভালো চেয়ে থাকে এবং আরেকজন আমাদের খারাপ চেয়ে থাকে।

কিন্তু আমরা তাদের সহজে চিনতে পারিনা ফলে খারাপ চাওয়া ব্যক্তিরা আমাদের অজান্তে ক্ষতি করে থাকে।

এবং আমরা তাদের সাথে থেকেও অনেক সময় বুঝতে পারিনা।

তাই ভালো এবং খারাপ ব্যক্তির মধ্যে থাকা পার্থক্য আমাদের যানা খুব জরুরি।

আজকের এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে আমরা জানতে পারবো ভালো এবং খারাপ ব্যক্তির মধ্যে থাকা পার্থক্য কিভাবে চেনা যায়। আপনি নিজের মিথ্যাবাদী, অবিশ্বাশী বন্ধুদের কিভাবে চিনতে পারবেন ?

আপনি কি করে সনাক্ত করতে পারবেন যে ব্যক্তিটি আপনার বন্ধু হয়ে সাথে রয়েছে সেই ব্যক্তিটি বাস্তবে আপনার জন্য ভালো না খারাপ, না শুধু আপনার বন্ধুত্বের সুবিধা নিচ্ছে ?

তাই আপনাকে বুঝতে হবে কে আপনার আসল বন্ধু।

এই জগতে এমন অনেক ব্যক্তি থাকে যারা বিশ্বস্ত হওয়ার ভান করে থাকে কিন্তু বাস্তবে তাঁরা নিজের উদ্দেশ্য পুরা করার জন্যই আপনার সাথে থাকার নাটক করে যায়।

তাই আপনিও যদি এধরণের ব্যক্তির প্রতারণা থেকে  নিজেকে বাঁচাতে চান তাহলে তাদেরকে চেনার জন্য নীচে দেওয়া প্রত্যেকটি উপায় বিস্তারিতভাবে জেনে নিন।

তাহলে চলুন বন্ধুরা খারাপ এবং ভালো ব্যক্তির মধ্যে থাকা পার্থক্য গুলো জানা যাক।

আর এদের মধ্যে থাকা পার্থক্য ভালো করে বুঝতে পারলেই আপনি মানুষ চেনার উপায় গুলো বুঝতে পারবেন। 

ভালো মানুষ চেনার উপায় গুলো কি কি ?

বন্ধুরা, ওপরে আমি যা বললাম, যদি আপনারা ভালো মানুষ কিরকম হয় বা আপনার আসে পাশে থাকা মানুষ গুলো ভালো না খারাপ সেটা জেনেনিতে চাইছেন, তাহলে অবশই আপনাকে ভালো এবং খারাপ বা স্বার্থপর মানুষের মধ্যে পার্থক্য গুলো ভালো করে বুঝতে হবে।

এই পার্থক্য গুলোর মাধ্যমে আপনারা ভালো মানুষের গুন এবং সাথে খারাপ মানুষের মনের ইচ্ছে গুলোও বুঝতে পারবেন। 

তাই, আপনার আসে পাশে থাকা লোকেদের নিচে বলা এই গুন বা চরিত্রের সাথে মেপে আপনি এটা বুঝতে পারবেন যে তারা ভালো না খারাপ নাকি স্বার্থপর।

১. ভালো ব্যক্তিরা সবসময় আপনার কথা ভাবে

ভালো এবং সত্যিকারের ব্যক্তিরা সবসময় আপনাকে খুশি করার কথা ভেবে থাকে কিন্তু খারাপ এবং মিথ্যাবাদী ব্যক্তিরা সবসময় আপনার দ্বারা নিজেকে খুশি করার কথা ভেবে থাকে। 

ভালো এবং সত্যিকারের ব্যক্তিরা আপনাকে খুশি করার বিভিন্ন উপায় খুঁজতে থাকবে এবং বরাবর আপনার খবর নিতে থাকবে আপনি ঠিক আছেন কি না। কারণ, ভালো ব্যক্তিরা সবসময়  আপনার ভালোই চেয়ে থাকে।

