মোবাইলে ভিডিও এবং ছবি লুকিয়ে রাখার ফ্রি সফটওয়্যার – সেরা ৭টি

Last updated on May 8th, 2024 at 12:08 pm

ভিডিও ও ছবি লুকানো সফটওয়্যার: অনুমতি ছাড়া যখন আপনার স্মার্টফোনটি ধরা হয় এবং তাতে থাকা ছবি ও ভিডিও গুলো ঘাটাঘাটি করা হয়, তখন কতটা রাগ ওঠে সেটা প্রত্যেক স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরাই জানেন। তাই, অনেক সময় কিছু কিছু ব্যক্তিগত বা সিক্রেট ছবি বা ভিডিও গুলো মোবাইলে লুকিয়ে রাখার প্রয়োজন হয়ে থাকে। আর এক্ষেত্রে, আপনারা এরকম প্রচুর ফ্রি চিবি হাইড করার এন্ড্রয়েড অ্যাপ গুলো ব্যবহার করতে পারেন যেগুলো গুগল প্লে স্টোর থেকে ফ্রীতে ডাউনলোড করার যাবে।

ছবি লুকিয়ে রাখার এই সফটওয়্যার গুলোকে এভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যাতে আপনার মোবাইলে থাকা ছবি এবং ভিডিও গুলোকে সুরক্ষিত করে রাখা যায়। আর যদি আপনিও এরকম একটি অ্যাপ খুঁজছেন যার মাধ্যমে মোবাইলে থাকা ছবি ও ভিডিও গুলোকে হাইড করে রাখা যাবে, তাহলে আপনি একেবারে সঠিক জায়গাতে চলে এসেছেন। নিচে আমরা আপনাদের এমন ১০টি এন্ড্রয়েড অ্যাপস বা সফটওয়্যার গুলোর বিষয়ে বলতে চলেছি। 

মোবাইলে ভিডিও এবং ছবি লুকানোর সেরা সফটওয়্যার

ছবি লুকানো সফটওয়্যার
কিভাবে মোবাইলে ছবি লুকানো যায় ? 

নিচে সেই প্রত্যেকটি এন্ড্রয়েড অ্যাপ গুলোর বিষয়ে বলা হয়েছে যেগুলো ব্যবহার করে মোবাইলে থাকা ভিডিও এবং ছবি গুলোকে হাইড করার মাধ্যমে আপনি নিজের আপনার প্রাইভেসী বজায় রাখতে পারবেন।

এছাড়া, যদি আপনার মোবাইল হারিয়ে যায় বা চুরি হয়ে যায় তাহলেও এই ছবি লুকানো সফটওয়্যার গুলো আপনার কাজে আসবে। কারণ এতে, আপনার মোবাইলের লক খোলা থাকলেও আপনি ছাড়া অন্যকেও মোবাইলের ছবি ও ভিডিও গুলো দেখতে পারবেননা।

১. Keep Photos Secret

Keep Photos Secret App-টি ব্যবহার করে অনেক সহজেই এন্ড্রয়েড ফোনে ছবি এবং ভিডিও গুলোকে সহজেই লুকোনো সম্ভব। এখানে আপনাকে একটি secret vault-এর অপসন দেওয়া আছে। এই secret vault-এর মধ্যে আপনি নিজের ফেলে গুলোকে ট্রান্সফার করতে পারবেন।

PIN বা fingerprint lock-এর দ্বারা আপনি আপনার সিক্রেট ভল্ট লক করে রাখতে পারবেন। এছাড়া, আপনি আলাদা আলাদা ছবির এলবাম বা ফোল্ডার গুলোকে আলাদা আলাদা পাসওয়ার্ড এর সাথে লক করতে পারবেন।

এতে, আপনার অনুমতি ছাড়া মোবাইলের ছবি গুলো দেখা অসম্ভব হয়ে দাঁড়াবে।

২. Private Photo Vault – Keepsafe

এই অ্যাপ গুগল প্লে স্টোর থেকে 50M থেকে অধিক বার ডাউনলোড করা হয়েছে এবং বর্তমান রেটিং রয়েছে ৪.৩। এখানেও PIN বা fingerprint lock-এর সাহায্যে ফোল্ডার বা ফটো এলবাম গুলো লক করে রাখা সম্ভব। এই অ্যাপ-টি একটি অনেক জনপ্রিয় Photo Vault & album locker app on Android.

Keepsafe secures, আপনার মোবাইলে থাকা পার্সোনাল ফটো এবং ভিডিও গুলোকে PIN protection, fingerprint authentication এবং military-grade encryption-এর সাহায্যে নিরাপদ রাখে। সিক্রেট এবং ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও গুলোকে লুকিয়ে রাখার এটা একটি দুর্দান্ত ও নিরাপদ জায়গা।

এছাড়া, এখানে আপনারা cloud backup-এর option অবশই পাবেন, তাই যদি ক্লাউড স্টোরেজে ফাইল সেভ করতে হয় তাহলে সেটা করেও নিজের মোবাইলের স্টোরেজ স্পেস ফ্রি করতে পারবেন।

  • Compatibility: 5.1 and up
  • Install: (Free, in-app purchases)
  • Download Link

৩. 1Gallery – Photo Gallery & Vault

1Gallery, মূলত একটি গ্যালারি অ্যাপ যদিও, এখানে থাকা লুকানো এবং এনক্রিপশন বৈশিষ্ট্য গুলো ব্যবহার করে আপনি আপনার মোবাইলে থাকা ছবি এবং ভিডিও সুরক্ষিত রাখতে পারবেন। File এবং folder গুলো lock করার জন্যে আপনি Pin, Pattern, Fingerprint ব্যবহার করতে পারবেন। অ্যাপটির ইউসার এক্সপেরিয়েন্স অনেক দারুন এবং অনেক সহজেই ব্যবহার করা সম্ভব। অ্যাপটিতে আপনারা ফটো এডিটিং এবং ভিডিও এডিটিং এর টুলস গুলিও পাবেন।

