ফেসবুক ভিআইপি অ্যাকাউন্ট কি ? কিভাবে তৈরি করবেন

ফেসবুক ভিআইপি অ্যাকাউন্ট: এমনিতে একটি সাধারণ ফেসবুক একাউন্ট তো আমাদের প্রত্যেকের কাছেই রয়েছে, তবে আপনি কি জানেন, ফেসবুকে একটি ভিআইপি অ্যাকাউন্ট বানানো সম্ভব।

ফেসবুক ভিআইপি অ্যাকাউন্ট
Facebook VIP Account details in Bangla.

অনেকেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে ফেসবুক এর সাথে জড়িত এই নতুন শব্দটির বিষয়ে শুনেছেন, তবে এই Facebook VIP account আসলে কি, সেটা স্পষ্ট ভাবে অনেকেই জানেননা।

তাই, এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা ফেসবুক এর ভিআইপি অ্যাকাউন্ট মানে কি বুঝায় এবং কিভাবে তৈরি করবেন এই ধরণের একটি একাউন্ট, সেই প্রত্যেক বিষয়ে আলোচনা করতে চলেছি।

আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনারা কি কি শিখবেন ?

  1. Facebook VIP account কি ?
  2. Facebook VIP account তৈরি করার জন্য কিসের প্রয়োজন ?
  3. মোবাইল দিয়ে কিভাবে বানাবেন একটি ভিআইপি অ্যাকাউন্ট ?
  4. Computer বা laptop দিয়ে কিভাবে ভিআইপি অ্যাকাউন্ট তৈরি করবেন ?

তাহলে চলুন, এক এক করে প্রত্যেকটি বিষয়ে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করে নেই।

ফেসবুক ভিআইপি অ্যাকাউন্ট কি ?

একটি Facebook VIP account মূলত একটি সম্পূর্ণ professional account যেটা একটি সাধারণ ফেসবুক একাউন্ট থেকে সম্পূর্ণ আলাদা।

এই ভিআইপি অ্যাকাউন্ট এর ডিজাইন দেখতে আলাদা তবে অধিক সুন্দর হয়ে থাকে।

VIP account এর look মূলত আলাদা হয়ে থাকে এবং এক্ষেত্রে বিভিন্ন আলাদা আলাদা official look এবং design আমরা দেখতে পাই।

তাই, একটি ফেসবুক এর ভিআইপি একাউন্ট এর মূল বিষয়টা হলো, এর মাধ্যমে আপনারা নিজের ফেসবুক প্রোফাইল টিকে অধিক আকর্ষণীয় এবং সুন্দর করে তুলতে পারবেন।

এমনিতে শুনতে এবং বুঝতে যতটা সহজ তেমনি এই ধরণের ভিআইপি অ্যাকাউন্ট বানানোর প্রক্রিয়াটি কিন্তু তেমন সহজ না।

Facebook VIP account তৈরি করার জন্য কিসের প্রয়োজন ?

নিজের জন্য একটি Facebook VIP account তৈরি করার জন্য সবচেয়ে আগে আমাদের কাছে কিছু জরুরি জিনিস গুলো অবশই থাকতে হবে, কেবল তখনি আমরা VIP account তৈরি করতে পারবো।

যা যা লাগবে সেগুলো হলো, 

১. আপনার একটি সাধারণ ফেসবুক একাউন্ট থাকতে হবে

Facebook এর মধ্যে VIP account বানাতে হলে সবচেয়ে আগেই আপনার একটি সাধারণ না নরমাল একাউন্ট অবশই থাকতে হবে। কেবল তখনি আপনি নিজের প্রোফাইলে VIP account লিখতে পারবেন।

যদি আপনার একটি normal Facebook account নেই, তাহলে অবশই আপনাকে প্রথমেই একটি ফেসবুক একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে।

২. একটি smartphone বা computer যেখানে internet এর সুবিধা রয়েছে

দ্বিতীয়তে আমাদের প্রয়োজন হবে একটি mobile phone বা computer এর যেখানে ইন্টারনেট এর কানেক্টিভিটি রয়েছে।

কেননা, ফেসবুক হলো একটি অনলাইন সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্ক, আর তাই ফেসবুক ওপেন করে সেখানে ফের বদল করার ক্ষেত্রে আমাদের একটি computer device এবং internet অবশই প্রয়োজন হবে।

৩. Web browser 

মনে রাখবেন, শেষে Mobile বা computer যেটাই ব্যবহার করছেন, সেখানে ওয়েব ব্রাউজার বা Facebook app অবশই থাকতে হবে।

আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারে Google chrome, Firefox বা অন্য যেকোনো একটি ব্রাউজার ব্যবহার করতে পারবেন।

মোবাইল দিয়ে ভিআইপি অ্যাকাউন্ট কিভাবে বানাবেন ?

চলুন, এবার আমরা সরাসরি জেনেনেই নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে সুন্দর সুন্দর ভিআইপি ডিজাইন কিভাবে যোগ করতে পারবেন।

আপনারা দুটো মাধ্যমে একটি ফেসবুক এর ভিআইপি একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন।

  1. Add Bio
  2. Add Work

চলুন, আমরা নিচে দুটো মাধমের বিষয়েই বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করে নেই।

১. Add bio এর মাধ্যমে Facebook এর VIP তৈরি করুন 

যদি সব থেকে সোজা এবং সরল মাধ্যমে VIP account বানাতে চাইছেন, তাহলে add bio এর মাধ্যমে একাউন্ট তৈরি করুন।

Step ১. 

