ইন্টারনেট স্পিড টেস্ট কিভাবে করবেন ? জানুন ডাইনলোড ও আপলোড স্পিড

ইন্টারনেট স্পিড টেস্ট: বর্তমান সময়ে প্রত্যেকটি কাজ ইন্টারনেটের মাধ্যমেই করা হয় এবং এখন আর সেই যখন অনেক স্লো ইন্টারনেট স্পিড আমরা পেয়ে থাকতাম। আজকের telecom company গুলোর দ্বারা 3G ছাড়িয়ে এখন সুপার ফাস্ট 4G নেটওয়ার্ক সহ high speed internet সেবা প্রদান করা হচ্ছে।

ইন্টারনেট স্পিড টেস্ট
আমার ইন্টারনেট এর স্পিড কত কিভাবে চেক করবো ?

তবে হয়তো আপনিও কখনো কখনো নিজের ইন্টারনেট স্পিড কতটা ফাস্ট সেটা যাচাই করে দেখতে চান।

তাই, আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমি আপনাদের বলবো যে, নিজের মোবাইল বা কম্পিউটারের মাধ্যমে কিভাবে ইন্টারনেট এর আসল স্পিড চেক করতে পারবেন।

এতে, আপনারা অনেক সহজেই জেনেনিতে পারবেন যে কতটা ফাস্ট আপনার ইন্টারনেট কানেকশন

আজকাল আধুনিক Fiber internet connection এর ফলে আমরা 40mbps, 100mbps 200mbps ইত্যাদি এই ধরণের দারুন এবং সুপার ফাস্ট স্পিড এর সাথে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারি।

এতে, কেবল কিছু মিনিটের মধ্যেই বড় বড় জিবি (GB) ফাইলস গুলোকে নিমিষে ডাউনলোড বা আপলোড করা সম্ভব।

তবে, এরকম অনেক টেলিকম কোম্পানি গুলো রয়েছে, যারা কানেকশন নেওয়ার সময় আপনাকে ভালো ইন্টারনেট স্পিড দেওয়ার কথা অবশই বলে থাকেন,

কিন্তু, আপনাকে বলা হিসেবে দ্রুত ইন্টারনেট স্পিড দেওয়া হয়না।

তাই, যদি আপনিও নিজের ইন্টারনেট কতটা অধিক Mbps Speed দিচ্ছে সেটা জানতে চাইছেন,তাহলে নিচে দেওয়া website / apps আপনার কাজে আসবে।

নিচে আমি আপনাদের এমন কিছু ওয়েবসাইট (websites) এবং এপস (apps) গুলোর বিষয়ে বলবো যেগুলোর দ্বারা অনেক সহজে আপনি আপনার internet connection এর speed দেখে ও জেনেনিতে পারবেন।

ইন্টারনেট স্পিড টেস্ট কিভাবে করবেন ?

মনে রাখবেন, ইন্টারনেটের দ্রুততা টেস্ট করার ক্ষেত্রে আপনাকে Internet এর Mbps Speed এর ওপরে নজর দিতে হবে।

MBPS মানে হলো, “megabits per second“.

Bites হলো ডাটার (data) ছোট ছোট কিছু অংশ বা ভাগ যেগুলো একসাথে জোড়া লেগে একটি বড় আকারের ফাইল সাইজ হিসেবে আমরা দেখে থাকি।

আর মেগাবিট (megabit) তাদের (bites গুলোর) এক মিলিয়ন (million) প্রতিনিধিত্ব করে থাকে।

তাই, এক সেকেন্ডে কতটা মেগাবিট upload / download হবে সেটা Mbps এর মাধ্যমে বুঝানো হয়।

এবং, যত অধিক Mbps (megabits per second) আপনি পাবেন, এর মানে হবে ততটাই দ্রুত ভাবে megabits গুলো download / upload হবে যার ফলে আপনার ইন্টারনেট ততটাই অধিক ফাস্ট কাজ করবে।

তাই, আপনার ইন্টারনেট স্পিড কতটা ভালো সেটা এক মাত্র অধিক Mbps এর পরিমানের মাধ্যমেই বুঝতে ও টেস্ট করতে পারবেন।

Downloading speed এবং uploading speed কি ?

যখন internet কতটা fast কাজ করছে সেটা জানতে চাইবেন তখন আপনাকে internet এর download speed এবং upload speed দুটোই দেখানো হবে।

তাই, ইন্টারনেটের ডাউনলোড এবং আপলোড দুটো আলাদা আলাদা স্পিড দেখে আপনি হয়তো বিভ্রান্ত হয়ে যাবেন এবং আসল ইন্টারনেট স্পিড কোনটি সেটা বুঝতে আপনার অসুবিধা হবে।

দেখুন, ইন্টারনেটের স্পিড বা দ্রুততা বলতে download speed এবং upload speed দুটোকেই বুঝানো হবে।

আপনাকে কেবল এটাই বুঝে নিতে হবে যে এই আপলোড এবং ডাউনলোড স্পিড এর মধ্যে পার্থক্য কি।

Internet download speed কি ?

সোজা ভাবে বললে, ডাউনলোড স্পিড ইন্টারনেটের সেই দ্রুততার পরিমান কে বুঝায় যেই দ্রুততার সাথে একটি ইন্টারনেট কানেকশন ডাটা (data) গুলোকে সংগ্রহ করে থাকে।

ধরুন, আপনি ইন্টারনেট থেকে একটি ভিডিও ডাউনলোড করতে চাইছেন।

ভিডিওটি হলো একটি media file বা এক ধরণের data যেটাকে অনলাইনে একটি server এর মধ্যে রাখা হয়েছে।

এখন যিহেতু আপনি সেই ভিডিও টিকে তার অনলাইন সার্ভার থেকে বা সার্ভার এর সাথে সংযুক্ত ওয়েবসাইট থেকে নিজের মোবাইল বা কম্পিউটারে ডাউনলোড করতে চাইছেন,

এক্ষেত্রে, যতটা অধিক দ্রুততার সাথে আপনার ইন্টারনেট কানেকশন সেই ভিডিও ফাইলটি / ডাটা (data) ডাউনলোড করতে পারবেন সেই দ্রুততার পরিমান টিকে বলা হবে internet download speed.

যদি ভিডিওটির সাইজ প্রায় 500mb এবং আপনার ইন্টারনেট এর ডাউনলোড স্পিড 10Mbps, এর মানে হলো প্রত্যেক সেকেন্ডে 10Mb করে ডাটা ডাউনলোড হবে।

আর তাই, 500mb ভিডিও ডাউনলোড করতে প্রায় ৫০ সেকেন্ড বা ১ মিনিট সময় লাগবে।

তাই, ইন্টারনেট থেকে যেকোনো ফাইল বা ডাটা ডাউনলোড করার ক্ষেত্রে কতটা ইন্টারনেট স্পিড পাবেন সেটা দেখার জন্য আপনাকে “Download speed” এর ওপরে নজর দিতে হবে।

তাহলে বুঝলেন তো, ইন্টারনেট ডাউনলোড স্পিড কি বা কাকে বলে ?

Internet upload speed কি ?

এখন, যখন আমরা ইন্টারনেট এর স্পিড টেস্ট করার কথা বলছি, তখন আমাদের upload speed এর বিষয়েও জেনে রাখা দরকার।

Upload speed মানে হলো সেই দ্রুততার পরিমান যেই পরিমানের সাথে আপনার ইন্টারনেট কানেকশন আপনার device (computer, mobile, tablet etc.) থেকে ডাটা (data) গুলোকে ইন্টারনেটে পাঠাবে বা সেন্ট (sent) করবে।

ধরুন, আপনি একটি ভিডিও নিজের ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করতে চলেছেন,

এক্ষেত্রে, যখন আপনি ভিডিওটি আপলোড করছেন তখন আপনার মোবাইল থেকে video file / data পাঠানো হচ্ছে ইন্টারনেটে সক্রিয় থাকা YouTube এর সার্ভার এর মধ্যে।

এভাবে, যেকোনো ছবি (image), video, graphics, documents ইত্যাদি file গুলো data হিসেবে যখন ইন্টারনেটে আপলোড করা হয়, তখন যেই দ্রুততার সাথে আমরা ফাইল গুলোকে ইন্টারনেটে আপলোড করে থাকি সেই দ্রুততার পরিমান টিকেই বলা হয় “internet upload speed“.

আশা করছি, ইন্টারনেট আপলোড স্পিড কি বা কাকে বলে বুঝতেই পেরেছেন।

ইন্টারনেট স্পিড টেস্ট করার সেরা ওয়েবসাইট এবং অ্যাপস

চলুন, নেট স্পিড চেক করার জন্য আপনারা নিজের মোবাইল বা কম্পিউটার থেকে কোন কোন ওয়েবসাইট গুলোর ব্যবহার করতে পারবেন, সেবিষয়ে আমরা জেনেনেই।

এমনিতে এই ওয়েবসাইট গুলোতে গিয়ে আপনার বেশি কিছু করতে হয়না।

বেশিরভাগ ওয়েবসাইট গুলোতে ভিসিট করার সাথে সাথেই নিজে নিজে তারা আপনার ইন্টারনেটের স্পিড চেক করে আপনাকে তথ্য দেখিয়ে দিবে।

আবার কিছু কিছু ওয়েবসাইট আছে যেগুলোতে গিয়ে আপনাকে “Go” বা “Start” লিংকে click করে টেস্ট শুরু করতে হয়।

১. Fast.com 

এটা একটি দারুন online platform যেখান থেকে সরাসরি নিজের নেট স্পিড চেক করে নিতে পারবেন।

ওয়েবসাইটে ভিসিট করার সাথে সাথে internet speed test করার process নিজে নিজেই শুরু হয়ে যাবে।

এবং, কিছু সেকেন্ড এর মধ্যে আপনাকে আপনার internet connection এর speed দেখিয়ে দিবে।

দ্রুততা দেখিয়ে দেওয়ার পর নিচে থাকা “Show more info” অপশনে ক্লিক করে আরো অধিক details যেমন upload speed ইত্যাদি জেনেনিতে পারবেন।

Fast.com অনেক জনপ্রিয় একটি প্লাটফর যেটাকে অনেকেই ভরসা করেন এবং তাদের ইন্টারনেট কানেকশন কতটা ফাস্ট সেটা দেখে নেন ,

২. Speedtest By Ookla 

Ookla speed test ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে ইন্টারনেটের একেবারে সঠিক স্পিড চেক করতে পারবেন।

বিশ্বজুড়ে অনেকেই এই ওয়েবসাইট ব্যবহার করেন এবং এর ওপরে প্রচুর ভরসা রাখেন।

এই ওয়েবসাইটে ভিসিট করার সাথে সাথে আপনার operator / internet provider এবং আপনার location দেখিয়ে দেওয়া হবে।

এবার, স্পিড টেস্ট শুরু করার জন্য আপনাকে “Go” বাটনের মধ্যে ক্লিক করতে হবে।

Go বাটনে ক্লিক করার সাথে সাথে টেস্ট শুরু হয়ে যাবে এবং কিছু সেকেন্ড পরেই আপনাকে আপনার ইন্টারনেট কানেকশন এর Ping, Download এবং Upload স্পিড Mbps হিসেবে দেখিয়ে দিবে।

Speed test By Ookla, আপনারা অনেক সহজে নিজের মোবাইল বা অন্য যেকোনো ডিভাইস থেকে ব্যবহার করতে পারবেন।

৩. Speakeasy.net 

এটাও একটি অনেক দারুন ওয়েবসাইট যদি আপনি ইন্টারনেট এর দ্রুততা চেক করতে চাইছেন।

এই ওয়েবসাইট এর ইউসার ইন্টারফেস অনেক সহজ সরল এবং কেবল একটি ক্লিক করেই স্পিড টেস্ট শুরু করতে পারবেন।

ওয়েবসাইটে ভিসিট করার সাথে সাথে একটি digital meter দেখতে পাবেন এবং নিচে “start test” লিখা দেখবেন।

সরাসরি, start test এর মধ্যে click করুন এবং speed test শুরু হয়ে যাবে।

এবার কিছু সেকেন্ড পর আপনাকে আপনার ইন্টারনেট কানেকশন কতটা ফাস্ট সেটা দেখিয়ে দিবে।

৪. Speedcheck.org 

Speed test by speedcheck

Speedcheck.org, অবশই দারুন ওয়েবসাইট যেখানে গিয়ে সরাসরি internet speed জেনেনিতে পারবেন।

ওয়েবসাইটে ভিসিট করার পর আপনারা “CLICK HERE TO BEGIN” লেখাটি দেখবেন যার নিচে “start test” এর একটি বাটন থাকবে।

সরাসরি start test button এর মধ্যে click করলেই আপনার টেস্ট শুরু হয়ে যাবে।

এবার একে একে Latency, Download এবং Upload speed check করা হবে এবং শেষে আপনাকে সম্পূর্ণ তথ্য দেখিয়ে দেওয়া হবে।

এই ওয়েবসাইটটি আমার সত্যি অনেক ভালো লাগে, কারণ এখানে তথ্য গুলোকে অনেক সাজিয়ে এবং স্পষ্ট করে দেওয়া হয়।

তবে, আমার ধারণা হিসেবে এই ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে সব সময় সঠিক internet speed দেখানো হয়না।

সে যাই হোক, আপনারা নিজে ব্যবহার করে দেখুন, আপনার অনুভব কি থাকে সেটা নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।

৫. Bandwidthplace.com 

ইন্টারনেট স্পিড যাচাই করুন
ইন্টারনেট স্পিড যাচাই করুন

Bandwidthplace.com, আমার হিসেবে সঠিক তথ্য প্রদান করে থাকে।

এছাড়া, এই ওয়েবসাইট ব্যবহার করে অনেক সহজেই নেট এর আসল স্পিড যাচাই করতে পারবেন এবং জেনেনিতে পারবেন।

ওপরের ওয়েবসাইট গুলোর মতোই এখানেও আপনারা একটি ডিজিটাল মিটার দেখতে পারবেন।

এবং, মিটার এর মধ্যে একটি “start” বাটন আপনারা দেখবেন।

সরাসরি সেই start বাটনে click করলেই net speed test শুরু হয়ে যাবে।

এবার কিছু সেকেন্ড পরেই আপনি আপনার ইন্টারনেট কানেকশন এর Ping, Download এবং Upload speed দেখে নিতে পারবেন।

ইন্টারনেট এর আসল স্পিড যাচাই করার এন্ড্রয়েড অ্যাপস

ওয়েবসাইট (web) এর মতোই ইন্টারনেটের স্পিড যাচাই করার কিছু এন্ড্রয়েড অ্যাপস অবশই রয়েছে যেগুলোকে মোবাইলে ডাউনলোড ও ইনস্টল করে সরাসরি ইন্টারনেট স্পিড জেনেনিতে পারবেন।

নিচে দিয়ে দেওয়া প্রত্যেকটি এপস (apps) আপনারা Google play store থেকে ফ্রীতে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

  1. Speedtest by Ookla
  2. FAST Speed Test
  3. Meteor: Speed Test for 3G, 4G, 5G Internet & Wi-Fi
  4. V-speed
  5. Speedcheck

আমাদের শেষ কথা,,

তাহলে বন্ধুরা, যদি আপনারা নিজের 3G, 4G, 5G বা Wi-Fi কানেকশন এর স্পিড জেনেনিতে চাইছেন, তাহলে অবশই ওপরে বলা ওয়েবসাইট বা এপস গুলো ব্যবহার করতে পারবেন।

আশা করছি আমাদের আজকের আর্টিকেল (How to check internet speed in mobile & computer) আপনাদের ভালো লেগেছে।

আর্টিকেলটি যদি সত্যি আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে অবশই সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করবেন ,

এছাড়া, আর্টিকেলের সাথে জড়িত কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে, নিচে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error:
Scroll to Top
Copy link
Powered by Social Snap