বিজ্ঞাপন কি ? এর লাভ, প্রকারভেদ এবং উদ্দেশ্য

বিজ্ঞাপন কি ? (what is advertisement): আপনি ইন্টারনেটে বা টিভিতে (TV) যেকোনো ছবি বা ভিডিও দেখার সময়, মাঝে মাঝে কিছু অন্যান্য products এবং services গুলির বিষয়ে তথ্য দেওয়া হয়।

About advertising in Bengali.

এই অবস্থাটিকে বলা হয় বাণিজ্যিক বিরতি।

বাণিজ্যিক বিরতিতে, যেকোনো একটি বিশেষ product, service, notice, information ইত্যাদি গুলিকে, জনসাধারণের কাছে প্রচার (promote) করানোর উদ্দেশ্যে, টিভির মাধ্যমে দেখানো হয় বা প্রচার চালানো হয়।

এবং, এই প্রক্রিয়াটিকেই বলা হয় বিজ্ঞাপন বা এডভার্টাইসমেন্ট (advertisement).

উদাহরণ স্বরূপে,

যখন আপনি YouTube এ যেকোনো ভিডিও দেখেন, তখন বিভিন্ন ধরণের product বা service কিছু নিয়ে, আমাদের ads দেখানো হয়।

তাছাড়া, টিভির (TV) কথা বললে, যেকোনো সিরিয়েল বা ছায়া ছবি দেখার সময়, আমাদের কাছে, বিভিন্ন consumer products যেমন, Maggi, tooth paste, oil, cold drinks বা বিভিন্ন brand এর বিভিন্ন products নিয়ে কিছু বার্তা (messages) প্রচার করা হয়।

এই সম্পূর্ণ প্রচার করার প্রক্রিয়াটিকেই বিজ্ঞাপন বলে বলা যেতে পারে।

বিজ্ঞাপন, কেবল টিভি বা ইন্টারনেটে দেখানো নিয়েই সীমিত নয়।

এমনিতে বিজ্ঞাপন দেখানোর বিভিন্ন মাধ্যম বা উপায় রয়েছে, যেগুলি বিভিন্ন বিষয়ের ওপরে নির্ভর করে ব্যবহার করা হয়।

যেমন, খবরের কাগজে বিজ্ঞাপন, রেডিওর (radio) মাধ্যমে বিজ্ঞাপন, রাস্তা ঘাটে বিভিন্ন ওয়ালে বা পোস্ট গুলিতে থাকা ব্যানার এবং গণপরিবহনের ক্ষেত্রে থাকা গাড়ি ও বাস গুলিতে কাগজের ব্যানার।

সবটাই, বিজ্ঞাপন (advertisement) এর আলাদা আলাদা প্রকার এবং প্রক্রিয়া।

বর্তমান সময়ে, online এবং offline মিলিয়ে একজন সাধারণ লোক প্রায় ৫০০০ টি বিজ্ঞাপন প্রত্যেক দিন দেখেন ও পড়েন।

কারণ, advertisements বিভিন্ন আলাদা আলাদা আকার, আকৃতি এবং প্রকারে আমাদের দেখানো হয়।

তবে শেষে, প্রশ্ন এটাই থেকে যায় যে আসলে এই “বিজ্ঞাপন কাকে বলে ?” (what is advertisement in bangla). কেন বিজ্ঞাপনের গুরুত্ব এতটা বেশি ? এই বিজ্ঞাপন গুলির উদ্দেশ্য ও সুবিধে কি কি রয়েছে ?

এটাই তো আপনারা জেনে নিতে চাচ্ছেন ?

