নতুন জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো । নিউ জিমেইল একাউন্ট

Last updated on May 8th, 2024 at 11:49 am

জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো ? নতুন জিমেইল একাউন্ট খোলার নিয়ম কি ? আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা একটি নতুন জিমেইল আইডি কিভাবে খুলে, কি কি ধাপ আপনাকে অনুসরণ করতে হবে, সেই প্রত্যেক বিষয়ে জানবো। 

নতুন জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো ?

আজ অনলাইন হোক বা অফলাইন যেকোনো কাজে আমাদের একটি ইমেইল আইডির প্রয়োজন হয়।

আপনি অনলাইন টাকা আয় করার কথা ভাবছেন, অনলাইন শপিং করার কথা, Facebook একাউন্ট খোলা বা চাকরির জন্য বায়োডাটা দেওয়ার কথা।

সবখানেই, আপনার একটি ইমেইল একাউন্ট দিতেই হবে।

আর সত্যিটাই বলতে গেলে আজ প্রত্যেকের কাছেই নিজের একটি জিমেইল একাউন্ট (Gmail Account) রয়েছে।

তবে, যদি আপনি নিজের একটি ইমেইল আইডি বানাননি, তাহলে নতুন জিমেইল একাউন্ট খুলব কিভাবে এটা আপনার জন্যে জরুরি প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে হয়তো।

চিন্তা করতে হবেনা, আজ এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের, Gmail এ একটি ফ্রি ইমেইল আইডি কিভাবে খুলতে হয় তা সম্পুর্ণটাই বলবো।

একটি নিউ জিমেইল একাউন্ট খোলার নিয়ম অনেক সোজা।

আর তাই, নিচে আমি আপনাদের যেভাবে একাউন্ট বানানোর নিয়ম বলবো, সেভাবে ধাপ গুলো অনুসরণ করে নিজের জিমেইল আইডি বানিয়ে নিতে পারবেন।

তাহলে চলুন, নতুন করে কিভাবে জিমেইল আইডি খুলবো সেটা নিচে জেনেনেই।

অবশ্যই পড়বেন –

তাই চলেন, শুরু করি আমরা আজকের tutorial.

নতুন জিমেইল একাউন্ট খোলার নিয়ম – (New Gmail Account)

এইটা অবশই মনে রাখবেন, Gmail account এবং google account দুটো একটাই জিনিস।

অনেকে যারা গুগল একাউন্ট কিভাবে খুলবো, এই বিষয়ে খোঁজ করছেন,

তারা এইটা মনে রাখবেন যে আপনি একটি জিমেইল আইডি বানানো মানেই গুগল আইডি বানানো।

জিমেইল গুগলের একটি product আর তাই গুগল বা জিমেইল একাউন্ট দুটো একেই জিনিস।

এমনিতে, একটি ফ্রি ইমেইল আইডি বানানোর জন্য জিমেইল ছাড়া Hotmail বা yahoo অনেকেই ব্যবহার করে থাকেন।

Hotmail বা yahoo দ্বারা আপনি একটি ফ্রি email id বানিয়ে নিতে পারবেন।

কিন্তু, যিহেতু Gmail ID গুগলের একটি product তাই আমাদের android মোবাইলেও Gmail আইডি অনেকরকমে প্রয়োজন হয়।

তাই, আমি আপনাদের এই আর্টিকেলে কিভাবে জিমেইল আইডি খুলবো সেই বিষয়ে বলবো।

Gmail এর দ্বারা বানানো ইমেইল আইডি আপনি সব রকমের কাজে সব সময় ব্যবহার করতে পারবেন।

জিমেইলে একটি ইমেইল আইডি বানানোর যা নিয়ম আমি নিচে বলবো তা করার জন্য আপনার একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ, মোবাইল নম্বর এবং ইন্টারনেট কানেক্শনের দরকার হবে।