  • Compatibility: 7.0 and up
  • Install: (Free, in-app purchases)
  • Download 

৪. LockMyPix

এন্ড্রয়েড মোবাইলে ফটো এবং ভিডিও লুকিয়ে রাখার আরেকটি অনেক নির্ভরযোগ্য অ্যাপ হলো, “LockMyPix App”। এই অ্যাপ ব্যবহার করে আপনি কড়া নিরাপত্তার সাথে নিজের photos, videos এবং documents গুলোকে প্রাইভেট ছবি এবং ভিডিও ভল্টে লুকিয়ে রাখতে পারবেন। কড়া নিরাপত্তার জন্যে এখানে রয়েছে PIN, face, fingerprint, password / pattern authentication এবং military-grade AES CTR encryption।

অ্যাপটি আপনার মোবাইলে থাকা ছবি, ডকুমেন্ট এবং ভিডিওগুলিকে একটি অনেক নিরাপদ পরিবেশে রেখে সহজেই সুরক্ষিত করে থাকে।

৫. Vaulty : Hide Pictures Videos

Vaulty, এন্ড্রয়েড মোবাইলের একটি অনেক জনপ্রিয় ও বিখ্যাত Photo Vault এবং album locker অ্যাপ। অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোরে প্রায় ১০ মিলিয়ন থেকেও অধিক ডাউনলোড করা হয়েছে এবং এর রেটিং রয়েছে ৪.৪। তাই, এন্ড্রয়েড এর ক্ষেত্রে ভিডিও এবং ফটো হাইড করার সফটওয়্যার হিসেবে অ্যাপটি অনেক জনপ্রিয় বলে বলা যেতেই পারে। এখানে আপনি একটি সিক্রেট ফটো ভল্ট পাবেন যেখানে নিজের ব্যক্তিগত ছবি গুলিকে লুকিয়ে রাখতে পারেন।

সরাসরি vaulty অ্যাপ ওপেন করুন এবং যেই মিডিয়া ফাইলটি ফোন গ্যালারি থেকে সরিয়ে গোপন রাখতে চাইছেন সেটা সিলেক্ট করুন এবং সেটাতে পাসওয়ার্ড দিয়ে বাইরের দুনিয়া থেকে রক্ষা নিরাপদ ও সেফ রাখুন।

৬. Hide Pictures & Videos – FotoX

মোবাইলে ছবি লুকিয়ে রাখার এটা আরেকটি অনেক নির্ভরযোগ্য অ্যাপ। অ্যাপটি ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি আপনার গোপনীয়তার উপর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারবেন। কেননা, এখানে এমন বৈশিষ্ট গুলো রয়েছে যেগুলোর কারণে আপনি ছবি এবং ভিডিও গুলোকে সম্পূর্ণ ভাবে গোপন রাখতে পারবেন। প্লে স্টোর থেকে অ্যাপটি ১০ মিলিয়ন থেকেও অধিক ডাউনলোড করা হয়েছে এবং এর বর্তমান রেটিং হচ্ছে ৪.৩।

App-টি কাজ করার জন্যে Device Administrator’s permission-এর প্রয়োজন হবে। এখানেও আপনার photos, pictures এবং video গুলিকে একটি private gallery vault app-এর সাহায্যে লুকিয়ে রাখা হয়।

৭. Sgallery – hide photos & video

আপনার গোপনীয়তা সুরক্ষা রাখার এটা একটি অনেক দারুন এন্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন বটে যেটা ব্যবহার করে আপনি আপনার মোবাইলে থাকা যেকোনো ফাইল, ছবি বা ভিডিও সহজেই লুকিয়ে ও এনক্রিপ্ট করে রাখতে পারবেন। Sgallery, নিজের আইকন পর্যন্ত লুকিয়ে রাখে যার ফলে আপনার বাইরে কেও সেখানে থাকা ফাইল গুলোর নিভিয়ে জানতেই পারবেনা। এছাড়া, অ্যাপ আইকনটিকে একটি ক্যালকুলেটর হিসাবে ছদ্মবেশে রাখা যেতে পারে যার ফলে কেও সেই আইকনের ওপর বিশেষ ধ্যান দিবেননা। এছাড়া, ফাইল নিরাপত্তা নিয়ে এখানে অনেক দারুন ও কাজের অপসন গুলো আপনারা পাবেন।

শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, যদি আপনিও নিজের মোবাইলে থাকা ছবি এবং ভিডিও গুলোকে লুকিয়ে রাখতে চাইছেন যাতে অন্যকেও আপনার অজান্তে সেই ছবি বা ভিডিও গুলো দেখতে না পারে, তাহলে আপনাকে একটি ভালো ফটো ও ভিডিও হাইড অ্যাপ ব্যবহার করতে হবে। ওপরে বলে দেওয়া অ্যাপ গুলো আপনারা সম্পূর্ণ ফ্রীতে ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন। তবে, অ্যাপ গুলোর একটি প্রিমিয়াম ভার্সন বা পেইড সাবস্ক্রিপশন অবশই রয়েছে। প্রিমিয়াম ভার্সন ব্যবহার করে আপনারা প্রচুর উন্নত ও অ্যাডভান্স ফীচার গুলো ব্যবহার করতে পারবেন।

অবশই পড়ুন: 

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top