নতুন টেলিগ্রাম একাউন্ট কিভাবে খুলবো? টেলিগ্রাম খোলার নিয়ম

একটি টেলিগ্রাম একাউন্ট কিভাবে খুলবেন? টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম এবং ধাপ গুলি কি কি? আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে এই বিষয়ে বিস্তারিত জেনেনিতে পারবেন।

টেলিগ্রাম কিভাবে খুলবো
How to create a Telegram account?

বর্তমান সময়ে, জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপস বা ওয়েবসাইট বলতে সে প্রচুর রয়েছে। আর এই নানান জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপস গুলির মধ্যে টেলিগ্রাম অ্যাপ এর জনপ্রিয়তা বর্তমানে প্রচুর বৃদ্ধি পেয়েছে।

Telegram Messenger, যেটিকে শর্টকাট হিসেবে অনেকেই Telegram বলে থাকেন, এটি মূলত একটি encrypted এবং cloud-based, instant messaging service, যেটি ব্যবহার করে বন্ধুদের সাথে অনলাইন চ্যাটিং, মেসেজিং বা মিডিয়া শেয়ার করার মতো কাজ গুলি করা যাবে।

রিলেটেড:

মোবাইল দিয়ে টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম: জরুরি ধাপ

যদি আপনার কাছে একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল আছে, সেক্ষেত্রে আপনি অনেক সহজেই কেবল কিছু ধাপ গুলি ফলো করে একটি টেলিগ্রাম একাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবেন।

ধাপ ১.

টেলিগ্রাম কিভাবে খুলবো

সবচেয়ে আগে আপনাকে নিজের মোবাইল থেকে Google Play Store-এর মধ্যে গিয়ে Telegram লিখে সার্চ করতে হবে। এবার যখন Telegram app-টি চলে আসবে আপনাকে সরাসরি সেটিকে download এবং install করে নিতে হবে।

ধাপ ২.

Start using telegram app

Telegram App ওপেন করার সাথে সাথে এখন আপনারা টেলিগ্রাম এর লোগো এবং সাথে “Start Messaging” লিখা একটি দেখতে পাবেন। আপনাকে সরাসরি সেই স্টার্ট মেসেজিং লিখাতে ট্যাপ/ক্লিক করতে হবে।

ধাপ ৩. 

টেলিগ্রাম একাউন্ট কি

এবার আপনাকে, টেলিগ্রামকে call log রিড করার পারমিশন দিয়ে দিতে হবে। এতে টেলিগ্রাম নিজে নিজেই আপনার মোবাইল নম্বর ভেরিফাই করতে পারবে। আপনাকে সরাসরি নিচে থাকা “Continue” এর লিংকে click করতে হবে।

Continue-তে click করার পর টেলিগ্রামকে ফোন কল করা এবং ম্যানেজ করার পারমিশন দিতে হয়। এতে, কল এর দ্বারা নম্বর ভেরিফাই হয়ে যাবে। যদি এই অপসনটি দেখানো হয়, সেক্ষেত্রে সরাসরি “Allow” এর মধ্যে click করতে হবে।

ধাপ ৪.

টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম

Country লিখা বক্সের থেকে সরাসরি নিজের দেশটি সিলেক্ট করুন। এবার, নিচে থাকা phone number-এর বক্সে আপনার একটি ভ্যালিড মোবাইল নম্বর দিয়ে দিতে হবে। নম্বর দিয়ে দেওয়ার পর, সরাসরি next button-এ click করুন।

ধাপ ৫. 

মনে রাখবেন, মোবাইল নম্বর দিয়ে next button-এর মধ্যে click করার সাথে সাথে দিয়ে দেওয়া আপনার মোবাইল নম্বরে টেলিগ্রাম এর তরফ থেকে একটি ফোন কল চলে আসবে। আপনাকে সেই ফোন তুলতে হবেনা।

এমনিতে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই সেই কল নিজে নিজে disconnect হয়ে যায়। এভাবে কল করে টেলিগ্রাম আপনার মোবাইল নম্বরটি ভেরিফাই করবে। আপনি চাইলে, SMS-এর দ্বারাও নম্বর ভেরিফাই করতে পারবেন।

ধাপ ৬. 