এমনিতে, আপনি মোবাইল নাম্বার ছাড়াও জিমেইলে একাউন্ট বানাতে পারবেন।

কিন্তু, মোবাইল নাম্বার ছাড়া আইডি বানালে একটি সমস্যা হতে পারে।

যদি, আপনি কোনসময় নিজের জিমেইল password ভুলে যান, তখন নতুন পাসওয়ার্ড পাওয়াতে আপনার জন্য অনেক কষ্ট হতে পারে।

তাই নিউ জিমেইল একাউন্ট বানানোর সময় নিজের মোবাইল নাম্বার দেওয়াটা অনেক জরুরি।

নতুন জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো ? (নিউ জিমেইল একাউন্ট)

সবচেয়ে আগে, আপনি নিজের কম্পিউটার বা ল্যাপটপের web browser এ গিয়ে জিমেইলের ওয়েবসাইটে চলেআসুন।

জিমেইলের ওয়েবসাইটে গিয়ে তারপর নিচে দেওয়া steps গুলো এক এক করে সম্পূর্ণ করুন।

স্টেপ ১:

গুগল জিমেইলের ওয়েবসাইটে যাওয়ার পর আপনি একটি বাক্স দেখবেন, যেখানে আপনাকে আপনার জিমেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে বলা হবে। কিন্তু, যিহেতু আপনার কাছে কোনো আইডি বা পাসওয়ার্ড নেই তাই আপনাকে একটি নতুন ইমেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ড বানাতে হবে।

নতুন আইডি এবং পাসওয়ার্ড বানানোর জন্য সবচে আগে বক্সের নিচে থাকা “Create account” লিংকে ক্লিক কোরতে হবে।

স্টেপ ২:

Create account লিংকে ক্লিক করার পর আপনি একটি পেজ (form) দেখবেন যেখানে আপনার কিছু details দিতে হবে।

যেরকম আপনি ওপরে ছবিতে দেখতে পারছেন, আপনার ফর্মে (form) তিনটি জিনিস ভরতে হবে। সেগুলি হলো,

  • আপনার নাম
  • নতুন ইমেইল আইডি
  • পাসওয়ার্ড।

সবচে প্রথমে, “First name” এবং “last name” এর জায়গায় আপনি নিজের প্রথম এবং শেষ নাম লিখুন।

তারপর, “Username” এর জায়গায় নিজের new Gmail id লিখুন।

আপনি username (নতুন ইমেইলের আইডির নাম) যা ভালো বুঝেন তাই দিতে পারবেন।

মনে রাখবেন, আপনি এখানে যা নাম দিবেন সেটাই আপনার গুগল বা জিমেইল আইডি হবে এবং ভবিষতে জিমেইলে লগইন করার জন্য এবং কাওকে ইমেইল পাঠানোর জন্য আপনাকে এই username বা মেইল আইডি টি ব্যবহার করতে হবে।

যেমন, আমাদের জিমেইল username বা আইডি হলো – “[email protected]“.

এখন শেষে, “password” এবং “confirm password” এর জায়গায় একটি পাসওয়ার্ড লিখুন।

যা পাসওর্ড দিবেন সেটা দুটো জায়গায় একেই হতে হবে।

আর মনে রাখবেন ওপরে বানানো ইমেইল username এবং এখন বানানো পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনি নিজের মেইল একাউন্টে লগইন করতে পারবেন।

তাই পাসওয়ার্ড যা দিবেন সেটা ভালোকোরে মনে রেখেনিবেন।

এখন ফর্মে সব ভরার পর এখন নিচে “next” এর লিংকে ক্লিক করুন।

স্টেপ ৩:

প্রথম ফর্মটা ভালোকরে ভরার পর এখন আপনি আরেকটা ফর্ম দেখবেন।

এই ফর্মে আপনাকে নিজের মোবাইল নম্বর, জন্মের তারিখ এমন লিংগ (male বা female) সেটা জানাতে হবে।

যা আপনি ওপরে ছবিতে দেখতে পারছেন, আপনাকে প্রথমে নিজের মোবাইল নাম্বার “phone number” অপশনে দিতে হবে।