কিন্তু অন্যদিকে খারাপ এবং স্বার্থপর ব্যক্তিরা আপনার সাথে তখনি সম্পর্ক রাখতে চান যখন আপনার থেকে কিছু পাওয়ার মতলব থেকে থাকে।

এধরণের ব্যক্তিরা শুধু নিজের ব্যাপারেই ভাবতে থাকে এবং শুধু নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত থাকতে ভালোবাসে।

২. স্বার্থ ছাড়া আপনার সাহায্য করে

ভালো এবং সত্যিকারের ব্যক্তিরা কোনোরকম স্বার্থ ছাড়া আপনার সাহায্য করে থাকে কিন্তু খারাপ এবং মিথ্যেবাদী ব্যক্তিরা কিছু পাওয়ার জন্য বা কোনো স্বার্থেই আপনার সাহায্য করেন। 

তাই সত্যিকারের বন্ধু বা ভালো মানুষ আপনার সাহায্য করে মনের ভেতর থেকে খুশি হয়ে থাকেন। 

কিন্তু অপরদিকে খারাপ এবং মিথ্যাবাদী ব্যক্তিরা আপনার সাহায্য করে থাকে কিছু পাওয়ার আশাতে বা কোনো স্বার্থে। 

তারা নিজের স্বার্থের কথা ভেবেই আপনার সাহায্য করেন। 

৩. আপনার সাফলতা প্রতি প্রতিক্রিয়া

ভালো এবং সত্যিকারের ব্যক্তিরা আপনার সাফলতা দেখে খুশি হয়ে থাকে এবং আপনাকে অভিনন্দন দিয়ে থাকে কিন্তু খারাপ এবং মিথ্যেবাদী ব্যক্তিরা আপনার সাফলতা দেখে ঈর্ষা করে থাকে। তারা ওপর থেকে খুশি হয়েছেন বলে ভাব দেখিয়ে থাকলেও মনের ভেতরে প্রচুর রেগে থাকেন। 

ভালো এবং সত্যিকারের ব্যক্তিরা আপনার উন্নতির জন্য সব সময় আপনাকে উৎসাহিত করে থাকে।

যখন আপনি সফল হয়ে থাকেন তখন তারা আনন্দিত হয়ে থাকে কারণ তারা প্রথম থেকেই আপনাকে সাফলতা পাওয়ার জন্য সমর্থন এবং সাহায্য করে থাকে।

কিন্তু অপরদিকে আপনি যখন সাফলতা প্রাপ্ত করেন তখন খারাপ এবং স্বার্থপর ব্যক্তিরা আপনার জন্য তাদের মনে রাগ ক্ষোভ অনুভব করে থাকেন। 

তারা আপনার উন্নতি দেখে হিংসা করে থাকে এবং মনে মনে অনেক কষ্ট পেয়ে থাকে আপনার উন্নতি দেখে।

৪. আপনার কষ্টের প্রতি প্রতিক্রিয়া

ভালো এবং সত্যিকারের ব্যক্তিরা আপনার দুঃখ কষ্ট দেখে তারাও আপনার জন্য দুঃখিত অনুভব করে থাকেন, কিন্তু খারাপ ব্যক্তিরা আপনার দুঃখ কষ্ট দেখে প্রচুর খুশি পেয়ে থাকে। 

ভালো ব্যক্তিরা অনেক দয়ালু হয়ে থাকে এবং একজন ভালো ব্যক্তি আপনার দুঃখ কষ্ট ঝামেলা ইত্যাদি বুঝতে পারে এবং সময়ে আপনার প্রতি মন থেকে সহানুভূতি দেখিয়ে থাকেন। 

যখন আপনি কোন কারণে মন খারাপ করে থাকেন তখন তারা আপনাকে খুশি করার চেষ্টা করে থাকে।

অন্যদিকে খারাপ ব্যক্তিরা তখন খুশি উপভোগ করে থাকে যখন আপনি অসফল এবং দুঃখ পেয়ে থাকেন।

