মোবাইলের সেরা ৭টি ছবি কালার করার অ্যাপস/সফটওয়্যার – ২০২৪

যদি আপনার কাছে একটি android smartphone রয়েছে তাহলে সেখানে ছবি এডিট করার নানান প্রফেশনাল photo editing apps গুলো install করার মাধ্যমে যেকোনো ছবি এডিট করে নিতে পারবেন। এছাড়া, যদি আপনি মোবাইলে ছবি কালার করার অ্যাপস গুলোর ব্যবহার করতে চান তাহলেও আপনাকে সেরা ফটো এডিটিং অ্যাপস গুলোর ব্যবহার করেই কাজটি সম্পূর্ণ করতে হবে। Google Play Store-এর মধ্যে আপনারা এমন নানান অ্যাপস পাবেন যেগুলোর দ্বারা ছবিতে নানান কালার ইফেক্ট গুলি এপ্লাই করতে পারবেন। 

বর্তমানের সেরা ৯টি ছবি কালার করার অ্যাপস

ছবি কালার করার অ্যাপস

চলুন তাহলে, নিচে সরাসরি জেনেনেই কোন কোন ফ্রি এন্ড্রয়েড ফটো এডিটিং অ্যাপস গুলো রয়েছে যেগুলো ব্যবহার করে যেকোনো ছবিকে কালার করা যেতে পারে। মনে রাখবেন, বলে দেওয়া প্রত্যেকটি অ্যাপ আপনারা Google Play Store-থেকে সম্পূর্ণ ফ্রীতে ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া, অ্যাপস ডাউনলোড লিংক আমি নিচে অবশই দিয়ে দিচ্ছি।

Colorize – Color to Old Photos

প্লে স্টোরে প্রায় ১ মিলিয়ন থেকেও অধিক ডাউনলোড এবং ৪.৪ রেটিং এর সাথে Colorize App-টি প্রচুর জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। অ্যাপটি ব্যবহার করে আপনি অনেক সহজে যেকোনো পুরোনো black-and-white ছবি গুলোকে color photo-তে কনভার্ট করতে পারবেন।

মানে, আপনাকে কেবল একটি পুরোনো ব্ল্যাক-এন্ড-হোয়াইট ছবি আপলোড করতে হবে এবং মাত্র একটি ক্লিক করলেই পুরোনো সেই ব্ল্যাক-এন্ড-হোয়াইট ছবিতে নিজে নিজেই রং চলে আসবে। যদি আপনার কাছেও এমন অনেক পুরোনো ছবি রয়েছে, তাহলে এই Colorize অ্যাপ এর দ্বারা ছবি গুলিকে কালার করে কালারিং ছবিতে রূপান্তর করে নিতে পারবেন। 

Color Pop Effects Photo Editor

যদি আপনি একটি ছবিকে নিজের মতো করে আবার কালার করতে চান তাহলে ছবি কালার করার ও অ্যাপটি আপনি অবশই ব্যবহার করে দেখুন। এটা মূলত একটি recolor photo editor যেটাকে প্লে স্টোরে ১০ মিলিয়ন থেকেও অধিক ডাউনলোড করা হয়েছে।

এখানেও black and white photo editor-এর অপসন পাবেন যেখানে Spiral, Neon এবং Portrait Maker এর মতো ট্রেন্ডিং ফীচার গুলো রয়েছে। এখানে color pop effect, color spalsh, Recolor, art effects ইত্যাদি নানান ধরণের অপসন গুলো আপনারা পাবেন। ছবি গুলোতে অনেক সহজেই neon filter এপ্লাই করা যাবে। 

Snapseed

Snapseed হলো একটি অনেক জনপ্রিয় photo-editing application যেটা মূলত android OS এবং iOS-এর জন্য উপলব্ধ রয়েছে। এর দ্বারা আপনি যেকোনো ছবিতে নানান  digital filters গুলো apply করার মাধ্যমে ছবির লুক উন্নত এবং আকর্ষণীয় করে নিতে পারবেন।

প্লে স্টোরে প্রায় ১০০ মিলিয়ন থেকেও অধিক ডাউনলোড এবং প্রায় ৪.৩ রেটিং এর সাথে থাকা এই ছবি এডিট করার অ্যাপটি Google দ্বারা উন্নত করা হয়েছে। এর দ্বারা যেকোনো ছবির exposure এবং color অটোম্যাটিক বা ম্যানুয়ালি এডজাস্ট করা সম্ভব। White Balance option-এর মাধ্যমে যেকোনো ছবির লুক অধিক ন্যাচারাল ও আকর্ষণীয় করে নিতে পারবেন।