যদি হে, তাহলে আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে, আপনারা বিজ্ঞাপন কি বা বিজ্ঞাপন কাকে বলে এবং এর সাথে জড়িত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলির বেপারে জেনে নিতে পারবেন বাংলাতে।

বিজ্ঞাপন কি ? (what is advertisement)

সোজা এবং সহজ ভাবে বললে, যেকোনো পণ্য (PRODUCT) বা সেবা (services) গুলিকে বিক্রি অথবা উন্নীত করার উদ্দেশ্যে করা গণযোগাযোগ বা প্রচার করার প্রক্রিয়াকেই বিজ্ঞাপন (advertising) বলা হয়।

বিজ্ঞাপন হলো মার্কেটিং (marketing) এর এক অনেক গুরুত্বপূর্ণ অংশ, যার উদ্দেশ্য, বিভিন্ন পণ্য বা সেবা গুলিকে জনগণের মাঝে প্রচার করে সেগুলি কেনার জন্য উৎসাহিত করা।

তাছাড়া, এভাবেও বলা যেতে পারে যে, জনসাধারণকে ধ্যান কোনো একটি বিশেষ বিষয়ের ওপর নিয়ে যাওয়ার জন্য এই প্রক্রিয়া ব্যবহার করা হয়।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, paid advertisement এর মাধ্যমে অনেক সহজেই লোকেদের ধ্যান ও মন অন্য অনেক বিষয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হয়।

এই বিজ্ঞাপন গুলিকে, কোনো একটি বিশেষ প্রকারে সীমিত রাখা হয়নি।

কারণ, advertisements গুলির বিভিন্ন প্রকার রয়েছে যেমন, print media, television, internet, digital marketing বা অন্যান্য অনেক প্রকারে বিজ্ঞাপন চালানো হয়।

তবে, বিজ্ঞাপন গুলির মধ্যে সব থেকে লাভজনক হলো “paid announcements“.

এই ধরণের paid announcements গুলি, যেকোনো বিষয়ে লোকেদের অনেক আকর্ষিত করে প্রচার চালিয়ে নেয়।

তবে, এই ধরণের বিজ্ঞাপন গুলিতে থাকা তথ্য গুলি সব সময় সঠিক হবে বলে কোনো guarantee নেই।

বিজ্ঞাপন মানে কি ? (Definition of advertising)

বিজ্ঞাপনের আমাদের জীবন এবং সমাজের সাথে অনেক পুরোনো সম্পর্ক রয়েছে।

আগের সময়ে ঢোল এবং ঘন্টা বাজিয়ে লোকেদের আকর্ষিত করে সমাচার বা সূচনা দেওয়া হতো।

তবে এখনের সময়ে, সঞ্চারের বিভিন্ন মাধমের ব্যবহার করে, নিজের কথা জনসাধারণের কাছে প্রচার করা হয়।

তাই, সোজা ভাবে বললে , বিজ্ঞাপন মানে হলো, একটি কার্যকর প্রচারের মাধ্যম।

বর্তমান সময়ের অর্থ ব্যবস্থায় উৎপাদনের ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা (competition) প্রচুর।

যেকোনো product বা service এর বিভিন্ন আলাদা আলাদা কোম্পানি রয়েছে।

এই ক্ষেত্রে, নিজের কোম্পানির ব্র্যান্ড (brand) এবং পণ্যের লোকপ্রিয়তা মার্কেট ও জনসাধারণের মধ্যে চিরকাল টিকিয়ে রাখাটা যথেষ্ট কষ্টের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এইজন্যেই, নিজের ব্র্যান্ড এবং পণ্যের, বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে প্রচার করাটা প্রত্যেক organization বা উদ্যোগীক প্রতিষ্ঠানের জন্য অনেক জরুরি হয়ে পড়েছে।

আর তাই, বিজ্ঞাপনের বিশেষত্ব এবং ব্যবহার দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে।

শেষে, বিজ্ঞাপন হলো “কোনো বিচার, সেবা বা পণ্যের বিষয়ে এভাবে সূচনা প্রদান করা যেখানে, উপভোক্তা বা গ্রাহক বিজ্ঞাপনকর্তার নিহিত উদ্দেশ্যের অনুসারে, কাজ করার জন্যে বাধ্য হয়ে পড়েন।

তাছাড়া, বিজ্ঞাপনকে এমন একটি ব্যবসায়িক বল হিসেবে বলা যেতে পারে, যেখানে আকর্ষণ, শব্দের বা চিত্রের মাধ্যমে পণ্যের বিক্রয় অথবা চাহিদা ও মান বৃদ্ধি করার ক্ষত্রে সাহায্য পাওয়া যায়।