যখন তারা আপনাকে নিচে এবং পরাজিত হতে দেখে থাকেন তখন তারা নিজের জয় হওয়া বলে অনুভব করে থাকে।

৫. সময়ে ব্যক্তির পরিচয় পাবেন

ভালো এবং সত্যিকারের ব্যক্তিরা আপনার খারাপ এবং ভালো দুটো সময়েই আপনার সাথে থাকে কিন্তু খারাপ এবং মিথ্যেবাদী ব্যক্তিরা আপনার খারাপ সময়ে সাথ ছেড়ে দেয়। 

ভালো ব্যক্তিরা ভালো পরিস্থিতি হোক বা খারাপ পরিস্থিতি হোক তারা সবসময় আপনার পাশে থাকবে।

কিন্তু খারাপ ও স্বার্থপর ব্যক্তিরা কেবল মাত্র আপনার ভালো সময়েই সাথ দিয়ে থাকে।

এধরণের ব্যক্তিরা আপনার খারাপ সময়ে সাথ ছেড়ে দেয়। 

এছাড়া, স্বার্থপর ব্যক্তিরা কেবল ততক্ষন আপনার সাথে থাকে যতক্ষন আপনার সাহায্যে তারা লাভ পেতে থাকে।

৬. সকলের প্রতি দয়ালু ভাবনা

ভালো এবং সত্যিকারের ব্যক্তিরা বাস্তবিকরূপে সকলের প্রতি দয়ালু হয়ে থাকে কিন্তু খারাপ এবং মিথ্যেবাদী ব্যক্তিরা শুধু তাদের পছন্দ হওয়া কিছু ব্যক্তির প্রতি দয়া দেখিয়ে থাকেন, আর সেটাও হয়তো কোনো স্বার্থের কারণেই। 

ভালো ব্যক্তিরা বাস্তবিকরূপে কোনো ভেদাভেদ ছাড়া সকলের প্রতি দয়া দেখিয়ে থাকেন, কারণ তারা স্বাভাবিকরূপে মন থেকেই ভালো ব্যক্তি হয়ে থাকে।

কিন্তু খারাপ ব্যক্তিরা শুধু মাত্র দয়ালু হওয়ার ভান করে থাকে এবং কেবলমাত্র তাদের প্রতি দয়া দেখিয়ে থাকে যার থেকে কিছু লাভ পাওয়ার সম্ভাবনা থেকে থাকে। 

৭. সবসময় সত্যের সাথ

ভালো ব্যক্তিরা সবসময় সত্যের সাথ দিয়ে থাকে কিন্তু খারাপ ব্যক্তিদের জন্য সত্যি মিথ্যে বলে কিছুই নেই, তাদের জন্য কেবল লাভ পাওয়ায় হলো মূল ব্যাপার। তাই, একজন খারাপ চিন্তাধারার ব্যক্তি কেবল লাভ বা লোকসান দেখে সত্যি মিথ্যে নিয়ে বলেন বা ভাবেন। 

ভালো ব্যক্তিরা কখনও মিথ্যে কথা বলেনা, তবে বললেও সেটা ভালোর জন্যেই বলে থাকেন। এমনিতে ভালো এবং সৎ চিন্তাধারার মানুষ সবসময় সত্যের সাথ দিয়ে থাকে।

মনে রাখবেন, খারাপ ব্যক্তিরা প্রতারণা করতে এবং মিথ্যে কথা বলতে মাহির থাকে।

খারাপ ব্যক্তিরা কখনও মিথ্যে কথা বলা থেকে বিরত থাকেনা কারণ তারা সবসময় মিথ্যের সাহায্য নিয়েই জীবনে এগিয়ে যেতে পছন্দ করে থাকেন। 

৮. যেকোনো পরিস্থিতে সাথে থাকা

ভালো এবং সৎ ব্যক্তিরা যেকোনো পরিস্থিতে আপনাকে বাচানোর চেষ্টা করবে এবং আপনার সাথে থেকে আপনাকে সাহায্য করার চেষ্টা করবেন।