Enter name in telegram app details

এখন আপনাকে profile info যুক্ত করার জন্য কিছু অপসন দেওয়া হবে। যেমন, profile photo এবং আপনার নাম। প্রোফাইল ছবি এবং নিজের নাম দিয়ে এবার NEXT button-এর মধ্যে click করুন।

ধাপ ৭.

Telegram account created

ব্যাস, এখন Welcome to Telegram লেখার সাথে আপনার একটি নতুন Telegram account তৈরি হয়ে গিয়েছে।

একাউন্ট তৈরি হওয়ার পর, আপনারা Turn on notifications-এর একটি popup message দেখতে পাবেন। আপনাকে সরাসরি “Continue” তে click করে নোটিফিকেশন পাঠানোর পারমিশন দেওয়ার জন্য “Allow” এর মধ্যে click করতে হবে।

এতে, আপনার টেলিগ্রাম একাউন্টে চলে আসা প্রত্যেক মেসেজ এবং রিকোয়েস্ট এর নোটিফিকেশন আপনাকে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

তাহলে বন্ধুরা, আশা করছি নিজের মোবাইল দিয়ে টেলিগ্রাম একাউন্ট খোলার নিয়ম এবং ধাপ গুলি এখন আপনারা ভালো ভাবেই বুঝতে পেরেছেন।

টেলিগ্রাম ব্যবহার কিভাবে করবেন?

ধাপ ১.

একটি টেলিগ্রাম একাউন্ট তৈরি করার পর টেলিগ্রাম এর হোম পেজে একটি ছোট্ট পেন্সিল আইকন দেখতে পাবেন।

Create new message and group in telegram

আপনি যখন, প্রথমবারের জন্য এই Pencil icon-এর মধ্যে click করবেন তখন আপনার মোবাইলে থাকা contact number গুলি access করার permissions আপনার থেকে চাইবে।

আপনাকে সরাসরি continue-এর মধ্যে click করে তারপর allow-এর মধ্যে click করে টেলিগ্রামকে কন্টাক্ট এক্সেস করার পারমিশন দিয়ে দিতে হবে।

এতে, টেলিগ্রাম এর মধ্যে আপনার কন্টাক্ট গুলিকে দেখানো হবে এবং আপনার কন্টাক্ট এর যারা যারা টেলিগ্রাম ব্যবহার করছেন, তাদের প্রোফাইলে ক্লিক করে তাদের সাথে সরাসরি চ্যাটিং করতে পারবেন।

শুধু মেসেজ এই নয়, তবে location, file, contact, music-ও টেলিগ্রাম দ্বারা শেয়ার করা যাবে।

ধাপ ২.

Create new telegram channel chat and group

এবার, যদি আপনারা নিজের টেলিগ্রাম একাউন্টে একটি নতুন গ্রুপ বা চ্যানেল তৈরি করতে চান, সেক্ষেত্রে আপনাকে সরাসরি নিজের টেলিগ্রাম হোম পেজ থেকে “Pencil icon” এর মধ্যে click করতে হবে।

Pencil icon-এর মধ্যে click করার সাথে সাথে আপনারা নতুন Group বা channel তৈরি করার অপসন দেখতে পাবেন।

আপনি যদি গ্রুপ তৈরি করতে চান, সেক্ষেত্রে গ্রুপে click করে পছন্দমতো contacts সিলেক্ট করে তাদের সেই গ্রুপ যুক্ত করতে পারেন।

এছাড়া, যদি আপনি একটি নতুন টেলিগ্রাম চ্যানেল তৈরি করতে চান,

সেক্ষেত্রে New channel-এর অপশনে ক্লিক করে চ্যানেলের একটি নাম এবং ডেসক্রিপশন দিয়ে public নাকি private চ্যানেল সেটি সিলেক্ট করে একটি পাবলিক লিংক তৈরি করে নতুন চ্যানেল তৈরি করে নিতে পারবেন।

চ্যানেল তৈরি করার সময়ও আপনি পছন্দমতো নিজের কন্টাক্ট দের চ্যানেলে যুক্ত করতে পারেন।

টেলিগ্রাম অ্যাপ এর কাজ কি?