তাহলে, বিজ্ঞাপন কাকে বলে, বিষয়টি সঠিক ভাবে বুঝতেই পেরেছেন বলে আশা করছি।

বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্য কি ? (Motive of advertisement)

ওপরে, বিজ্ঞাপন কি এবং এর মানে জানার পর, বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্য স্পষ্ট ভাবে বোঝা যাচ্ছে।

প্রথমেই আমরা এটাই বুঝতে পারছি যে, বিজ্ঞাপনের সবচে প্রথম এবং গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্য হলো লাভ।

তবে, এই লাভ আর্থিক ভাবেও হতে পারে আবার জনমত নির্মাণের মাধ্যমে সামাজিক বা রাজনৈতিক লাভ ও হতে পারে।

তাছাড়া, সোজা ভাবে বললে, “বিজ্ঞাপনের দ্বারা করা লক্ষ্যবস্ত প্রচারের মাধ্যমে লক্ষ্য সমূহের আকর্ষণ গ্রহণ করা ও জনসাধারণের বিচার ধারণা গুলিকে প্রভাবিত করা”, এটাই হলো বিজ্ঞাপন এর উদ্দেশ্য।

এই প্রক্রিয়াতে দুটি পক্ষ রয়েছে, 

  • বিজ্ঞপ্তি কর্তা 
  • লক্ষ সমূহ 

বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্য হলো, এই দুজনের মাঝে সম্পর্ক তৈরি ও সৃষ্টি করাটা।

আসলে, লক্ষ্যের ওপরে নির্ভর করে, বিজ্ঞাপনের ৩ টি উদ্দেশ্য থাকছে।

  1. সূচনা প্রদান করা
  2. প্রভাবিত করা 
  3. স্বীকৃতি তৈরি করা 

বিজ্ঞাপন মূলত একটি সূচনা বা সন্দেশ, যেটা বিজ্ঞাপনদাতার দ্বারা লক্ষ্য সমূহ গুলির কাছে প্রচার করা হয়।

এবং, এই প্রচার করা বিজ্ঞাপন গুলি, উপভোক্তা দের বিজ্ঞাপনের সাথে জড়িত পণ্য, সেবা বা বিষয়ের ওপর নিজের বিচার তৈরি করতে সাহায্য করে।

তবে, বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে দেওয়া সূচনাটি কতটা ভালো ভাবে প্রকাশ করা হয়েছে, সেটার ওপরে নির্ভর করবে লক্ষ্য সমূহের বিচারের নির্ধারণ হয়।

বিজ্ঞাপনের প্রকারভেদ গুলি কি কি ?

বিজ্ঞাপন এর প্রকার বা বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যম প্রচুর রয়েছে।

এই প্রকার গুলির মধ্যে প্রায় প্রত্যেকটি অনেক অধিক পরিমানে ব্যবহার করা হচ্ছে।

  1. Online advertising (Digital advertising) : ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন প্রচার। এই ক্ষেত্রে, Google ads, Facebook ads, LinkedIn, Twitter ads, Instagram ads, এগুলি বিজ্ঞাপন প্রচারের কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্লাটফর্ম।
  2. Cell phone (Mobile advertisement) : ডিজিটাল আডভার্টাইসিং এর ক্ষেত্রে, mobile, smartphones, iPad বা অন্যান্য portable electronic device গুলিতে ইন্টারনেট সংযুক্ত করে বিজ্ঞাপন প্রচার করা সম্ভব।
  3. Print advertising : Magazine, newspaper, brochures, paper banner, leaflets এবং আরো অন্যান্য কিছু মাধ্যমে printing এর মাধ্যমে করা বিজ্ঞাপনের প্রচার গুইলিকেই print advertising বলা হয়।
  4. Email advertising : এই ক্ষেত্রে, ইন্টারনেট এবং ইমেইল (email) এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন পাঠানো হয়।
  5. Media advertising : বিভিন্ন media technology যেমন, টিভি (TV), radio, DVD ইত্যাদি প্রক্রিয়া গুলির মাধ্যমে করা advertising কে, media advertising এ ধরা যেতে পারে।

এছাড়া, আরো অন্যান্য অনেক মাধ্যম বা প্রকারভেদ রয়েছে বিজ্ঞাপনের।

তবে, ওপরে আমি বলা গুলি বর্তমানে সব থেকে অধিক পরিমানে ব্যবহার করা হয়।

বিজ্ঞাপন প্রচারের লাভ ও সুবিধা কি কি ?