Colorize Images

Colorize Images App-এর ব্যবহার করে আপনি অনেক সহজেই নিজের পুরোনো ছবি গুলোকে রঙিন ছবিতে পরিণত করতে পারবেন। এখানে এমন বিশেষ AI-powered প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে যেটির দ্বারা নিজে নিজেই grayscale images গুলিতে vibrant colors যুক্ত করার মাধ্যমে ছবিটিকে ফ্রেশ এবং মডার্ন লুক দিয়ে দিবে। এই অ্যাপ ব্যবহার করে আপনি যেকোনো ছবিকে একটি রঙিন আর্ট টাচ দিতে পারবেন।

Picsart Color

প্লে স্টোরে প্রায় ৫০ মিলিয়ন থেকেও অধিক ডাউনলোড এবং প্রায় ৩.৬ রেটিং সহ এই এন্ড্রয়েড অ্যাপ ব্যবহার করে আপনারা সুন্দর সুন্দর ড্রয়িং গুলো বানিয়ে নিতে পারবেন। কালার মিক্সার এর মাধ্যমে নিজের ইচ্ছে মতো যেকোনো রং তৈরি করে ব্যবহার করা যাবে। এছাড়া, Multiple Layers, Blending modes, Color Wheel, Textured Brush ইত্যাদি নানান উন্নত tools গুলো আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। অ্যাপটি ব্যবহার করে আপনারা সুন্দর সুন্দর sketch এবং doodle গুলো বানিয়ে নিতে পারবেন।

PaperColor

অ্যাপটি Google Play থেকে ১০ মিলিয়ন থেকেও অধিক ডাউনলোড করা হয়েছে। PaperColor হলো একটি সেরা পেইন্টিং অ্যাপ যেটা ব্যবহার করে draw এবং doodle, graffiti ইত্যাদি তৈরি করা যাবে। এখানে নানান ধরণের paintbrush এবং colour library গুলো আপনি পেয়ে যাবেন। যদি আপনি ছবি আঁকতে ও কালার করতে পছন্দ করেন, তাহলে এই অ্যাপটি একবার হলেও ব্যবহার করে দেখুন।

LightX Photo Editor

প্লে স্টোরে ১০ মিলিয়ন থেকেও অধিক ডাউনলোড এবং প্রায় ৪.৫ রেটিং এর সাথে থাকা এই অ্যাপ ব্যবহার করে আপনি নানান ভাবে নিজের ছবি গুলোকে এডিট করতে পারবেন। LightX একটি free photo editor যেটা ব্যবহার করে মূলত photo collage তৈরি এবং ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড পরিবর্তন করা, ছবি কালার চেঞ্জ করা এবং ছবিতে নানান এফেক্টস যুক্ত করার মতো কাজ গুলো করা হয়।

LightX ব্যবহার করে কেবল কিছু সেকেন্ডের মধ্যেই একটি ছবির কালার চেঞ্জ করা সম্ভব। এর জন্যে কোনো ধরণের ফটো এডিটিং দক্ষতার প্রয়োজন নেই। 

কি কি ফীচার থাকছে:

  1.  এখানে color adjustment-এর অপসন পাবেন। 
  2. একটি পিকচারের একাধিক কালার গুলো পরিবর্তন করা যাবে।
  3. ছবি গুলিকে সরাসরি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করার অপসন পাবেন।
  4. Magic brush, Mirror effect, Templates ইত্যাদি অন্যান্য প্রচুর features গুলো পাবেন।

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, যদি আপনারা যেকোনো ছবির কালার পরিবর্তন করতে চান, তাহলে একটি ভালো image editing Apps-এর ব্যবহার করে এই কাজটি করতে পারবেন। তবে, যদি আপনি ছবি আঁকা এবং ছবি একে সেটিকে কালার করার কথা ভাবছেন, তাহলে আপনাকে একটি android drawing app ব্যবহার করতে হবে। যেমন, Sketchbook, ibis Paint X, Infinite Painter, Picsart Color – Painting, Draw ইত্যাদি। তাই, আপনার চাহিদা হিসেবে একটি সেরা app ব্যবহার করে সহজেই যেকোনো ছবি কালার করে নিতে পারবেন।

অবশই পড়ুন:

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top