টেলিগ্রাম অ্যাপ এর কাজ বলতে সেটা প্রায় প্রত্যেক আলাদা আলাদা instant messaging app গুলির মতো প্রায় একই ধরণের।

Telegram app দিয়ে আমরা আমাদের বন্ধুদের মেসেজ পাঠানো, ভিডিও পাঠানো, যেকোনো ধরণের ফাইল পাঠানো (doc, zip, mp3), ইত্যাদি এই ধরণের কাজ গুলি করতে পারি।

এছাড়া, টেলিগ্রাম এর কিছু বিশেষ কাজ বা সুবিধা গুলিও রয়েছে যেগুলি অন্যান্য বেশিরভাগ instant messaging app গুলিতে দেখা যায়না।

যেমন, সর্বোচ্চ ২,০০,০০০ ইউসার সহ একটি গ্রুপ তৈরি করা এবং অনলাইনে সীমাহীন দর্শকদের কাছে সম্প্রচার করার উদ্দেশ্যে একটি চ্যানেল তৈরি করা। আবার, একজন টেলিগ্রাম ইউসার হিসেবে আপনাকে Telegram Cloud-এর মধ্যে unlimited file upload করার সুবিধা দেওয়া হয়।

সর্বোচ্চ 2GB পর্যন্ত বড় বড় ফাইল গুলি আপলোড এবং শেয়ার করতে পারবেন।

মোবাইল নম্বর ছাড়া টেলিগ্রাম কিভাবে খুলবো?

যদি আপনি, মোবাইল নম্বর ছাড়া একটি নতুন টেলিগ্রাম একাউন্ট খুলতে চাইছেন, সেক্ষেত্রে নিচে বলে দেওয়া ধাপ গুলি ফলো করুন।

১. Google Play Store থেকে Telegram App নিজের মোবাইলে ডাউনলোড করুন।

২. এবার app-টি ওপেন করে start messaging-এর বাটনে click করুন।

৩. জরুরি পারমিশন গুলি দিয়ে দিন এবং allow এর অপশনে click করুন।

৪. এখন যখন আপনাকে নিজের দেশ এবং মোবাইল নম্বর দিতে বলা হবে, সেখানে আপনাকে এমন একটি মোবাইল নম্বর দিতে হবে যেটা আগের থেকেই টেলিগ্রামে রেজিস্টার করা আছে।

৫. এমনটা করলে, পরের পেজে টেলিগ্রাম আপনাকে আপনার email address দিয়ে দিতে বলবে।

6. এখন, টেলিগ্রাম আপনার দিয়ে দেওয়া ইমেইল আইডিতে একটি ভেরিফিকেশন কোড পাঠাবে যেটিকে কপি করে টেলিগ্রামে জমা দিতে হবে।

৭. ব্যাস, এবার বাকি প্রত্যেকটি ধাপ উপরে বলে দেওয়া ধাপ গুলির মতো একই।

আপনি যদি মোবাইল নাম্বার ছাড়া টেলিগ্রাম একাউন্ট বানাতে চাইছেন, সেক্ষেত্রে একাউন্ট তৈরি করার সময় আপনাকে এমন একটি মোবাইল নম্বর ব্যবহার করতে হবে যেটা ব্যবহার আগেই টেলিগ্রাম খোলা হয়েছে।

অবশই পড়ুন: কিভাবে হোয়াটসঅ্যাপ ওয়েব ব্যবহার করবেন?

 

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, কেবল ২ মিনিটে নিজের মোবাইল দিয়ে টেলিগ্রাম কিভাবে খুলবো এবং কিভাবে টেলিগ্রাম ব্যবহার করবো, এই টপিক নিয়ে লিখা আমাদের আজকের আর্টিকেল আপনাদের কেমন লাগলো? নিচে কমেন্ট করে অবশই জানিয়ে দিবেন।

এছাড়া, টেলিগ্রাম খোলার নিয়ম এর সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে সেটাও নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারবেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top