বিজ্ঞাপন এর লাভ ও সুবিধা প্রচুর রয়েছে। এবং তাই, বর্তমানে এর ব্যবহার এবং গুরুত্ব প্রচুর।

তাই চলুন, নিচে আমরা বিজ্ঞাপন এর কিছু সেরা লাভ ও সুবিধে গুলির বিষয়ে জেনেনেই।

  • বাজারে বা মার্কেটে নতুন পণ্য বা সেবা আনার ক্ষেত্রে অনেক কাজে আসে।
  • পণ্যের বিক্রি, চাহিদা ও জনপ্রিয়তার পরিমান বৃদ্ধি করার কাজে আসে।
  • বাজারে প্রতিযোগিতা (competition) অধিক বেশি। এই ক্ষেত্রে, বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে নিজের পণ্য বা সেবা সব সময় উপভোক্তার ধ্যানে ও মনে রাখা সম্ভব।
  • ব্যবসার brand তৈরি করার ক্ষেত্রে অনেক কাজে আসে।
  • বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে যেকোনো উৎপাদ বা উৎপাদন, সহজে লোকেদের নজরে নিয়ে যাওয়া সম্ভব।
  • এর মাধ্যমে উপভোক্তারা নিজেকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে শিক্ষিত করতে পারছেন।
  • বিজ্ঞাপন সংস্থা বা সংগঠন গুলির মাধ্যমে চাকরির সুযোগ বাড়ছে।
  • Manufacturer বা company গুলির, উপভোক্তাদের (consumer) সাথে সরা সরি সংযোগ গঠিত হচ্ছে। এতে, তারা তাদের বিচার বা সূচনা সহজে জনসাধারণের কাছে প্রচার করতে পারেন।
  • Blogger এবং YouTube channel মালিকেরা, অনেক সহজে তাদের website বা channel অনলাইনে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে প্রচার করে নিতে পারছেন।

তাহলে, এগুলি ছিল বিজ্ঞাপনের কিছু লাভ এবং সুবিধে।

এমনিতে, এর বাইরেও আরো অনেক সুবিধা রয়েছে বিজ্ঞাপনের।

 

আমাদের শেষ কথা,

তাহলে বন্ধুরা, আজকে আমরা শিখলাম “বিজ্ঞাপন কি ( what is advertising in Bangla )”, “বিজ্ঞাপনের গুরুত্ব”, “বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্য” এবং “বিজ্ঞাপনের প্রকারভেদ” নিয়ে কিছু তথ্য।

তবে, এই বিষয়ে আপনার অন্য কিছু প্রশ্ন বা সমস্যা থাকলে আমাদের কমেন্ট অবশই করবেন।

শেষে, যদি আপনার কোনো ব্যবসা রয়েছে যেখানে আপনি পণ্য বা সেবার উৎপাদন করছেন, তাহলে বিজ্ঞাপনের সাহায্যে সেগুলির মান অধিক বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

তাছাড়া, লোকেরা আপনার পণ্য বা সেবার বিষয়ে জেনে নিতে পারবেন ,

এবং, যত বেশি পরিমানে উপভোক্তারা আপনার পণ্যের বিষয়ে জানবেন, বিক্রির সুযোগ ততটাই বেশি বাড়তে থাকবে।

তাই, বিজ্ঞাপন হতে পারে আপনার ব্যবসার ক্ষেত্রে এক অনেক গুরুত্বপূর্ণ ও লাভজনক একটি অস্ত্র।

Related Contents:

BanglaTech

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top