কিন্তু, আমি যা আগে বলেছি আপনি যদি মোবাইল নাম্বার ছাড়া জিমেইল আইডি বানাতে চান তাহলে মোবাইল নম্বর না দিলেও চলবে।

এখন, আপনি “recovery email address” option এ যদি কোনো অন্য ইমেইল আইডি  আপনার কাছে আছে তাহলে তা এখানে দিন।

যদি, আপনার কাছে কোনো অন্য ইমেইল আইডি বানানো নেই তাহলে কিছু লিখতে হবেনা।

এই option এ কিছু নাদিলেও চলবে। Recovery email address এর মাধ্যমে আপনি ভবিষ্যতে ভুলেযাবা একাউন্ট পাসওয়ার্ড আরোগ্য (recover) করতে পারবেন।

এখন নিচে “your birthday” অপশনে গিয়ে নিজের জন্মৰ দিন ও তারিখ দেন।

এখন নিচে, “Gender” (লিংগ) অপশনে গিয়ে নিজের লিংগ বাছুন। আপনি পুরুষ হলে “male” এবং মহিলা হলে “female” অপশনের বাছাই করুন।

সবকাছু লিখার এবং দেওয়ার পর নিচে “next” লিংকে ক্লিক করুন।

স্টেপ ৪:

যদি আপনি আগের ফর্মে নিজের মোবাইল নাম্বার দিয়েছিলেন তাহলে এখন আপনার দেবা মোবাইল নাম্বারটি verify কোরতে হবে।

নম্বর verify করার জন্য আপনি “verify your phone number” নামের একটি পেজ দেখবেন।

এখন, verify phone number পেজে নিচে “send” অপশনে ক্লিক করুন। এতে আপনার দেওয়া মোবাইল নাম্বারে গুগলের থেকে একটি কোড নাম্বার যাবে।

স্টেপ ৫:

এখন নিজের মোবাইলে যাওয়া কোড নম্বরটি আপনি “enter verification code” বক্সে লিখুন এবং নিচে “verify” লিংকে ক্লিক করুন।

স্টেপ ৬:

এখন মোবাইল নাম্বার verify করার পর, পরের স্টেপ হবে google terms & conditions পেজটি accept (গ্রহণ) করতে হবে।

Terms এবং conditions গ্রহণ করার জন্য যেই privacy & terms পেজ আপনি দেখছেন তাতে নিচে “I agree” লিংকে ক্লিক করুন।

I agree তে ক্লিক করলে গুগল privacy এবং terms আপনার দ্বারা গ্রহণ হয়ে যাবে।

স্টেপ ৭:

Google privacy and terms গ্রহণ করার পর আপনি “Get more from your number” বলে একটি পেজ দেখতে পারেন।

এখানে, গুগল অথবা জিমেইল আপনাকে গুগলের অন্য সেবা গুলির জন্য আপনার মোবাইল নম্বর ব্যবহার করার কথা জিগাবে।

যেমন, গুগলের ভিডিও কল সেবা। তো, যিহেতু আপনি নিজের ইমেইল আইডি বানাতে চান তাই, নিচে “skip” লিংকে ক্লিক করুন।

স্টেপ ৮:

অভিনন্দন, এখন আপনার একটি জিমেইল একাউন্ট তৈরি হয়ে গেছে।

এখন আপনি নিজের বানানো ইমেইল আইডি দিয়ে অন্য মেইল আইডিতে ইমেইল পাঠাতে পারবেন,

এবং অন্যকেও আপনার জিমেইল আইডিতে মেইল পাঠাতে পারবে।

আপনি অবশই নিজের বানানো ইমেইল একাউন্টের username (ইমেইল আইডি) এবং পাসওয়ার্ড মনে রাখবেন।

মেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনি যেকোনো মোবাইল বা কম্পিউটার থেকে নিজের জিমেইল একাউন্ট খুলতে, মেইল পড়তে বা মেইল পাঠাতে পারবেন।

মোবাইল দিয়ে জিমেইল আইডি কিভাবে খুলে ?

মোবাইল দিয়ে একটি Gmail account খোলার প্রক্রিয়া প্রায় একি ধরণের।

আপনি যদি একটি android mobile ব্যবহার করছেন, তাহলে সেখানে দেখবেন Gmail-এর একটি app রয়েছে।

আপনাকে সেই Gmail application ব্যবহার করেই মোবাইলে জিমেইল আইডি তৈরি করতে হবে।

চলুন, নিচে আমরা প্রত্যেকটি ধাপ একে একে জেনেনেই।

স্টেপ ১.

open Gmail app in mobile

যা আপনারা ওপরে দেখছেন, আপনাকে সবচে আগেই নিজের android mobile থেকে Gmail app-টি ওপেন করে নিতে হবে।

এপ্লিকেশনটি ওপেন করার পর আপনারা ওপরে হাতের বামদিকে menu icon দেখতে পাবেন।

সরাসরি সেই menu icon-এর মধ্যে click করুন।

স্টেপ ২.

Go to settings option

Menu icon-এর মধ্যে click করার পর আপনারা অনেক options গুলো দেখতে পাবেন।

Options গুলোর মধ্যে “settings” অপশনে click করুন।

স্টেপ ৩.

Click on add account option

Settings-এর মধ্যে click করার পর, একেবারে নিচের দিকে আপনারা “add account” এর অপসন দেখতে পাবেন।

এবার, সরাসরি নিচে থাকা এই “add account” অপশনে ক্লিক করুন।

স্টেপ ৪.

Click on setup email Google option

এখন আপনি কোন email provider থেকে নিজের জন্যে নতুন ইমেইল একাউন্ট বানাতে চাইছেন, সেটা আপনাকে সিলেক্ট করতে হবে।

যিহেতু, আমরা একটি Gmail একাউন্ট তৈরি করতে চাইছি, তাই সরাসরি “Google” এর অপশনে ক্লিক করবো।

স্টেপ ৫.

Create new Gmail account

Google-এর অপশনে click করার পর আমাদের গুগলের একটি login page দেখানো হবে।

অবশই, যিহেতু আমাদের আগের থেকে একটি জিমেইল আইডি নেই, তাই আমরা নিচে থাকা “create account” অপশনে ক্লিক করতে হবে।

Note: মনে রাখবেন, create account-এর অপশনে click করার পর আপনাকে দুটো আলাদা আলাদা account type দেখানো হবে।

  1. For myself 
  2. To manage my business.

আপনি যদি নিজের জন্য একটি পার্সোনাল ইমেইল আইডি বানাতে চাইছেন, তাহলে সরাসরি, “For myself” এর অপশনে ক্লিক করুন।

Select proper Gmail account type

ওপরে ছবিটি দেখলে আপনারা সবটা স্পষ্ট ভাবে বুঝে নিতে পারবেন।

স্টেপ ৬.

Add your name

এখন একটি নতুন পেজ চলে আসবে যেখানে আপনাকে নিজের first name এবং last name সঠিক ভাবে দিয়ে দিতে হবে।

যেমন, আমার প্রথম নাম “Rahul” এবং শেষ নাম “Das”.

সব শেষে নিচে “Next” বাটনে ক্লিক করুন।

স্টেপ ৭. 

Add your date of birth

নিজের নাম দেওয়ার পর এখন আপনাকে নিজের জন্মের তারিখ এবং জেন্ডার দিয়ে দিতে হবে।

দিয়ে দেওয়া অপসন গুলো ব্যবহার করে নিজের জন্মের তারিখ দিয়ে দিন এবং আপনি একজন ছেলে না মেয়ে সেটা সিলেক্ট করুন।

শেষে নিচে “Next” বাটনে ক্লিক করুন।

স্টেপ ৮.

Create a new Gmail id

এখন এই ধাপে আপনাকে নিজের জন্যে একটি ইমেইল আইডি বা জিমেইল এড্রেস তৈরি করতে হবে।

আপনি নিজের পছন্দ মোতে একটি unique Gmail address লিখুন।

যদি সেই এড্রেসটি available থাকে, তাহলে সেটা আপনাকে দিয়ে দেওয়া হবে।

যেমন, আমাদের জিমেইল এড্রেস হলো, [email protected].

মনে রাখবেন, নতুন জিমেইল এড্রেস দেওয়ার সময় স্পেস (space) ব্যবহার করবেননা।

সব শেষে নিচে “Next” বাটনে click করতে হবে।

স্টেপ ৯.

Select a new password

ইমেইল আইডি দিয়ে দেওয়ার পর এখন পরের পেজে আপনাকে একটি পাসওয়ার্ড দিতে বলা হবে।

এবার, আপনি নিজের ইমেইল আইডির জন্যে একটি শক্তিশালী পাসওয়ার্ড দিয়ে নিচে “Next” বাটনে ক্লিক করুন।

স্টেপ ১০. 

Skip mobile number option

Password সেট করার পর আপনারা “Add phone number” নামের একটি পেজ দেখবেন।

তবে, এখনি আপনাকে মোবাইল নম্বর দিতে হবেনা, তাই এখনের জন্যে “Skip” বাটনে ক্লিক করুন।

Note: আপনি যদি এই ধাপেই মোবাইল নম্বর যোগ করতে চাইছেন, তাহলে সোজাসোজি “Yes, I’m in” বাটনে ক্লিক করুন।

“Yes, I’m in”, এর মধ্যে ক্লিক করে নিজের mobile number দিয়ে সেটাকে verify করে নিতে হবে।

স্টেপ ১১.

Review your google account

এমনিতে এখন আপনার Gmail id create হয়ে গিয়েছে এবং আপনি চাইলে নিজের কম্পিউটার বা মোবাইলে নানান কাজে এই ইমেইল আইডি ব্যবহার করতে পারবেন।

তবে, এর আগে আপনাকে নিজের account-টিকে review করে নিতে হবে।

এর জন্যে আপনার New Gmail id-এর নিচে থাকা “Next” বাটনে ক্লিক করুন।

স্টেপ ১২. 

Accept google privacy policy

এখন আপনাকে “Google Privacy and Terms” এর একটি পেজ দেখানো হবে।

পেজটি সম্পূর্ণ নিচে পর্যন্ত স্ক্রল করুন এবং নিচে থাকা “I agree” বাটনে ক্লিক করুন।

স্টেপ ১৩.

New Google account has been created

অভিনন্দন, এখন আপনার জিমেইল আইডি তৈরি হয়ে গিয়েছে।

আপনি নিজের Gmail application-এর icon logo-তে click করে তৈরি করা জিমেইল একাউন্টটি সিলেক্ট করে নিতে পারবেন।

নতুন করে তৈরি করা জিমেইল আইডিটি আপনি নিজের android মোবাইলে ব্যবহার করতে পারবেন।

এছাড়া, একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করার জন্যেও এই জিমেইল আইডি ব্যবহার করা যাবে।

মোবাইল নাম্বার ছাড়া জিমেইল একাউন্ট খোলা যাবে ?

অবশই যাবে, ওপরে মোবাইলে জিমেইল একাউন্ট বানানোর যেই নিয়ম আমি বলেছি, সেটা মোবাইল নাম্বার ছাড়াই বানানো হয়েছে।

তবে, আপনি চাইলে পরে “accounts.google.com” এর ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজের গুগল একাউন্টে মোবাইল নাম্বার যোগ করে নিতে পারবেন।

কিন্তু, আমি পরামর্শ দিবো আপনি একাউন্ট তৈরি করার সময় মোবাইল নাম্বারটি যোগ করুন।

এতে, যদি আপনি ভবিষ্যতে নিজের জিমেইল আইডির পাসওয়ার্ড ভুলে যান তাহলে সেটাকে সহজেই রিসেট করে নিতে পারবেন।

এছাড়া, নিজের Google account-এর নিরাপত্তার ক্ষেত্রে “2 factor authentication” অন রাখাটা জরুরি।

আর এই 2 factor authentication-নিরাপত্তা চালু করার জন্যে আপনার গুগল একাউন্টে একটি ভেরিফাই করা মোবাইল নাম্বার থাকতে হবে।

FAQ

মোবাইল নাম্বার ছাড়া জিমেইল আইডি খোলা জেবে কি ?