মোবাইলে Web browser এর মধ্যে গিয়ে Facebook এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন এবং নিজের একাউন্টে লগইন করুন। আপনি চাইলে Facebook app ব্যবহার করতে পারেন।

Step ২.  

সরাসরি নিজের profile এর মধ্যে click করুন এবং এবার নিজের profile picture এর নিচে add bio এর একটি option দেখতে পাবেন যেখানে আপনাকে click করতে হবে।

Step ৩. 

এবার আপনার সামনে একটি blank box রয়েছে যেখানে আপনাকে আপনার bio লিখতে বলা হচ্ছে।

Step ৪. 

এবার আপনাদের Facebook VIP text কপি করে সেই Bio Box এর মধ্যে paste করতে হবে এবং “save” এর অপশনে ক্লিক করতে হবে।

( Note: Bio box এর মধ্যে পেস্ট করার জন্য আপনাদের কিছু VIP text, symbols বা stylish bio design text গুলোর প্রয়োজন হবে যেগুলো ইন্টারনেটে সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন। )

শুধু এতটুকু করলেই আপনার profile সাধারণ Facebook profile থেকে একটি VIP একাউন্টে রূপান্তরিত হয়ে যাবে।

২. Add work এর মাধ্যমে Facebook এর মধ্যে VIP account লিখুন 

  1. সবচে আগেই আপনাকে নিজের Facebook account এর মধ্যে login করতে হবে।
  2. এবার আপনাকে নিজের Facebook profile এর মধ্যে যেতে হবে।
  3. Profile এর মধ্যে চলে আসার পর আপনারা about এর অপসন দেখতে পারছেন হয়তো, এবার about এর অপশনে click করুন।
  4. About এর মধ্যে click করার পর আপনার সামনে একটি নতুন ওপেন হয়ে যাবে।
  5. এই নতুন পেজ এর মধ্যে আপনারা add work and education এর ট্যাব দেখতে পাবেন, যেখানে আপনাদের ক্লিক করতে হবে।
  6. এবার add a workplace এর অপসন দেখতে পাবেন যেখানে আপনাদের click করতে হবে।
  7. শেষে Work লেখার নিচে আপনারা “company নামের একটি search box” দেখতে পাবেন যেখানে আপনি আপনার work এর বিষয়ে search করতে পারবেন।
  8. আপনি সরাসরি search box এর মধ্যে VIP Facebook account লিখে সার্চ করুন।
  9. এবার আপনার সামনে VIP account নাম দিয়ে প্রচুর আলাদা আলাদা ডিজাইন এর VIP account symbols এবং design চলে আসবে।
  10. দেখানো VIP account styles গুলোর মধ্যে থেকে যেগুলো যেগুলোকে আপনি আপনার ফেসবুক একাউন্টে দেখাতে চাইছেন, সেগুলোর ওপরে click করে save করে নিন।

এবার সফলতাপূর্বক আপনি আপনার সাধারণ ফেসবুক একাউন্ট টিকে Facebook VIP Account এর মধ্যে convert করে নিয়েছেন।

Computer বা laptop দিয়ে Facebook এর VIP account তৈরি করুন  

এমনিতে দেখতে গেলে ফেসবুক মোবাইল ভার্সন এবং কম্পিউটার ভার্সন দুটোতেই প্রায় এক ভাবেই এক স্টেপস গুলো ফলো করে একাউন্ট সেটিং করা সম্ভব।

তবে যদি আপনারা একেবারে স্পষ্ট ভাবে স্টেপস গুলো জেনেনিতে চাইছেন তাহলে স্টেপস গুলো নিচে বলে দেওয়া হয়েছে।

  1. সবচে আগে আপনাকে করতে হবে নিজের ফেসবুক একাউন্টে লগইন। একাউন্ট লগইন করার ক্ষেত্রে আপনি যেকোনো একটি browser ব্যবহার করুন।
  2. একাউন্ট লগইন করার পর এবার সরাসরি চলে যেতে হবে নিজের প্রোফাইল (profile) এর মধ্যে।
  3. এবার, মোবাইল দিয়ে করা প্রথম প্রক্রিয়ার মতোই আপনাকে add bio অপশনে click করতে হবে এবং Facebook VIP text পেস্ট করে save করতে হবে।
  4. মোবাইল এর মাধ্যমে যেই দ্বিতীয় প্রক্রিয়া ব্যবহার করেছিলাম সেই একি ভাবে আপনারা about >> add work and education >> add a workplace এর মধ্যে click করুন এবং “VIP Facebook account” লিখে search করুন।
  5. বাস, এবার নিজের পছন্দ হিসেবে VIP account design এবং style গুলো select করুন  এবং save করে নিন।

আজকে আমরা কি শিখলাম ?

তাহলে বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা ফেসবুক ভিআইপি অ্যাকাউন্ট কি এবং VIP account কিভাবে বানাতে হয় সেই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করলাম।

আশা করছি আজকের আমাদের আর্টিকেলটি আপনাদের অবশই পছন্দ হয়েছে। যদি আর্টিকেল ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশই আর্টিকেলটি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করবেন।

এছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে, নিচে কমেন্ট করে অবশই জানাবেন।

 

>> Related Articles <<

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap