আপনার যদি একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট আছে, তাহলে ডোমেইন অথরিটি কি (What Is Domain Authority In Bangla), এই বেপারে জেনে রাখাটা অনেক জরুরি। Domain authority বা DA, একটি ওয়েবসাইটের “search engine traffic” ও “SEO” র সাথে জড়িত। তাই, ব্লগার হিসেবে এই বিষয়টাকে নিয়ে অবহেলা করাটা ঠিক হবেনা

About domain authority in Bangla.

এই উদ্ধেশ্যে, এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের, “ডোমেইন অথরিটির ব্যাপারে” সবটাই ভেঙে বলবো।

Domain authority (DA) কি, একটি ওয়েবসাইটের “domain authority” কিভাবে চেক করবেন এবং কিভাবে ওয়েবসাইটের ডোমেইন অথরিটি বৃদ্ধি করবেন, সবটাই আপনারা এই আর্টিকেলের মাধ্যমে জানবেন।

ডোমেইন অথরিটি কি ? (What Is Domain Authority)

ডোমেইন অথরিটি এমন এক search engine ranking score, যেটা moz organization/company দ্বারা জারি করা হয়েছে।

এই ডোমেইন অথরিটি স্কোর এর মাধ্যমে, সার্চ ইঞ্জিন গুলিতে যেকোনো ওয়েবসাইটের তার রাংক (rank) করার ক্ষমতা আন্দাজ করা হয়।

একটি ওয়েবসাইট কতটা ভালো ভাবে search engine result page (SERPs) এ rank করার ক্ষমতা রাখে, তার অনুমান DA score এর মাধ্যমে করা যেতে পারে।

মানে, যতটা বেশি যেকোনো ওয়েবসাইটের domain authority score থাকবে, ততটাই বেশি সেই ওয়েবসাইট, অণ্য কম DA থাকা ওয়েবসাইটের তুলনায়, ভালো ভাবে সার্চ ইঞ্জিনে রাংক (rank) করার ক্ষমতা রাখবে।

তাই, এই প্রক্রিয়াকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ search engine ranking factor হিসেবে ধরা হয়।

উদাহরণ স্বরূপে,

আপনার এবং আমার ব্লগে একি বিষয় নিয়ে একটি আর্টিকেল লিখা আছে।

তাহলে, এখন গুগল কার লেখা আর্টিকেল সব থেকে ওপরে তার top search result page এ রাখবে ?

যদি আপনার ওয়েবসাইটের DA score আমার ওয়েবসাইটের DA score এর তুলনায় অধিক বেশি থাকে, তাহলে সুযোগ রয়েছে যে, গুগল আপনার লেখা আর্টিকেল আমার লেখা আর্টিকেলের তুলনায় তার top search result পেজে দেখাবে।

তাই, DA score অধিক থাকা মানে, গুগল সার্চ ইঞ্জিনে, আপনার ওয়েবসাইটের রাংক করার ক্ষমতাও অধিক থাকা।

Domain authority, যেকোনো ওয়েবসাইটের ১ থেকে ১০০ অব্দি হতে পারে। এবং, যতটাই বেশি ততটাই আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ভালো।

তবে, DA ২০ থেকে ৫০ এর ভেতরে থাকা ওয়েবসাইট গুলি, সহজে বেশিরভাগ low competition keywords গুলিতে রাংক (rank) করার ক্ষমতা রাখে।

আমরা বিভিন্ন মাধ্যমে নিজের ওয়েবসাইটের domain authority score বাড়িয়ে নিতে পারি।

এবং, DA বৃদ্ধি করার এই প্রক্রিয়া, “Off page SEO” র ভেতরে পরে।

নিজের ওয়েবসাইটের Domain authority কিভাবে চেক করবেন ?

DA score check করার জন্য এমনিতে অনেক ফ্রি ওয়েবসাইট আমাদের কাছে রয়েছে।

যেমন, sitechecker authority checker ওয়েবসাইটটিতে গিয়ে আমরা অনেক সহজে যেকোনো ওয়েবসাইটের ডোমেইন অথরিটি স্কোর চেক করতে পারি।

check website domain authority
ডোমেইন অথরিটি স্কোর চেক করুন।

ওপরে ছবিতে যেভাবে আপনারা দেখছেন, ওয়েবসাইটটিতে গিয়ে “authority checker বাক্সে” নিজের ওয়েবসাইটের “URL ADDRESS” দিয়ে দিতে হবে।

তারপর, সার্চ অপশনে ক্লিক করলেই নিচে আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের DA score দেখিয়ে দেয়া হবে।

তাছাড়া, ওয়েবসাইটের অথরিটি চেক করার জন্য আমাদের কাছে, আরো অনেক online DA score checker tools রয়েছে।

যেমন,

  1. ahrefs authority checker tool 
  2. Seoreviewtools.com
  3. Moz link explorer

তাহলে বন্ধুরা, আসা করি আপনারা ওপরে দেয়া টুল গুলি ব্যবহার করে, নিজের ব্লগ ও ওয়েবসাইটের DA score সহজে জেনেনিতে পারবেন।

ওয়েবসাইটের ডোমেইন অথরিটি কিভাবে বাড়াবেন ?

আমি আগেই বলেছি, যতটা বেশি আপনি নিজের ওয়েবসাইটের ডোমেইন অথরিটি বাড়াবেন, ততটাই, search engine এ তার ranking potential ও বাড়বে।

তাই, প্রত্যেক ব্লগার ও ওয়েবসাইট মালিকেরা নিজের ব্লগ ও ওয়েবসাইটের DA score বৃদ্ধি করার জন্য অনেক পরিশ্রম করেন।

এবং, আপনিও বিভিন্ন Off page SEO techniques গুলির কিছু ব্যবহার করে নিজের ওয়েবসাইট ডোমেইন এর অথরিটি বৃদ্ধি করতে পারবেন।

তাহলে চলুন, নিচে আমরা domain authority increase করার কিছু উপায় গুলির ব্যাপারে জেনেনেই।

5 tips to increase DA score fast

১. High quality article লিখুন 

নিজের ব্লগে high quality এবং original আর্টিকেল পাবলিশ করবেন। এমন আর্টিকেল বা কনটেন্ট, যেগুলি লোকেরা অনেক সময় পোড়ে ভালো পাবেন এবং যেই আর্টিকেলে আর্টিকেলের বিষয়ের সাথে জড়িত সব রকমের তথ্য দেয়া হয়েছে।

ভালো এবং high quality content যেকোনো ক্ষেত্রে, আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ারে কাজে আসবে। এবং, DA score increase করতে এ অনেক জরুরি।

২. On page SEO 

On page SEO র বেপারটা নিয়ে অধিক ভালো ভাবে কাজ করতে হবে। এই On page SEO, আপনার ওয়েবসাইটের DA স্কোর কম থেকে বেশি করার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ অংশ প্রদান করে। এই ক্ষেত্রে, আপনার কিছু বিশেষ On page SEO factors যেমন, page titles, keyword placement, keyword density, image optimization এই বিষয় গুলিতে ধ্যান দিতে হবে.

৩. Interlinking articles 

Internal linking technique সঠিক ভাবে ব্যবহার করে DA score increase করা যেতে পারে। তবে, সঠিক ভাবে internal linking ব্যবহার করাটা জরুরি।

Internal linking এর মাধ্যমে আপনারা ওয়েবসাইটের average bounce rate কমিয়ে দিতে পারবেন। (Bounce rate কম হওয়া মানেই, আপনার ওয়েবসাইটের আশা ভিসিটর্স অধিক সময় আপনার আর্টিকেল গুলি পড়ছেন।

এবং, এতে ওয়েবসাইটের authority অবশই বেড়ে যাবে।

Internal linking এমন এক প্রক্রিয়া যেখানে, ব্লগে যেকোনো আর্টিকেল লেখার সময়, সেই আর্টিকেলের বিষয়ের সাথে জড়িত অন্য কিছু আর্টিকেলের লিংক আর্টিকেলে যোগ করা।

উদাহরণ স্বরূপে,

আপনারা লক্ষ করলে পাবেন, এই আর্টিকেলে SEO র সাথে জড়িত আমার আগেই লেখা কিছু আর্টিকেলের লিংক আমি যোগ করেছি।

এতে, যারা আমার আর্টিকেল পড়ছেন, তারা অধিক তথ্য খুঁজে পাবেন এবং Google search bots ও সহজে আমার আর্টিকেল খুঁজে পাবেন এবং crawl করবেন।

ব্লগের DA score বাড়ানোর জন্য, internal linking করাটা কিন্তু সাংঘাতিক জরুরি।

৪. Regular article publish করুন 

আপনি নিজের ব্লগে, মাসে কতটা করে আর্টিকেল পাবলিশ করছেন, সেটা কিন্তু ব্লগের DA র ওপরে অনেক প্রভাব ফেলবে।

আপনি যদি ব্লগের ডোমেইন অথরিটি জলদি বৃদ্ধি করতে চাচ্ছেন, তাহলে মাসে কমেও ১৫ থেকে ২০ টি আর্টিকেল পাবলিশ করবেন।

এতে, দ্রুত গতিতে ব্লগের DA বৃদ্ধি হবে।

তবে, আপনি যদি regular article publish করা ছেড়ে দেন, তাহলে আবার domain authority কমে যাওয়ার সুযোগ অনেক বেশি।

তাই, ব্লগে regular article publish করার বেপারটা সব সময় খেয়াল রাখবেন।

৫. Generate high quality backlink 

নিজের ব্লগের জন্য high quality backlink তৈরি করাটা এমনিতে সোজা কাজ নয়। তবে, যদি তৈরি করতে পারেন, তাহলে DA বাড়ার সাথে সাথে আপনার ওয়েবসাইটের search engine এ rank করার ক্ষমতা দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাবে।

তবে, মনে রাখবেন অধিক ব্লগার বা ওয়েবসাইটের মালিকেরা সহজে backlink তৈরি করার উদ্দেশ্যে, কিছু low quality link building strategy ব্যবহার করেন।

যেমন, fiver, directory submission বা spam commenting techniques.

কিন্তু, এই ধরণের technique ব্যবহার করে কেবল low quality backlink তৈরি করা যেতে পারে এবং যার ফলে আপনার ব্লগের search engine ranking বাড়ার বদলে কমে যায়।

তাই, backlink তৈরি করার এই ধরণের প্রক্রিয়া আপনার ব্লগের জন্য অনেক ক্ষতিকারক।

কিন্তু, “হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক তৈরি” করার ভালো উপায় গুলি কি ?

আমি আপনাকে নিচে দেয়া মাধ্যম গুলি ব্যবহার করে ব্যাকলিংক তৈরি করার পরামর্শ দিবো।

ভালো ব্যাকলিংক কিভাবে তৈরি করবেন ? 

. বিভিন্ন social media websites যেমন, “Facebook”, “Twitter”, “Instagram” এগুলিতে নিজের ব্লগের নাম profile তৈরি করে, তারপর ব্লগের প্রত্যেক আর্টিকেল শেয়ার করতে পারবেন। এতে, ফ্রি social media traffic পাওয়ার সাথে সাথে, ব্লগের DA ও অবশই বৃদ্ধি পাবে।

. Guest posting আরো একটি পপুলার মাধ্যম, high quality backlink তৈরি করার জন্য। এই প্রক্রিয়াতে, আপনার ব্লগের বিষয়ের সাথে জড়িত অন্যান্য ব্লগ ও তাদের মালিকের সাথে যোগাযোগ করে, তারপর তাদের ব্লগে নিজের লিখা আর্টিকেল জমা দিতে হয়।

আপনার জমা দেয়া আর্টিকেল গুলিতে আপনার ব্লগের লিংক অবশই দিবেন। কারণ, এর মাধ্যমে একটি নতুন ব্যাকলিংক তৈরি হবে।

৩. High quality content তৈরি করুন 

High quality এবং লোকেদের কাজে আশা আর্টিকেল লিখলে, সেই আর্টিকেল নিজে নিজে অন্য বিভিন্ন ব্লগ থেকে ব্যাকলিংক পেয়ে যাবে।

High quality content বলতে, আপনার আর্টিকেল সহজে পড়তে পাড়ার মতো হতে হবে, আর্টিকেলের বিষয়ের সাথে জড়িত ছবি ও info-graphics আর্টিকেল গুলিতে থাকতে হবে।

অধিক ভালো ও লোকেদের কাজে আশা আর্টিকেল গুলির, নিজে নিজে অন্য ব্লগ থেকে ভালো ব্যাকলিংক পাওয়ার সুযোগ অনেক বেশি।

 

আমাদের শেষ কথা,

তাহলে বন্ধুরা, আশা করি domain authority কি, কিভাবে ডোমেইন অথরিটি চেক করবেন এবং ওয়েবসাইটের DA কিভাবে বাড়াবেন, এই বেপার গুলি নিয়ে আপনার ভালো করে জানা হয়ে গেছে।

মনে রাখবেন, একটি নতুন domain বা ওয়েবসাইটের DA বৃদ্ধি হতে অনেক সময় লাগবে। আপনি কেবল, ভালো ভালো আর্টিকেল লিখুন, ভালো backlink তৈরি করুন এবং নিজের আর্টিকেল গুলি social media site গুলিতে শেয়ার করুন।

এতে, যতটা জলদি সম্ভব ততটাই জলদি আপনার ওয়েবসাইটের DA বাড়বে।

শেষে, নিজের ব্লগে regular article publish করার বেপারটা নিয়েও ধ্যান রাখবেন।

Related Contents: