ওয়েবসাইট বানানোর খরচ : আজ, অনলাইন টেকনলজি এবং ইন্টারনেটের (internet) ব্যবহার অনেক বেশি বেড়ে যাওয়ার ফলে, একটি ব্লগ ও ওয়েবসাইট তৈরি করে টাকা আয় করার সুযোগ অনেক বেশি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

লক্ষ লক্ষ লোকেরা, একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে, নিজের ঘরে বসেই প্রচুর টাকা আয় করছেন। সে, একটি অনলাইন শপিং (e-commerce) ওয়েবসাইট হতে পারে বা একটি সাধারণ ব্লগ সাইট।

এমনিতে, ইন্টারনেটে বিভিন্ন রকমের অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে। যেমন, online shopping website, একটি সাধারণ ব্লগ (blog), ফোরাম (forum), social media websites, নিজের ব্যবসার বা কোম্পানির ওয়েবসাইট এবং বিভিন্ন আরো অন্য রকমের ওয়েবসাইট আমরা বানাতে পারি।

তাই, একটি ওয়েবসাইট বানাতে কত টাকা খরচ হবে, সেটা পুরো পুরি নির্ভর করবে আপনার চাহিদার ওপরে। আপনি কেমন ওয়েবসাইট বানাতে চাচ্ছেন, সেটার ওপরেই ওয়েবসাইট তৈরির খরচ নির্ভর।

ওয়েবসাইট তৈরি করতে কত টাকা খরচ হবে ?

দেখুন, আমি ওপরেই আপনাদের বলেছি, আপনি কিরকম ওয়েবসাইট বানাতে চাচ্ছেন, সেটার ওপরে নির্ভর করবে আপনার টাকা খরচের পরিমান।

যদি আপনি একটি “অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট” তৈরি করার কথা ভাবছেন, তাহলে সেটা একজন web designer বা developer কে দিয়ে বানাতে হবে। কারণ, এই ধরণের advanced website বানানো সবাইর পক্ষে সম্ভব না।

এই ক্ষেত্রে, আলাদা আলাদা ওয়েব ডিসাইনার রা আপনার থেকে আলাদা আলাদা পরিমানে টাকা দাবি করতে পারে।

কিন্তু, একটি অনলাইন শপিং বা e-commerce সাইট বানানোর খরচ প্রায় Rs.৪০,০০০/- থেকে Rs.৫০,০০০/- এর ভেতরেই। অবশই, অনেক web developer রা আপনাকে আরো কম টাকাতেই বানিয়ে দিতে পারে।

তাছাড়া, যদি একটি সাধারণ ওয়েবসাইট বা ব্লগ তৈরি করতে চাচ্ছেন, তাহলে যেকোনো web developer বা designer কে দিয়ে কেবল Rs.১০,০০০/- থেকে Rs.১৫,০০০/- মধ্যেই বানিয়ে নিতে পারবেন।

কিন্তু, আপনি যদি একটি সাধারণ ওয়েবসাইট বা ব্লগ বানাতে চাচ্ছেন, তাহলে সেটা নিজেই তৈরি করে নিতে পারবেন ওয়ার্ডপ্রেস (WordPress) এর মাধ্যমে। এবং, এই ক্ষেত্রে প্রথম অবস্থায় খরচের পরিমান কম।

তাহলে চলুন, নিজেই একটি সাধারণ ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট বা ব্লগ সাইট বানানোর জন্য কত টাকা লাগবে, সেটা নিচে জেনে নেই।

ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ও ব্লগ (blog) বানাতে কত টাকা খরচ হবে ?

একটি, সাধারণ কোম্পানি ওয়েবসাইট বা ব্লগ নিজেই বানানোর জন্য আপনার কিছু সাধারণ জিনিসের প্রয়োজন। এবং, এই ধরণের ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট বানানোর সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া আপনারা গুগলে সার্চ করে বা ইউটিউবে ভিডিও দেখেই জেনে নিতে পারবেন।

যদি আপনারা কেবল ব্লগ সাইট বানানোর কথা ভাবছেন, তাহলে অবশই নিজেই একটি ব্লগ তৈরি করুন। কারণ, ব্লগ তৈরির খরচ অনেক কম যদি আপনারা নিজেই সেটা ওয়ার্ডপ্রেসের মাধ্যমে বানাচ্ছেন।

১. Domain name 

যেকোনো ওয়েবসাইট বা ব্লগ বানানোর জন্য আপনার একটি premium domain এর প্রয়োজন হবে। একটি “.com” ডোমেইন নেম এমনিতে কেবল Rs.২৫০ থেকে Rs.৫০০ টাকার ভেতরে প্রথম বছরের জন্য পেয়ে যাবেন।

এমনিতে, domain name কেনার জন্য Godaddy website সব থেকে সেরা এবং এখানে অনেক কম দামে ডোমেইন নাম পেয়ে যাবেন।

কিন্তু, প্রথম বছরের পর থেকে যেকোনো ডোমেইন প্রায় Rs.১০০০ টাকা থেকে Rs.১৫০০ টাকার মধ্যে আপনার রিনিউ (renew) করতে হবে। Domain name এর জন্য আপনার প্রত্যেক বছরে কেবল একবার টাকা দিতে হবে।

২. Web Hosting

একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ, ইন্টারনেটে চালু করার জন্য, প্রথমেই আপনার একটি web hosting space কিনে নিতে হবে। হোস্টিং, আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগের ঘরের মতোই।

যেভাবে, যেকোনো দোকান দিতে বা ঘর বানাতে আমাদের একটি জায়গার প্রয়োজন, ঠিক সেভাবেই ইন্টারনেটে একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট চালু করার জন্যও একটি জায়গার প্রয়োজন। এবং, ওয়েব হোস্টিং কিনা মানেই হলো, ইন্টারনেটে একটি জায়গা কিনা।

এখন, এই ওয়েব হোস্টিং এর বিভিন্ন প্রকার রয়েছে এবং আলাদা আলাদা প্রকারের হোস্টিং এর দাম আলাদা আলাদা।

কিন্তু, নতুন বা প্রথম অবস্থায়, আপনার বেশি ভালো হোস্টিং কেনার কোনো প্রয়োজন নেই।

আপনি, সাধারণ shared hosting কিনেই কাজ শুরু করতে পারবেন।

একটি ভালো shared hosting plan এর জন্য আপনার কেবল Rs.২০০ থেকে Rs.৩০০ ভেতরে টাকা দিতে হয়। তাই, বছরে আপনার খরচ হচ্ছে প্রায় Rs.২৫০০ থেকে Rs.৩৫০০ টাকা

তাছাড়া, যখন আপনার ব্লগে ভিসিটর্স বা ট্রাফিক এর পরিমান ডেইলি (daily) ১৫,০০০ থেকেও বেশি হয়ে যাবে, তখন আপনার নিতে হবে cloud hosting.

এবং, cloud hosting এর দাম সাধারণ shared hosting এর তুলনায় একটি বেশি।

একটি, ভালো ক্লাউড হোস্টিং প্ল্যান কিনতে গেলে আপনার মাসে প্রায় Rs. ৫০০ থেকে Rs.১৫০০ টাকার ভেতরে দিতে লাগবে।

যখন, আপনার ব্লগে ট্রাফিক বেশি থাকবে তখন ইনকাম ও বেশি হবে। তাই, নিজের ব্লগিং ইনকাম থেকে এতটুকু টাকা তো খরচ করতেই পারবেন।

৩. Premium theme 

অবশই, আপনারা নিজের ওয়েবসাইট বা ব্লগের ডিসাইন (design) বা গঠনের জন্য একটি থিম (theme) ব্যবহার করতেই হবে। একটি ওয়েবসাইট থিম, আপনার ব্লগ ও ওয়েবসাইটের পুরো গঠন এবং সৌন্দর্যর (style) জন্য দায়ী।

তাই, নিজের ব্লগের ডিসাইন ও সৌন্দর্যের জন্য আপনার একটি premium WordPress theme ব্যবহার করাটা অনেক জরুরি।

এমনিতে, আপনারা ব্লগের জন্য অনেক ফ্রি থিম অবশই পাবেন। সেরা ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি থিম এর মধ্যে, astra, generatepress, oceanWP সব থেকে ভালো এবং অধিক লোকেদের মাঝে প্রচলিত।

কিন্তু, যদি আপনারা একটি প্রফেশনাল ব্লগ তৈরি করার কথা ভাবছেন, তাহলে একটি সেরা প্রিমিয়াম থিম ব্লগে ব্যবহার করুন।

Themeforest ওয়েবসাইট থেকে আপনারা কেবল $20 থেকে $40 এর মধ্যে, ভালো ভালো ওয়েবসাইট থিম কিনে নিতে পারবেন।

তাই, একটি থিম কিনার জন্য আপনার কেবল একবার (onetime) Rs.১৫০০ থেকে Rs.৩০০০ এর মধ্যে টাকা খরচ করতে হবে।

ThemeForest থেকে website theme কিনলে, আপনার কেবল একবার যেকোনো থিমের জন্য টাকা দিতে হবে।

৪. SSL certificate 

SSL certificate আজকাল প্রায় সব ধরণের ওয়েব হোস্টিং এর সাথেই ফ্রীতেই দেয়া হয়। কিন্তু, আপনি যেখান থেকে হোস্টিং কিনছেন, তারা যদি একটি ফ্রি ssl certificate আপনাকে না দেয়, তাহলে অবশই একটি SSL Certificate আপনার কিনে নিতে হবে।

এমনিতে, কেবল Rs.৫০০ টাকার থেকে SSl certificate আপনারা পেয়ে যাবেন। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে, এই সার্ভিসের জন্য বছরে একবার টাকা দিতে হবে।

অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যারা এর থেকেও কমে আপনাকে SSL certificate দিবে। এবং, কিছু জায়গার থেকে আপনারা ফ্রীতেই একটি SSL certificate নিয়ে নিতে পারবেন। যেমন – Lets Encrypt এবং SSL for free.

 

শেষে, নিজেই একটি, ব্লগ ও সাধারণ ওয়েবসাইট বানানোর জন্য এই সব জিনিসের ওপরে আপনার খরচ করতে হবে। এবং প্রথম অবস্থায় বছরে কেবল Rs.২৫০০ থেকে Rs.৩৫০০ টাকা আপনার খরচ করতে লাগবে।

তাছাড়া, যদি আপনারা একটি প্রিমিয়াম ওয়ার্ডপ্রেস থিম (premium WordPress theme) কেনার কথা ভাবছেন, তাহলে আরো প্রায় Rs.৩০০০ টাকা কেবল একবার দিতে হবে।

তাহলে দেখলেন তো, নিজে কষ্ট করে ওয়েবসাইট বানালে কতটা কম খরচেই হয়ে যাচ্ছে। আপনি যদি একজন, web designer দিয়ে ওয়েবসাইট বানানোর কথা ভাবেন, তাহলে ওয়েবসাইট তৈরির খরচ অনেক বেশি বেড়ে যাবে।

তাহলে বুঝলেন তো, “একটি ওয়েবসাইট বানাতে কত টাকা লাগবে” ?

যেকোনো সমস্যার জন্য আমাকে নিচে কমেন্ট এর মাধ্যমে প্রশ্ন করুন। আমি যতটা পারবো আপনার সাহায্য অবশই করবো।