অবশই যাবে, আমি ওপরে মোবাইল নাম্বার ছাড়া জিমেইল একাউন্ট তৈরির উপায় বলে দিয়েছি।

আমি কি একাধিক Gmail আইডি তৈরি করতে পারবো ?

হ্যা, একাধিক Gmail account তৈরি করার ক্ষেত্রে কোনো ধরণের বাধা নেই।

জিমেইল আইডি পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি, এবার কি করবো ?

চিন্তা নেই, আপনি একাউন্ট তৈরি করার সময় যেই mobile number-টি দিয়েছেন সেটার দ্বারা নিজের password reset করে নিতে পারবেন। Gmail-এর login page-থেকে “forget password” লিংকে ক্লিক করলেই পাসওয়ার্ড রিসেট প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে।

আমাদের শেষ কথা,

একটি নতুন জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো তা আমি উপরে আপনাদের ভালোকরে বুঝিয়ে বলেছি।

কেবল ২ মিনিটে নিজের মোবাইল নম্বর দিয়ে বা নাদিয়ে আমরা একটি নতুন জিমেইল একাউন্ট বানিয়ে নিতে পারি।

আমি, এরপর আরেকটা আর্টিকলে আপনাদের জিমেইল থেকে মেইল কিভাবে পাঠাতে হয় এবং মেইল কিভাবে লিখবো তা বুঝিয়ে বলবো।

এখন এতটুকু জেনে রাখুন, জিমেইল থেকে কাওকে ইমেইল পাঠাতে হলে “Compose” অপশনে ক্লিক করুন আর তারপর মেইল লিখে জেক পাঠাবেন তার email address লিখে মেইল পাঠাতে পারবেন।

আর, আপনার মেইল আইডিতে যদি কোনো মেইল আসে তাহলে আপনি তা “Inbox” গিয়ে দেখতে পারবেন।

জিমেইল ব্যবহার করা অনেক সোজা।  আপনি কয়দিন ব্যবহার করলেই বুঝাযাবেন।

আশা করি, আজকের এই পোস্ট আপনাদের ভালো লেগেছে।

যদি তাই হয় তাহলে আর্টিকেলটি শেয়ার অবশই করবেন। এবং, নিচে comment করতে ভুলবেননা।

16 thoughts on “নতুন জিমেইল আইডি কিভাবে খুলবো । নিউ জিমেইল একাউন্ট”

  1. Avatar

    ধন্যবাদ ভাই আপনাকে যে কি বলে ধন্যবাদ দেবো বুজতে পারতেছি না।

  2. Avatar

    ভাই আপনার পোষ্টটা ভালো কিন্তু phone number optional আসেনা। ফোন নাম্বার optional আসবে কি করলে সেটার একটা পোষ্ট দিবেন। আমি ল্যাপটপ ব্যবহার করি।
    ধন্যবাদ সুন্দর একটা পোষ্ট দেওয়ার জন্য।

  3. Avatar

    লেখাটি খুব ভালো ছিলো। আসা করি এমন লেখা আরো পাবো। ধন্যবাদ!

  4. Avatar
    বাংলা প্রযুক্তি ব্লগ

    খুবই সুন্দর গোছানো লেখা।পড়ে ভালো লাগলো।

  5. Avatar

    ভাই আজ ভাগ্যিস যে আপনার দেওয়া
    ব্লগার পড়েছি,tnx vai
    খুবি উপকার পেলাম,

  6. Avatar

    ভালই লেগেছে। ধন্যবাদ। বেশি বেশি লিখুন পাঠকদের/ট্রাফিকদের জন্য।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top