কিন্তু খারাপ এবং মিথ্যেবাদী ব্যক্তিরা আপনার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করতে একবার ভাববেননা। 

একজন ভালো ব্যক্তি আপনার সততা এবং মর্যাদাকে সম্মান করবে এবং যেকোনো পরিস্থিতিতে আপনাকে রক্ষা করতে সাহায্য করবে।

অন্যদিকে খারাপ এবং মিথ্যেবাদী ব্যক্তিরা আপনাকে বিব্রত এবং আপনার পিঠপিছে নিন্দা করবে।

কিন্তু এটা মনে রাখেন যে, তারা অপনার সামনে আপনার প্রশংসা অবশই করবেন, আপনার প্রতি ভালোবাসা এবং সহানুভূতি দেখাবেন। 

কিন্তু আপনি না থাকা অবস্থায় আপনার নামে নিন্দাচর্চা এবং বিশ্বাসঘাতকতা করতে একবারও ভাববেননা। 

৯. সৎ ব্যক্তিরা নম্র স্বভাবের হয়ে থাকে

ভালো এবং সত্যিকারের ব্যক্তিরা নম্র স্বভাবের হয়ে থাকে কিন্তু খারাপ এবং মিথ্যেবাদী ব্যক্তিদের মধ্যে প্রচুর অহংকারী ভাব দেখতে পাওয়া যায়। 

সৎ ব্যক্তিরা সাধারণ ভাবে জীবন যাপন করে থাকে। অনেক সময়ে তারা অন্যকে উপরে উঠানোর জন্য নিজেকে নীচে নামিয়ে দিয়ে থাকে।

অন্যদিকে খারাপ লোকেরা সবসময় নিজের লাভের জন্য এবং অনেক সময় কোনো কারণ ছাড়াই অন্যকে নীচে নামাতে চেষ্টা করে থাকে।

এবং তাদের ধারণা হলো তারা অন্যের তুলনায় শ্রেষ্ঠ ব্যক্তি।

১০. নিন্দা বা বদনাম করা

একজন সত্যিকারের বন্ধু, মানুষ বা প্রিয়জন কখনোই অন্যের সামনে আপনার অনুপস্থিতিতে আপনার বদনাম বা নিন্দা করবেননা। যদি সে এটা করে থাকে, তাহলে সেই মুহূর্তেই আপনাকে বুঝতে হবে যে সে একজন সৎ বা ভালো ব্যক্তি না।

বর্তমান সময়ে আমাদের আসে পাশে থাকা ব্যক্তিরা আমাদের সামনে প্রচুর ভালো ভাব, প্রেম, যত্ন বা স্নেহ দেখিয়ে থাকেন, তবে আপনার অনুপস্থিতিতে আপনার বদনাম বা নিন্দা করতে একবারও ভাবেননা।

জীবনে এরকম প্রচুর লোকেদের সাথে জায়গায় জায়গায় আপনার দেখা হতেই থাকবে, তবে আপনাকে তাদের এই স্বভাব গুলোর মাধ্যমে বুঝতে হবে যে তারা সৎ বা ভালো ব্যক্তি নয়।

কেননা, একজন ভালো বন্ধু বা ব্যক্তি কখনোই অন্যের সামনে আপনার নিন্দা, বদনাম বা অপমান করতে চাইবেননা।

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা আজকের এই আর্টিকেলটির মূলকথা হলো ভালো এবং খারাপ ব্যক্তির মধ্যে থাকা পার্থক্য গুলো কি কি এবং ভালো মানুষ চেনার উপায় গুলো কি সেটা নিয়ে। আশা করি আমার এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে অল্প হলেও খারাপ ব্যক্তিদের থেকে নিজেদের কি করে বাঁচিয়ে রাখতে হয় তা জানাতে পেরেছি। আমাদের আজকের আর্টিকেল যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে অবশই আমাদের আর্টিকেলটি সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম গুলোতে শেয়ার করবেন। এছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে, নিচে কমেন্ট করে অবশই জানাবেন। 

 

>> Related Articles <<

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap